৬ শাবান ১৪৪১, ঢাকা, বুধবার, ১৮ চৈত্র ১৪২৬, ১ এপ্রিল , ২০২০ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
  
এত কিছুর পর জানা গেল পুলিশই ঘাতক
  তারিখ: 14 - 08 - 2018


দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের একটি আবাসন প্রকল্পের নির্জন রাস্তায় অজ্ঞাত হিসেবেই পড়ে ছিল বৃদ্ধ মো. ইউনুস হাওলাদারের গলা ও পেট কাটা লাশ। গত ২৫ জুন সকালে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ইউনুস হাওলাদারকে কে বা কারা এবং কেন হত্যা করল জানতে পুলিশের যখন গলদঘর্ম অবস্থা, তখন আশার আলো হয়ে দেখা দেয় একটি ফোন কল। পরে নিহতের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনের কল ডিটেইল রেকর্ড (কললিস্ট) যাচাই করে হতভম্ভ তদন্তসংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তারা।

কললিস্টের সূত্র ধরে ঘাতক মো. ওহিদ ওরফে সুমন (নিহতের বাড়ির ভাড়াটিয়া) ও মো. ছাবের ওরফে শামীমকে (পুলিশের সোর্স) গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর পরই বেরিয়ে আসে চমকপ্রদ তথ্য হত্যাকাণ্ডের মূল ‘নায়ক’ই পুলিশ।

জানা গেছে, নৃশংস এ ঘটনার মাস্টারমাইন্ড রাজধানীর শ্যামপুর থানার এএসআই নুর আলম (থানা থেকে ক্লোজড হয়ে বর্তমানে তিনি ডিএমপির ওয়ারি বিভাগের ডিসি অফিসে সংযুক্ত)। নারীঘটিত একটি মামলা থেকে অব্যাহতি পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে নিহতের কাছে দাবির ৩ লাখ টাকা ছিনতাই করতেই গ্রেপ্তার দুজনকে দিয়ে ইউনুস হাওলাদারকে খুন করান তিনি।

 

জানা গেছে, হত্যাকাণ্ডের এই তিনজন ছাড়াও মুখোশ পরা অচেনা এক যুবক জড়িত। পুলিশ অভিযুক্ত সুমন ও সাবেরকে গ্রেপ্তার করলেও এএসআই ও মুখোশধারী যুবক এখনো ঘুরে বেড়াচ্ছেন। অথচ এএসআই নুর আলমের নীল নকশায় এই হত্যাকাণ্ড সম্পন্ন হয়েছে জানিয়ে ঢাকার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন সুমন।

 

হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার এসআই গোলাম মোস্তফা বলেন, ৩ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যেই ইউনুস হাওলাদারকে খুন করা হয়। তদন্তে উঠে এসেছে, এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত রাজধানীর শ্যামপুর থানার এক এএসআই, যা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে জানিয়েছেন খুনে সরাসরি অংশ নেওয়া সুমন।

 

গোলাম মোস্তফা আরও জানান, ঘটনার দিন (২৪ জুন, বেলা ২টা ৫৪) নিজেদের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে কথা বলেন ওই এএসআই ও সুমন। এর আগে-পরে আরও কয়েকবার কথা হয় তাদের। সেদিন তাদের মধ্যে সর্বশেষ কথা হয় ১৯টা ৪৭ মিনিট ২৭ সেকেন্ডে (সন্ধ্যা ৭টা ৪৭ মিনিট)। হত্যাকাণ্ডের পর তাদের কথা হয় মধ্যরাত ১২টা ৩১ মিনিট ২৯ সেকেন্ডে। হত্যার পর নিহতের কাছ থেকে ৩ লাখ টাকা রাখা একটি লাল ব্যাগ ছিনিয়ে নেয় সুমন, সাবের ও মুখোশ পরা অচেনা ওই যুবক।

 

ঘটনা ঘটিয়ে তারা সিএনজিচালিত অটোরিকশাযোগে পোস্তগোলা ব্রিজ পেরিয়ে এসে অপেক্ষায় থাকা অভিযুক্ত এএসআইয়ের কাছে টাকার ব্যাগটি দেয়। তখন দুই হাজার টাকা বের করে সুমনকে পুরো ঘটনার দায় চাপিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে রাতের মধ্যে ঢাকা ছাড়তে বলেন ওই এএসআই। ঘটনার পরদিন সকাল ১০টা ৯ মিনিটেও মোবাইল ফোনে এই দুজনের কথা হয়। তখন সুমন সিলিটে অবস্থান করছিলেন। ওই এএসআই ছিলেন হাতিরঝিল এলাকায়। অভিযুক্ত ওই এএসআই বর্তমানে পুলিশের নজরদারিতে রয়েছেন।

