বুধবার , ১৬ মহররম ১৪৪০ | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৩০ আশ্বিন ১৪২৬ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   প্রশাসন
যুবলীগের সভাপতি সম্রাট ও সহ-সভাপতি আরমানের ছয় মাসের কারাদন্ড
  তারিখ: 07 - 10 - 2019

কুমিল্লা থেকে গ্রেপ্তার ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট ও সহ-সভাপতি এনামুল হক আরমানকে ছয় মাস করে কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আটক হওয়া ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী ওরফে সম্রাটকে নিয়ে তাঁর কাকরাইলের কার্যালয় ভূঁইয়া ট্রেড সেন্টারে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ, ইয়াবা, বিদেশি পিস্তল, গুলি ও ক্যাঙারুর চামড়া উদ্ধার করে র‌্যাব। দুপুর সোয়া একটা থেকে সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত ওই কার্যালয়ে অভিযান চালায় র‌্যাব। একই সময় সম্রাটর ভাইয়ের শান্তিনগরের বাসা ও সম্রাটর মহাখালীর বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। তবে সেখান কী পাওয়া গেছে তা জানায়নি র‌্যাব। গত ১৮ সেপ্টেম্বর ক্যাসিনো বিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর এই ভূঁইয়া ট্রেড সেন্টারে অবস্থান করেছিলেন সম্রাট। পরে তিনি অন্য জায়গায় চলে যান। র‌্যাবের ডিজি বেনজীব আহমেদ বলেছেন, অভিযান শুরুর ২ দিনের মাথায় সম্রাট ঢাকা ত্যাগ করেন। গতকাল কুমিল্লা থেকে সম্রাটকে গ্রেপ্তার করা হয়। র‌্যাব জানিয়েছে স¤্রাটের কার্যালয় থেকে ১ হাজার ১৬০টি ইয়াবা, বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ, একটি পিস্তল ও ছয় রাউন্ড গুলি ও দুটি ক্যাঙারুর চামড়া উদ্ধার করা হয়েছে।

ক্যাঙারুর চামড়া পাওয়ায় বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ) আইনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট’কে ছয় মাসের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আর কুমিল্লায় গ্রেপ্তারের সময় আরমান ‘মদ্যপ’ থাকায় তাকে সেখানেই ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ছয় মাসের কারাদন্ড দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে র‌্যাবের নির্বাহী হাকিম সারওয়ার আলম জানিয়েছেন।

গত শনিবার ভোরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে সম্রাট ও যুবলীগের আরেক নেতা এনামুল হক আরমানকে আটক করে র‌্যাব। সেখান থেকে তাঁদের দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর উত্তরায় র‌্যাব সদর দপ্তরে নেওয়া হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাঁদের নিয়ে অভিযানে বের হয় র‌্যাব। বেলা সোয়া একটার দিকে স¤্রাটকে তাঁর কাকরাইলের কার্যালয়ে নেওয়া হয়। গত মাসের মাঝামাঝি ক্যাসিনো বিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকে টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজিসহ নানা অভিযোগের কারণে যুবলীগ নেতা স¤্রাটের নাম