| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   সম্পাদকীয়
বাড়ছে শ্রমিক অসন্তোষ মজুরি কমিশনের সুপারিশ আমলে নিন
  তারিখ: 06 - 04 - 2019

মজুরি কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নের দাবিতে খুলনা-যশোর অঞ্চলের ৯টিসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলের শ্রমিকদের ৭২ ঘণ্টার ধর্মঘট-অবরোধের তৃতীয় দিনে খুলনায় আন্দোলনকারীরা পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়েছে। শ্রমিকদের অবরোধের কারণে বৃহস্পতিবারও যান চলাচল ও ট্রেন চলাচল ব্যাহত হয়েছে খুলনা অঞ্চলে। নরসিংদীতে পাটকল শ্রমিকরা বৃহস্পতিবার রেললাইনে আগুন দিয়ে ট্রেন অবরোধ করে। এ সময় ট্রেনের অন্তত ৫০টি দরজা-জানালার কাচ ভাঙচুর করে। রাজশাহী ও ডেমরায়ও শ্রমিকরা রাস্তা অবরোধ করে। শ্রমিকদের পক্ষ থেকে মজুরি কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নসহ ৯ দফা দাবি মেনে নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলা হয়েছে, দাবি মানা না হলে আগামি দিনে আরো কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে। ওদিকে গত বুধবার সাভারে ঢাকা রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চলে একটি কারখানায় শ্রমিক অসন্তোষের জের ধরে ৪৭টি কারখানায় ছুটি ঘোষণা করা হয়। নারায়ণগঞ্জে দুটি কারখানা খুলে দেওয়ার দাবিতে বিক্ষোভ করেছে শ্রমিকরা। বাংলাদেশ পাটকল শ্রমিক লীগের ডাকে ৭২ ঘণ্টার কর্মসূচি গত তিন দিনে পালিত হয়েছে। শ্রমিকদের দাবির মধ্যে ছিল সরকার ঘোষিত জাতীয় মজুরি ও উৎপাদনশীলতা কমিশন ২০১৫-এর সুপারিশ বাস্তবায়ন, অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের প্রভিডেন্ট ফান্ড, গ্র্যাচুইটি ও মৃত শ্রমিকদের বীমার বকেয়া প্রদান, বরখাস্ত করা শ্রমিকদের কাজে পুনর্বহাল, শ্রমিক-কর্মচারীদের নিয়োগ স্থায়ী করা, মৌসুমে পাট ক্রয়ে অর্থ বরাদ্দ, উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে মিলগুলোকে পর্যায়ক্রমে বিএমআরই করা। সরকারের পক্ষ থেকে এসব দাবি পূরণের আশ্বাসও ছিল। এ ছাড়া জাতীয় মজুরি ও উৎপাদনশীলতা কমিশন তো রাষ্ট্রায়ত্ত শিল্পের শ্রমিকদের সর্বনিম্ন মজুরি আট হাজার ৩০০ ও সর্বোচ্চ ১১ হাজার ২০০ টাকা নির্ধারণ করে নতুন মজুরিকাঠামো সুপারিশ করেছিল, তা মন্ত্রিসভায় অনুমোদিতও হয়েছিল। সরকারি কর্মচারীদের ২০১৫ সালের বেতন স্কেলের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই এই মজুরি স্কেল করা হয়। আলাদা শিফট ডিউটি ভাতা, রাতের ডিউটির জন্য নাইট শিফট ডিউটি ভাতা ও নববর্ষ ভাতাসহ আরো অনেক সুযোগ-সুবিধার উল্লেখ ছিল জাতীয় মজুরি ও উৎপাদনশীলতা কমিশনের সুপারিশে।
এসব দাবি আদায়ের জন্য এখন শ্রমিকদের পথে নামতে হবে কেন? বিশেষ করে পাট নিয়ে যখন বাংলাদেশ নতুন করে স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছে, তখন কেন পাটকল শ্রমিকদের বেতন-ভাতার দাবিতে ধর্মঘটে যেতে হয়? দেশের রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলগুলো লাভজনক নয়, এমন কথা সব সময় বলা হয়ে থাকে। অন্যান্য দেশে, এমনকি পার্শ্ববর্তী দেশেও যদি পাটকল লাভজনক হতে পারে, তাহলে বাংলাদেশে হবে না কেন? পাটকলের আধুনিকায়ন নিয়ে কি বাংলাদেশে কোনো চেষ্টা হয়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সংগতি রেখে কিভাবে পাটপণ্য উৎপাদন করা যায়, তা নিয়ে কি কোনো জরিপ আছে? এসব বিষয় নিয়ে ভাবার সময় এসেছে। তার আগে শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি পূরণ, সরকার ঘোষিত জাতীয় মজুরি ও উৎপাদনশীলতা কমিশন ২০১৫-এর সুপারিশ বাস্তবায়নে ব্যবস্থা নিন।