 

এসআই গোলাম মোস্তফার অভিযোগ, ঘটনা তদন্তের প্রথম দিকে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সদিচ্ছা থাকলেও সুমন আদালতে খুনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেওয়ার পর তাতে ওই এএসআইর নাম আসলে রহস্যজনক ভ‚মিকা পালন করছেন ওসি। এত তথ্যপ্রমাণ থাকার পরও তিনি তদন্তের বিষয়ে সহযোগিতা তো করছেনই না, উল্টো অভিযুক্ত এএসআইকে গ্রেপ্তারে পদে পদে বাধা দিচ্ছেন।

 

তবে এসআই গোলাম মোস্তফার অভিযোগ অসত্য ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ওসি মনিরুল ইসলাম।

 

আদালতে দেওয়া সুমনের জবানবন্দি সাজানো দাবি করে অভিযুক্ত এএসআই নুর আলম আমাদের সময়কে বলেন, কী করে এই নৃশংস হত্যাকাণ্ডে আমার নাম এলো তা বুঝতে পারছি না। এ ঘটনার সঙ্গে আমি জড়িত নই।

 

নিহতের স্ত্রী মারুফা খানম আমাদের সময়কে জানান, শ্যামপুরের পশ্চিম ধোলাইরপাড় এলাকার দুটি বাড়ি ভাড়া দিয়েই চলতেন ইউনুস হাওলাদার। স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে চলতি বছরের প্রথম মাসে তাদের ১১/১ নম্বর বাড়ির ৫ তলার একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নেয় এক দম্পতি। ১৯ জানুয়ারি বিকালে শ্যামপুর থানার এসআই মাহাবুব আলমসহ কয়েক পুলিশ সদস্য ওই দম্পতির বাসায় অভিযান চালান। সেখানে ৩ ঘণ্টা অবস্থানের পর ১১ দিন আগে ভাড়ায় আসা ওই দম্পতিসহ কয়েক জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যান। তাদের বিরুদ্ধে মানবপাচার আইনে মামলা দেন তিনি।

 

এদিকে দুর্ঘটনার শিকার হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ইউনুস হাওলাদারকেও ওই মামলায় জড়িয়ে দেন এসআই মাহাবুব আলম। এর পর ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই নজরুল ইসলাম চার্জশিট থেকে ইউনুস হাওলাদারকে অব্যাহতি দেওয়ার কথা বলে মারুফা খানমের কাছে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা দাবি করেন। মারুফা পরে জানাবেন বলে ওই এসআইকে ৫ হাজার টাকা দিয়ে সেদিন বিদায় দেন।

 

অশ্রæসিক্ত মারুফা খানম বলেন, আমার সরলসোজা স্বামীটারে শ্যামপুর থানার এক পুলিশ মিথ্যা মামলায় জড়াইল। একই থানার আরেক পুলিশ ওর প্রাণটাই কাইড়া নিল। প্রকাশ্যে ঘুইরা বেড়ালেও এখন ঘটনার মূল হোতা এএসআই নুর আলমকে গ্রেপ্তার করতে দিচ্ছে না দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার আরেক পুলিশ। দায়ী শ্যামপুর থানার তিন পুলিশ সদস্য, সোর্স ছাবের ও সুমনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান মারুফা খানম ও তার ছেলে আতিকুজ্জামান ঈগলু। তাদের সঙ্গে কথোপকোথনের ধারণকৃত পুরো ভিডিও চিত্র আমাদের সময়ের সংরক্ষণে রয়েছে।

 

এদিকে খুন হওয়ার কয়েক দিন আগেও শ্যামপুর থানার অদূরে এই প্রতিবেদকের সঙ্গে কথা হয় নিহত মো. ইউনুস হাওলাদারের। তখন তিনিও অভিযোগ করেছিলেন শ্যামপুর থানার এসআই মাহাবুব আলম তাকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়েছেন। সম্মানহানি তো হয়েছেই, বুড়ো বয়সে অপমানজনক মামলা থেকে নিস্তার পেতে থানা পুলিশের কাছে ধরনা দিচ্ছেন তিনি। সেদিনের সেই কথোপকোথনের ধারণকৃত ভিডিও চিত্রও রয়েছে আমাদের সময়ের কাছে।