আলোচনায় আসে। অভিযানে যুবলীগ, কৃষক লীগ ও আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতা র‌্যাব-পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হন। কিন্তু সম্রাট ছিলেন ধরাছোঁয়ার বাইরে। অভিযান শুরুর প্রথম তিন দিন সম্রাট দৃশ্যমান ছিলেন। তিনি ফোনও ধরতেন। সে সময় ছয় দিন তিনি কাকরাইলে তাঁর ব্যক্তিগত কার্যালয়ে অবস্থান করেন। ব্যক্তিগত কার্যালয়ে স¤্রাটের অবস্থানকালে শতাধিক যুবক তাঁকে পাহারা দিয়ে রেখেছিলেন। সেখানেই সবার খাওয়াদাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। পর অন্য স্থানে চলে যান সম্রাট। এরপর তাঁর অবস্থান নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়। সম্রাটটের পরিবারের ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা যায়, গত ২ বছর ধরে ঢাকার মহাখালীতে দ্বিতীয় স্ত্রীর বাসায় যেতেন না সম্রাট। তিনি কাকরাইলে ভূঁইয়া ট্রেড সেন্টারে নিজ কার্যালয়ে থাকতেন। গত ১৮ সেপ্টেম্বর ঢাকার ক্লাবগুলোতে ক্যাসিনো বিরোধী অভিযান শুরু করে র‌্যাব। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন যুবলীগের নেতারাই মূলত এই ক্যাসিনো ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করতেন বলে অভিযোগ রয়েছে। প্রথম দিন ফকিরাপুলের ইয়ংমেনস ক্লাবে অভিযান চালায় র‌্যাব। এরপরই গুলশান থেকে গ্রেপ্তার করা হয় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ক্লাবটির সভাপতি খালেদ হোসেন ভূঁইয়াকে। তবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও রাজনৈতিক অঙ্গনের লোকেরা মনে করেন, ঢাকায় ক্যাসিনো ব্যবসার অন্যতম নিয়ন্ত্রক স¤্রাট।

 

যুবলীগ থেকে স¤্রাট ও সহযোগী আরমানও বহিষ্কার

যুবলীগ থেকে বহিষ্কার হয়েছেন ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট । যুবলীগের ঢাকা দক্ষিণের সভাপতি সম্রাট গতকাল রোববার ভোরে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হওয়ার পর সংগঠন থেকে তাকে বহিষ্কার করা হয়। কেন্দ্রীয় যুবলীগের শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক মিজানুল ইসলাম মিজুবিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ‘অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িত থাকা ও দলীয় শৃঙ্খলাবিরোধী কর্মকা-ে লিপ্ত হওয়ার অভিযোগে সম্রাট বহিষ্কার করা হয়েছে।’

স¤্রাটের স¤্রাটের পাশাপাশি তার সহযোগী ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক আরমানকেও দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে মিজু নিশ্চিত করেছেন। এর আগে গতকাল রোববার ভোরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে সম্রাট তার সহযোগী ক্যাসিনো আরমানসহ গ্রেফতার করে র‌্যাব। তার বিরুদ্ধে রাজধানীর ক্লাবপাড়াসহ বিভিন্ন স্থানে জুয়ার আসর ও ক্যাসিনো পরিচালনার অভিযোগ রয়েছে।

 

সম্রাটটের উত্থান যেভাবে

