| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   সম্পাদকীয়
জননিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা
  তারিখ: 22 - 10 - 2018

দেশে গুম-খুনের ঘটনা ক্রমেই বেড়ে চলেছে। বাড়ছে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্রের ব্যবহার। সাধারণ মানুষ তো বটেই, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীগুলোর সদস্যরাও আক্রান্ত হচ্ছেন। তার ওপর সামনে রয়েছে জাতীয় নির্বাচন। সাধারণভাবে দেখা যায়, এ সময় অবৈধ অস্ত্রের ব্যবহার অনেক বেড়ে যায়। সাম্প্রতিক কিছু ঘটনায় দেখা যায়, জঙ্গি-সন্ত্রাসীরাও এই সুযোগে আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠার চেষ্টা করছে। চট্টগ্রামের মিরসরাই, নরসিংদীর মাধবদীসহ বেশ কয়েকটি জঙ্গি আস্তানায় পুলিশ অভিযান চালিয়েছে। গ্রেপ্তার হয়েছে বেশ কিছু জঙ্গি। তাদের স্বীকারোক্তিতেও উঠে এসেছে এমন তথ্য। অস্ত্র ব্যবসায়ীরাও তৎপর হয়ে উঠেছে। গত ৭ অক্টোবর কক্সবাজার থেকে ঢাকায় আসার পথে গ্রেপ্তার হয়েছে দুই অস্ত্র ব্যবসায়ী। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে আটটি আগ্নেয়াস্ত্র। সীমান্ত পথেও অস্ত্র আসছে বলে প্রকাশিত খবর থেকে জানা যায়। গোয়েন্দা তথ্যেও জানা যায়, অনেক চোরাচালানকারী এখন মাদক ও অস্ত্রের চোরাচালান একসঙ্গেই করছে। এমন পরিস্থিতিতে শিগগিরই অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে সাঁড়াশি অভিযান অত্যন্ত জরুরি। প্রকাশিত খবর থেকে জানা যায়, গোয়েন্দা সংস্থাগুলো এরইমধ্যে অস্ত্রধারী, চোরাকারবারি ও অস্ত্র ব্যবসায়ীদের তালিকা তৈরির কাজ অনেক দূর এগিয়ে নিয়েছে।
পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, সীমান্ত পথে চোরাচালান বর্তমানে ভয়াবহ পর্যায়ে চলে গেছে। সারা দেশে মাদকের ছড়াছড়ি থেকেও তা কিছুটা অনুমান করা যায়। প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে আসা মাদকের সঙ্গে আগ্নেয়াস্ত্র, গোলাবারুদ এবং বিস্ফোরকদ্রব্যও আসছে। সীমান্ত রক্ষায় আমাদের আয়োজন ও সুযোগ-সুবিধার ক্ষেত্রে যেমন ঘাটতি রয়েছে, তেমনি রয়েছে সড়কসহ অবকাঠামোগত প্রতিবন্ধকতা। তদুপরি সংশ্লিষ্ট বাহিনীগুলোর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগও কম নয়। ফলে কার্যকর চোরাচালান প্রতিরোধের কাজটি খুব একটা সফল হচ্ছে না। দ্রুত এই পরিস্থিতির উন্নয়ন করতে হবে। ভারতের সঙ্গে সাম্প্রতিককালে আমাদের সবচেয়ে সুসম্পর্ক বিরাজ করছে। আঞ্চলিকভাবে সন্ত্রাস দমনের ব্যাপারে নানা ধরনের ঘোষিত-অঘোষিত সমঝোতা রয়েছে। অথচ পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ থেকে জানা যায়, দেশে আসা অবৈধ অস্ত্র ও গোলাবারুদের একটা বড় অংশই আসে ভারতীয় সীমান্ত পথে। অনেকেই মনে করেন, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সঙ্গে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের কার্যকর সহযোগিতাই পারে অস্ত্র চোরাচালান উল্লেখযোগ্য পরিমাণে কমিয়ে আনতে। দ্রুত এই সহযোগিতা বাড়ানোর উদ্যোগ নিতে হবে। দেশের মধ্যেও এখন অস্ত্র তৈরি হচ্ছে বলে খবর পাওয়া যায়। এসব প্রচেষ্টা অঙ্কুরেই বিনাশ করতে হবে। তা সত্ত্বেও দেশের ভেতরে যে পরিমাণ অবৈধ অস্ত্র ছড়িয়ে পড়েছে, তা নিয়ে মানুষ উদ্বিগ্ন। তাই এসব অস্ত্র উদ্ধারে সর্বাত্মক অভিযান পরিচালনা করতে হবে। এ ব্যাপারে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত সব বাহিনীকে কাজে লাগাতে হবে। প্রয়োজনে এই যৌথ অভিযানে সেনাবাহিনীরও সহযোগিতা নেওয়া যেতে পারে।
আমরা চাই না, জাতীয় নির্বাচনের আগে দেশে কোনো ধরনের অস্থিতিশীলতা তৈরি হোক। তাই জননিরাপত্তার বিষয়টিতে সরকারকে সবচেয়ে বেশি মনোযোগ দিতে হবে। আমরা আশা করি, অবৈধ অস্ত্রের ঝনঝনানি বন্ধ করতে সরকার দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা নেবে।





         
   আপনার মতামত দিন
     সম্পাদকীয়
নিরাপদ হোক ঈদযাত্রা
.............................................................................................
