রবিবার , ১০ রবিঃ সানি ১৪৪১ | ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   সম্পাদকীয়
রমজানে বাজারদর স্থিতিশীল রাখার ব্যবস্থা নিতে হবে
  তারিখ: 05 - 04 - 2019

রমজান মাস শুরুর আগেই দেশের বাজারে রোজাদারদের জন্য আবশ্যক বিভিন্ন পণ্যের দাম বাড়ার লক্ষণ দেখা দেয়। অতঃপর পুরো মাসে বর্ধিত মূল্যে সেসব পণ্য কিনতে হয়। অথচ মধ্যপ্রাচ্যে এবং বিশ্বের অন্যত্র মুসলিমপ্রধান দেশগুলোতে রোজার সময় জরুরি পণ্যগুলোর দাম কমে; না কমলেও স্থির থাকে। রমজানে আবশ্যক পণ্যের দাম বাড়ানোর কারণ হিসেবে আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বাড়ার কথা বলে ব্যবসায়ীরা। তবে সার্বিক বিচারে তাদের এ যুক্তি গ্রহণযোগ্য নয়।
সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, আন্তর্জাতিক বাজারে গত ছয় মাসে তেল, চিনি, ছোলা, পেঁয়াজ, ডালসহ বেশ কিছু পণ্যের দরে তেমন অস্থিরতা দেখা যায়নি। বরং কিছু পণ্যের দাম পড়েছে। দেশে এসবের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে; ফলে স্বাভাবিক আছে এসবের বাজারদর। কিন্তু অসাধু ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট রমজান মাসে দর বাড়িয়ে দিতে পারে। এর মধ্যে মজুদ ও সরবরাহ ভালো থাকা সত্ত্বেও দেশি পেঁয়াজের দাম কেজিপ্রতি পাঁচ টাকা বেড়েছে। এবার দেশে পেঁয়াজের ফলন খুবই ভালো হয়েছে। আমদানীকৃত পেঁয়াজের দামও স্বাভাবিক। তাহলে দেশি পেঁয়াজের দাম বাড়ার কারণ কী? অসাধু ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট সক্রিয় হয়ে উঠেছে, এ মূল্যবৃদ্ধি তারই লক্ষণ। শুধু পেঁয়াজ নয়, মাছ, মাংস, ডিম ও সবজির দাম বেড়েছে।
বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাবে বছরে ভোজ্য তেলের চাহিদা ১৮ লাখ টন; গত ৯ মার্চ পর্যন্ত আমদানি করা হয়েছে ১৪.৬৯ লাখ টন। আরো ১৭.৬৬ লাখ টন আমদানি করা হবে। সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা বলছে, এখন আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বাড়লেও স্থানীয় বাজারে সয়াবিনের দাম বাড়ার কারণ নেই। রমজানের চাহিদা মেটানোর জন্য প্রয়োজনীয় মজুদ রয়েছে। বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের হিসাবে বছরে চিনির চাহিদা ১৮ লাখ টন। ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ৩৬ হাজার টন উৎপাদিত হয়েছে; ৯ মার্চ পর্যন্ত আমদানি করা হয়েছে ১০.৭৩ লাখ টন; আরো ১২.৪৭ লাখ টন চিনি আমদানি করা হবে। চিনি ব্যবসায়ীরাও বলছে, মজুদ পর্যাপ্ত, দাম বাড়ার কারণ নেই। উল্লেখ্য, গত বছরের তুলনায় দুটি পণ্যের আমদানিমূল্য কমেছে। রমজানে বেগুন, মরিচসহ কিছু পণ্যের দাম স্থির থাকে না। ব্যবসায়ীদের বক্তব্য, এসবের সরবরাহ ঠিক থাকে না; ফলে দাম বাড়ে। রমজানে মাছ, মাংস, আদা-রসুনের দাম স্থির থাকবে কি না তাও নিশ্চিত নয়।
বাজার বিশ্লেষকদের মতে, দরে অস্থিরতা সৃষ্টি করে অসাধু ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট। তারা এ সুযোগ পায় বাজার তদারকি সংস্থা যথাসময়ে যথাকাজ করে না বলে; দুর্নীতি-অনিয়মে জড়িত থাকে বলে। ভোক্তা আচরণও একটি কারণ। সিন্ডিকেট অকেজো রাখতে পারলে দর নিয়ন্ত্রিত রাখা সম্ভব। প্রধানমন্ত্রী বাজার স্থির রাখার আহ্বান জানিয়েছেন। আশা করি তদারককারীরা যথাযথ ব্যবস্থা নিয়ে রমজানে বাজার স্থিতিশীল রাখার ব্যাপারে আন্তরিক হবে।





