৭ শাওয়াল ১৪৪১ , ঢাকা, শনিবার, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৬ জুন , ২০২০ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   উপসম্পাদকীয়
প্রশ্নফাঁস আর কোচিংবাণিজ্যে শিক্ষার অনিশ্চিত ভবিষ্যৎ
  তারিখ: 13 - 02 - 2018

শিক্ষায় সরকারের নতুন নতুন উদ্যোগ সত্ত্বেও প্রত্যাশিত অর্জন ব্যাহত করছে কিছু ক্ষতির অনুষঙ্গযুক্ত হওয়ায়। এসব ক্ষতির অনুষঙ্গ থেকে পরিত্রাণে সরকারি উদ্যোগকে মারাত্মকভাবে ব্যবহার করছে। এর একটি হচ্ছে কোচিং বাণিজ্য। সঙ্গে সাম্প্রতিক সময়ে যুক্ত হয়েছে পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস। বিশেষ করে প্রাথমিক (পিইসি), অষ্টম শ্রেণি (জেএসসি), এসএসসি, এইচএসসিসহ প্রায় সব পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়া নিত্যনৈমিক্তিক ঘটনায় পরিণত হয়েছে। এখন দেশব্যাপী এসএসি পরীক্ষা চলছে। এই পরীক্ষায়ও চলছে প্রশ্ন ফাঁসের মহড়া। অবশ্য শিক্ষামন্ত্রী প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে ৫ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছেন। পরীক্ষা শুরম্নর আগেই ঘোষণা দিয়ে কোচিং সেন্টার বন্ধ করা হলেও বাস্ত্মবে এই সিদ্ধান্ত্ম কার্যকর হয়নি। এ দুটির কোনোটিই কার্যকর হয়নি।
কোচিং ও প্রশ্নফাঁসের এই সর্বনাশা খেলায় পুরো শিক্ষা ব্যবস্থাকে প্রশ্নবিদ্ধ এবং বিতর্কিত করে তুলেছে। এ কারণে প্রকৃত মেধা, সৃজনশীলতার বিকাশকেও বাধাগ্রস্ত্ম করছে। কোচিং বাণিজ্য, গাইড বই বাণিজ্য, প্রশ্ন ফাঁস প্রভৃতির ভয়াল থাবা সুদূর শহর থেকে প্রত্যন্ত অঞ্চল অবধি বিস্ত্মৃত। এতে শহর আর গ্রাম সর্বত্রই শিক্ষায় বিপর্যয়, মেধা মননের বিপর্যয়কে প্রতিহত করে প্রকৃত মেধার বিকাশের ক্ষেত্রে অনৈতিকভাবে সর্বনাশা এসব প্রবণতা অব্যাহত থাকায় ভবিষ্যৎ প্রজন্ম একটি দুষ্ট ক্ষত নিয়েই বেড়ে উঠছে। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সংশিস্নষ্ট শিক্ষার্থী, অভিভাবক তথা ধ্বংসের পথে পুরো জাতি। এটা অস্বীকার কারর উপায় নেই যে, শিক্ষা ব্যবস্থার জন্য দুষ্ট ক্ষত `কোচিং`বাণিজ্য। বিষয়টি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে আলোচনা-সমালোচনা চলছে, চলছে পরীক্ষা-নিরীক্ষা প্রভৃতি। সর্বনাশা কোচিং বাণিজ্য এবং প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে কার্যকর উদ্যোগ অপরিহার্য্য হলেও বাস্ত্মবে এর প্রতিফলন নেই।
এটি সত্য যে, শিক্ষকদের বড়সড় অংশ এই শিক্ষা-বাণিজ্যে, কোচিং বাণিজ্যে আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে গেছে। এ ক্ষেত্রে অধিকাংশ শিক্ষক নীতি, নৈতিকতা, বিধি-বিধান পরিপন্থি পথে শুধু নিজের অর্থ, বিত্ত, বৈভব গড়ার স্বার্থের কাছে দেশের সম্ভাবনাময় তরম্নণ, যুবগোষ্ঠীকে ঠেলে দিচ্ছে কোচিংয়ের মতো বাণিজ্যের দিকে। এসব শিক্ষক তাদের ওপর অর্পিত গুরম্নদায়িত্ব বাদ দিয়ে, স্কুলে পাঠদানের পরিবর্তে কোচিং, গাইড বাণিজ্য, গাইড রচনায় লিপ্ত। এ কারণে মনযোগ দিচ্ছে না ক্লাসে শিক্ষাদানে। একইভাবে পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের কারণে নতুন প্রজন্মকে প্রকৃত মেধা, মনন যাচাইর সুযোগ থেকে বঞ্চিত করছে। এ নিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অভিভাবক মহলে মহামারির, বিক্ষোভ, প্রতিবাদ মিছিলে গড়ায়। এত কিছুর পরও রাজধানী থেকে শুরম্ন করে সুদূর প্রত্যন্ত অঞ্চলের কোনো কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রতিটি বিষয়ে কোচিং বাধ্যতামূলক হয়ে দাঁড়ায়। কোচিং কারও জন্য পাস করার সিঁড়ি, কারো জন্য পরীক্ষায় ভালো ফল করার অপরিহার্য উপায়। ফলে অভিভাবকদের নাভিশ্বাস অবস্থা, বিশেষ করে যাদের সন্ত্মান সংখ্যা বেশি আবার সামর্থ্য সীমিত। তবু সন্ত্মানদের পরীক্ষা বৈতরণী ভালোভাবে পার করানোর জন্য এ অর্থনৈতিক সামর্থ্য না থাকলেও বাধ্য হয়েই শিক্ষক রূপী কোচিংবাজ শিক্ষকদের অর্থনৈতিক চাপ মেনে নেন অভিভাবকরা, অনেকটা বাধ্য হয়ে শিক্ষার্থী সন্ত্মানদের মুখের দিকে চেয়ে।
