| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   সম্পাদকীয়
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
  তারিখ: 03 - 10 - 2018

যেকোনো গণতান্ত্রিক দেশে মানুষের মৌলিক অধিকার, মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও সংবাদপত্রের স্বাধীনতা নিশ্চিত করা জরুরি। গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ ও চেতনারই অংশ এসব বিষয়। সংগত কারণে বাংলাদেশের সংবিধানও এই তিনটি বিষয়ের নিশ্চয়তা দিয়েছে। তার পরও সময়ে সময়ে এমন কিছু আইন করা হয় এবং এমন কিছু বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়, যা এই সংবিধানের পরিপন্থী। সম্প্রতি জাতীয় সংসদে পাস হওয়া ডিজিটাল নিরাপত্তা বিলকেও তেমনি একটি আইন হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। বিলটির খসড়া প্রকাশের পর থেকেই এর নির্দিষ্ট কিছু ধারা সম্পর্কে গণমাধ্যমসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ফোরাম থেকে ব্যাপক আপত্তি জানানো হয়েছিল। তা সত্ত্বেও বিলটি সংসদে পাস হওয়ায় গণমাধ্যমকর্মীরা প্রতিবাদ জানাতে রাস্তায় নেমে আসে। এ অবস্থায় গত রবিবার তিনজন মন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রীর একজন উপদেষ্টা সম্পাদক পরিষদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন। দীর্ঘ প্রায় তিন ঘণ্টা আলোচনার পর আইনমন্ত্রী সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, সম্পাদক পরিষদের আপত্তির কারণগুলো তাঁরা শুনেছেন। এরপর মন্ত্রিসভার বৈঠকে এগুলো নিয়ে কথা হবে। আবারও সম্পাদক পরিষদের সঙ্গে তাঁরা বসবেন। পর্যায়ক্রমে সংবাদপত্রের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অন্যান্য সংগঠনের নেতাদের সঙ্গেও আলোচনা করবেন এবং তাঁরা একটি গ্রহণযোগ্য সমাধানে পৌঁছার চেষ্টা করবেন।
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিলের মোট ৯টি ধারা (৮, ২১, ২৫, ২৮, ২৯, ৩১, ৩২, ৪৩ ও ৫৩) নিয়ে সংবাদকর্মীদের ব্যাপক আপত্তি রয়েছে। সম্পাদক পরিষদ এই ধারাগুলোকে স্বাধীন সাংবাদিকতার জন্য হুমকি হিসেবে উল্লেখ করেছেন। সারা দুনিয়ার মতো বাংলাদেশেও সাংবাদিকতার একটি মান তৈরি হয়েছে। সংবাদ সংগ্রহের কিছু নিয়ম, নীতি, পন্থা ও প্রবণতা স্বীকৃতি পেয়েছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা বিলের কিছু ধারায় প্রচলিত সেসব পন্থাকে অস্বীকার করা হয়েছে। সাংবাদিকদের সবচেয়ে বেশি আপত্তি ছিল ৩২ ধারা নিয়ে। সেই ৩২ ধারা প্রায় অবিকৃত রেখেই আইনটি পাস করা হয়েছে। সঙ্গে যোগ করা হয়েছে ঔপনিবেশিক আমলের অফিশিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট। সেই মোতাবেক ৩২(১) ধারায় বলা হয়েছে, ‘যদি কোনো ব্যক্তি অফিশিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টের আওতাভুক্ত অপরাধ কম্পিউটার, ডিজিটাল ডিভাইস, কম্পিউটার নেটওয়ার্ক, ডিজিটাল নেটওয়ার্ক বা অন্য কোনো ইলেকট্রনিক মাধ্যমে সংঘটন করেন বা করিতে সহায়তা করেন তাহা হইলে তিনি অনধিক ১৪ বছরের কারাদ- বা অনধিক ২৫ লাখ টাকা অর্থদ- বা উভয় দ-ে দ-িত হইবেন।’ আইনের ৩২(২) ধারা অনুযায়ী দ্বিতীয়বার কেউ একই অপরাধ করলে ‘যাবজ্জীবন কারাদ- বা অনধিক এক কোটি টাকা অর্থদ- বা উভয় দ-ে দ-িত হইবেন।’ সংবাদপত্রসংশ্লিষ্টরা মনে করেন, এরপর কোনো সাংবাদিকের পক্ষেই সরকারি কোনো প্রতিষ্ঠানের খবর সংগ্রহ করা প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়বে। তাতে কার স্বার্থ উপেক্ষিত হবে এবং কারা লাভবান হবে? বিলটিতে এখনো রাষ্ট্রপতি স্বাক্ষর করেননি বিধায় মন্ত্রিসভার বৈঠকে আলাপ-আলোচনার ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া যেতে পারে বলেই মনে করছেন সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা। জাতীয় সংসদও বিলটি পুনর্বিবেচনা করতে পারে। আমরা আশা করি, স্বাধীন সাংবাদিকতার কণ্ঠ রোধ হয় এমন যেকোনো পদক্ষেপ নেওয়া থেকে সরকার বিরত থাকবে।





         
   আপনার মতামত দিন
     সম্পাদকীয়
নিরাপদ হোক ঈদযাত্রা
.............................................................................................