         
   আপনার মতামত দিন
     সম্পাদকীয়
মানবপাচারের ভয়ঙ্কর ফাঁদ রঙিন স্বপ্ন দুঃস্বপ্নে পরিণত
.............................................................................................
আসছে শীতে পথশিশুদের পাশে দাঁড়াই
.............................................................................................
দ্বিখন্ডিত শহরে দুর্ভোগও দ্বিগুণ
.............................................................................................
অভিন্ন নদীর পানিবণ্টন দ্রুততম সময়ে সমঝোতায় আসা প্রয়োজন
.............................................................................................
ঘরে ফিরছে মানুষ ঈদ যাত্রা নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করুন
.............................................................................................
নিরাপদ হোক ঈদযাত্রা
.............................................................................................
দুর্যোগে করণীয়
.............................................................................................
পুঁজিবাজারে দরপতন
.............................................................................................
কৃষিতে কৃষকের অরুচি সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরি
.............................................................................................
প্রকল্পে সরাসরি অর্থ ছাড় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
ঝুঁকিতে দুই কোটি শিশু এদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার ভয়ংকর পরিণতি থেকে রক্ষা পেতে হবে
.............................................................................................
বাড়ছে শ্রমিক অসন্তোষ মজুরি কমিশনের সুপারিশ আমলে নিন
.............................................................................................
রমজানে বাজারদর স্থিতিশীল রাখার ব্যবস্থা নিতে হবে
.............................................................................................
শিল্পায়নে বাধা
.............................................................................................
সড়কে মর্মান্তিক মৃত্যু ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল বন্ধ করুন
.............................................................................................
ডাক্তারদের প্রাইভেট প্র্যাকটিস প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়িত হোক
.............................................................................................
পেট কাটলেন নার্স, ডাক্তার বললেন ‘ঝামেলা আছে সেলাই করে দাও’
.............................................................................................
বাড়ছে উত্তাপ-উত্তেজনা
.............................................................................................
নির্বাচনের পরিবেশ
.............................................................................................
ক্ষতিপূরণ পেতে ভোগান্তি
.............................................................................................
জননিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা
.............................................................................................
পরিবেশের প্রধান শত্রু প্লাস্টিক
.............................................................................................
বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে রোহিঙ্গারা
.............................................................................................
খুরা রোগের টিকা
.............................................................................................
চিকিৎসা বীমা
.............................................................................................
মাদকবিরোধী কর্মপরিকল্পনা
.............................................................................................
পানিও নিরাপদ নয়
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মাদকে মৃত্যুদন্ড
.............................................................................................
বিশ্বমানের চিকিৎসা
.............................................................................................
গুজবের পিছে ছুটছে মানুষ
.............................................................................................
মিয়ানমারের নতুন উসকানি
.............................................................................................
স্বর্ণ নীতিমালা
.............................................................................................
শিশু যখন শ্রমিক
.............................................................................................
বেহাল স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
সম্ভাবনার কাঁকড়া শিল্প
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
ক্ষতিকর এনার্জি ড্রিংকস
.............................................................................................
মির্জাপুরে কাঠ পোড়ানো চুল্লি
.............................................................................................
হুমকিতে তিন-চতুর্থাংশ মানুষ
.............................................................................................
বেহাল সড়ক ও সেতু
.............................................................................................
সর্বোচ্চ মৃত্যু বাংলাদেশে
.............................................................................................
নতুন মাদক খাত
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
সম্পর্কে নতুন মাত্রা
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল ২০১৮ বিতর্কিত ধারাগুলো পর্যালোচনা করুন
.............................................................................................
পরিবেশদূষণ বড় ঘাতক
.............................................................................................
ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়া
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা ডট কম
মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত ।

প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ মো: হারুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
বার্তা সম্পাদক: মো: শরিফুল ইসলাম রানা
সহ: সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বিশেষ প্রতিনিধি : মো: আকরাম খাঁন
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]