| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   বিবিধ
পাসপোর্ট আইন হালনাগাদ ও যুগোপযোগী করার উদ্যোগ
  তারিখ: 09 - 05 - 2018

সরকার পাসপোর্ট আইন হালনাগাদ ও যুগোপযোগী করার উদ্যোগ নিয়েছে। ইতোমধ্যে সরকার বিভিন্ন ধরনের বিধিনিষেধ রেখে নতুন পাসপোর্ট ও ট্রাভেল ডকুমেন্ট আইন-২০১৮ প্রণয়ন করছে। নতুন আইনটি কার্যকর হলে একইসঙ্গে এক ব্যক্তি একাধিক পাসপোর্ট ব্যবহার করতে পারবেন না। তাছাড়া ১৯৭২ সালের দালাল আইনে কিংবা ১৯৭২ সালের ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইম ট্রাইব্যুনাল আইনের আওতায় দন্ডপ্রাপ্ত কোন ব্যক্তিকে পাসপোর্ট দেয়া হবে না। মানিলন্ডারিং, মানব পাচার, মুদ্রা পাচার, মাদকদ্রব্য বা অস্ত্র পাচার কিংবা অন্য কোন আইনগত নিষিদ্ধ ব্যবসায় জড়িত থাকার যুক্তিসঙ্গত প্রমাণ থাকলেও পাসপোর্ট ইস্যু করা হবে না। আর জনস্বার্থে সমীচীন মনে হলে বিদেশী নাগরিক বা রাষ্ট্রহীন ব্যক্তিকেও এ আইনের অধীনে পাসপোর্ট কিংবা ট্রাভেল ডকুমেন্ট প্রদান করা যাবে। আইনটির ওপর জনপ্রশাসন, আইনসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের মতামত নেয়া হয়েছে। অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে একটি কমিটি আইনটির খুঁটিনাটি দেখভাল করছেন। শিগগির অনুমোদনের জন্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে তা উপস্থাপন করা হবে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।


সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, এতোদিন ধরে ১৯৭৩ সালের রাষ্ট্রপতির ৯নং আদেশে জারি করা বিধিবিধানের আলোকে পাসপোর্টের কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে। এখন থেকে পূর্ণাঙ্গ একটি নতুন আইনের অধীনে পাসপোর্ট সংক্রান্ত সব কার্যক্রম পরিচালিত হবে। নতুন আইন অনুসারে বৈধ পাসপোর্ট কিংবা ট্রাভেল ডকুমেন্ট ছাড়া কেউ বহির্গমন করতে বা করার চেষ্টা করলে অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হবে। নতুন আইনের খসড়ায় বলা হয়েছে, বাংলাদেশের নাগরিক নন এমন ব্যক্তি পাসপোর্ট পাবেন না। পাসপোর্টের জন্য আবেদনকারীর বিরুদ্ধে রাষ্ট্র ও শৃঙ্খলাবিরোধী কর্মকা-ে জড়িত থাকার যুক্তিযুক্ত প্রমাণ থাকলে পাসপোর্ট পাবেন না। কারো বিরুদ্ধে করা ফৌজদারি মামলায় উপস্থিতি এড়াতে বা অপরাধের বিচার ও দ- এড়াতে বাংলাদেশ ত্যাগ করার উদ্যোগী হলে তার অনুকূলে পাসপোর্ট ইস্যু করা হবে না। আদালত দেশ ত্যাগ না করার অথবা আবেদনকারী শিশুকে দেশের বাইরে নেয়ার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা প্রদান করলে পাসপোর্ট ইস্যু করা হবে না। সরকার কোন ব্যক্তির বিরুদ্ধে দেশ ত্যাগের নিষেধাজ্ঞা প্রদান করলে তাকে পাসপোর্ট দেয়া হবে না। তাছাড়া আবেদনকারী যদি বিদেশে গিয়ে বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব, নিরাপত্তা, অখ-তার বিরুদ্ধে কোন কর্মকা-ে জড়িত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে এবং সরকার যদি গোয়েন্দা রিপোর্টের বিষয়টি নিশ্চিত হয়, তাহলে তাকে পাসপোর্ট দেয়া হবে না। যদি কোন বিদেশী রাষ্ট্রে আবেদনকারীর অবস্থানের কারণে সে দেশের বা অন্য কোন দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা থাকে, তাহলে ওই ব্যক্তি পাসপোর্ট পাবেন না। তাছাড়া আবেদনকারী যদি কোন সন্ত্রাসী গোষ্ঠী বা সংগঠনের কিংবা আন্তর্জাতিক অপরাধ চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যায়, তাহলে তাকে পাসপোর্ট দেয়া হবে না।


