রবিবার , ২২ মহররম ১৪৪০ | ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৭ আশ্বিন ১৪২৬ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   জাতীয়
কৌশলে প্রকল্প বাড়ানো ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে পরিকল্পনা কমিশন
  তারিখ: 06 - 09 - 2019

 সরকারি বিভিন্ন প্রকল্পের ব্যয় ও সময় নানা কৌশলে বাড়ানো হয়। মূলত সুবিধাভোগী কর্মকর্তাদের লোভের কারণেই দীর্ঘদিন ধরে প্রকল্প বাস্তবায়নে এমন অবস্থা বিরাজ করছে। এতে একদিকে যেমন অর্থের অপচয় বাড়ছে, অন্যদিকে প্রকল্পের কাক্সিক্ষত সুফল পাচ্ছে না সাধারণ মানুষ। এমন অবস্থার অবসানে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে পরিকল্পনা কমিশন। ওই লক্ষ্যে সম্প্রতি আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় শুধুমাত্র বাস্তব প্রয়োজন ছাড়া প্রকল্প সংশোধন প্রস্তাব বিবেচনা না করতে মন্ত্রণালয়, বিভাগ এবং পরিকল্পনা কমিশনের সেক্টরগুলোকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, প্রাথমিকভাবে ছোট কলেবরে প্রকল্প গ্রহণ করে অনুমোদনের পর বাস্তবায়ন পর্যায়ে প্রকল্পের কলেবর বৃদ্ধি করে প্রকল্প সংশোধনের উদ্যোগ নেয়া হয়। তাতে চলমান প্রকল্পগুলো নির্ধারিত সময়ে শেষ হয় না। বরং তাতে প্রকল্পের কাজের বাস্তবায়ন অগ্রগতি যেমন বাধাগ্রস্ত হয়, তেমনি যথাসময়ে প্রকল্পের সুবিধা হতেও জনগণ বঞ্চিত হয়। প্রকল্প বাস্তবায়নে ধীরগতি সামগ্রিকভাবে এডিপি বাস্তবায়ন অগ্রগতিতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। বরং গৃহীত প্রকল্প অনুমোদিত মেয়াদে সম্পন্ন করে নতুন কার্যক্রম নিয়ে নতুন প্রকল্প গ্রহণ করা অধিকতর যুক্তযুক্ত। সেজন্য প্রকল্পের শুরুতেই সতর্ক হওয়া জরুরি।
সূত্র জানায়, সরকারি মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলো এডিপি তৈরিতে নির্দেশনা মানছে না। চলতি অর্থবছরের (২০১৯-২০) এডিপিতে ৫৮টি প্রকল্প অন্তর্ভুক্তির প্রস্তাব করা হয়েছিল। অথচ ওসব প্রকল্প ২০১৮-১৯ অর্থবছরের মধ্যেই সমাপ্ত করার কথা ছিল। সেজন্য প্রয়োজনীয় বরাদ্দসহ বারবার তাগাদাও দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তাতে কাজ হয়নি। এ অবস্থাকে অর্থ বরাদ্দের ক্ষেত্রে সমস্যা এবং আর্থিক ব্যবস্থাপনায় বিশৃঙ্খলা বলে মনে করে পরিকল্পনা কমিশন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ১২টি প্রকল্পকে সমাপ্ত ঘোষণা করে এডিপি থেকে বাদ দেয়ার সুপারিশ করা হয়। তাছাড়া ৩৭টি প্রকল্পে এক লাখ টাকা করে বরাদ্দ দিয়ে চলমান রাখার প্রস্তাব করা হয়েছিল। ইতোমধ্যেই বাকি ৯টি প্রকল্পের মেয়াদ বাড়ানো হয়। মে মাসে অনুষ্ঠিত কমিশনের বর্ধিত সভায় এসব তথ্য উপস্থাপন করা হয়।
সূত্র আরো জানায়, বিগত ২০১৭-১৮ অর্থবছরের এডিপি বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ওই অর্থবছরে মোট ১ হাজার ৭৪০টি প্রকল্প হাতে নেয়া হয়। তার মধ্যে সমাপ্ত হয়েছিল ২৪৬টি প্রকল্প। বাকি প্রকল্পগুলোর মধ্যে ৯০টি প্রকল্পের অনুকূলে ৯১৬ কোটি টাকা বরাদ্দ থাকলেও এক টাকাও ব্যয় হয়নি। আর্থিক অগ্রগতি ছিল শূন্য। এর কারণ হলো নতুন প্রকল্পের দরপত্র আহ্বানে বিলম্ব, ঋণ না পাওয়া, অর্থছাড় না হওয়া বা দেরিতে অর্থছাড় হওয়া, ভূমি অধিগ্রহণ না হওয়া, মামলাজনিত সমস্যা, প্রকল্প সংশোধন, উন্নয়ন সহযোগী সংস্থার সঙ্গে চুক্তিতে বিলম্ব এবং নামমাত্র বরাদ্দ ইত্যাদি। তাছাড়া ৯৮টি প্রকল্পের বাস্তব অগ্রগতি ছিল শূন্য। ওই অর্থবছরের ২৫টি প্রকল্পের অনুকূলে মাত্র ১ লাখ টাকা করে বরাদ্দ ছিল, যার বিপরীতে দুটি প্রকল্প ছাড়া বাকিগুলোর কোনো আর্থিক অগ্রগতি হয়নি। তবে ৪৩টি প্রকল্পের প্রাক্কলিত ব্যয়ের ক্রমপুঞ্জিত ব্যয় শতভাগ হয়েছে। ২৪৪টি প্রকল্পে ৯০-৯৯ শতাংশ অর্থব্যয় হয়েছে। ২০১টি প্রকল্পে ৭৬-৮৯ শতাংশ অর্থ ব্যয় হয়েছে। ২৯০টি প্রকল্পে ৫১-৭৫ শতাংশ ব্যয় হয়েছে। ৩১০টি প্রকল্পে ২৬-৫০ শতাংশ ব্যয় হয়েছে। ৪৯৭টি প্রকল্পে ২৫ শতাংশের নিচে অর্থব্যয় হয়েছে। সবকিছু মিলিয়ে ২৭৩টি প্রকল্পের আর্থিক এবং ১৯৩টি প্রকল্পের বাস্তব অগ্রগতি সন্তোষজনক ছিল না।
