বৃহস্পতিবার , ১৯ মহররম ১৪৪০ | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৩ আশ্বিন ১৪২৬ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   সম্পাদকীয়
দ্বিখন্ডিত শহরে দুর্ভোগও দ্বিগুণ
  তারিখ: 06 - 09 - 2019

ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন হচ্ছে নগরবাসীর প্রত্যক্ষ সেবক। মানুষের বসবাস ও চলাচলে যাতে বিঘ্নি সৃষ্টি না হয় সেটি দেখার দায়িত্বে এই সংস্থার। নাগরিক সেবা নিশ্চিত করতে রাজধানীকে দুই ভাগ করা হয়। কিন্তু শহরবাসীর দুর্ভাগ্য যে, সিটিকে দ্বিখন্ডিত এবং মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পরও দুর্ভোগ যেনো দ্বিগুণ বেড়েছে। ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের নাগরিক সেবার কার্যক্রম কার্যত ভেঙে পড়েছে। ঢাকায় ঘর থেকে বের হলেই যানজট, ময়লা-আবর্জনা, খানাখন্দ দুর্বিষহ করে তুলেছে মানুষের জীবন। দুর্ভোগই যেন নিয়তি হয়ে গেছে। প্রধান সড়ক থেকে পাড়া-মহল্লার অলিগলি পর্যন্ত প্রায় প্রতিটি রাস্তারই বেহালদশা। খানাখন্দে ভরপুর থাকায় সামান্য বৃষ্টি হলেই পানি জমে যায়। তারপরও যথেষ্ট কোনো উদ্যোগ নেই রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ এবং ঢাকা দুই সিটি কর্পোরেশনের।
নগরের ভাঙা রাস্তা, জলাবদ্ধতা দূরীকরণ, মশানিধন ও ফুটপাত মুক্ত করতে ব্যর্থতার জন্য জনগণের কাছে জবাবদিহিতা নেই সংস্থাগুলোর। সেবার নামে সরকারি সংস্থাগুলোর কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নানাভাবে মানুষকে ভোগান্তিতে ফেলছে। হোল্ডিং ট্রাক্স থেকে শুরু করে ব্যবসা-বাণিজ্যের ট্রেডলাইসেন্স, আয়কর দিলেও সেবা দিতে পারছে না সরকারের সংস্থাগুলো। অথচ হোল্ডিং ট্রাক্স, আয়কর ও ট্রেডলাইসেন্স নির্ধারিত সময়ে পরিশোধ করতে না পারলে জরিমানা ও মামলা করা হয়।
স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমেরও লেজে-গোবর অবস্থা। মশার উপদ্রবে নগর জীবনকে অতিষ্ঠ করে তুলেছে। মশা দমন, মশক প্রজননস্থল যেমন- ডোবা, নালা, বিল, ঝিল, নর্দমায় নিয়মিত কীটনাশক ছিঁটানোর কথা থাকলেও সেসব বিষয় সিটি কর্পোরেশন শুধু বক্তৃতা, সেমিনার, লিফলেটের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রেখেছে। বাসাবাড়ি থেকে বেরিয়ে পথে পা রাখার উপায় নেই। নানা সেবা সংস্থার রাস্তা খোঁড়াখুঁড়ি, মেরামতের নামে সড়কে পিচ-সুরকি ফেলে রাখা আর পানি জমে কাদা-আবর্জনায় সয়লাব রাস্তাঘাট যেন নাগরিকদের নিত্যসঙ্গী। বিভিন্ন এলাকার কিছু রাস্তা দিনের পর দিন নোংরা পানিতে নিমজ্জিত থাকায় কোনটা রাস্তা আর কোনটা ড্রেন-নর্দমা তা বুঝার উপায় নেই।
মূল সড়কগুলোতে খুব সকালে নিযুক্ত ঠিকাদারের তত্ত্বাবধানে ময়লা ঝাড়–দারদের যৎকিঞ্চিৎ ঝাড়– দিতে দেখা গেলেও ভেতরের সড়কগুলোতে কোনোদিন তাদের দেখা গেছে, তা বলা যাবে না। সেকেলে পন্থায় ঝাড়– দ্বারা ধূলিকণা ঝাড়– দেয়া হলেও বাতাসে উড়ে সেই ময়লা মানুষের নাকে, কানে আসবাবপত্রের ওপর পড়ছে, একই সাথে সেটি যেমন অস্বস্তিকর, তেমনি স্বাস্থ্যের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ।
মূলতঃ একটি দীর্ঘমেয়াদি সমন্বিত পরিকল্পনা ছাড়া ঢাকার দুই সিটির সমস্যার স্থায়ী সমাধান সম্ভব নয়। এ ব্যাপারে সরকার, সংস্থা, বিশেষজ্ঞ ও ভুক্তভোগী সবার অংশগ্রহণ অত্যন্ত জরুরি।