সূত্র জানায়, পাসপোর্টেও নতুন খসড়া আইনে বলা হয়েছে, সাধারণত তিন ধরনের পাসপোর্ট ইস্যু করা হবে। সাধারণ পাসপোর্ট, অফিসিয়াল পাসপোর্ট এবং কূটনৈতিক পাসপোর্ট। পাসপোর্ট সর্বাবস্থায় বাংলাদেশ সরকারের সম্পত্তি হিসেবে বিবেচিত হবে। পাসপোর্ট আটকের বা প্রত্যাহারের বিধানাবলিতে বলা হয়েছে, পাসপোর্ট কর্তৃপক্ষ পাসপোর্টধারী বা ট্রাভেল ডকুমেন্টধারী ব্যক্তিকে কারণ অবহিত করে অথবা শুনানি করে পাসপোর্ট প্রত্যাহার কিংবা আটক করতে পারবে। বেআইনীভাবে পাসপোর্ট কিংবা ট্রাভেল ডকুমেন্ট ব্যবহার করলে তা আটক বা প্রত্যাহার করা যাবে। পাসপোর্টে মৌলিক কোন তথ্য গোপন কিংবা মিথ্যা বা ভুল তথ্য প্রদান করা হলে তা প্রত্যাহার করা যাবে। এ ধরনের অপরাধের সঙ্গে সম্পৃক্ত ব্যক্তির কাছে উল্লিখিত পাসপোর্ট ছাড়া অন্য কোন পাসপোর্ট থাকলেও তা একইভাবে প্রত্যাহার কিংবা আটক করা যাবে। দেশের নিরাপত্তা, সার্বভৌমত্ব এবং অখ-তার স্বার্থে যে কারও পাসপোর্ট আটক কিংবা প্রত্যাহার করা যাবে। কোন ব্যক্তি পাসপোর্ট নেয়ার পর গুরুতর অপরাধ বা নৈতিক স্খলনজনিত অপরাধে আদালতে ৫ বছরের জন্য দ-িত হলে তার পাসপোর্ট আটক বা প্রত্যাহার করা যাবে। উপযুক্ত কোন আদালত যদি কারও পাসপোর্ট আটক কিংবা প্রত্যাহারের সুপারিশ করে, তাহলে তার পাসপোর্ট আটক কিংবা প্রত্যাহার করা যাবে। পাসপোর্টের কোন শর্ত ভঙ্গ করলে অথবা কর্তৃপক্ষের আদেশ মোতাবেক পাসপোর্ট ফেরত দিতে ব্যর্থ কিংবা অস্বীকৃতি জানালে তার পাসপোর্ট আটক কিংবা প্রত্যাহার করা হবে। সরকার কিংবা সরকারের পূর্বানুমোদন নিয়ে পাসপোর্ট কর্তৃপক্ষ ৩০ দিনের জন্য যে কারোর পাসপোর্ট বা ট্রাভেল ডকুমেন্ট আটক বা প্রত্যাহার করতে পারবে। কোন ফৌজদারি আদালত কোন অভিযুক্তকে জামিন প্রদানের শর্ত হিসেবে সাময়িকভাবে পাসপোর্ট আটক রাখার বিষয়ে নির্দেশনা দিলে পাসপোর্ট আটক কিংবা প্রত্যাহার করতে পারবে। প্রত্যাহার করা হলে পাসপোর্টধারী পার্শ্ববর্তী থানা অথবা পাসপোর্ট কর্তৃপক্ষের কাছে পাসপোর্ট জমা দেবেন। পাসপোর্ট কর্তৃপক্ষের যে কোন আদেশ নির্দেশের বিরুদ্ধে সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি আপীল করতে পারবেন। ৩০ দিনের মধ্যে উপযুক্ত কর্তৃপক্ষের কাছে এ আপীল করতে হবে। আইনে অপরাধ হিসেবে বিবেচিত কর্মকান্ডের জন্য সর্বোচ্চ ২ বছরের কারাদ- এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হচ্ছে।

খসড়া আইনে বলা হয়েছে, প্রথম শ্রেণীর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে এ অপরাধের বিচার করা হবে। অভিযোগ গঠনের ১২০ দিনের মধ্যে বিচার কাজ সম্পন্ন করতে হবে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বিচার কাজ শেষ করতে না পারলে কারণ লিপিবদ্ধ করে ম্যাজিস্ট্রেট আরও সর্বোচ্চ ৬০ কার্যদিবস সময় বাড়াতে পারবেন। এদিকে উপপরিদর্শক পদমর্যদার যে কোন কর্মকর্তা অপরাধের সঙ্গে সম্পৃক্ত কোন ব্যক্তির অথবা দন্ডনীয় অপরাধ করেছেন- এমন ব্যক্তির কাছ থেকে যে কোন সময় যে কোন স্থানে তল্লাশি করে পাসপোর্ট বা ট্রাভেল ডকুমেন্ট আটক বা জব্দ করতে পারবেন। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে আগ্রাসন বা বহিঃআক্রমণে লিপ্ত দেশ ভ্রমণ করা যাবে না। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে বহিঃআক্রমণ করছে এমন অন্য কোন দেশকে সহায়তা করছে ওসব দেশ ভ্রমণ করা যাবে না। তবে শর্তসাপেক্ষে কোন কোন ব্যক্তিকে এমন দেশেও ভ্রমণের অনুমতি দেয়া যাবে।

 





         
