| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   সম্পাদকীয়
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
  তারিখ: 23 - 09 - 2018

বিতর্কিত ৩২ নম্বর ধারা রেখেই ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল ২০১৮’ পাস হয়েছে। গত বুধবার জাতীয় সংসদে কণ্ঠভোটে বিলটি পাস হয়। নতুন আইনের খসড়া তৈরির পর সাংবাদিক, লেখক-গবেষক, আইনজীবী, সুধীসমাজ, পেশাজীবী মহল ও মানবাধিকার সংগঠনগুলো আপত্তি তুলেছিল। এ নিয়ে অনেক বিতর্ক-সমালোচনা হয়েছে। সেসব খুব একটা আমলে নেওয়া হয়নি। বিল পাসের পর বিভিন্ন মহলে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। সবাই বলছে, এটি মত প্রকাশ ও সাংবাদিকতার স্বাধীনতা এবং গণতন্ত্রের জন্য খুবই ক্ষতিকর। এর অপব্যবহারের আশঙ্কাই বেশি।
বিলটি সংসদে তোলার পর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়। তারা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের মতামত নিয়ে বিল চূড়ান্ত করে সংসদে জমা দেয়। স্থায়ী কমিটির বৈঠকে গণমাধ্যম মহলের প্রতিনিধিরা এবং সংশ্লিষ্ট আরো অনেকে উপস্থিত হয়ে কিছু সংশোধনী প্রস্তাব দিয়েছিলেন। তথ্য-প্রযুক্তি আইনের বিতর্কিত ৫৭ ধারাসহ কয়েকটি ধারা আরো বিশদে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাব বাতিলের কথা বলেছিলেন তাঁরা। বলা হয়েছিল, বিলের ২১, ২৫, ২৮, ৩১, ৩২ ও ৪৩ ধারা বাতিল বা সংশোধন না করলে স্বাধীন সাংবাদিকতায় প্রতিবন্ধকতা দেখা দেবে। সংসদীয় কমিটির চূড়ান্ত সুপারিশে সেসব কথা রাখাও হয়। কয়েকটি ধারায় কিছু পরিবর্তনও আনা হয়। কিন্তু ৩২ ধারাসহ বেশির ভাগ উপধারা অপরিবর্তিতই রয়ে গেছে। বিলের ৩২(১) ধারায় বলা হয়েছে, অফিশিয়াল সিক্রেসি অ্যাক্টের আওতাভুক্ত অপরাধ কম্পিউটার, ডিজিটাল ডিভাইস, কম্পিউটার নেটওয়ার্ক, ডিজিটাল নেটওয়ার্ক বা অন্য কোনো ইলেকট্রনিক মাধ্যমে সংঘটন করলে বা করতে সহায়তা করলে অনধিক ১৪ বছরের কারাদ- বা অনধিক ২৫ লাখ টাকা অর্থদ- বা উভয় দ-ে দ-িত হতে হবে। ৩২(২) ধারায় বলা হয়েছে, ৩২(১)-এ উল্লিখিত অপরাধ পুনর্বার করলে যাবজ্জীবন কারাদ- বা অনধিক এক কোটি টাকা অর্থদ- বা উভয় দ-ে দ-িত হতে হবে। ২৫(ক) ধারায় বলা হয়েছে, জেনেবুঝে মিথ্যা, আক্রমণাত্মক ও মানহানিকর তথ্য প্রচার করলে অনধিক তিন বছরের কারাদ- বা অনধিক তিন লাখ টাকা জরিমানা হবে বা উভয় দ-ে দ-িত হতে হবে। ২৫(খ) ধারায় বলা হয়েছে, পুনর্বার এ অপরাধের জন্য পাঁচ বছরের কারাদ- বা পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দ-ে দ-িত হতে হবে। এমন আরো অনেক ধারাই নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে রয়েছে। বিল পাসের পর বিভিন্ন মহল প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেছে, এটি বাক্স্বাধীনতা ও স্বাধীন সাংবাদিকতার জন্য ক্ষতিকর। তথ্য-প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা হয়রানিমূলক ছিল। এ ধারা নিয়ে সাংবাদিকদের সবচেয়ে বেশি আপত্তি ছিল। নতুন আইনের ৩২ ধারায় এটি আরো বিশদে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। অ্যাকাডেমিক গবেষণার ক্ষেত্রেও এটি বাধা হবে। এ আইন সাংবিধানিক অঙ্গীকার ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিরোধী। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের প্রয়োজন রয়েছে। তথ্য-প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ছে, বাড়ছে এর অপপ্রয়োগও। তাই সাইবার অপরাধ বাড়ছে। সরকার বলছে, এসব অপরাধ নিয়ন্ত্রণের বা দমনের জন্য এ আইন করা হয়েছে; সংবাদপত্র বা বাক্স্বাধীনতা নিয়ন্ত্রণের জন্য নয়। মত প্রকাশে বাধা যেন না থাকে সেটা নিশ্চিত করা হয়েছে। এখন দেখার বিষয়, আইন কার্যকর করতে গিয়ে সরকার কতটুকু সতর্ক থাকে। সৃষ্ট শঙ্কা দূর হবে তো!