 





         
   আপনার মতামত দিন
     সম্পাদকীয়
দ্বিখন্ডিত শহরে দুর্ভোগও দ্বিগুণ
.............................................................................................
অভিন্ন নদীর পানিবণ্টন দ্রুততম সময়ে সমঝোতায় আসা প্রয়োজন
.............................................................................................
ঘরে ফিরছে মানুষ ঈদ যাত্রা নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করুন
.............................................................................................
নিরাপদ হোক ঈদযাত্রা
.............................................................................................
দুর্যোগে করণীয়
.............................................................................................
পুঁজিবাজারে দরপতন
.............................................................................................
কৃষিতে কৃষকের অরুচি সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরি
.............................................................................................
প্রকল্পে সরাসরি অর্থ ছাড় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
ঝুঁকিতে দুই কোটি শিশু এদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার ভয়ংকর পরিণতি থেকে রক্ষা পেতে হবে
.............................................................................................
বাড়ছে শ্রমিক অসন্তোষ মজুরি কমিশনের সুপারিশ আমলে নিন
.............................................................................................
রমজানে বাজারদর স্থিতিশীল রাখার ব্যবস্থা নিতে হবে
.............................................................................................
শিল্পায়নে বাধা
.............................................................................................
সড়কে মর্মান্তিক মৃত্যু ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল বন্ধ করুন
.............................................................................................
ডাক্তারদের প্রাইভেট প্র্যাকটিস প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়িত হোক
.............................................................................................
পেট কাটলেন নার্স, ডাক্তার বললেন ‘ঝামেলা আছে সেলাই করে দাও’
.............................................................................................
বাড়ছে উত্তাপ-উত্তেজনা
.............................................................................................
নির্বাচনের পরিবেশ
.............................................................................................
ক্ষতিপূরণ পেতে ভোগান্তি
.............................................................................................
জননিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা
.............................................................................................
পরিবেশের প্রধান শত্রু প্লাস্টিক
.............................................................................................
বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে রোহিঙ্গারা
.............................................................................................
খুরা রোগের টিকা
.............................................................................................
চিকিৎসা বীমা
.............................................................................................
মাদকবিরোধী কর্মপরিকল্পনা
.............................................................................................
পানিও নিরাপদ নয়
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মাদকে মৃত্যুদন্ড
.............................................................................................
বিশ্বমানের চিকিৎসা
.............................................................................................
গুজবের পিছে ছুটছে মানুষ
.............................................................................................
মিয়ানমারের নতুন উসকানি
.............................................................................................
স্বর্ণ নীতিমালা
.............................................................................................
শিশু যখন শ্রমিক
.............................................................................................
বেহাল স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
সম্ভাবনার কাঁকড়া শিল্প
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
ক্ষতিকর এনার্জি ড্রিংকস
.............................................................................................
মির্জাপুরে কাঠ পোড়ানো চুল্লি
.............................................................................................
হুমকিতে তিন-চতুর্থাংশ মানুষ
.............................................................................................
বেহাল সড়ক ও সেতু
.............................................................................................
সর্বোচ্চ মৃত্যু বাংলাদেশে
.............................................................................................
নতুন মাদক খাত
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
সম্পর্কে নতুন মাত্রা
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল ২০১৮ বিতর্কিত ধারাগুলো পর্যালোচনা করুন
.............................................................................................
পরিবেশদূষণ বড় ঘাতক
.............................................................................................
ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়া
.............................................................................................
ভুলে ভরা এনআইডি
.............................................................................................
পদ্মার ভয়াবহ ভাঙন
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]