এদিকে বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রকল্পের সিডিউল রেট পরিবর্তন, ডিজাইন পরিবর্তন, স্পেসিফিকেশন পরিবর্তন, ভূমি অধিগ্রহণ ব্যয় বৃদ্ধি, নতুন আইটেম অন্তর্ভুক্ত বা কর্মপরিধি বৃদ্ধির নামেই কৌশলে প্রকল্প সংশোধন করা হয়। কিন্তু এর পেছনে থাকে অন্য উদ্দেশ্য। কেননা প্রকল্প যতদিন চলবে সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীলরা ততদিন সুবিধা নিতে পারে। প্রকল্পে আকর্ষণের শেষ নেই। পুকুর খনন প্রকল্পে এবং ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ানো প্রকল্পেও বিদেশ সফর যুক্ত করা হয়। আর প্রকল্পের গাড়ি ব্যবহার, ভাতা নেয়াসহ নানা সুবিধার কারণে সংশ্লিষ্টরা চান না দ্রুত প্রকল্প শেষ হয়ে যাক। তাছাড়া প্রকল্প তৈরির সময়ই দক্ষতার অভাব থাকে। যেনতেনভাবে প্রকল্প হাতে নেয়া হয়। ফলে বাস্তবায়ন পর্যায় এসে ডিজাইন পরিবর্তন, নতুন অঙ্গ সংযোজন করতে হয়।
অন্যদিকে বিগত ২০১৬ সালের অক্টোবরে পরিকল্পনা বিভাগ থেকে একটি পরিপত্র জারি করে প্রকল্প সংশোধনকে নিরুৎসাহিত করা হয়। কিন্তু বাস্তবে প্রতিটি প্রকল্প এক বা একাধিকবার সংশোধন করা হয়ে থাকে। প্রকল্প সংশোধনের অন্যতম একটি কারণ হচ্ছে যথাযথ সমীক্ষা ও কারিগরি ডিজাইন ছাড়াই প্রকল্প গ্রহণ করা। আর প্রকল্প চললে ক্ষমতা, ভাতা, গাড়িসহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধার পাশাপাশি স্বজনপ্রীতি করে আত্মীয়স্বজনদেরও চাকরি দেয়া যায়। এতো সুবিধার আকর্ষণ কেউ সহজেই ছাড়তে চান না।
এ বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এর আগে বলেছেন, প্রকল্প সংশোধনের বিষয়ে কঠোর অবস্থান নেয়া হচ্ছে। এর অংশ হিসেবে তিন বার কোনো প্রকল্প সংশোধনের জন্য প্রস্তাব এলে তা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সামনে উপস্থাপন করা হবে। প্রয়োজনে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এরকম প্রকল্পের একটি আলাদা তালিকা তৈরি করা হবে। কোনো ক্রমেই বারবার প্রকল্প সংশোধন কাম্য নয়।





         
   আপনার মতামত দিন
     জাতীয়
ট্রেন যোগাযোগ ব্যবস্থাকে আরো গতিশীল করার কাজ চলছে: রেলমন্ত্রী
.............................................................................................
যোগ্য ব্যক্তির আবেগ প্রগতির জন্য অপরিহার্য: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠাতে কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোকে সহযোগিতার আহবান
.............................................................................................
আজ নিউইয়র্ক যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
ডাক্তার-ফার্মাসিস্টদের একযোগে কাজ করার আহ্বান স্পিকারের
.............................................................................................
স্থলবন্দরগুলোকে আরো গতিশীল করার নির্দেশ নৌ-প্রতিমন্ত্রীর
.............................................................................................
রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের জন্য একটি বড় ধরনের বোঝা: প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
নার্সিং প্রশিক্ষণ আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করা হবে: প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
দ্রুত শতভাগ খতিয়ান অনলাইনে আপলোড করা হবে: ভূমিমন্ত্রী
.............................................................................................