এটা সত্যি যে, কোচিং বাণিজ্যের কাছে, কোচিং সেন্টারের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, স্কুল-কলেজে কোনোরকম হাজিরা দিয়েই শিক্ষার্থীদের ছুটতে হয় কোচিং সেন্টারে। অবস্থা যা দাঁড়িয়েছে তাতে বলা যায়, বর্তমানে স্কুল-কলেজের বদলে কোচিং সেন্টারগুলোই হয়ে উঠেছে মূল `শিক্ষা প্রতিষ্ঠান`। শিক্ষকদের একটি বড় অংশ জড়িয়ে পড়েছে এ ব্যবসায়। এতে লাভ বেশি, তাই তারা ক্লাসে শিক্ষা প্রদানে মনোযোগী নন। এ অবস্থা চলতে থাকলে অচিরেই ভেঙে পড়বে দেশের শিক্ষাব্যবস্থা। কারণ এর ফলে শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ বাড়ছে। অপরদিকে মান কমছে শিক্ষার। কোচিং নির্ভরতার কারণে শিক্ষার্থীদের সৃজনী ক্ষমতা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। তবে স্বীকার করতে হয়, একালে পাঠ্য বিষয় বেড়েছে, সৃজনশীলতার নামে শিক্ষার্থীর ওপর চাপ বেড়েছে আগেকার তুলনায় অনেক বেশি। কিন্তু সে চাপমুক্তির জন্য তো শিক্ষকরা রয়েছেন, বরং আগের তুলনায় এখন শিক্ষক, শিক্ষকদের সুযোগ-সুবিধা প্রভৃতি বেড়েছে।
আবার অনেক সময় শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের অভিযোগ রয়েছে, বিশেষ মেধাবী ছাত্রছাত্রীরা যদি কোচিং না করে তাদের ক্লাস পরীক্ষায় ভালো নাম্বার দেয়া হয় না। এমনি অবস্থায় সন্ত্মানের ভবিষ্যৎ বিবেচনায় মধ্যবিত্ত, নিম্নমধ্যবিত্ত অভিভাবকদের অন্য খাতে খরচ কমিয়ে কোচিংয়ের টাকা জোগান দিতে হয়। এটি অভিভাবকদের জন্যও গলায় ফাঁস। অবিলম্বে কোচিং বাণিজ্য বন্ধ হোক। বন্ধ হোক সর্বনাশা প্রশ্ন ফাঁস। নুতবা এর দায় পড়বে আগামি প্রজন্মের ওপর, আমাদের সবার ওপর। সমাজ, দেশ ক্ষতিগ্রস্ত্ম হবে। নিশ্চয় সেটা কারো কাম্য হওয়ার কথা নয়।
হআবার অনেক সময় বছর বছর সিলেবাস পরিবর্তনের প্রতি বছর নতুন সিলেবাস, নতুন কারিক্যুলাম, সৃজনশীলের নামে শিক্ষার্থীদের ওপর নতুন করে বোঝা চাপিয়ে দিয়ে অনেকটা বাধ্য করা হয় গাইড, নোট প্রভৃতির দ্বারস্থ হতে। এ জন্যও অভিভাবকদের গুনতে হয় বিপুল অর্থ। সৃজনশীলের নামে প্রতি বছর নতুর নতুন বিষয় অন্ত্মর্ভুক্ত করায় অনেক গরিব, অসহায় মানুষ বাধ্য হয়ে তাদের সন্ত্মানদের গাইড বই কেনা, কোচিং বাণিজ্যের মুখোমুখি হতে হয়। অনেক অভিভাবকের অভিযোগ, শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কোচিং-বিষয়ক সরকারি নীতিমালা প্রকারান্ত্মরে কোচিং বাণিজ্যকে সমর্থনই নয় বরং নির্ভরশীল হতে সাহায্য করছে। এ কারণে শুধু যে অভিভাবকের ওপর অর্থনৈতিক চাপ বাড়ছে তা-ই নয়, শিক্ষার্থীর জ্ঞানও সীমাবদ্ধ হচ্ছে। আবার কোচিংয়ের আড়ালে নানা অনৈতিক কর্মকান্ড চলছে। কোচিংয়ে সংশিস্নষ্টদের বিরম্নদ্ধে রয়েছে ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অসংখ্য অভিযোগ। কোচিং সেন্টার পরিচালনাকারীদের বিরম্নদ্ধে প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত থাকার অভিযোগ আছে। অনেক কোচিং সেন্টারের বিরম্নদ্ধে জঙ্গিবাদসহ স্বাধীনতাবিরোধী রাজনৈতিক মতাদর্শ প্রচারেরও অভিযোগ আছে।