   আপনার মতামত দিন
     বিবিধ
অনলাইন গণমাধ্যম নিবন্ধনে আবেদন ৩০ জুন পর্যন্ত
.............................................................................................
বেসরকারি ব্যবস্থাপনা ট্রেন পরিচালনার চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ
.............................................................................................
দেশি-বিদেশি বেসরকারি সংস্থার নিবন্ধন ও নিয়ন্ত্রণে নতুন আইন করছে সরকার
.............................................................................................
২০ মে থেকে ৬৫ দিন বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরা নিষিদ্ধ
.............................................................................................
টিআইবি’র গবেষণা প্রত্যাখ্যান করল ঢাকা ওয়াসা
.............................................................................................
নদী রক্ষায় ১০ বছর মেয়াদী মহাপরিকল্পনার খসড়া চূড়ান্ত
.............................................................................................
নতুন সড়ক আইন দ্রুত কার্যকর হচ্ছে না!
.............................................................................................
বায়ুদূষণে মৃত্যুতে বাংলাদেশ পঞ্চম
.............................................................................................
শহরের প্রত্যেকের তৈলচিত্র আঁকছেন ব্রিটিশ চিত্রকর
.............................................................................................
আবার যে কারণে হাসপাতালে `বৃক্ষ-মানব`
.............................................................................................
সংসদ নির্বাচন : সাংগঠনিক ইউনিটের জরুরি সভা ডেকেছে ছাত্রলীগ
.............................................................................................
আবার ভাসবে টাইটানিক
.............................................................................................
অনুশোচনায় আত্মহত্যা করেছিলেন সেই ফটো সাংবাদিক
.............................................................................................
‘১৮ বছরের আগে কোনো শিশুকে রাজনীতিতে অন্তর্ভুক্তিকরণ নয়’
.............................................................................................
নিমেষেই অদৃশ্য হয় যে প্রাণী
.............................................................................................
সক্ষমতা সূচকে বাংলাদেশের একধাপ অবনমন
.............................................................................................
ঈদুল আযহার বন্ধের নোটিশ
.............................................................................................
অর্গানিক গরুর চাহিদার সাথে দামও বেশি
.............................................................................................