দুর্যোগে করণীয়
.............................................................................................
পুঁজিবাজারে দরপতন
.............................................................................................
কৃষিতে কৃষকের অরুচি সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরি
.............................................................................................
প্রকল্পে সরাসরি অর্থ ছাড় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
ঝুঁকিতে দুই কোটি শিশু এদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার ভয়ংকর পরিণতি থেকে রক্ষা পেতে হবে
.............................................................................................
বাড়ছে শ্রমিক অসন্তোষ মজুরি কমিশনের সুপারিশ আমলে নিন
.............................................................................................
রমজানে বাজারদর স্থিতিশীল রাখার ব্যবস্থা নিতে হবে
.............................................................................................
শিল্পায়নে বাধা
.............................................................................................
সড়কে মর্মান্তিক মৃত্যু ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল বন্ধ করুন
.............................................................................................
ডাক্তারদের প্রাইভেট প্র্যাকটিস প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়িত হোক
.............................................................................................
পেট কাটলেন নার্স, ডাক্তার বললেন ‘ঝামেলা আছে সেলাই করে দাও’
.............................................................................................
বাড়ছে উত্তাপ-উত্তেজনা
.............................................................................................
নির্বাচনের পরিবেশ
.............................................................................................
ক্ষতিপূরণ পেতে ভোগান্তি
.............................................................................................
জননিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা
.............................................................................................
পরিবেশের প্রধান শত্রু প্লাস্টিক
.............................................................................................
বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে রোহিঙ্গারা
.............................................................................................
খুরা রোগের টিকা
.............................................................................................
চিকিৎসা বীমা
.............................................................................................
মাদকবিরোধী কর্মপরিকল্পনা
.............................................................................................
পানিও নিরাপদ নয়
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মাদকে মৃত্যুদন্ড
.............................................................................................
বিশ্বমানের চিকিৎসা
.............................................................................................
গুজবের পিছে ছুটছে মানুষ
.............................................................................................
মিয়ানমারের নতুন উসকানি
.............................................................................................
স্বর্ণ নীতিমালা
.............................................................................................
শিশু যখন শ্রমিক
.............................................................................................
বেহাল স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
সম্ভাবনার কাঁকড়া শিল্প
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
ক্ষতিকর এনার্জি ড্রিংকস
.............................................................................................
মির্জাপুরে কাঠ পোড়ানো চুল্লি
.............................................................................................
হুমকিতে তিন-চতুর্থাংশ মানুষ
.............................................................................................
বেহাল সড়ক ও সেতু
.............................................................................................
সর্বোচ্চ মৃত্যু বাংলাদেশে
.............................................................................................
নতুন মাদক খাত
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
সম্পর্কে নতুন মাত্রা
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল ২০১৮ বিতর্কিত ধারাগুলো পর্যালোচনা করুন
.............................................................................................
পরিবেশদূষণ বড় ঘাতক
.............................................................................................
ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়া
.............................................................................................
ভুলে ভরা এনআইডি
.............................................................................................
পদ্মার ভয়াবহ ভাঙন
.............................................................................................
বিপর্যস্ত স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
ক্যান্সার শনাক্তে প্রযুক্তি
.............................................................................................
নদীতে বিলীন হচ্ছে জনপদ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]