 

আদালতে জবানবন্দিতে সুমন জানান, নারী পাচার মামলা থেকে মুক্তি পাইয়ে দিতে নিহত ইউনুস হাওলাদারের কাছে ৪ লাখ টাকা দাবি করেছিলেন এএসআই নুর আলম। দেন-দরবারের একপর্যায়ে ৩ লাখ টাকা দিতে রাজি হন ইউনুস। এই আলোচনার কেন্দ্রে ছিলেন সুমন। তাকে ২৩ জুন বিকালে গেন্ডারিয়া রেলস্টেশনে আসতে বলেন এএসআই নুর আলম। সাবেরকে নিয়ে আসেন এএসআই। সেখানেই খুনের পরিকল্পনা হয়।

 

সে অনুযায়ী ২৪ জুন রাত ৯টার দিকে টাকা নিয়ে ইকুরিয়া বিআরটিএর সামনে ইউনুস হাওলাদারকে আসতে বলেন তারা। ওই বৃদ্ধ যথাস্থানে পৌঁছলে একটি অটোরিকশায় তাকে ওঠানো হয়। গাড়িতে আগেই সাবের ও মুখোশ পরা এক যুবক বসা ছিলেন। রাস্তা খারাপ থাকায় তারা হেঁটেই এগোতে থাকেন। দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের বসুন্ধরা রিভারভিউ হাউজিং প্রজেক্টের উত্তরে গোলাম কিবরিয়ার বাড়ির পাশে নির্জন রাস্তায় আসতেই সুমন ইউনুসকে ল্যাং মেরে ফেলে দেন। এ সময় তার বুকে উঠে গলায় ও পেটে ছুরি চালায় সাবের। বৃদ্ধের পা ধরে সুমন ও মুখোশ পরা যুবক।

 

হত্যার পর তারা ইউনুসের কোমরে বাঁধা লাল রঙের টাকার ব্যাগটি নিয়ে অটো রিকশাযোগে পোস্তগোলা ব্রিজ পার হয়। সেখানে আগে থেকেই ছিলেন এএসআই নুর আলম। তার কাছে টাকার ব্যাগ দেন সাবের। সুমনকে দুই হাজার টাকা ধরিয়ে দিয়ে রাতের মধ্যেই ঢাকা ছাড়ার হুমকি দেয় ওই এএসআই। না হলে পুরো হত্যাকাণ্ডের দায় তার ওপর চাপানো হবে বলে জানান ওই পুলিশ সদস্য। ভয়ে রাতেই বাসযোগে সিলেট চলে যান সুমন। ২৮ জুন স্ত্রীকে নিয়ে বাগেরহাটের চিতলমারী এলাকায় শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে আত্মগোপন করেন তিনি। সেখান থেকেই পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার 





