| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   সম্পাদকীয়
ক্ষতিকর এনার্জি ড্রিংকস
  তারিখ: 02 - 10 - 2018

দশক চারেক সময়ে দেশের মানুষের খাদ্যাভ্যাসে ব্যাপক পরিবর্তন ঘটেছে, বিশেষ করে শহরবাসী মানুষের খাদ্যাভ্যাসে। বাহারি মুখরোচক খাবারের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের পানীয়ের চাহিদা বর্ধমান। পরিবর্তিত খাদ্যাভ্যাস স্নায়ু, হৃদযন্ত্র, কিডনি, লিভার, পাকস্থলী ও ফুসফুসের ক্ষতি করছে আশঙ্কাজনক হারে। ডায়াবেটিস, মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ, কিডনি ও লিভারের বিভিন্ন রোগ, উদরপীড়া বাড়ার কারণ এসব খাবার ও পানীয়। আবার এনার্জি ড্রিংকস নামের বিভিন্ন পানীয় যৌনশক্তি লোপ ও মানসিক বিকারগ্রস্ততার কারণ হিসেবে হাজির হয়েছে বলে চিকিৎসক ও জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা শঙ্কা প্রকাশ করেছেন। কোমল পানীয়ের ক্ষতিকর দিক নিয়ে অনেক কথাই হয়েছে। এখন কথা হচ্ছে শক্তিবর্ধক পানীয় (এনার্জি ড্রিংকস) নিয়েও। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, এসব ভয়ানক উপদ্রব হিসেবে হাজির হয়েছে। বেশির ভাগই শরীরে নানা বিরূপ প্রভাব ফেলছে। তাঁরা এসব পানীয়ের উৎপাদন বা আমদানি এবং বাজারজাতকরণ বন্ধ করার কথা বলছেন। না হলে তরুণ প্রজন্মের স্বাস্থ্যঝুঁকি অনেক বেড়ে যাবে। এসব পানীয়তে ‘সিলডেনাফিল সাইট্রেট’ থাকে। উপাদানটি ভায়াগ্রা তৈরিতে ব্যবহার করা হয়। উচ্চ রক্তচাপের প্রভাব আছেÑএমন কেউ ‘সিলডেনাফিল সাইট্রেট’ পান বা সেবন করলে যখন তখন মৃত্যুর আশঙ্কা রয়েছে। বিশেষজ্ঞরা শক্তিবর্ধক পানীয়ের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা বাড়ানোর আহ্বানও জানিয়েছেন। এসব উৎপাদন, আমদানি ও বাজারজাতকরণের বিষয়ে আদালতের নির্দেশনাও রয়েছে।
দেশের বাজারে অনেক ধরনের এনার্জি ড্রিংকস পাওয়া যায়। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পরীক্ষা-নিরীক্ষায় এসবের মধ্যে বিপজ্জনক নানা উপাদান পাওয়া গেছে। অল্প বয়সীদের আকৃষ্ট করার জন্য দৃশ্যমাধ্যমে বাহারি বিজ্ঞাপন প্রচার করা হয়। বিজ্ঞাপনে যেসব তথ্য প্রচার করা হয়, সেসবের অধিকাংশই সত্য নয়। এসব পানীয়তে মাদক জাতীয় বা যৌন উত্তেজক উপাদান তো রয়েছেই, চিনির পরিমাণও অনিয়ন্ত্রিত। অভিযোগ রয়েছে, কার্বোনেটেড বেভারেজের মোড়কে বিভিন্ন ক্ষতিকর পণ্য উৎপাদন ও আমদানির অনুমতি দিচ্ছে রাষ্ট্রের মান নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)। এনার্জি ড্রিংকসের কোনো জাতীয় মান নির্ধারণ করেনি তারা। এ সুযোগে বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠানগুলো বিএসটিআই থেকে কার্বোনেটেড বেভারেজের লাইসেন্স নিয়ে এনার্জি ড্রিংকস বিক্রি করছে। বিএসটিআই এতদিন দেখেও দেখেনি। এখন তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সব ধরনের এনার্জি ড্রিংকসের বাজারজাতকরণ বন্ধ করা হবে। বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষও (বিএফএসএ) শিগগিরই এনার্জি ড্রিংকস উৎপাদকদের চিঠি দিয়ে উৎপাদন বন্ধ এবং বাজার থেকে তুলে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যেসব এনার্জি ড্রিংকস আমদানি করা হয়, সেগুলোর আমদানি বন্ধের জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও কাস্টমস কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়ে নিষেধাজ্ঞার কথা জানানো হবে। দেশের সরকারি নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান ও কর্তৃপক্ষের ওপর ভরসা রাখা কঠিন। নিত্য খাদ্যদ্রব্যের ভেজাল বন্ধের ব্যবস্থাই তারা যেখানে করতে পারে না, সেখানে আনন্দদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ বা নিষিদ্ধ করবে কিভাবে? তাদের মান নিয়ন্ত্রণের সূচক নিয়েও অভিযোগ রয়েছে। মাত্রা নির্ধারণ করার বা ক্ষতিকর উপাদান পরিহার করানোর ব্যাপারে আগে তাদের দৃঢ়চিত্ত হতে হবে। সব দিক বিবেচনা করে শক্তিবর্ধক পানীয় নিয়ন্ত্রণ বা নিষিদ্ধ করার ব্যবস্থা করা হবেÑএ আশা করি।





         
   আপনার মতামত দিন
     সম্পাদকীয়
নিরাপদ হোক ঈদযাত্রা
.............................................................................................
