| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   জাতীয়
বাধ্য না হলে বাণিজ্যিক ও আবাসিক ভবন মালিকদের বীমায় আগ্রহ নেই
  তারিখ: 07 - 04 - 2019

 দেশের বেশিরভাগ বাণিজ্যিক ও আবাসিক ভবনের কোনো বীমা নেই। তবে ভবন নির্মাণের জন্য ব্যাংক থেকে ঋণ পেতে ব্যাংকের শর্ত মোতাবেক ভবন মালিকরা অগ্নিবীমা করে। কিন্তু ব্যাংকের ঋণ পরিশোধের পর তারা আর বীমা নবায়ন করে না। অথচ গত এক দশকে দেশে ১ লাখ ৭৩ হাজারের মতো অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটেছে। অর্থাৎ বছরে গড়ে ১৭ হাজার ৩৮৭টি করে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটছে। ওসব অগ্নিকান্ডে গড়ে বছরে ১২২ জনের প্রাণহানি ছাড়াও আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ ৩৫০ কোটি টাকা। দেশে শিল্প-কারখানা ও আমদানি-রফতানি পণ্যের বীমা করা থাকলেও বেশিরভাগ বাণিজ্যিক ও আবাসিক ভবনের কোন বীমা নেই। বীমা খাত সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, এদেশে স্বেচ্ছায় কোনো ব্যক্তি কোনো সম্পদের অগ্নি বীমা করে না। বরং গ্রাহকরা বাধ্য হয়েই অগ্নি বীমার অধিকাংশ পলিসি করে থাকে। দেশের আর্থ-সামাজিক বাস্তবতা অনুসারে ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে কোনো শিল্প-কারখানা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বা ভবন নির্মাণ করা হলে ওসব সম্পত্তির অগ্নি বীমা করা হয়ে থাকে। ফলে অগ্নি বীমার অধিকাংশ গ্রাহক তার অগ্নি বীমা পলিসি সম্পর্কে সচেতন থাকেন না। ওসব সম্পত্তির অগ্নি বীমার ক্ষেত্রে ব্যাংক যেহেতু নিজেও একটি পক্ষ সে কারণে ঋণগ্রহীতা ওসব বীমা গ্রাহক পলিসি করতে ব্যাংকের ওপরই নির্ভর করে থাকে। অনেক সময় ঋণগ্রহীতা ওই বীমা গ্রাহক জানেন নাই কোন কোম্পানিতে পলিসি করা হয়েছে। ওই কোম্পানির দাবি পরিশোধের সক্ষমতা বা গ্রাহক সেবার মান কেমন। আর ওসব না জানার কারণে অগ্নিকা-ে ক্ষতিগ্রস্ত হলে অধিকাংশ গ্রাহককে হয়রানির মধ্যে পড়তে হয়। অনেক সময় সঠিকভাবে পলিসি না করার কারণে তারা বীমা দাবিও পায় না।
সূত্র জানায়, দেশে ব্যবসারত নন-লাইফ বীমা কোম্পানিতে যেসব বীমা পলিসি ইস্যু করা হয় তার অধিকাংশই মোটর বীমা। অন্যান্য বীমার বিষয়ে সচেতনতা না থাকায় শুধু বাধ্যতামূলক হওয়ায় ওই পলিসি গ্রাহকরা গ্রহণ করছে। গত জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত নন-লাইফে প্রায় ২০ লাখ পলিসি ইস্যু হয়েছে। তার মধ্যে ১৪ লাখই মোটর বীমা। রাস্তায় মামলা ও জরিমানা থেকে পরিত্রাণ পেতে ওই মোটর বীমা পলিসি গ্রহণ করে গ্রাহকরা। তবে গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা থেকে শুরু করে অনেক ভবন এখনো বীমার আওতার বাইরেই রয়ে গেছে। বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের (আইডিআরএ) তথ্যানুযায়ী, নন-লাইফ ২০১৮ সালের তৃতীয় প্রান্তিক শেষে বীমা পলিসির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ লাখ ৯২ হাজার ৪১৫টি। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি পলিসি রয়েছে মোটর বীমার, ১৪ লাখ ২ হাজার ৪৫৭। অর্থাৎ ৭০ শতাংশ পলিসিই মোটর বীমার। তবে প্রিমিয়াম সংগ্রহের দিক দিয়ে এগিয়ে রয়েছে অগ্নি বীমা পলিসি। অগ্নি বীমায় ৪৯ শতাংশ প্রিমিয়াম এসেছে। গত বছর ২ লাখ ৩ হাজার ৫৫৫টি অগ্নি বীমা পলিসির বিপরীতে ১ হাজার ৬৭১ কোটি ২১ লাখ টাকা প্রিমিয়াম এসেছে। গত বছর ২ হাজার ৭১ কোটি টাকার অগ্নিবীমা দাবির মধ্যে ৬৮২ কোটি টাকার বীমাদাবি নিষ্পত্তি হয়েছে। অনিষ্পন্ন অবস্থায় রয়েছে ১ হাজার ৩৯০ কোটি টাকার দাবি।
