বৃহস্পতিবার , ১৯ মহররম ১৪৪০ | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৩ আশ্বিন ১৪২৬ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   অর্থ-বাণিজ্য
বাধা কাটলে সিআইএসভুক্ত দেশগুলোতে রপ্তানি বাড়বে: বাণিজ্যমন্ত্রী
  তারিখ: 12 - 09 - 2019

 কমনওয়েলথ অব ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্টেটসভুক্ত (সিআইএস) দেশগুলোর সঙ্গে বাধা দূর হলে রপ্তানি কয়েকগুণ বাড়বে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। টিপু মুনশি বলেন, বাংলাদেশ তৈরি পোশাক রপ্তানিতে পৃথিবীর মধ্যে দ্বিতীয় স্থান দখল করে আছে। বিশ্ববাজারে দিনদিন তৈরি পোশাক রপ্তানি বাড়ছে। বাংলাদেশের কারখানাগুলোতে নিরাপদ ও কর্মবান্ধব পরিবেশে শ্রমিকরা কাজ করছে। দেশে একের পর এক গ্রিন ফ্যাক্টরি গড়ে উঠছে। বাংলাদেশ উজবেকিস্তানসহ সিআইএসভুক্ত দেশ-আজারবাইজান, বেলারুশ, কাজাখাস্তান, কিরগিজিস্তান, আর্মেনিয়া, মলদোভা, রাশিয়া এবং তাজিকিস্তান দেশগুলো বাংলাদেশি পণ্যের রপ্তানি বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে।

গতকাল বুধবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি উজবেকিস্তানের রাজধানী তাসখন্দে গত মঙ্গলবার দেশটির টেক্সটাইল অ্যান্ড গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রি অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত উজবেকিস্তান টেক্সটাইল কনফারেন্স ও ৫ দিনব্যাপী গ্লোবাল টেক্সটাইল ডে’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যকালে এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন উজবেকিস্তানের উপ-প্রধানমন্ত্রী ইলিয়রগানিয়েভ, তুরস্কের রাষ্ট্রদূত, আইএলও, আইএফসি প্রতিনিধিরা। আয়োজক সংস্থার পক্ষ থেকে কনফারেন্সের মূল প্রতিপাদ্য উপস্থাপনায় তৈরি পোশাক খাতের বিশ্ববাণিজ্য পরিস্থিতির হাল নাগাদ চিত্র তুলে ধরেন ও বাংলাদেশের ভূমিকা গুরুত্বের সঙ্গে উল্লেখ করা হয়। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, উজবেকিস্তানে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক, চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য, পাট ও পাটজাত পণ্য এবং ফার্মাসিউটিক্যালস ইত্যাদি প্রচুর চাহিদা রয়েছে। কিছু জটিলতার কারণে প্রত্যাশা মোতাবেক পণ্য উজবেকিস্তানে বাংলাদেশের পণ্য রপ্তানি হচ্ছে না। জটিলতা নিরসনে উজবেকিস্তানের সহযোগিতা চায় বাংলাদেশ। সিআইএসভুক্ত দেশগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সহযোগিতা এবং রপ্তানি বাড়ানোর লক্ষ্যে গত মে মাসে ইউরেশিয়ান ইকনোমিক কমিশনের সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক সই হয়। এর আগে সোমবার উজবেকিস্তানের উপ-প্রধানমন্ত্রী ইলিয়রগানিয়েভের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সভা করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেন, উজবেকিস্তান বাংলাদেশের ঘনিষ্ট বন্ধুরাষ্ট্র। বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বৃদ্ধি এবং বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে স্থাপতি স্পেশাল ইকনোমিক জোনে বিদেশি বিনিয়োগের জন্য বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বিনিয়োগকারীদের বিশেষ সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যে অনেক দেশ বাংলাদেশের স্পেশাল ইকনোমিক জোনে বিনিয়োগ শুরু করেছে।