দুর্যোগে করণীয়
.............................................................................................
পুঁজিবাজারে দরপতন
.............................................................................................
কৃষিতে কৃষকের অরুচি সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরি
.............................................................................................
প্রকল্পে সরাসরি অর্থ ছাড় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
ঝুঁকিতে দুই কোটি শিশু এদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার ভয়ংকর পরিণতি থেকে রক্ষা পেতে হবে
.............................................................................................
বাড়ছে শ্রমিক অসন্তোষ মজুরি কমিশনের সুপারিশ আমলে নিন
.............................................................................................
রমজানে বাজারদর স্থিতিশীল রাখার ব্যবস্থা নিতে হবে
.............................................................................................
শিল্পায়নে বাধা
.............................................................................................
সড়কে মর্মান্তিক মৃত্যু ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল বন্ধ করুন
.............................................................................................
ডাক্তারদের প্রাইভেট প্র্যাকটিস প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়িত হোক
.............................................................................................
পেট কাটলেন নার্স, ডাক্তার বললেন ‘ঝামেলা আছে সেলাই করে দাও’
.............................................................................................
বাড়ছে উত্তাপ-উত্তেজনা
.............................................................................................
নির্বাচনের পরিবেশ
.............................................................................................
ক্ষতিপূরণ পেতে ভোগান্তি
.............................................................................................
জননিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা
.............................................................................................
পরিবেশের প্রধান শত্রু প্লাস্টিক
.............................................................................................
বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে রোহিঙ্গারা
.............................................................................................
খুরা রোগের টিকা
.............................................................................................
চিকিৎসা বীমা
.............................................................................................
মাদকবিরোধী কর্মপরিকল্পনা
.............................................................................................
পানিও নিরাপদ নয়
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মাদকে মৃত্যুদন্ড
.............................................................................................
বিশ্বমানের চিকিৎসা
.............................................................................................
গুজবের পিছে ছুটছে মানুষ
.............................................................................................
মিয়ানমারের নতুন উসকানি
.............................................................................................
স্বর্ণ নীতিমালা
.............................................................................................
শিশু যখন শ্রমিক
.............................................................................................
বেহাল স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
সম্ভাবনার কাঁকড়া শিল্প
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
ক্ষতিকর এনার্জি ড্রিংকস
.............................................................................................
মির্জাপুরে কাঠ পোড়ানো চুল্লি
.............................................................................................
হুমকিতে তিন-চতুর্থাংশ মানুষ
.............................................................................................
বেহাল সড়ক ও সেতু
.............................................................................................
সর্বোচ্চ মৃত্যু বাংলাদেশে
.............................................................................................
নতুন মাদক খাত
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
সম্পর্কে নতুন মাত্রা
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল ২০১৮ বিতর্কিত ধারাগুলো পর্যালোচনা করুন
.............................................................................................
পরিবেশদূষণ বড় ঘাতক
.............................................................................................
ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়া
.............................................................................................
ভুলে ভরা এনআইডি
.............................................................................................
পদ্মার ভয়াবহ ভাঙন
.............................................................................................
বিপর্যস্ত স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
ক্যান্সার শনাক্তে প্রযুক্তি
.............................................................................................
নদীতে বিলীন হচ্ছে জনপদ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]