 





         
   আপনার মতামত দিন
     সম্পাদকীয়
নিরাপদ হোক ঈদযাত্রা
.............................................................................................
দুর্যোগে করণীয়
.............................................................................................
পুঁজিবাজারে দরপতন
.............................................................................................
কৃষিতে কৃষকের অরুচি সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরি
.............................................................................................
প্রকল্পে সরাসরি অর্থ ছাড় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
ঝুঁকিতে দুই কোটি শিশু এদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার ভয়ংকর পরিণতি থেকে রক্ষা পেতে হবে
.............................................................................................
বাড়ছে শ্রমিক অসন্তোষ মজুরি কমিশনের সুপারিশ আমলে নিন
.............................................................................................
রমজানে বাজারদর স্থিতিশীল রাখার ব্যবস্থা নিতে হবে
.............................................................................................
শিল্পায়নে বাধা
.............................................................................................
সড়কে মর্মান্তিক মৃত্যু ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল বন্ধ করুন
.............................................................................................
ডাক্তারদের প্রাইভেট প্র্যাকটিস প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়িত হোক
.............................................................................................
পেট কাটলেন নার্স, ডাক্তার বললেন ‘ঝামেলা আছে সেলাই করে দাও’
.............................................................................................
বাড়ছে উত্তাপ-উত্তেজনা
.............................................................................................
নির্বাচনের পরিবেশ
.............................................................................................
ক্ষতিপূরণ পেতে ভোগান্তি
.............................................................................................
জননিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা
.............................................................................................
পরিবেশের প্রধান শত্রু প্লাস্টিক
.............................................................................................
বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে রোহিঙ্গারা
.............................................................................................
খুরা রোগের টিকা
.............................................................................................
চিকিৎসা বীমা
.............................................................................................
মাদকবিরোধী কর্মপরিকল্পনা
.............................................................................................
পানিও নিরাপদ নয়
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মাদকে মৃত্যুদন্ড
.............................................................................................
বিশ্বমানের চিকিৎসা
.............................................................................................
গুজবের পিছে ছুটছে মানুষ
.............................................................................................
মিয়ানমারের নতুন উসকানি
.............................................................................................
স্বর্ণ নীতিমালা
.............................................................................................
শিশু যখন শ্রমিক
.............................................................................................
বেহাল স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
সম্ভাবনার কাঁকড়া শিল্প
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
ক্ষতিকর এনার্জি ড্রিংকস
.............................................................................................
মির্জাপুরে কাঠ পোড়ানো চুল্লি
.............................................................................................
হুমকিতে তিন-চতুর্থাংশ মানুষ
.............................................................................................
বেহাল সড়ক ও সেতু
.............................................................................................
সর্বোচ্চ মৃত্যু বাংলাদেশে
.............................................................................................
নতুন মাদক খাত
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
সম্পর্কে নতুন মাত্রা
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল ২০১৮ বিতর্কিত ধারাগুলো পর্যালোচনা করুন
.............................................................................................
পরিবেশদূষণ বড় ঘাতক
.............................................................................................
ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়া
.............................................................................................
ভুলে ভরা এনআইডি
.............................................................................................
পদ্মার ভয়াবহ ভাঙন
.............................................................................................
বিপর্যস্ত স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
ক্যান্সার শনাক্তে প্রযুক্তি
.............................................................................................
নদীতে বিলীন হচ্ছে জনপদ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]