২০১২ সালের ২০ জুন কোচিং বাণিজ্য বন্ধের নীতিমালার প্রজ্ঞাপন জারি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এতে বলা হয়, সরকারি-বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা নিজ প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীদের কোচিং করাতে বা প্রাইভেট পড়াতে পারবেন না। উলেস্নখ্য, পিইসি, জেএসসি, এসএসসি, এইচএসসি পর্যায়ে সর্বনাশা কোচিং বাণিজ্য, প্রশ্ন ফাঁসের বেড়াজালে আক্রান্ত্ম। কিন্তু এ পথ বাস্ত্মবিক অর্থে সাময়িক ভালো ফল হলেও কর্মজীবনে, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পর্যায়ে কাজে আসে না।
প্রশ্নফাঁস, কোচিংবাণিজ্য বন্ধে প্রয়োজন সামাজিক আন্দোলন, প্রয়োজন সরকারের কঠোর হস্ত্মক্ষেপ। নতুবা এ ব্যবস্থায় আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম গড়ে উঠবে খোঁড়া প্রজন্ম হিসেবে আর আমরা উপহার পাব প্রতিবন্ধী শিক্ষাব্যবস্থা।

ফারিহা হোসেন: কলাম লেখক ও ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক





         
   আপনার মতামত দিন
     উপসম্পাদকীয়
জনস্বাস্থ্য, অর্থনীতি ও পরিবেশের ক্ষতির কারণে তামাক টেকসই উন্নয়নের অন্তরায়
.............................................................................................
কৃষির পাশাপাশি শিল্প উন্নয়ন এবং কৃষক ফেডারেশনকথা
.............................................................................................
কৃষির পাশাপাশি শিল্প উন্নয়ন এবং কৃষক ফেডারেশনকথা
.............................................................................................
ঈদ এবং মাদক... ওরা বানায় : আমরা সেবন করি
.............................................................................................
নুসরাত কেন চলে যাবে...
.............................................................................................
এই দেশের সড়কে কে নিরাপদ?
.............................................................................................
রাজনীতির হঠাৎ হাওয়ার চমক
.............................................................................................
রাজনীতিতে ব্যবসায়ীদের অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে
.............................................................................................
ওজোনস্তরের নতুন দুঃসংবাদ
.............................................................................................
বিজ্ঞান গবেষণা ও বাংলাদেশ
.............................................................................................
বিশ্ব আদালতে রোহিঙ্গা গণহত্যার বিচার চাই
.............................................................................................
চীনা ‘ইউয়ান’, ভারতীয় ‘রুপী’, তুর্কী ‘লিরা’ সবার দাম কমছে
.............................................................................................
এখনো নিয়মিত মৃত্যু সড়কে কে দায় নেবে
.............................................................................................
মাঠের লড়াইয়ে লক্ষ্য হোক জয়
.............................................................................................
