শুক্রবার , ১৭ রবিঃ আউয়াল ১৪৪১ | ১৫ নভেম্বর ২০১৯| ৩০ কার্তিক ১৪২৬ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   সম্পাদকীয়
মির্জাপুরে কাঠ পোড়ানো চুল্লি
  তারিখ: 01 - 10 - 2018

বাংলাদেশে শুধু পরিবেশদূষণের কারণে সৃষ্ট নানা রোগে বছরে ৮০ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়। এই হিসাব উঠে এসেছে বিশ্বব্যাংক পরিচালিত এক গবেষণায়। এ ছাড়া প্রতিবছর আক্রান্ত হয় কয়েক লাখ মানুষ। মারা না গেলেও রোগ-যন্ত্রণা ভোগ করতে হয় বহু মানুষকে। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, শ্বাসকষ্টজনিত রোগের প্রাদুর্ভাব অনেক বেড়ে গেছে। তার পরও কি আমাদের হুঁশ ফিরছে? পরিবেশ ও বন রক্ষায় আমরা কি সামান্যতম আন্তরিকতা দেখাচ্ছি? সারা দেশেই অবাধে ধ্বংস হচ্ছে বন। বনের পাশে, এমনকি বনের মধ্যেও গড়ে উঠছে দেদার করাতকল, ইটভাটা, কাঠ পোড়ানোর নানা ধরনের চুল্লি। প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে দেখা যায়, শুধু মির্জাপুরেই সংরক্ষিত বনাঞ্চলে ও তার আশপাশে ৩৩টি চুল্লি রয়েছে, যেগুলোতে কাঠ পুড়িয়ে কয়লা বানানো হয়। আবার বনের জমি দখল করে বানানো হচ্ছে ঘরবাড়ি বা অন্যান্য স্থাপনা। যে বন বিভাগ এসব দেখভাল বা রক্ষা করার দায়িত্বে রয়েছে বাস্তবে দেখা যায় তাদেরই কিছু কর্মী অনৈতিক সুবিধা নিয়ে বন ধ্বংসকারী বা দখলকারীদের সঙ্গে হাত মেলাচ্ছে।
সুস্থ পরিবেশের জন্য কোনো দেশে কমপক্ষে ২৫ শতাংশ বনভূমি থাকা জরুরি। ধারণা করা হয়, বাংলাদেশে বনভূমির পরিমাণ ৫ শতাংশের নিচে নেমে গেছে। প্রাকৃতিক বনের পরিমাণ আরো অনেক কম। বিশেষজ্ঞরা ধারণা করছেন, এভাবে চললে কয়েক দশকের মধ্যে বাংলাদেশ বনশূন্য হয়ে যাবে। পঞ্চাশের দশকেও মধুপুর বনাঞ্চলে বাঘের অবাধ বিচরণ ছিল। ছিল বুনো মোষ, গয়ালসহ আরো অনেক বন্য প্রাণী। স্বাধীনতার পরও ভাওয়াল-মধুপুরে বনের যে বিস্তৃতি ছিল, বন যতটা গহিন ছিল তার প্রায় কিছুই নেই এখন। অতি সামান্য যেটুকু অবশেষ কোনো রকমে টিকে আছে, তা-ও এভাবে শেষ হয়ে যাবে? কয়েক বছর আগের এক প্রতিবেদনে দেখা যায়, শুধু কক্সবাজার জেলায়ই সংরক্ষিত বনাঞ্চলগুলোর পাশে বা কোথাও কোথাও বনের পেটের মধ্যে প্রায় দুই ডজন ইটভাটা ছিল। এখন সম্ভবত সংখ্যা আরো বেড়েছে। অভিযোগ আছে, এদের বেশির ভাগই দেখানোর জন্য ভাটায় কিছু কয়লা জমিয়ে রাখে, কিন্তু ইট পোড়ায় কাঠ দিয়ে। পাহাড় কেটে মাটি নেয়। বৃহত্তর চট্টগ্রাম ও সিলেটে বনাঞ্চলের পাশে এ রকম কয়েক শ ইটভাটা পাওয়া যাবে। অথচ আইনে আছে, সংরক্ষিত বনাঞ্চলের সীমানার তিন কিলোমিটারের মধ্যে কোনো ইটভাটা থাকতে পারবে না। কিন্তু আইন বাস্তবায়ন করবে কে? বাস্তবায়নের দায়িত্বে যাঁরা থাকেন, তাঁরা কোনো না কোনো কারণে এ ক্ষেত্রে তাঁদের চোখ বন্ধ করে রাখেন।