দুর্যোগে করণীয়
.............................................................................................
পুঁজিবাজারে দরপতন
.............................................................................................
কৃষিতে কৃষকের অরুচি সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরি
.............................................................................................
প্রকল্পে সরাসরি অর্থ ছাড় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
ঝুঁকিতে দুই কোটি শিশু এদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার ভয়ংকর পরিণতি থেকে রক্ষা পেতে হবে
.............................................................................................
বাড়ছে শ্রমিক অসন্তোষ মজুরি কমিশনের সুপারিশ আমলে নিন
.............................................................................................
রমজানে বাজারদর স্থিতিশীল রাখার ব্যবস্থা নিতে হবে
.............................................................................................
শিল্পায়নে বাধা
.............................................................................................
সড়কে মর্মান্তিক মৃত্যু ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল বন্ধ করুন
.............................................................................................
ডাক্তারদের প্রাইভেট প্র্যাকটিস প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়িত হোক
.............................................................................................
পেট কাটলেন নার্স, ডাক্তার বললেন ‘ঝামেলা আছে সেলাই করে দাও’
.............................................................................................
বাড়ছে উত্তাপ-উত্তেজনা
.............................................................................................
নির্বাচনের পরিবেশ
.............................................................................................
ক্ষতিপূরণ পেতে ভোগান্তি
.............................................................................................
জননিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা
.............................................................................................
পরিবেশের প্রধান শত্রু প্লাস্টিক
.............................................................................................
বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে রোহিঙ্গারা
.............................................................................................
খুরা রোগের টিকা
.............................................................................................
চিকিৎসা বীমা
.............................................................................................
মাদকবিরোধী কর্মপরিকল্পনা
.............................................................................................
পানিও নিরাপদ নয়
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মাদকে মৃত্যুদন্ড
.............................................................................................
বিশ্বমানের চিকিৎসা
.............................................................................................
গুজবের পিছে ছুটছে মানুষ
.............................................................................................
মিয়ানমারের নতুন উসকানি
.............................................................................................
স্বর্ণ নীতিমালা
.............................................................................................
শিশু যখন শ্রমিক
.............................................................................................
বেহাল স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
সম্ভাবনার কাঁকড়া শিল্প
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
ক্ষতিকর এনার্জি ড্রিংকস
.............................................................................................
মির্জাপুরে কাঠ পোড়ানো চুল্লি
.............................................................................................
হুমকিতে তিন-চতুর্থাংশ মানুষ
.............................................................................................
বেহাল সড়ক ও সেতু
.............................................................................................
সর্বোচ্চ মৃত্যু বাংলাদেশে
.............................................................................................
নতুন মাদক খাত
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
সম্পর্কে নতুন মাত্রা
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল ২০১৮ বিতর্কিত ধারাগুলো পর্যালোচনা করুন
.............................................................................................
পরিবেশদূষণ বড় ঘাতক
.............................................................................................
ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়া
.............................................................................................
ভুলে ভরা এনআইডি
.............................................................................................
পদ্মার ভয়াবহ ভাঙন
.............................................................................................
বিপর্যস্ত স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
ক্যান্সার শনাক্তে প্রযুক্তি
.............................................................................................
নদীতে বিলীন হচ্ছে জনপদ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]