         
   আপনার মতামত দিন
    
দশ হাজার কিমি. নদী খননের পরিকল্পনা
.............................................................................................
জ্বালাতন থেকে বাঁচতে পরিকল্পিত হত্যা
.............................................................................................
মাত্র দুই লাখ টাকায় বদলে যায় নমুনার টিন!
.............................................................................................
জাতীয় কবিতা উৎসব শুরু কাল
.............................................................................................
২৬ মার্চের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধাদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা
.............................................................................................
২৬ মার্চের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধাদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা
.............................................................................................
তরুণীকে হেনস্তা করায় চার পুলিশ সদস্য বরখাস্ত
.............................................................................................
ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় কাঁঠালবাড়ী ঘাটে যাত্রীদের প্রচণ্ড ভিড়
.............................................................................................
এবারের ঈদে বড় ধরনের অপরাধ হয়নি : ডিএমপি কমিশনার
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় পাহাড়ধসে বাংলাদেশী নিহত
.............................................................................................
নির্ধারিত স্থানে পশু কোরবানি করার আহ্বান মেয়রের
.............................................................................................
বড়পুকুরিয়ার সাবেক দুই এমডিকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ
.............................................................................................
কমলাপুরে ‘তুফান’ ঝড়
.............................................................................................
কোরবানির গরু আসলেও জমেনি বেচাকেনা
.............................................................................................
গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও দেশের স্বার্থ রক্ষায় চাই সমন্বিত আইন
.............................................................................................
সড়কে গাড়ির চাপ কিছু স্থানে যানজট
.............................................................................................
মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়ক বিভাজকে, শ্রমিক নিহত
.............................................................................................
শিল্পী হত্যার প্রতিবাদে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক অবরোধ
.............................................................................................
ঘাড় মটকে, মুখ থেঁতলে স্কুলছাত্রকে হত্যা
.............................................................................................
বুদ্ধিজীবী গোরস্থানে আজ শায়িত হবেন গোলাম সারওয়ার
.............................................................................................
ঈদে বাড়ি ফেরা : আজ থেকে বাস, কাল শুরু ট্রেনের
.............................................................................................
গুজব ছড়ানোর অপরাধে দুই শিক্ষার্থী গ্রেফতার
.............................................................................................
ঢাবি ছাত্রীকে আটকের পর ছেড়ে দিয়েছে ডিবি
.............................................................................................
এত কিছুর পর জানা গেল পুলিশই ঘাতক
.............................................................................................
৫১ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেফতার ৬২
.............................................................................................
শহিদুল আলমের বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন খারিজ
.............................................................................................
সাভারে সড়ক দুর্ঘটনায় পিকআপ চালক নিহত
.............................................................................................
আজ শেষ হচ্ছে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি
.............................................................................................
আজ শেষ হচ্ছে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি
.............................................................................................
শুক্রবার রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস বন্ধ থাকবে
.............................................................................................
র‌্যাবের সাবেক অধিনায়ক লে. ক. হাসিনুরকে তুলে নেয়ার অভিযোগ
.............................................................................................
দ্বিতীয় দিনেও কমলাপুরে টিকিট প্রত্যাশীদের দীর্ঘলাইন
.............................................................................................
নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন : এ পর্যন্ত অর্জন কতটুকু?
.............................................................................................
সংঘর্ষের পর বন্ধ তিন ভার্সিটি
.............................................................................................
শিক্ষার্থীরা ক্লাসে ফিরেছে, মুখরিত স্কুল-কলেজ
.............................................................................................
ছাত্রলীগের হামলার শিকার ঢাকা মেডিকেলের শিক্ষার্থী
.............................................................................................
হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিপুল পরিমাণ বিদেশি সিগারেট জব্দ
.............................................................................................
সংঘর্ষ ধাওয়া পাল্টাধাওয়া
.............................................................................................
ঢাবিতে মিছিল, রামপুরায় পাল্টাপাল্টি ধাওয়া
.............................................................................................
ঢাকার রাস্তায় একসঙ্গে তিনজনের বেশি নয়: ডিএমপি কমিশনার
.............................................................................................
ডিবি কার্যালয়ে আলোকচিত্রী শহীদুল আলম
.............................................................................................
জিগাতলায় শিক্ষার্থীদের মিছিলে কাঁদানে গ্যাস
.............................................................................................
ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে হামলা, আহত ১৭
.............................................................................................
ছবিতে জিগাতলায় শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা
.............................................................................................
ছাত্রদের ন্যায্য দাবিকে ভিন্নখাতে নেয়ার চেষ্টা চলছে : ডিএমপি কমিশনার
.............................................................................................
মিরপুরে সড়ক অবরোধ, মেয়ে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি বেশি
.............................................................................................
মিরপুরে হামলা করল কারা
.............................................................................................
সপ্তম দিনের মতো রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে শিক্ষার্থীরা
.............................................................................................
ছাত্র অধিকার পরিষদের ধর্মঘটের ডাক আজ
.............................................................................................
শিক্ষার্থী বিক্ষোভ দমনের চিন্তা সরকারের
.............................................................................................
Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale
Digital Load Cell
Digital Indicator
Digital Score Board
Junction Box | Chequer Plate | Girder
Digital Scale | Digital Floor Scale

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা ডট কম
মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত ।

প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ মো: হারুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
বার্তা সম্পাদক: মো: শরিফুল ইসলাম রানা
সহ: সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বিশেষ প্রতিনিধি : মো: আকরাম খাঁন
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed BY : Dynamic Solution IT   Dynamic Scale BD