এদিকে ফায়ার সার্ভিসের তথ্যানুযায়ী ২০০৮ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত গত ১০ বছরে দেশে মোট অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটেছে ১ লাখ ৭৩ হাজার ৮৭৫। অর্থাৎ বছরে গড়ে ১৭ হাজার ৩৮৭ করে অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটছে। ওসব অগ্নিকা-ে গড়ে বছরে ১২২ জনের প্রাণহানি ছাড়াও আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ ৩৫০ কোটি টাকা। গত ১০ বছরে দেশে অগ্নিকা-ের ঘটনা প্রায় আড়াই গুণ বেড়েছে। ২০০৮ সালে ৯ হাজার ৩১০ আগুনের ঘটনায় প্রাণ গেছে ২২৯ জন, ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ২৩০ কোটি টাকার। ২০০৯ সালে দেশে ১২ হাজার ১৮২ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ১২০ জন নিহত হয়। তাদের মধ্যে ফায়ার সার্ভিসের ২ জন সদস্যও রয়েছে। ওই বছর আগুনে আর্থিক ক্ষতি হয় প্রায় ৩০৬ কোটি টাকা। পরের বছর অগ্নিকান্ডের ঘটনা আরো বেড়ে হয় ১৪ হাজার ৬৮২টি। তাতে ২৭১ জনের প্রাণহানি ছাড়াও ৩২৬ কোটি টাকার সম্পদ পুড়ে যায়। ২০১১ সালে ১৫ হাজার ৮১৫ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ২৯৩ কোটি টাকার আর্থিক ক্ষতির সঙ্গে ৩৬৫ জনের প্রাণ যায়। পরের বছর অগ্নিকান্ডের ১৭ হাজার ৫০৪ ঘটনায় ২১০ জন নিহত হয়। ওই বছর মোট আর্থিক ক্ষতি হয় ৪৮২ কোটি টাকা। ২০১৩ সালে ১৭ হাজার ৯১২ অগ্নিকান্ডে নিহত হয় ১৬১ জন। তবে ২০১৪ সাল থেকে অগ্নিকান্ডে নিহতের সংখ্যা কমে আসে। ওই বছর ১৭ হাজার ৮৩০টি ঘটনায় ৭০ জনের প্রাণহানি ও ৩৫৯ কোটি টাকার সম্পদহানি ঘটে। পরের বছর ১৭ হাজার ৪৮৮ অগ্নিকান্ডে নিহত হয় ৬৮ জন। ২০১৬ সালে ৫২ জনের প্রাণ যায় ১৬ হাজার ৮৫৮ ঘটনায়। তাতে আর্থিক ক্ষতি হয় ২৪০ কোটি টাকা। ২০১৭ সালে ১৮ হাজার ১০৫ অগ্নিকান্ডে ৪৫ জনের প্রাণহানির সঙ্গে সম্পদ পুড়ে ২৫৭ কোটি টাকার। ২০১৮ সালে ১৬ হাজার ১৬২ অগ্নিকান্ডে ৫৫ জনের প্রাণহানির সঙ্গে ২১৭ কোটি টাকার সম্পদ পুড়েছে।
অন্যদিকে বেসরকারী ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিগুলোর মতে, দেশে মোটর বীমা পলিসি বাড়লেও প্রিমিয়াম বাড়ছে না। কারণ রাস্তায় চলতে মোটর বীমা বাধ্যতামূলক তাই এই বীমা নিচ্ছেন গ্রাহকরা। সরকার যদি অগ্নি বীমাসহ আরও কিছু পলিসি বাধ্যতামূলক করে তাহলে বীমা ব্যবসার পরিধি বাড়বে, মানুষের নিরাপত্তাও নিশ্চিত হবে।
এ বিষয়ে বীমা কোম্পানির মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শেখ কবির হোসেন জানান, আবাসিক ও বাণিজ্যিক ভবন মালিকরা বীমা করতে চান না। তবে শিল্পকারখানাগুলো বীমা করে। ওসব ভবনকে অগ্নিবীমার আওতায় আনতে সরকারের তরফ থেকে সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ নেয়া জরুরি। ট্রেড লাইসেন্স নবায়ন বা সিটি করপোরেশনের কর পরিশোধের ক্ষেত্রে অগ্নিবীমা থাকা বাধ্যতামূলক করলেই তা সম্ভব।

 





         
   আপনার মতামত দিন
     জাতীয়
মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বারবার বিকৃত হয়েছে: রেলমন্ত্রী
.............................................................................................
রোববার ব্রুনাই যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
২১ এপ্রিলই শবেবরাত