ঢাকা বাঁচাতে দরকার কার্যকর সমন্বিত পরিকল্পনা
.............................................................................................
নিয়মের ঊর্ধ্বে ১৪ লাখ রিকশা
.............................................................................................
বেসরকারি মেডিক্যাল, ক্লিনিক ডায়াগনস্টিক সেন্টার স্থাপন ও নবায়ন ফি বাড়ছে ৫০ গুণ
.............................................................................................
ইসলামের শিক্ষা মানুষকে দেয় প্রশান্তি ও আত্ম-বিশ্বাস: নওমুসলিম জয়নাব
.............................................................................................
বেপরোয়া জবি ছাত্রলীগ নিয়ন্ত্রণ নেই নেতাদের
.............................................................................................
কমছে কেন পেঙ্গুইনের সংখ্যা
.............................................................................................
সাগর উত্তাল, বন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত
.............................................................................................
এক মাসে ৩১ কোটি টাকার চোরাচালান পণ্য ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার করেছে বিজিবি
.............................................................................................
দেশে এখনও ৮.৮ শতাংশ মানুষ কেরোসিনের আলোয় নির্ভরশীল
.............................................................................................
ছয় মাসে ২০২১টি শিশু নির্যাতনের শিকার
.............................................................................................
বাংলাদেশে এইডস রোগে আক্রান্ত ৮৬৫ জন
.............................................................................................
মাদক কারবারে শৃঙ্খলা বাহিনীর ২৫০ জন
.............................................................................................
বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু ৭২ বছর
.............................................................................................
‘খাদ্য সংকটে’ শূন্যরেখার রোহিঙ্গারা
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের জন্য ১৬ কোটি টাকা সহায়তা দেবে জাপান
.............................................................................................
গ্যাস উত্তোলন ও অনুসন্ধানে সরকারি সংস্থার কচ্ছপগতিতে কাটছে না সঙ্কট
.............................................................................................
প্লাস্টিকের উৎপাদন ও ব্যবহার রোধে আইনের কঠোর প্রয়োগ দাবি টিআইবি’র
.............................................................................................
শতভাগ ঈদ বোনাস দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের
.............................................................................................
সংরক্ষিত নেই সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ সফরের সুনির্দিষ্ট তথ্যাবলী
.............................................................................................
আরও দু’বছর কুয়েতের রাষ্ট্রদূত থাকছেন আবুল কালাম
.............................................................................................
জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে প্রাধান্য দেয়ার ওপর গুরুত্বারোপ
.............................................................................................
চলন্ত ট্রেনে ঢিল ছোঁড়া দুষ্কৃতকারীদের নিয়ন্ত্রণে কঠোর আইন করার উদ্যোগ
.............................................................................................
সরকারি চাকুরেদের বেতন বাড়ছে ভোটের আগে
.............................................................................................
অনিরাপদ পানিতে দেশে দিনে দিনে কলেরার প্রকোপের মাত্রা বাড়ছে
.............................................................................................
সর্বোচ্চ উৎপাদনেও নিয়ন্ত্রণে নেই লোডশেডিং
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের দ্বিতীয় তালিকা প্রস্তুত, নিতে রাজি হয়নি মিয়ানমার
.............................................................................................
বই সঙ্কটে আটকে রয়েছে বিপুলসংখ্যক পাসপোর্ট
.............................................................................................
সড়ক বিভাগের সচিব নজরুলকে আরও ২ বছরের চুক্তিতে নিয়োগ
.............................................................................................
বাজারের ৭৫ শতাংশের বেশি প্রাস্তুরিত দুধ সরাসরি পানের জন্য নিরাপদ নয়
.............................................................................................
আরো ৩ দিন বজ্রবৃষ্টির সম্ভাবনা
.............................................................................................
দক্ষিণ গোলার্ধে ৭৮ ফুট উঁচু ঢেউয়ের রেকর্ড
.............................................................................................
ভোক্তার স্বার্থ রক্ষায় বিভিন্ন পণ্যের ভেজাল রোধে ৯টি ল্যাবরেটরি স্থাপনের উদ্যোগ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]