| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   সম্পাদকীয়
হুমকিতে তিন-চতুর্থাংশ মানুষ
  তারিখ: 30 - 09 - 2018

বৈশ্বিক উষ্ণায়ন ও জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব নিয়ে এখন আর সংশয় প্রকাশ করার কোনো সুযোগ নেই। সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা ক্রমাগতভাবে বাড়ছে। বেশ কিছু দ্বীপ দেশের নিম্নাঞ্চল সমুদ্রের পানিতে তলিয়ে গেছে। বাংলাদেশের উপকূলীয় নিম্নাঞ্চলেও তার প্রভাব ক্রমেই স্পষ্ট হচ্ছে। অন্যদিকে খরাপ্রবণতাও ক্রমেই বাড়ছে। বদলে যাচ্ছে বৃষ্টিপাতের ধরন। বন্যা-ঝড়-জলোচ্ছ্বাসের পরিমাণ ও তীব্রতা দুটিই বাড়ছে। এসব দিক থেকে বাংলাদেশও ব্যাপক ঝুঁকিতে রয়েছে। এরই একটি পূর্বাভাস দিয়েছে বিশ্বব্যাংকের গবেষণা প্রতিবেদন। গত বুধবার ঢাকায় প্রকাশিত এ প্রতিবেদনে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে ২০৫০ সাল নাগাদ বাংলাদেশের তিন-চতুর্থাংশ বা প্রায় সাড়ে ১৩ কোটি মানুষের জীবনযাত্রার মান অনেক নিচে নেমে যাবে। এমন আশঙ্কা মোটেও অমূলক নয়। বাংলাদেশের বিজ্ঞানী-অর্থনীতিবিদরাও অনেক দিন ধরেই এসব কথা বলে আসছেন।
২০৫০ সাল খুব একটা দূরে নয়, আর মাত্র ৩১ বছর বাকি। আর এ ক্ষয়ক্ষতি ২০৫০ সালে গিয়েই হবে, তা-ও নয়। ক্ষতি এখনো হচ্ছে। প্রতিবছরই ক্ষতির পরিমাণ বাড়ছে। ২০৫০ সাল নাগাদ সেটি অনেক বেশি দৃশ্যমান হবে। এই ক্ষতি সবচেয়ে বেশি হবে কৃষিক্ষেত্রে। কৃষিবিজ্ঞানীরা বলছেন, নোনা পানির আগ্রাসন এরইমধ্যে দেশের মধ্যাঞ্চল পর্যন্ত চলে এসেছে। এতে ফসল উৎপাদন অনেক কমে যাবে। অন্যদিকে বরেন্দ্র অঞ্চলসহ দেশের উত্তরাঞ্চলে খরার প্রকোপ ক্রমেই বাড়বে। এতেও চাষাবাদ ব্যাহত হবে। বন্যার ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে কৃষিতে। জনস্বাস্থ্যের ওপরও জলবায়ু পরিবর্তনের ব্যাপক প্রভাব পড়বে। পানিবাহিত রোগ এবং পানিতে সৃষ্ট কীটপতঙ্গের কারণে সৃষ্ট বেশ কিছু রোগ আবার মহামারি আকারে দেখা দিতে পারে। অনেক নিম্নাঞ্চলের বসতিও হুমকির মধ্যে পড়বে। মানুষকে ক্রমেই উঁচু ভূমির দিকে চলে আসতে হবে। প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশের সর্বাধিক ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা হবে বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগ। অমবস্যা-পূর্ণিমার সামান্য অস্বাভাবিক জোয়ারেও এখন এ দুটি বিভাগের অনেক নিম্নাঞ্চল তলিয়ে যায়।
এখন প্রশ্ন হলো, আমরা কি বাংলাদেশের সেই বিপর্যস্ত চেহারা দেখার জন্য হাত-পা গুটিয়ে অপেক্ষা করতে থাকব? না, সেটি কোনোভাবেই কাম্য নয়। জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সরকার এরইমধ্যে ডেল্টা বা বদ্বীপ পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে। ১০০ বছর মেয়াদি এ পরিকল্পনার তিনটি ধাপ রয়েছে। প্রথম ধাপে ২০৩১ সালের মধ্যে বাস্তবায়নযোগ্য কিছু পরিকল্পনা রয়েছে। দ্বিতীয় ধাপে ২০৫০ সালের মধ্যে বাস্তবায়নযোগ্য পরিকল্পনা রয়েছে। আর তৃতীয় ধাপে রয়েছে দীর্ঘমেয়াদি কিছু পরিকল্পনা। সরকারের এই বদ্বীপ পরিকল্পনা অত্যন্ত সময়োপযোগী। এখন প্রয়োজন পরিকল্পনার সফল বাস্তবায়ন। একই সঙ্গে দেশে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব নিরূপণ ও করণীয় নির্ধারণে অব্যাহত গবেষণা চালিয়ে যেতে হবে। পরিবর্তিত পরিবেশে খাপ খায়Ñএ রকম নতুন নতুন জাত উদ্ভাবনসহ দেশের কৃষিক্ষেত্রে ব্যাপক পরিবর্তন আনতে হবে। বসতি ও অবকাঠামো নির্মাণসহ অন্যান্য ক্ষেত্রেও পরিবর্তন আনতে হবে। আশা করি, আমরা সঠিকভাবেই জলবায়ু পরিবর্তনের এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে পারব।





         
   আপনার মতামত দিন
     সম্পাদকীয়
নিরাপদ হোক ঈদযাত্রা
.............................................................................................