নদী আমাদের মায়ের মতো: পরিকল্পনামন্ত্রী
.............................................................................................
জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি হলেন রাবাব ফাতেমা
.............................................................................................
সরকার ২০৩০ সালের মধ্যে এসডিজি লক্ষ্য অর্জনে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ: স্পিকার
.............................................................................................
এপর্যন্ত ৩৭টি পদক অর্জন করেছেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
মানব পাচারে জড়িত দালাল চক্রের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ
.............................................................................................
এখন বাংলাদেশেই বিশ্ব মানের শিক্ষা অর্জন সম্ভব: পানিসম্পদ উপমন্ত্রী
.............................................................................................
কর ন্যায্যতাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার: পরিকল্পনামন্ত্রী
.............................................................................................
রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ব্রিটিশ এমপিদের সহায়তা চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী
.............................................................................................
ঢাকা ডেন্টাল কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয় করা হবে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী
.............................................................................................
৫ অক্টোবর দিল্লিতে হাসিনা-মোদী বৈঠক
.............................................................................................
সরকার খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য নিরলসভাবে কাজ করছে: কৃষিমন্ত্রী
.............................................................................................
আজ বিশ্ব ওজন দিবস
.............................................................................................
রাষ্ট্রপতির সঙ্গে জাপানের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীর বিদেশ সফরে বিমানবন্দরে প্রটোকল নিয়ে নতুন নির্দেশনা
.............................................................................................
কোটি টাকা ঘুষ দিয়েও প্রাথমিকের শিক্ষক হওয়া সম্ভব নয়: ফিজার
.............................................................................................
রেলের উন্নয়নে সরকার মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করেছে: রেলমন্ত্রী
.............................................................................................
বরিশালে ছিনতাই হওয়া পাঁচ মণ ইলিশসহ গ্রেফতার ৩
.............................................................................................
সবার আস্থা ও গ্রহণযোগ্যতা অর্জন করেছে ফায়ার সার্ভিস: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী
.............................................................................................
পরিবেশ দূষণের প্রভাব বিবেচনায় নিয়ে গাড়ি আমদানীর ক্ষেত্রে ট্যাক্স নির্ধারণের প্রস্তাব
.............................................................................................
নবম ওয়েজবোর্ডের গেজেট প্রকাশ: ৮৫ শতাংশ বৃদ্ধি করে নতুন বেতন কাঠামো
.............................................................................................
সৈয়দ আশরাফের অসমাপ্ত কাজ বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রীর
.............................................................................................
 সুষ্ঠু শ্রম অভিবাসনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সংশ্লিষ্টদের ঐক্য চান প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী
.............................................................................................
দেশের ৯২ শতাংশ মানুষ বিদ্যুৎ সুবিধা পাচ্ছে: স্পিকার
.............................................................................................
সারাদেশে স্বাভাবিকভাবেই সার-বীজ বিতরণ হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী
.............................................................................................
প্রতিটি ইউনিয়নে ভূমি অফিস ভবন নির্মাণ করা হবে: ভূমিমন্ত্রী
.............................................................................................
ড্রোন আমদানির নীতিমালা করছে সরকার: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী
.............................................................................................
মাতৃত্বকালীন ছুটি ৬ মাস থেকে ৮ মাস করা হবে: ডেপুটি স্পিকার
.............................................................................................
দেশের প্রথম সৌরবিদ্যুৎকেন্দ্রের যাত্রা শুরু
.............................................................................................
নৌপথ খননের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী খুবই আন্তরিক: খালিদ মাহমুদ
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে চীনের ভূমিকা আরও জোরালো হবে: চীনা রাষ্ট্রদূত
.............................................................................................
প্রতিবন্ধী, বেদে ও হিজড়াদের ঘর দেবে সরকার: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী
.............................................................................................
জাতির প্রতি দায়বদ্ধতা থেকে দিনরাত পরিশ্রম করছি: সংসদে প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
বিশ্বের শীর্ষ নারী নেত্রীদের তালিকায় শেখ হাসিনা
.............................................................................................
নিরাপদ পানি ও স্যানিটেশন সমস্যার সমাধানে সরকার বদ্ধপরিকর: পরিকল্পনামন্ত্রী
.............................................................................................
রাষ্ট্রপতির সঙ্গে কেনিয়ার হাইকমিশনারের সাক্ষাৎ
.............................................................................................
সংসদে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি বিএনপি’র এমপি হারুনের কৃতজ্ঞতা
.............................................................................................
সংসদে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট (সংশোধন) বিল, ২০১৯ উত্থাপন
.............................................................................................
শিক্ষাখাতে অনিয়মকারীদের চিহ্নিত করে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে: শিক্ষামন্ত্রী
.............................................................................................
সরকার পাট খাতের সমস্যা সমাধানে সচেষ্ট: পাটমন্ত্রী
.............................................................................................
প্রয়োজনে অবৈধ দখল উচ্ছেদ করা হবে: রেলমন্ত্রী
.............................................................................................
সংসদ অধিবেশন শুরু, চলবে ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]