বঙ্গবন্ধুকন্যা ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিকখাতের দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। বিশ্ববাণিজ্যে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। বিশ্বের মধ্যে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল। ২০২৪ সালে বাংলাদেশ এলডিসি থেকে বেরিয়ে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হবে। উজবেকিস্তানের উপ-প্রধানমন্ত্রী ইলিয়রগানিয়েভ বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য বাড়ানোর কথা বলেন। তিনি বাংলাদেশ থেকে তৈরি করা পোশাক, চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য, পাট ও পাটজাত পণ্য এবং ফার্মাসিউটিক্যালস ইত্যাদি আমদানি বাড়ানোর বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের প্রতিনিধিদলের অন্যান্য সদস্য এবং উজবেকিস্তান সরকারের বিনিয়োগ ও পররাষ্ট্র বিষয়ক উপমন্ত্রী এবং কৃষি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী। পরে বাণিজ্যমন্ত্রী উজবেকিস্তনের চেম্বার অব কমার্স আয়োজিত দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ফোরামের রাউন্ড টেবিল বৈঠকে যোগ দেন। এ সময় বাণিজ্যমন্ত্রী বাংলাদেশের তৈরি করা পোশাক ছাড়াও পর্যটন, যৌথ বিনিয়োগ, ঢাকা-তাসখন্দ সরাসরি ফ্লাইট চালু এবং বাংলাদেশের স্পেশাল ইকনোমিক জোনে বিনিয়োগের আহ্বান জানান। বাণিজ্যমন্ত্রী উজবেকিস্তান সরকারের ও বাণিজ্য প্রতিনিধি দলকে বাংলাদেশ সফরের জন্য আমন্ত্রণ জানান। সভায় বাংলাদেশের পক্ষে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি ও উজবেকিস্তানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের ব্যবসা বাণিজ্য, অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।

উজবেকিস্তানের পক্ষ থেকে চেম্বারের সভাপতি আধামইকরামভ ছাড়াও বিনিয়োগ ও পররাষ্ট্র বিষয়ক উপমন্ত্রী লাজিজ কুদরাতভ ও উজবেকিস্তানের ফার্মাসিউটিক্যালস ইন্ডাস্ট্রির পরিচালক সারদোরকারিয়েভ বক্তব্য রাখেন। আলোচনায় দু’দেশের মধ্যে ব্যবসা বাণিজ্য সম্প্রসারণ এবং বিনিয়োগের সম্ভাবনা কাজে লাগানোর উপর গুরুত্বারোপ করা হয়। গত ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরে বাংলাদেশ উজবেকিস্তানে রপ্তানি করেছে ২৯ দশমিক ২৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য, একই সময়ে আমদানি করা হয়েছে ১৯৩ দশমিক ৬০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার বিদেশি বিনিয়োগকারীদের প্রয়োজনীয় সব সহযোগিতা ও বিশেষ সুবিধা দিচ্ছে।

 