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট। রাজধানীর ক্লাবপাড়ায় রমরমা জুয়ার আসর পরিচালনা করে ব্যাপক আলোচিত তিনি। ক্লাবগুলোতে জুয়ার আধুনিক সংস্কার ‘ক্যাসিনো’ ব্যবসাও যুক্ত করেছেন সম্রাট। এ কারণে জুয়াড়িদের কাছে তিনি ‘ক্যাসিনো স¤্রাট’ নামেও পরিচিতি পেয়েছেন। জুয়া ক্যাসিনো ছাড়াও ঢাকা দক্ষিণের গোটা অঞ্চলে ছিল তার দাপট। গত ১০ বছর ধরে চাঁদাবাজি, টেন্ডার নিয়ন্ত্রণ, বাড়ি ও জমিদখল সবই নিয়ন্ত্রণ করেছেন স¤্রাট। ফেনীর পরশুরাম উপজেলার অধিবাসী স¤্রাটের পিতা রাজউকের ছোট পদে চাকরি করতেন। বাড়ি পরশুরামে হলেও সেখানে তাদের পরিবারের কেউ থাকেন না। বাবার চাকরির সুবাদে ঢাকায় বড় হন স¤্রাট। পরিবারের সঙ্গে প্রথমে বসবাস করতেন কাকরাইলে সার্কিট হাউস সড়কের সরকারি কোয়ার্টারে। রাজনীতিতে স¤্রাটের আগমন ঘটে ১৯৯০ দশকের শুরুর দিকে। এ সময় কিছুদিন ছাত্রলীগের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। অবশ্য তার আগে এরশাদের জাতীয় পার্টির ছাত্র সংগঠন ছাত্রসমাজের সঙ্গেও তার সম্পৃক্ততা ছিল বলে তার পরিচিতজনেরা জানিয়েছেন। বিএনপির ১৯৯১-৯৬ আমলে ছাত্রলীগ ছেড়ে দিয়ে যুবলীগের রাজনীতিতে যুক্ত হন। ২০০৩ সালে যুবলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হন। সে সময় দক্ষিণের সভাপতি ছিলেন মহিউদ্দিন আহমেদ মহি, আর সাধারণ সম্পাদক ছিলেন নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন। মূলত শাওনই স¤্রাটকে পৃষ্ঠপোষকতা দিতেন। পরবর্তীতে ২০১২ সালে স¤্রাট ঢাকা মহানগর যুবলীগ দক্ষিণের সভাপতি হন। এরপর আর তার পেছনে তাকাতে হয়নি। এদিকে যুবলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের নিজস্ব কোনও কার্যালয় না থাকলেও স¤্রাট দায়িত্ব নেওয়ার পর কাকরাইলে রাজমণি সিনেমা হলের উল্টো দিকে বিশাল এক ভবনের পুরোটাজুড়ে অফিস শুরু করেন। সাংগঠনিক কাজের কথা বলা হলেও এখানে বসেই স¤্রাট ক্যাসিনো ব্যবসা থেকে শুরু করে সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করতেন। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত এখানে থাকতো তার কর্মী বাহিনী ও অপকর্মের সঙ্গীদের আনাগোনা। যে রাতে খালিদ মাহমুদ গ্রেফতার হন, ওই রাতে স¤্রাট তার অফিসেই ছিলেন বলে জানা যায়। অবশ্য পরিবার নিয়ে তার বসবাস মহাখালী ডিওএইচএসের একটি বাড়িতে। নানা অপকর্মের বিপরীতে স¤্রাট যুবলীগ ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের দৃষ্টি কাড়েন রাজনৈতিক কর্মসূচিতে ‘লোকবল’ সাপ্লাই আর অর্থ দিয়ে। তার রয়েছে বিশাল ‘কর্মীবাহিনী’। আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক কর্মসূচিতে বড় ধরনের শোডাউন দেখাতেন তিনি। কর্মীবাহিনীকে একেক কর্মসূচিতে একেক ধরনের পোশাক পরিয়ে দৃষ্টি কাড়তেন সবার। এজন্য যুবলীগ চেয়ারম্যান সম্রাটকে শ্রেষ্ঠ সংগঠক বলে আখ্যায়িত করেন। এমনকি ক্যাসিনো ব্যবসার খবর প্রকাশের পরও তার পক্ষে অবস্থান নেন যুবলীগ চেয়ারম্যান। গণমাধ্যমকর্মীদের একটি অংশের সঙ্গেও রয়েছে তার সখ্য। যে কারণে স¤্রাটের যেকোনও কর্মসূচির মিডিয়া