সুস্থ জীবনের জন্য সুস্থ পরিবেশের কোনো বিকল্প নেই। আমরা চাই, মির্জাপুরে সংরক্ষিত বনাঞ্চলের পাশে যেসব চুল্লি ও কারখানা গড়ে উঠেছে, অবিলম্বে সেগুলো বন্ধ করা হোক। যারা অন্যায়ভাবে সেগুলো করেছে, তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হোক। একই সঙ্গে বন ও পরিবেশ রক্ষার দায়িত্বে যাঁরা আছেন, তাঁরা কেন এতদিন সেগুলোর বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেননি, তা তদন্ত করে প্রয়োজনে তাঁদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে হবে।

 





         
   আপনার মতামত দিন
     সম্পাদকীয়
দ্বিখন্ডিত শহরে দুর্ভোগও দ্বিগুণ
.............................................................................................
অভিন্ন নদীর পানিবণ্টন দ্রুততম সময়ে সমঝোতায় আসা প্রয়োজন
.............................................................................................
ঘরে ফিরছে মানুষ ঈদ যাত্রা নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করুন
.............................................................................................
নিরাপদ হোক ঈদযাত্রা
.............................................................................................
দুর্যোগে করণীয়
.............................................................................................
পুঁজিবাজারে দরপতন
.............................................................................................
কৃষিতে কৃষকের অরুচি সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরি
.............................................................................................
প্রকল্পে সরাসরি অর্থ ছাড় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
ঝুঁকিতে দুই কোটি শিশু এদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার ভয়ংকর পরিণতি থেকে রক্ষা পেতে হবে
.............................................................................................
বাড়ছে শ্রমিক অসন্তোষ মজুরি কমিশনের সুপারিশ আমলে নিন
.............................................................................................
রমজানে বাজারদর স্থিতিশীল রাখার ব্যবস্থা নিতে হবে
.............................................................................................
শিল্পায়নে বাধা
.............................................................................................
সড়কে মর্মান্তিক মৃত্যু ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল বন্ধ করুন
.............................................................................................
ডাক্তারদের প্রাইভেট প্র্যাকটিস প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়িত হোক
.............................................................................................
পেট কাটলেন নার্স, ডাক্তার বললেন ‘ঝামেলা আছে সেলাই করে দাও’
.............................................................................................
বাড়ছে উত্তাপ-উত্তেজনা
.............................................................................................
নির্বাচনের পরিবেশ
.............................................................................................
ক্ষতিপূরণ পেতে ভোগান্তি
.............................................................................................
জননিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা
.............................................................................................
পরিবেশের প্রধান শত্রু প্লাস্টিক
.............................................................................................
বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে রোহিঙ্গারা
.............................................................................................
খুরা রোগের টিকা
.............................................................................................
চিকিৎসা বীমা
.............................................................................................
মাদকবিরোধী কর্মপরিকল্পনা
.............................................................................................
পানিও নিরাপদ নয়
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মাদকে মৃত্যুদন্ড
.............................................................................................
বিশ্বমানের চিকিৎসা
.............................................................................................
গুজবের পিছে ছুটছে মানুষ
.............................................................................................
মিয়ানমারের নতুন উসকানি
.............................................................................................
স্বর্ণ নীতিমালা
.............................................................................................
শিশু যখন শ্রমিক
.............................................................................................
বেহাল স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
সম্ভাবনার কাঁকড়া শিল্প
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
ক্ষতিকর এনার্জি ড্রিংকস
.............................................................................................
মির্জাপুরে কাঠ পোড়ানো চুল্লি
.............................................................................................
হুমকিতে তিন-চতুর্থাংশ মানুষ
.............................................................................................
বেহাল সড়ক ও সেতু
.............................................................................................
সর্বোচ্চ মৃত্যু বাংলাদেশে
.............................................................................................
নতুন মাদক খাত
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
সম্পর্কে নতুন মাত্রা
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল ২০১৮ বিতর্কিত ধারাগুলো পর্যালোচনা করুন
.............................................................................................
পরিবেশদূষণ বড় ঘাতক
.............................................................................................
ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়া
.............................................................................................
ভুলে ভরা এনআইডি
.............................................................................................
পদ্মার ভয়াবহ ভাঙন
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা ডট কম
মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত ।

প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ মো: হারুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
বার্তা সম্পাদক: মো: শরিফুল ইসলাম রানা
সহ: সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বিশেষ প্রতিনিধি : মো: আকরাম খাঁন
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]