শুক্রবার , ২০ মহররম ১৪৪০ | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৪ আশ্বিন ১৪২৬ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   বিবিধ
শতভাগ ঈদ বোনাস দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের
  তারিখ: 04 - 06 - 2018

বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্ত (মান্থলি পে-অর্ডার) শিক্ষকদের পবিত্র ঈদ উপলক্ষে বোনাস হিসেবে মূল বেতনের ২৫ শতাংশ প্রদান করা হয়। আর কর্মচারীদের ৫০ শতাংশ দেয়া হয়। দুই ঈদে শিক্ষক-কর্মচারীরা এ বোনাস পেয়ে থাকেন। ৫০০ টাকা চিকিৎসা ভাতা, বাড়ি ভাড়া ১৫ শ’ টাকা দেয়া হয়। এ ছাড়া ২০১৫ সাল থেকে চালু করা বৈশাখী ভাতাসহ সরকারি স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের মতো সব ভাতা দেয়ার দাবি করছেন বেসরকারি শিক্ষকেরা।
এ দাবি নিয়ে বেসরকারি শিক্ষকদের সব অংশ ও মতের শিক্ষক সংগঠনগুলো একাট্টা। এ দাবি আদায়ে এখন পর্যন্ত শিক্ষক সংগঠনগুলো নিজ নিজ অবস্থান থেকে নানা কর্মসূচি পালন করে তবে কখনোই এক মঞ্চে এসে এ দাবি তুলে ধরতে পারেনি। শিক্ষক সংগঠনগুলো এসব ভাতা ও বোনাসের জন্য সরকারের কত টাকার প্রয়োজন পড়বে, তার কোনো পরিসংখ্যান-হিসাব শিক্ষক সংগঠনগুলোর অধিকাংশ নেতারও জানা নেই। 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বর্তমান সরকার সমর্থক প্রবীণ এক শিক্ষক নেতা নয়া দিগন্তকে বলেন, শিক্ষক নেতারা এখন নিজ সংগঠন ও পদ পদবি নিয়েই ব্যস্ত থাকেন। তারা শিক্ষকদের স্বার্থের দিকটি আগের মতো গুরুত্ব দেন না। সরকারের আমলারা যেসব তথ্য দিয়ে সরকারের নীতিনির্ধারকদের বিভ্রান্ত করেন, তার বিপরীতে সঠিক তথ্য-উপাত্ত কোনো শিক্ষক নেতা এখন দিতে পারেন না। তাই শিক্ষকদের ন্যায্য দাবিও এখন আর নীতিনির্ধারকরা স্বপ্রণোদিত না হলে, আদায় বা মেনে নেন না। শিক্ষক নেতাদের কাছে এখন কোন আপডেট তথ্য-উপাত্ত থাকে না। শিক্ষক নেতারাও এখন এ সব বিষয় নিয়ে খুব একটা মাথা ঘামান না। তিনি আরো বলেন, এ সব কারণেই শিক্ষকদের আন্দোলন এখন শিক্ষকদের স্বার্থের চেয়ে নেতাদের পদ-পদবি ও সুযোগ-সুবিধা প্রাপ্তি এবং দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিতে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। 
যদিও দেশে মাধ্যমিক শিক্ষার ৯৭ শতাংশ নিয়ন্ত্রণ ও পরিচালিত হয়ে থাকে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায়। মাত্র তিন-চার শতাংশ মাধ্যমিক শিক্ষা পরিচালনা করে সরকার বা বেসরকারি নিয়ন্ত্রণে। সরকারি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা সরকারি বেতন স্কেল অনুসারে বেতনসহ অন্যান্য সব ভাতা সুযোগ-সুবিধা পেয়ে থাকেন। বিপরীতে বেসরকারি শিক্ষকদের মাত্র একটি অংশ সরকারি বেতন ভাতা পেয়ে থাকেন। সারা দেশে এ সংখ্যা হচ্ছে প্রায় পৌনে পাঁচ লাখ। অথচ সারা দেশে বেসরকারি শিক্ষকদের সংখ্যা হচ্ছে ১০ লক্ষাধিক। পরিসংখ্যানটি বেনবেইজের। 

এত বিপুল পরিমাণ শিক্ষকেরা নামমাত্র বেতনভাতা পেয়ে থাকেন নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান থেকে। তাও আবার রাজধানী কেন্দ্রিক বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের এবং অনেক জেলা শহরের বেসরকারি শিক্ষকেরা নিয়মিত ও চাহিদা-যোগ্যতার নিরীখে বেতনভাতা পান না। অথচ বেসরকারি শিক্ষকেরাই দেশের মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষা টিকিয়ে রেখেছেন। 

মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার মান বিচারের সব ক’টি সূচকের বিবেচনায় বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিই শীর্ষে। পাবলিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ, শিক্ষার্থীদের জিপিএ-এর মান, পাসের হার সব ক’টি দিকেই বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এগিয়ে। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের ছাপিয়ে সরকারি স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীরা কখনোই শীর্ষে যেতে পারেনি। অথচ সরকার ও নীতিনির্ধারকেরা সব সময়ই মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করার কথা বলে যাচ্ছেন। কিন্তু সরকারি-বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের মধ্যে আকাশ-পাতাল বেতন-ভাতার বৈষম্য রেখে মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করা সম্ভব নয় বলে মনে করেন সব ক’টি শিক্ষক সংগঠনের নেতারা। তারা বলেন, সরকারকেই এ বৈষম্যের অবসান করতে উদ্যোগী ভূমিকা নিতে হবে।

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ট্রেজারার এবং বাংলাদেশ অধ্যক্ষ পরিষদের সভাপতি অধ্যক্ষ মাজহারুল হান্নান নয়া দিগন্তকে বলেন, বৈষম্য বিভাজন করে কখনোই মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত হবে না। আর বিলম্ব না করে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের পূর্ণাঙ্গ উৎসব ভাতা চালু করা সরকারের নৈতিক দায়িত্ব। তিনি বলেন, এ সরকারের কাছে নীতি-নৈতিকতার প্রশ্ন তো সব সময়ই গৌণ। 

বেসরকারি শিক্ষকদের অন্যতম বৃহৎ সংগঠন শিক্ষক-কর্মচারী ঐক্যজোট চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মো: সেলিম ভূঁইয়া এ ব্যাপারে নয়া দিগন্তকে বলেন, শিক্ষায় এখন যে নৈরাজ্য চলছে, তা দিয়ে মানসম্পন্ন শিক্ষা তো দূরের কথা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিচালনাই দুরূহ হয়ে পড়ছে। বৈষম্য সৃষ্টি এবং বিমাতাসূলভ আচরণ করছে সরকার। সমাজে বিভাজন সৃষ্টি করা হচ্ছে। শিক্ষকদের বঞ্চিত করে, কখনোই মানসম্পন্ন শিক্ষা আশা করাটাই দুরাশা। তিনি অবিলম্বে মাধ্যমিক স্তরে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি করেন। বিচ্ছিন্নভাবে সরকারিকরণের ফলে বৈষম্য আরো প্রকট হচ্ছে, যোগ্য প্রতিষ্ঠানকে বাদ দিয়ে, রাজনৈতিক বিবেচনায় এখন জাতীয়করণ করার ফলে, সরকারের বিরুদ্ধে শুধু শিক্ষকেরাই নয়, সংশ্লিষ্ট এলকার জনগণও ক্ষুব্ধ হচ্ছে।

বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্যসচিব ও সরকার সমর্থক শিক্ষক সংগঠনের শীর্ষ নেতা অধ্যক্ষ মোঃ শাহজাহান আলম সাজু গতকাল নয়া দিগন্তকে বলেন, বেসরকারি শিক্ষকদের পূর্ণাঙ্গ উৎসব ভাতার দাবি দীর্ঘ দিনের। পবিত্র ঈদ উৎসব সবার। শুধু সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদেরই শুধু নয়, যে তারা শতভাগ উৎসব ভাতা ও বোনাস পাবেন। বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের ঈদ উৎসব থাকে। তাতে তারা যদি আনন্দ উপভোগ থেকে বঞ্চিত হন, তাতে সমাজে বৈষম্য সৃষ্টি হয়। শতভাগ বোনাস ও ভাতা দিতে সরকারের কত টাকার সংশ্লেষ হতে পারে জানতে চাইলে, তিনি বলেন, এ মুহূর্তে সঠিক পরিসংখ্যানটি বলতে পারছি না, তবে, ২৫ শতাংশ ও ৫০শতাংশে ১৮৬ কোটি হলে, সম্ভাব্য ৫ শ’ কোটির মত প্রয়োজন হতে পারে। 
বেসরকারি শিক্ষক সমিতির একাংশের সভাপতি নজরুল ইসলাম রনি নয়া দিগন্তকে বলেন, শতভাগ উৎসব ভাতা না দিয়ে সরকার বেসরকারি শিক্ষকদের সাথে বৈষম্যমূলক আচরণ করছে।