কাভারেজও ছিল চোখে পড়ার মতো। আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও স¤্রাটের এই কর্মীবাহিনীর তথ্য জানতেন। এজন্য তার প্রতি সফটকর্নার ছিল সবসময়। গত বছর স¤্রাটের বিরুদ্ধে আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামের কাছে কোটি টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ ওঠে। এটা জানতে পেরে শেখ হাসিনা তার ওপর চরম ক্ষুব্ধ হন। আঞ্জুমানকে প্রধানমন্ত্রী নিজে ও তার বোন শেখ রেহানা বিভিন্ন সময়ে অনুদান দিয়ে আসছেন। সম্রাট তাদের কাছে চাঁদা চাওয়ায় চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী। ক্ষুব্ধ হয়ে গত বছরের সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘের সম্মেলনে যাওয়ার আগে তিনি যুবলীগ দক্ষিণের কমিটি ভেঙে দেওয়ার নির্দেশনা দিয়ে যান। তবে সেই নির্দেশনা তখন বাস্তবায়ন পর্যন্ত গড়ায়নি। এরইমধ্যে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা থেকে সম্রাটটের জুয়া ও ক্যাসিনো ব্যবসা পরিচালনার রিপোর্ট পান প্রধানমন্ত্রী। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রী কিছুদিন আগে কানাডা সফরে গেলে মতিঝিল এলাকার সাবেক একজন ছাত্রনেতা সম্রাটর বিরুদ্ধে সরাসরি অভিযোগ তোলেন। স¤্রাটের কারণেই তিনি রাজনীতি ছেড়ে কানাডা চলে গেছেন বলে জানান। এরই পরিপ্রেক্ষিতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সর্বশেষ বৈঠকে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলতে গিয়ে আবারও স¤্রাটের নাম আসে। তখন প্রধানমন্ত্রী স¤্রাটের জুয়া ক্যাসিনো ব্যবসার নাম উল্লেখ করে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেন। এরপরই গ্রেফতার হন যুবলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণে সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ ভুঁইয়া। এ সময় আলোচনায় আসে স¤্রাটের নামও।

সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, স¤্রাট গত দিন দশেক ধরে গোয়েন্দা নজরদারির মধ্যে ছিলেন। গোয়েন্দা নজরদারির মধ্যে থেকেও তিনি দেশ ছেড়ে পালানোর চেষ্টা করেন। তবে সেই চেষ্টায় সফল হননি। গতকাল রোববার ভোরের দিকে স¤্রাটকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে আত্মীয় মনিরুল ইসলামের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। স¤্রাটের বড় ভাই বাদল চৌধুরী ঢাকায় তার ক্যাসিনো ব্যবসা দেখাশোনা করতেন। ছোট ভাই রাশেদ ছাত্রলীগের রাজনীতি করেন। তার বাবা অনেক আগেই মারা গেছেন। মা বড় ভাইয়ের সঙ্গে ঢাকায় থাকেন। ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের পর স¤্রাটের পরিবারের সবাই গা ঢাকা দেন। স¤্রাটের ঘনিষ্ঠ দুই সহচর হলেনÑঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক মমিনুল হক সাঈদ ও সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া। যুবলীগের আরেক প্রভাবশালী নেতা জি কে শামীমও স¤্রাটকে অবৈধ আয়ের ভাগ দিতেন। ‘ক্যাসিনো স¤্রাট’ রাজধানীর জুয়াড়িদের কাছে বেশ পরিচিত নামÑতিনি ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী স¤্রাট। স¤্রাটের নেশা ও ‘পেশা’ জুয়া খেলা। তিনি একজন পেশাদার জুয়াড়ি। প্রতিমাসে অন্তত ১০ দিন সিঙ্গাপুরে যান জুয়া খেলতে। সেখানে টাকার বস্তা নিয়ে যান তিনি। সিঙ্গাপুরের সবচেয়ে বড় জুয়ার আস্তানা মেরিনা বে স্যান্ডস ক্যাসিনোতে পশ্চিমা বিভিন্ন দেশ থেকেও আসেন জুয়াড়িরা। কিন্তু সেখানেও স¤্রাট ভিআইপি জুয়াড়ি হিসেবে পরিচিত। প্রথমসারির জুয়াড়ি হওয়ায় সিঙ্গাপুরের চেঙ্গি এয়ারপোর্টে তাকে রিসিভ করার জন্য বিশেষ ব্যবস্থাও রয়েছে। এয়ারপোর্ট থেকে মেরিনা বে স্যান্ডস ক্যাসিনো পর্যন্ত তাকে নিয়ে যাওয়া হয় বিলাসবহুল গাড়ি ‘লিমুজিন’যোগে। সিঙ্গাপুরে জুয়া খেলতে গেলে স¤্রাটের নিয়মিত সঙ্গী হন যুবলীগ দক্ষিণের নেতা আরমানুল হক আরমান, মোমিনুল হক সাঈদ ওরফে সাঈদ কমিশনার, সসম্রাটর ভাই বাদল ও জুয়াড়ি খোরশেদ আলম।

 

hzejx‡Mi mfvcwZ m¤ªvU I mn-mfvcwZ Avigv‡bi Qq gv‡mi Kviv`Ðm¤ªv‡Ui Kvh©vj‡q A¯¿ g` Bqvev I K¨vOviæi PvgovGdGbGm: Kzwgjøv †_‡K †MÖßvi XvKv gnvbMi `w¶Y hzejx‡Mi mfvcwZ BmgvBj †PŠazix m¤ªvU I mn-mfvcwZ Gbvgzj nK Avigvb‡K Qq gvm K‡i Kviv`Ð w`‡q‡Q åvg¨gvY Av`vjZ| AvUK nIqv XvKv gnvbMi `w¶Y hzejx‡Mi mfvcwZ BmgvBj †nv‡mb †PŠazix Ii‡d m¤ªvU‡K wb‡q Zvui KvKivB‡ji Kvh©vjq f‚uBqv †UªW †m›Uv‡i Awfhvb Pvwj‡q weczj cwigvY we‡`wk g`, Bqvev, we‡`wk wc¯Íj, ¸wj I K¨vOviæi Pvgov D×vi K‡i i¨ve| `zczi †mvqv GKUv †_‡K mܨv QqUv ch©šÍ IB Kvh©vj‡q Awfhvb Pvjvq i¨ve| GKB mgq m¤ªv‡Ui fvB‡qi kvwšÍbM‡ii evmv I m¤ªv‡Ui gnvLvjxi evmvq Awfhvb Pvjvq i¨ve| Z‡e †mLvb Kx cvIqv †M‡Q Zv Rvbvqwb i¨ve| MZ 18 †m‡Þ¤^i K¨vwm‡bv we‡ivax Awfhvb ïiæ nIqvi ci GB f‚uBqv †UªW †m›Uv‡i Ae¯’vb K‡iwQ‡jb m¤ªvU| c‡i wZwb Ab¨ RvqMvq P‡j hvb| i¨v‡ei wWwR †ebRxe Avn‡g` e‡j‡Qb, Awfhvb ïiæi 2 w`‡bi gv_vq m¤ªvU XvKv Z¨vM K‡ib| MZKvj Kzwgjøv †_‡K m¤ªvU‡K †MÖßvi Kiv nq| i¨ve Rvwb‡q‡Q m¤ªv‡Ui Kvh©vjq †_‡K 1 nvRvi 160wU Bqvev, weczj cwigvY we‡`wk g`, GKwU wc¯Íj I Qq ivDÛ ¸wj I `zwU K¨vOviæi Pvgov D×vi Kiv n‡q‡Q|K¨vOviæi Pvgov cvIqvq eb¨cÖvYx (msi¶Y) AvB‡b XvKv gnvbMi `w¶Y hzejx‡Mi mfvcwZ BmgvBj †PŠazix m¤ªvUÕ‡K Qq gv‡mi Kviv`Ð w`‡q‡Q åvg¨gvY Av`vjZ| Avi Kzwgjøvq †MÖßv‡ii mgq Avigvb Ôg`¨cÕ _vKvq Zv‡K †mLv‡bB åvg¨gvY Av`vj‡Zi gva¨‡g Qq gv‡mi Kviv`Ð w`‡q KvivMv‡i cvVv‡bv n‡q‡Q e‡j i¨v‡ei wbe©vnx nvwKg mviIqvi Avjg Rvwb‡q‡Qb|MZ kwbevi †fv‡i Kzwgjøvi †PŠÏMÖvg †_‡K m¤ªvU I hzejx‡Mi Av‡iK †bZv Gbvgzj nK Avigvb‡K AvUK K‡i i¨ve| †mLvb †_‡K Zvu‡`i `zczi 12Uvi w`‡K ivRavbxi DËivq i¨ve m`i `߇i †bIqv nq| wRÁvmvev` †k‡l Zvu‡`i wb‡q Awfhv‡b †ei nq i¨ve| †ejv †mvqv GKUvi w`‡K m¤ªvU‡K Zvui KvKivB‡ji Kvh©vj‡q †bIqv nq| MZ gv‡mi