.............................................................................................
সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ বছর করতে আসছে সিদ্ধান্ত প্রস্তাব
.............................................................................................
ধর্মপ্রাণ মানুষকে মাদক ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিহাদ করতে হবে: আমু
.............................................................................................
২৩ এপ্রিল থেকে ভোটার তালিকা হালনাগাদে তথ্য সংগ্রহ শুরু
.............................................................................................
দেশজুড়ে ৯৬ ঘণ্টার ধর্মঘট পালন করছে পাটকল শ্রমিকরা
.............................................................................................
পোকা দৌড়াচ্ছে ১০ টাকা কেজির চালে
.............................................................................................
সব বিভাগীয় শহরে বিটিভির কেন্দ্র স্থাপন করার প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
পূর্বাচল স্টেডিয়াম বানিয়ে বিশ্বকে দেখিয়ে দেবে বাংলাদেশ
.............................................................................................
হজযাত্রীদের ইমিগ্রেশন সৌদির পরিবর্তে বাংলাদেশে সম্পন্ন করার সিদ্ধান্ত
.............................................................................................
পহেলা বৈশাখে ৬টার পর অনুষ্ঠান নয়, মুখোশ থাকবে হাতে: ডিএমপি
.............................................................................................
নানা সীমাবদ্ধতায়ও প্রতি বছরই দেশে আমনের উৎপাদন বাড়ছে
.............................................................................................
নগদ টাকার সংকটে ভুগছে সরকার
.............................................................................................
নুসরাতের হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ
.............................................................................................
দেশে প্রতিদিন পানিতে ডুবে ৩০ শিশুর মৃত্যু
.............................................................................................
শাস্তির মুখোমুখি না হওয়ায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের তোয়াক্কা নেই
.............................................................................................
রেলের বেহাত হওয়া হাজার হাজার একর জমি উদ্ধারে জোরালো তৎপরতা নেই
.............................................................................................
অগ্নিদগ্ধ নুসরাত জাহান রাফিকে বাঁচানো গেল না
.............................................................................................
টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে অধিকতর গবেষণার উপর প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ
.............................................................................................
আজ বিশ্ব হোমিওপ্যাথি দিবস
.............................................................................................