একটি শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের আশায়
.............................................................................................
আর কত রক্ত ঝড়বে জাতির বিবেকের?
.............................................................................................
হুমকিতে নয়, আলোচনায়ই সমাধান
.............................................................................................
বাঙালির সবচেয়ে বড় উৎসব বাংলা নববর্ষ
.............................................................................................
প্রশ্ন ফাঁস, পরীক্ষা বাতিল এবং অবিচার...
.............................................................................................
ভাষাশ্রদ্ধায় আসুন উচ্চারণ করি ‘বিজয় বাংলাদেশ’
.............................................................................................
চার বছরের উন্নয়ন অগ্রগতি ধারাবাহিকতা রক্ষা করাই বড় চ্যালেঞ্জ
.............................................................................................
শিক্ষা ধ্বংসে বইয়ের বোঝা-সৃজনশীল এবং ফাঁসতন্ত্র
.............................................................................................
প্রশ্নফাঁস আর কোচিংবাণিজ্যে শিক্ষার অনিশ্চিত ভবিষ্যৎ
.............................................................................................
প্রশ্ন ফাঁসের দায় কে নেবে?
.............................................................................................
মায়ের ভাষার অবহেলা কেন করছি আমরা?
.............................................................................................
সবাই জেগে উঠুক ভেজালের বিরুদ্ধে
.............................................................................................
নির্বাচন কমিশনের কর্মক্ষমতা ও ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ
.............................................................................................
প্রশ্ন ফাঁস ও শিক্ষার দৈন্যদশা রোধ সম্ভব
.............................................................................................
মশা আর মাছি ধুলার সঙ্গে বেশ আছি!
.............................................................................................
বাংলাদেশ ব্যাংকের তদারকি ও নিয়ন্ত্রণক্ষমতা বাড়াতে হবে
.............................................................................................
প্যারাডাইস পেপার্স : সারাবিশ্বে সমস্যা ও সমাধান
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধুর অগ্নিগর্ভ ভাষণ : ইউনেস্কোর স্বীকৃতি
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের ত্রাণ ও পূনর্বাসনে দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনী
.............................................................................................
নিরাপদ পথ দিবস চাই
.............................................................................................
রোহিঙ্গা গণযুদ্ধের সূচনা হোক, স্বাধীন হোক আরকান
.............................................................................................
দর্শনহীন শিক্ষার ফল ব্লু হোয়েল সংস্কৃতি
.............................................................................................
সাবধানে চালাবো গাড়ী, নিরাপদে ফিরবো বাড়ী
.............................................................................................
বন্ধুদেশের ঋণের বোঝা এবং নতুন প্রজন্মের ভাবনা
.............................................................................................
চালে চালবাজী : সংশ্লিষ্টদের চৈতন্যোদয় হোক
.............................................................................................
৫ প্রস্তাবে বাংলাদেশে সংকট : দুর্ভিক্ষ আসন্ন
.............................................................................................
ভুখা মানুষের স্বার্থে সরকারকে কঠোর হতে হবে
.............................................................................................
রোহিঙ্গা তরুণের চিঠি এবং আমাদের করণীয়
.............................................................................................
ষোড়শ সংশোধনী বাতিল প্রসঙ্গে অনেকের অভিমত
.............................................................................................
তরুন প্রজন্মের সৈনিকেরা জেগে উঠলে কোন অপশক্তিই বাংলাদেশের গণতন্ত্র ও উন্নয়নের পথ রুদ্ধ করতে পারবে না
.............................................................................................
আদর্শ সংবাদ ও সাংবাদিকতা
.............................................................................................
নারী অধিকার প্রতিষ্ঠায় সাহসী হতে হবে
.............................................................................................
পাবনা বইমেলা সাহিত্যকে সম্মৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে
.............................................................................................
আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো...
.............................................................................................
ক্ষণজন্মা কিংবদন্তী মাদার বখশ
.............................................................................................
গ্রামীণ মানুষের সম্পদ বাড়ছে না, ঋণ বাড়ছে
.............................................................................................
Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale
Digital Load Cell
Digital Indicator
Digital Score Board
Junction Box | Chequer Plate | Girder
Digital Scale | Digital Floor Scale

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা ডট কম
মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত ।

প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ মো: হারুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
বার্তা সম্পাদক: মো: শরিফুল ইসলাম রানা
সহ: সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বিশেষ প্রতিনিধি : মো: আকরাম খাঁন
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed BY : Dynamic Solution IT   Dynamic Scale BD