gvSvgvwS K¨vwm‡bv we‡ivax Awfhvb ïiæ nIqvi ci †_‡K †UÛvievwR, Pvu`vevwRmn bvbv Awf‡hv‡Mi Kvi‡Y hzejxM †bZv m¤ªv‡Ui bvg Av‡jvPbvq Av‡m| Awfhv‡b hzejxM, K…lK jxM I AvIqvgx jx‡Mi K‡qKRb †bZv i¨ve-czwj‡ki nv‡Z †MÖßvi nb| wKš‘ m¤ªvU wQ‡jb aiv‡Qvuqvi evB‡i| Awfhvb ïiæi cÖ_g wZb w`b m¤ªvU `„k¨gvb wQ‡jb| wZwb †dvbI ai‡Zb| †m mgq Qq w`b wZwb KvKivB‡j Zvui e¨w³MZ Kvh©vj‡q Ae¯’vb K‡ib| e¨w³MZ Kvh©vj‡q m¤ªv‡Ui Ae¯’vbKv‡j kZvwaK hzeK Zvu‡K cvnviv w`‡q †i‡LwQ‡jb| †mLv‡bB mevi LvIqv`vIqvi e¨e¯’v Kiv n‡qwQj| ci Ab¨ ¯’v‡b P‡j hvb m¤ªvU| Gici Zvui Ae¯’vb wb‡q in‡m¨i m„wó nq| m¤ªv‡Ui cwiev‡ii Nwbô m‚‡Î Rvbv hvq, MZ 2 eQi a‡i XvKvi gnvLvjx‡Z wØZxq ¯¿xi evmvq †h‡Zb bv m¤ªvU| wZwb KvKivB‡j f‚uBqv †UªW †m›Uv‡i wbR Kvh©vj‡q _vK‡Zb| MZ 18 †m‡Þ¤^i XvKvi K¬ve¸‡jv‡Z K¨vwm‡bv we‡ivax Awfhvb ïiæ K‡i i¨ve| ¶gZvmxb AvIqvgx jx‡Mi mn‡hvMx msMVb hzejx‡Mi †bZvivB g‚jZ GB K¨vwm‡bv e¨emv wbqš¿Y Ki‡Zb e‡j Awf‡hvM i‡q‡Q| cÖ_g w`b dwKivcz‡ji Bqs‡gbm K¬v‡e Awfhvb Pvjvq i¨ve| GiciB ¸jkvb †_‡K †MÖßvi Kiv nq XvKv gnvbMi `w¶Y hzejx‡Mi mvsMVwbK m¤úv`K I K¬vewUi mfvcwZ Lv‡j` †nv‡mb f‚uBqv‡K| Z‡e AvBbk„•Ljv i¶vKvix evwnbx I ivR‰bwZK A½‡bi †jv‡Kiv g‡b K‡ib, XvKvq K¨vwm‡bv e¨emvi Ab¨Zg wbqš¿K m¤ªvU|
hzejxM †_‡K m¤ªvU I mn‡hvMx AvigvbI ewn®‹vihzejxM †_‡K ewn®‹vi n‡q‡Qb BmgvBj †nv‡mb †PŠazix m¤ªvU| hzejx‡Mi XvKv `w¶‡Yi mfvcwZ m¤ªvU MZKvj †iveevi †fv‡i i¨v‡ei nv‡Z †MÖdZvi nIqvi ci msMVb †_‡K Zv‡K ewn®‹vi Kiv nq| †K›`ªxq hzejx‡Mi wk¶v, cÖwk¶Y I cvVvMvi welqK m¤úv`K wgRvbzj Bmjvg wgRzwelqwU wbwðZ K‡ib|wZwb e‡jb, ÔAmvgvwRK Kvh©Kjv‡c RwoZ _vKv I `jxq k„•Ljvwe‡ivax Kg©Kv‡Ð wjß nIqvi Awf‡hv‡M m¤ªvU‡K ewn®‹vi Kiv n‡q‡Q|Õm¤ªv‡Ui m¤ªv‡Ui cvkvcvwk Zvi mn‡hvMx XvKv `w¶Y hzejx‡Mi mn-mfvcwZ Gbvgzj nK Avigvb‡KI `j †_‡K ewn®‹vi Kiv n‡q‡Q e‡j wgRz wbwðZ K‡i‡Qb| Gi Av‡M MZKvj †iveevi †fv‡i Kzwgjøvi †PŠÏMÖv‡g GK AvZ¥x‡qi evwo †_‡K m¤ªvU‡K Zvi mn‡hvMx K¨vwm‡bv Avigvbmn †MÖdZvi K‡i i¨ve| Zvi weiæ‡× ivRavbxi K¬vecvovmn wewfbœ ¯’v‡b Rzqvi Avmi I K¨vwm‡bv cwiPvjbvi Awf‡hvM i‡q‡Q|
m¤ªv‡Ui DÌvb †hfv‡eXvKv gnvbMi `w¶Y hzejx‡Mi mfvcwZ BmgvBj †nv‡mb †PŠazix m¤ªvU| ivRavbxi K¬vecvovq igigv Rzqvi Avmi cwiPvjbv K‡i e¨vcK Av‡jvwPZ wZwb| K¬ve¸‡jv‡Z Rzqvi AvazwbK ms¯‹vi ÔK¨vwm‡bvÕ e¨emvI hz³ K‡i‡Qb m¤ªvU| G Kvi‡Y Rzqvwo‡`i Kv‡Q wZwb ÔK¨vwm‡bv m¤ªvUÕ bv‡gI cwiwPwZ †c‡q‡Qb| Rzqv K¨vwm‡bv QvovI XvKv `w¶‡Yi †MvUv A‡j wQj Zvi `vcU| MZ 10 eQi a‡i Pvu`vevwR, †UÛvi wbqš¿Y, evwo I Rwg`Lj meB wbqš¿Y K‡i‡Qb m¤ªvU| †dbxi ciïivg Dc‡Rjvi Awaevmx m¤ªv‡Ui wcZv ivRD‡Ki †QvU c‡` PvKwi Ki‡Zb| evwo ciïiv‡g n‡jI †mLv‡b Zv‡`i cwiev‡ii †KD _v‡Kb bv| evevi PvKwii mzev‡` XvKvq eo nb m¤ªvU| cwiev‡ii m‡½ cÖ_‡g emevm Ki‡Zb KvKivB‡j mvwK©U nvDm mo‡Ki miKvwi †KvqvU©v‡i| ivRbxwZ‡Z m¤ªv‡Ui AvMgb N‡U 1990 `k‡Ki ïiæi w`‡K| G mgq wKQzw`b QvÎjx‡Mi m‡½ hz³ wQ‡jb| Aek¨ Zvi Av‡M Gikv‡`i RvZxq cvwU©i QvÎ msMVb QvÎmgv‡Ri m‡½I Zvi m¤ú„³Zv wQj e‡j Zvi cwiwPZR‡biv Rvwb‡q‡Qb| weGbwci 1991-96 Avg‡j QvÎjxM †Q‡o w`‡q hzejx‡Mi ivRbxwZ‡Z hz³ nb| 2003 mv‡j hzejxM XvKv gnvbMi `w¶‡Yi mvsMVwbK m¤úv`K wbe©vwPZ nb| †m mgq `w¶‡Yi mfvcwZ wQ‡jb gwnDwÏb Avn‡g` gwn, Avi mvaviY m¤úv`K wQ‡jb bziæbœex †PŠazix kvIb| g‚jZ kvIbB m¤ªvU‡K c„ô‡cvlKZv w`‡Zb| cieZ©x‡Z 2012 mv‡j m¤ªvU XvKv gnvbMi hzejxM `w¶‡Yi mfvcwZ nb| Gici Avi Zvi †cQ‡b ZvKv‡Z nqwb| Gw`‡K hzejxM XvKv gnvbMi `w¶‡Yi wbR¯^ †KvbI Kvh©vjq bv _vK‡jI m¤ªvU `vwqZ¡ †bIqvi ci KvKivB‡j ivRgwY wm‡bgv n‡ji D‡ëv w`‡K wekvj GK fe‡bi cz‡ivUvRz‡o Awdm ïiæ K‡ib| mvsMVwbK Kv‡Ri K_v ejv n‡jI GLv‡b e‡mB m¤ªvU K¨vwm‡bv e¨emv †_‡K ïiæ K‡i mewKQz wbqš¿Y Ki‡Zb| mKvj †_‡K Mfxi ivZ ch©šÍ GLv‡b _vK‡Zv Zvi Kg©x evwnbx I AcK‡g©i m½x‡`i Avbv‡Mvbv| †h iv‡Z Lvwj` gvngz` †MÖdZvi nb, IB iv‡Z m¤ªvU Zvi Awd‡mB wQ‡jb e‡j Rvbv hvq| Aek¨ cwievi wb‡q Zvi emevm gnvLvjx wWIGBPG‡mi GKwU evwo‡Z| bvbv AcK‡g©i wecix‡Z m¤ªvU hzejxM I AvIqvgx jx‡Mi †K›`ªxq †bZv‡`i `„wó Kv‡ob ivR‰bwZK Kg©m‚wP‡Z Ô†jvKejÕ mvcøvB Avi A_© w`‡q| Zvi i‡q‡Q wekvj ÔKg©xevwnbxÕ| AvIqvgx jx‡Mi ivR‰bwZK Kg©m‚wP‡Z eo ai‡bi †kvWvDb †`Lv‡Zb wZwb| Kg©xevwnbx‡K G‡KK Kg©m‚wP‡Z G‡KK ai‡bi †cvkvK cwi‡q `„wó Kvo‡Zb mevi| GRb¨ hzejxM †Pqvig¨vb m¤ªvU‡K †kÖô msMVK e‡j AvL¨vwqZ K‡ib| GgbwK K¨vwm‡bv e¨emvi Lei cÖKv‡ki ciI Zvi c‡¶ Ae¯’vb †bb hzejxM †Pqvig¨vb| MYgva¨gKg©x‡`i GKwU As‡ki m‡½I i‡q‡Q Zvi mL¨| †h Kvi‡Y m¤ªv‡Ui †h‡KvbI Kg©m‚wPi wgwWqv Kvfv‡iRI wQj †Pv‡L covi g‡Zv| AvIqvgx jxM mfvcwZ cÖavbgš¿x †kL nvwmbvI m¤ªv‡Ui GB Kg©xevwnbxi Z_¨ Rvb‡Zb| GRb¨ Zvi cÖwZ mdUKb©vi wQj memgq| MZ eQi m¤ªv‡Ui weiæ‡× AvÄzgvb gwd`zj Bmjv‡gi Kv‡Q †KvwU UvKv Pvu`v `vwei Awf‡hvM I‡V| GUv Rvb‡Z †c‡i †kL nvwmbv Zvi Ici Pig ÿzä nb| AvÄzgvb‡K cÖavbgš¿x wb‡R I Zvi †evb †kL †invbv wewfbœ mg‡q Abz`vb w`‡q Avm‡Qb| m¤ªvU Zv‡`i Kv‡Q Pvu`v PvIqvq Pig †¶vf cÖKvk K‡ib cÖavbgš¿x| ÿzä n‡q MZ eQ‡ii †m‡Þ¤^‡i RvwZms‡Ni m‡¤§j‡b hvIqvi Av‡M wZwb hzejxM `w¶‡Yi KwgwU †f‡O †`Iqvi wb‡`©kbv w`‡q hvb| Z‡e †mB wb‡`©kbv ZLb ev¯Íevqb ch©šÍ Movqwb| GiBg‡a¨ wewfbœ †Mv‡q›`v ms¯’v †_‡K m¤ªv‡Ui Rzqv I K¨vwm‡bv e¨emv cwiPvjbvi wi‡cvU© cvb cÖavbgš¿x| G Qvov cÖavbgš¿x wKQzw`b Av‡M KvbvWv md‡i †M‡j gwZwSj GjvKvi mv‡eK GKRb Qv·bZv m¤ªv‡Ui weiæ‡× mivmwi Awf‡hvM †Zv‡jb| m¤ªv‡Ui Kvi‡YB wZwb