পদ্মা সেতু: মাওয়ায় ১০ম স্প্যান বসতে যাচ্ছে আজ
.............................................................................................
অপরিকল্পিত নগরায়ন এবং অসচেতনতায় রাজধানীতে অগ্নিঝুঁকি দিন দিন তীব্র হচ্ছে
.............................................................................................
বিপুলসংখ্যক মামলার তদন্ত নির্ধারিত সময়ে শেষ করতে পারেনি দুদক
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনের দায়িত্ব মিয়ানমারকেই নিতে হবে: পম্পেও
.............................................................................................
গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি বিনিয়োগ ও কর্মসংস্থানের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে
.............................................................................................
ভোটার তালিকা হালনাগাদ শুরু ২৩ এপ্রিল
.............................................................................................
উন্নয়ন প্রকল্পে গতি আনতে অর্থ ছাড় ও ব্যবহারে বৃদ্ধি পেয়েছে পিডিদের ক্ষমতা
.............................................................................................
নদীবন্দরে ২ নং নৌ হুশিয়ারী সংকেত
.............................................................................................
বিনিয়োগের অভাবে পিছিয়ে পড়ছে বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থার আধুনিকায়ন
.............................................................................................
জনবল সঙ্কটে সেবার মান রক্ষা করতে পারছে না রেলওয়ে
.............................................................................................
রেড এলার্ট জারির মতো কোন ঘটনা এখনও ঘটেনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
.............................................................................................
সড়ক দুর্ঘটনাকে এক নম্বর চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিতে হবে: ইলিয়াস কাঞ্চন
.............................................................................................
রাষ্ট্রের অনৈতিক কাজের বিচার হয় না: আবুল মকসুদ
.............................................................................................
স্থল ও স্থলভাগে বড় পরিসরে গ্যাস অনুসন্ধানে যাচ্ছে সরকার
.............................................................................................
বাধ্য না হলে বাণিজ্যিক ও আবাসিক ভবন মালিকদের বীমায় আগ্রহ নেই
.............................................................................................
সরকারি প্রণোদনায় লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে বোরো আবাদ
.............................................................................................
বৈদ্যুতিক সামগ্রীর যথাযথ তদারকির অভাব ও নিন্মমান ক্রমাগত অগ্নিঝুঁকি বাড়াচ্ছে
.............................................................................................
শিগগিরই দেশে যক্ষ্মা রোগের ওষুধ তৈরি হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
৭০ শতাংশ বহুতল ভবনই ত্রুটিযুক্ত
.............................................................................................
আলোচনার মাধ্যমেই রোহিঙ্গা সংকট সমাধান : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
ডিএনসিসির ঝুঁকিপূর্ণ অর্ধডজন মার্কেট ভেঙ্গে ফেলার উদ্যোগ
.............................................................................................
প্রতিনিয়ত ব্যাপক পরিবেশ দূষণেও বিশেষায়িত আদালতে মামলা নেই
.............................................................................................
সমুদ্র বন্দর ব্যবহারে মাশুলে ছাড় চায় ভুটান
.............................................................................................
রাস্তা পারাপারে ওভারব্রিজ ব্যবহার না করলে এক ঘণ্টার কাউন্সিলিং
.............................................................................................
ডেমরায় সড়ক অবরোধ করে পাটকল শ্রমিকদের বিক্ষোভ
.............................................................................................
কাস্টমস কর্মকর্তা সেজে কোটি টাকা প্রতারণা : আটক ৬
.............................................................................................
আতঙ্কে রাজধানীর বহুতল ভবন মালিকরা
.............................................................................................
বকেয়া সাড়ে ১২ হাজার কোটি টাকা পরিশোধে গ্রামীণফোনকে বিটিআরসির নোটিশ
.............................................................................................
ওয়াজ-মাহফিলের বিশৃঙ্খলা বন্ধে আলেমদের নিয়ে বোর্ড গঠনের প্রস্তাব চরমোনাই পীরের
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]