         
   আপনার মতামত দিন
     অর্থ-বাণিজ্য
আজকের মধ্যে পেঁয়াজের দাম কমবে, আশা সরকারের
.............................................................................................
ঋণ খেলাপি বন্ধে আইনি পরিবর্তন আসছে: অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
সরকার খোলা বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি করবে
.............................................................................................
ফ্রিল্যান্সাররা একবারে ১০০০০ ডলার আনতে পারবেন
.............................................................................................
২০ লাখ শিক্ষার্থী স্কুল ব্যাংকিংয়ের আওতায়
.............................................................................................
শেয়ারবাজারে সুশাসন নিশ্চিত করা হবে: অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
পুঁজিবাজারে না এলে ২৮ বিমা কোম্পানির সনদ বাতিল: অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
প্রতিযোগিতা আইন বাস্তবায়ন হলে জিডিপি বাড়বে
.............................................................................................
সরবরাহ বাড়লেও কমছে না ইলিশের দাম
.............................................................................................
আন্তর্জাতিক অর্থনৈতিক সিদ্ধান্ত গ্রহণে দক্ষিণের আরো ভূমিকায় চায় বাংলাদেশ
.............................................................................................
এডিবি ২০২০-২২ অর্থবছরে বাংলাদেশকে পাঁচ বিলিয়ন ডলার অর্থ সহায়তা দেবে
.............................................................................................
বাধা কাটলে সিআইএসভুক্ত দেশগুলোতে রপ্তানি বাড়বে: বাণিজ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
ভরিতে স্বর্ণের দাম ১ হাজার ১৬৬ টাকা কমলো
.............................................................................................
শেয়ার কেনা-বেচার কার্যক্রম সরাসরি দেখতে চায় বিএসইসি
.............................................................................................
ভারতের অন্যান্য রাজ্যতেও যেতে পারে ত্রিপুরায় এলপিজি রপ্তানি করবে বাংলাদেশ
.............................................................................................
১০০ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ব্যাংকগুলোকে সম্পৃক্ত করার সুপারিশ
.............................................................................................
বিমানের চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ আসছে বৃহস্পতিবার
.............................................................................................
বাংলাদেশে বিএমডব্লিউ-মার্সিডিজ গাড়ির অ্যাসেম্বল করতে চায় জার্মানি: অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
৯ মাসেও চালু হয়নি জামালপুরে যমুনা ইউরিয়া সার কারখানায়
.............................................................................................
ডিপিডিসির বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা যাবে বিকাশে
.............................................................................................
পোশাক খাতেকে এগিয়ে নিতে অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে: শিল্পমন্ত্রী
.............................................................................................
এসএফ ডেনিমের ৭০০ শ্রমিক এক সঙ্গে চাকরি হারালেন
.............................................................................................
দেশের ২১ স্থানে সড়ক রক্ষায় এক্সেল লোড বসানোর প্রস্তাব
.............................................................................................
৬৬ প্রতিষ্ঠান পেলো জাতীয় রফতানি ট্রফি
.............................................................................................
জনতা ব্যাংকে এক বছরে দ্বিগুণেরও বেশি খেলাপি ঋণ বেড়েছে
.............................................................................................
প্রতিযোগিতামূলক বাজারে টিকে থাকতে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার নিশ্চিতের আহ্বান
.............................................................................................
বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির মাধ্যমে ১৪২ কোটি টাকার রাজস্ব আয়
.............................................................................................
দেশে বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম উৎপাদনে কোম্পানি গঠন করা হচ্ছে
.............................................................................................
উদ্যোগ বস্তবায়ন হলে খেলাপি ঋণ কমবে: অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
৩৬ কোম্পানির ৩ হাজার ৩শ’ ৯০ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকি
.............................................................................................
টাকা তুলে নিচ্ছেন গ্রাহক
.............................................................................................
দারিদ্র্য বিমোচন ও আর্থসামাজিক উন্নয়নের প্রাণিসম্পদ
.............................................................................................
এখন থেকে নিজের আয়ে চলতে হবে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোকে: অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
চার রাষ্ট্রীয় ব্যাংকে পুনঃঅর্থায়ন করা হবে না: অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
চিনিশিল্পের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের অপসারণের সুপারিশ
.............................................................................................
পণ্য আমদানি বাড়াতে উরুগুয়ের প্রতি আহ্বান বাণিজ্যমন্ত্রীর
.............................................................................................
চামড়া ব্যবসায়ীদের পাওনা ৩ কিস্তিতে পরিশোধের সিদ্ধান্ত
.............................................................................................
গ্রামীণফোন ও রবির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে বিটিআরসি
.............................................................................................
একনেকে তথ্য ভান্ডার সুরক্ষাসহ ১২ প্রকল্পের অনুমোদন
.............................................................................................
কোরিয়ান ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান অর্থমন্ত্রীর
.............................................................................................
নতুন নীতিমালা আসছে ব্যাংকের তহবিল ব্যয় হিসাবে
.............................................................................................
১৭৫ কোটি ডলারের রেমিট্যান্স ১০ দিনে
.............................................................................................
৯ দিন বন্ধের পর স্থলবন্দরগুলোতে আমদানি-রফতানি শুরু
.............................................................................................
চামড়া কেনা শুরু করেছেন ট্যানারি মালিকরা, বিক্রি না করার ঘোষণা আড়তদারদের
.............................................................................................
চামড়া সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়নি, রপ্তানি আয় কমার শঙ্কা
.............................................................................................
১১ কোম্পানির ১৩ পণ্যের অনুমোদন বাতিল
.............................................................................................
১২৮০ কোটি টাকার ৪ ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন
.............................................................................................
কোরবানীর পশুর চামড়ার দাম নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার
.............................................................................................
ট্রলার বোঝাই গরু আসছে মিয়ানমার থেকে
.............................................................................................
এটিএম বুথে ঈদের ছুটিতে পর্যাপ্ত টাকা রাখার নির্দেশ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]