দুর্যোগে করণীয়
.............................................................................................
পুঁজিবাজারে দরপতন
.............................................................................................
কৃষিতে কৃষকের অরুচি সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরি
.............................................................................................
প্রকল্পে সরাসরি অর্থ ছাড় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
ঝুঁকিতে দুই কোটি শিশু এদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার ভয়ংকর পরিণতি থেকে রক্ষা পেতে হবে
.............................................................................................
বাড়ছে শ্রমিক অসন্তোষ মজুরি কমিশনের সুপারিশ আমলে নিন
.............................................................................................
রমজানে বাজারদর স্থিতিশীল রাখার ব্যবস্থা নিতে হবে
.............................................................................................
শিল্পায়নে বাধা
.............................................................................................
সড়কে মর্মান্তিক মৃত্যু ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল বন্ধ করুন
.............................................................................................
ডাক্তারদের প্রাইভেট প্র্যাকটিস প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়িত হোক
.............................................................................................
পেট কাটলেন নার্স, ডাক্তার বললেন ‘ঝামেলা আছে সেলাই করে দাও’
.............................................................................................
বাড়ছে উত্তাপ-উত্তেজনা
.............................................................................................
নির্বাচনের পরিবেশ
.............................................................................................
ক্ষতিপূরণ পেতে ভোগান্তি
.............................................................................................
জননিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা
.............................................................................................
পরিবেশের প্রধান শত্রু প্লাস্টিক
.............................................................................................
বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে রোহিঙ্গারা
.............................................................................................
খুরা রোগের টিকা
.............................................................................................
চিকিৎসা বীমা
.............................................................................................
মাদকবিরোধী কর্মপরিকল্পনা
.............................................................................................
পানিও নিরাপদ নয়
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মাদকে মৃত্যুদন্ড
.............................................................................................
বিশ্বমানের চিকিৎসা
.............................................................................................
গুজবের পিছে ছুটছে মানুষ
.............................................................................................
মিয়ানমারের নতুন উসকানি
.............................................................................................
স্বর্ণ নীতিমালা
.............................................................................................
শিশু যখন শ্রমিক
.............................................................................................
বেহাল স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
সম্ভাবনার কাঁকড়া শিল্প
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
ক্ষতিকর এনার্জি ড্রিংকস
.............................................................................................
মির্জাপুরে কাঠ পোড়ানো চুল্লি
.............................................................................................
হুমকিতে তিন-চতুর্থাংশ মানুষ
.............................................................................................
বেহাল সড়ক ও সেতু
.............................................................................................
সর্বোচ্চ মৃত্যু বাংলাদেশে
.............................................................................................
নতুন মাদক খাত
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
সম্পর্কে নতুন মাত্রা
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল ২০১৮ বিতর্কিত ধারাগুলো পর্যালোচনা করুন
.............................................................................................
পরিবেশদূষণ বড় ঘাতক
.............................................................................................
ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়া
.............................................................................................
ভুলে ভরা এনআইডি
.............................................................................................
পদ্মার ভয়াবহ ভাঙন
.............................................................................................
বিপর্যস্ত স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
ক্যান্সার শনাক্তে প্রযুক্তি
.............................................................................................
নদীতে বিলীন হচ্ছে জনপদ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]