         
   আপনার মতামত দিন
     বিবিধ
অনলাইন গণমাধ্যম নিবন্ধনে আবেদন ৩০ জুন পর্যন্ত
.............................................................................................
বেসরকারি ব্যবস্থাপনা ট্রেন পরিচালনার চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ
.............................................................................................
দেশি-বিদেশি বেসরকারি সংস্থার নিবন্ধন ও নিয়ন্ত্রণে নতুন আইন করছে সরকার
.............................................................................................
২০ মে থেকে ৬৫ দিন বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরা নিষিদ্ধ
.............................................................................................
টিআইবি’র গবেষণা প্রত্যাখ্যান করল ঢাকা ওয়াসা
.............................................................................................
নদী রক্ষায় ১০ বছর মেয়াদী মহাপরিকল্পনার খসড়া চূড়ান্ত
.............................................................................................
নতুন সড়ক আইন দ্রুত কার্যকর হচ্ছে না!
.............................................................................................
বায়ুদূষণে মৃত্যুতে বাংলাদেশ পঞ্চম
.............................................................................................
শহরের প্রত্যেকের তৈলচিত্র আঁকছেন ব্রিটিশ চিত্রকর
.............................................................................................
আবার যে কারণে হাসপাতালে `বৃক্ষ-মানব`
.............................................................................................
সংসদ নির্বাচন : সাংগঠনিক ইউনিটের জরুরি সভা ডেকেছে ছাত্রলীগ
.............................................................................................
আবার ভাসবে টাইটানিক
.............................................................................................
অনুশোচনায় আত্মহত্যা করেছিলেন সেই ফটো সাংবাদিক
.............................................................................................
‘১৮ বছরের আগে কোনো শিশুকে রাজনীতিতে অন্তর্ভুক্তিকরণ নয়’
.............................................................................................
নিমেষেই অদৃশ্য হয় যে প্রাণী
.............................................................................................
সক্ষমতা সূচকে বাংলাদেশের একধাপ অবনমন
.............................................................................................
ঈদুল আযহার বন্ধের নোটিশ
.............................................................................................
অর্গানিক গরুর চাহিদার সাথে দামও বেশি
.............................................................................................
ঢাকা বাঁচাতে দরকার কার্যকর সমন্বিত পরিকল্পনা
.............................................................................................
নিয়মের ঊর্ধ্বে ১৪ লাখ রিকশা
.............................................................................................
বেসরকারি মেডিক্যাল, ক্লিনিক ডায়াগনস্টিক সেন্টার স্থাপন ও নবায়ন ফি বাড়ছে ৫০ গুণ
.............................................................................................
ইসলামের শিক্ষা মানুষকে দেয় প্রশান্তি ও আত্ম-বিশ্বাস: নওমুসলিম জয়নাব
.............................................................................................
বেপরোয়া জবি ছাত্রলীগ নিয়ন্ত্রণ নেই নেতাদের
.............................................................................................
কমছে কেন পেঙ্গুইনের সংখ্যা
.............................................................................................
সাগর উত্তাল, বন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত
.............................................................................................
এক মাসে ৩১ কোটি টাকার চোরাচালান পণ্য ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার করেছে বিজিবি
.............................................................................................
দেশে এখনও ৮.৮ শতাংশ মানুষ কেরোসিনের আলোয় নির্ভরশীল
.............................................................................................
ছয় মাসে ২০২১টি শিশু নির্যাতনের শিকার
.............................................................................................
বাংলাদেশে এইডস রোগে আক্রান্ত ৮৬৫ জন
.............................................................................................
মাদক কারবারে শৃঙ্খলা বাহিনীর ২৫০ জন
.............................................................................................
বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু ৭২ বছর
.............................................................................................
‘খাদ্য সংকটে’ শূন্যরেখার রোহিঙ্গারা
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের জন্য ১৬ কোটি টাকা সহায়তা দেবে জাপান
.............................................................................................
গ্যাস উত্তোলন ও অনুসন্ধানে সরকারি সংস্থার কচ্ছপগতিতে কাটছে না সঙ্কট
.............................................................................................
প্লাস্টিকের উৎপাদন ও ব্যবহার রোধে আইনের কঠোর প্রয়োগ দাবি টিআইবি’র
.............................................................................................
শতভাগ ঈদ বোনাস দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের
.............................................................................................
সংরক্ষিত নেই সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ সফরের সুনির্দিষ্ট তথ্যাবলী
.............................................................................................
আরও দু’বছর কুয়েতের রাষ্ট্রদূত থাকছেন আবুল কালাম
.............................................................................................
জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে প্রাধান্য দেয়ার ওপর গুরুত্বারোপ
.............................................................................................
চলন্ত ট্রেনে ঢিল ছোঁড়া দুষ্কৃতকারীদের নিয়ন্ত্রণে কঠোর আইন করার উদ্যোগ
.............................................................................................
সরকারি চাকুরেদের বেতন বাড়ছে ভোটের আগে
.............................................................................................
অনিরাপদ পানিতে দেশে দিনে দিনে কলেরার প্রকোপের মাত্রা বাড়ছে
.............................................................................................
সর্বোচ্চ উৎপাদনেও নিয়ন্ত্রণে নেই লোডশেডিং
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের দ্বিতীয় তালিকা প্রস্তুত, নিতে রাজি হয়নি মিয়ানমার
.............................................................................................
বই সঙ্কটে আটকে রয়েছে বিপুলসংখ্যক পাসপোর্ট
.............................................................................................
সড়ক বিভাগের সচিব নজরুলকে আরও ২ বছরের চুক্তিতে নিয়োগ
.............................................................................................
বাজারের ৭৫ শতাংশের বেশি প্রাস্তুরিত দুধ সরাসরি পানের জন্য নিরাপদ নয়
.............................................................................................
আরো ৩ দিন বজ্রবৃষ্টির সম্ভাবনা
.............................................................................................
দক্ষিণ গোলার্ধে ৭৮ ফুট উঁচু ঢেউয়ের রেকর্ড
.............................................................................................
ভোক্তার স্বার্থ রক্ষায় বিভিন্ন পণ্যের ভেজাল রোধে ৯টি ল্যাবরেটরি স্থাপনের উদ্যোগ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]