 





         
   আপনার মতামত দিন
     সম্পাদকীয়
নিরাপদ হোক ঈদযাত্রা
.............................................................................................
দুর্যোগে করণীয়
.............................................................................................
পুঁজিবাজারে দরপতন
.............................................................................................
কৃষিতে কৃষকের অরুচি সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরি
.............................................................................................
প্রকল্পে সরাসরি অর্থ ছাড় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
ঝুঁকিতে দুই কোটি শিশু এদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার ভয়ংকর পরিণতি থেকে রক্ষা পেতে হবে
.............................................................................................
বাড়ছে শ্রমিক অসন্তোষ মজুরি কমিশনের সুপারিশ আমলে নিন
.............................................................................................
রমজানে বাজারদর স্থিতিশীল রাখার ব্যবস্থা নিতে হবে
.............................................................................................
শিল্পায়নে বাধা
.............................................................................................
সড়কে মর্মান্তিক মৃত্যু ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল বন্ধ করুন
.............................................................................................
ডাক্তারদের প্রাইভেট প্র্যাকটিস প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়িত হোক
.............................................................................................
পেট কাটলেন নার্স, ডাক্তার বললেন ‘ঝামেলা আছে সেলাই করে দাও’
.............................................................................................
বাড়ছে উত্তাপ-উত্তেজনা
.............................................................................................
নির্বাচনের পরিবেশ
.............................................................................................
ক্ষতিপূরণ পেতে ভোগান্তি
.............................................................................................
জননিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা
.............................................................................................
পরিবেশের প্রধান শত্রু প্লাস্টিক
.............................................................................................
বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে রোহিঙ্গারা
.............................................................................................
খুরা রোগের টিকা
.............................................................................................
চিকিৎসা বীমা
.............................................................................................
মাদকবিরোধী কর্মপরিকল্পনা
.............................................................................................
পানিও নিরাপদ নয়
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মাদকে মৃত্যুদন্ড
.............................................................................................
বিশ্বমানের চিকিৎসা
.............................................................................................
গুজবের পিছে ছুটছে মানুষ
.............................................................................................
মিয়ানমারের নতুন উসকানি
.............................................................................................
স্বর্ণ নীতিমালা
.............................................................................................
শিশু যখন শ্রমিক
.............................................................................................
বেহাল স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
সম্ভাবনার কাঁকড়া শিল্প
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
ক্ষতিকর এনার্জি ড্রিংকস
.............................................................................................
মির্জাপুরে কাঠ পোড়ানো চুল্লি
.............................................................................................
হুমকিতে তিন-চতুর্থাংশ মানুষ
.............................................................................................
বেহাল সড়ক ও সেতু
.............................................................................................
সর্বোচ্চ মৃত্যু বাংলাদেশে
.............................................................................................
নতুন মাদক খাত
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
সম্পর্কে নতুন মাত্রা
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল ২০১৮ বিতর্কিত ধারাগুলো পর্যালোচনা করুন
.............................................................................................
পরিবেশদূষণ বড় ঘাতক
.............................................................................................
ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়া
.............................................................................................
ভুলে ভরা এনআইডি
.............................................................................................
পদ্মার ভয়াবহ ভাঙন
.............................................................................................
বিপর্যস্ত স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
ক্যান্সার শনাক্তে প্রযুক্তি
.............................................................................................
নদীতে বিলীন হচ্ছে জনপদ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]