ivRbxwZ †Q‡o KvbvWv P‡j †M‡Qb e‡j Rvbvb| GiB cwi‡cÖw¶‡Z AvIqvgx jx‡Mi †K›`ªxq Kvh©wbe©vnx KwgwUi me©‡kl ˆeV‡K QvÎjx‡Mi weiæ‡× e¨e¯’v †bIqvi K_v ej‡Z wM‡q AveviI m¤ªv‡Ui bvg Av‡m| ZLb cÖavbgš¿x m¤ªv‡Ui Rzqv K¨vwm‡bv e¨emvi bvg D‡jøL K‡i e¨e¯’v †bIqvi K_v e‡jb| GiciB †MÖdZvi nb hzejxM XvKv gnvbMi `w¶‡Y mvsMVwbK m¤úv`K Lvwj` gvngz` fzuBqv| G mgq Av‡jvPbvq Av‡m m¤ªv‡Ui bvgI|mswkøó wewfbœ m‚‡Î Rvbv †M‡Q, m¤ªvU MZ w`b `‡kK a‡i †Mv‡q›`v bRi`vwii g‡a¨ wQ‡jb| †Mv‡q›`v bRi`vwii g‡a¨ †_‡KI wZwb †`k †Q‡o cvjv‡bvi †Póv K‡ib| Z‡e †mB †Póvq mdj nbwb| MZKvj †iveevi †fv‡ii w`‡K m¤ªvU‡K Kzwgjøvi †PŠÏMÖv‡g AvZ¥xq gwbiæj Bmjv‡gi evwo †_‡K †MÖdZvi K‡i i¨ve| m¤ªv‡Ui eo fvB ev`j †PŠazix XvKvq Zvi K¨vwm‡bv e¨emv †`Lv‡kvbv Ki‡Zb| †QvU fvB iv‡k` QvÎjx‡Mi ivRbxwZ K‡ib| Zvi evev A‡bK Av‡MB gviv †M‡Qb| gv eo fvB‡qi m‡½ XvKvq _v‡Kb| K¨vwm‡bvwe‡ivax Awfhv‡bi ci m¤ªv‡Ui cwiev‡ii mevB Mv XvKv †`b| m¤ªv‡Ui Nwbô `zB mnPi n‡jbÑXvKv gnvbMi `w¶Y hzejx‡Mi hzM¥ m¤úv`K gwgbzj nK mvC` I mvsMVwbK m¤úv`K Lv‡j` gvngz` f‚uBqv| hzejx‡Mi Av‡iK cÖfvekvjx †bZv wR †K kvgxgI m¤ªvU‡K A‰ea Av‡qi fvM w`‡Zb| ÔK¨vwm‡bv m¤ªvUÕ ivRavbxi Rzqvwo‡`i Kv‡Q †ek cwiwPZ bvgÑwZwb XvKv `w¶Y hzejx‡Mi mfvcwZ BmgvBj †PŠazix m¤ªvU| m¤ªv‡Ui †bkv I Ô†ckvÕ Rzqv †Ljv| wZwb GKRb †ckv`vi Rzqvwo| cÖwZgv‡m AšÍZ 10 w`b wm½vcz‡i hvb Rzqv †Lj‡Z| †mLv‡b UvKvi e¯Ív wb‡q hvb wZwb| wm½vcz‡ii me‡P‡q eo Rzqvi Av¯Ívbv †gwibv †e m¨vÛm K¨vwm‡bv‡Z cwðgv wewfbœ †`k †_‡KI Av‡mb Rzqvwoiv| wKš‘ †mLv‡bI m¤ªvU wfAvBwc Rzqvwo wn‡m‡e cwiwPZ| cÖ_gmvwii Rzqvwo nIqvq wm½vcz‡ii †Pw½ Gqvi‡cv‡U© Zv‡K wiwmf Kivi Rb¨ we‡kl e¨e¯’vI i‡q‡Q| Gqvi‡cvU© †_‡K †gwibv †e m¨vÛm K¨vwm‡bv ch©šÍ Zv‡K wb‡q hvIqv nq wejvmeûj Mvwo ÔwjgzwRbÕ‡hv‡M| wm½vcz‡i Rzqv †Lj‡Z †M‡j m¤ªv‡Ui wbqwgZ m½x nb hzejxM `w¶‡Yi †bZv Avigvbzj nK Avigvb, †gvwgbzj nK mvC` Ii‡d mvC` Kwgkbvi, m¤ªv‡Ui fvB ev`j I Rzqvwo †Lvi‡k` Avjg|





         
   আপনার মতামত দিন
     প্রশাসন
সারাদেশে দুদকের ৬ অভিযান
.............................................................................................
সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করুন : দুদক চেয়ারম্যান
.............................................................................................
গণপূর্তে দুর্নীতির ১০ উৎস চিহ্নিত করেছে দুদক, প্রতিবেদন মন্ত্রীর কাছে
.............................................................................................
যুবলীগের সভাপতি সম্রাট ও সহ-সভাপতি আরমানের ছয় মাসের কারাদন্ড
.............................................................................................
রংপুর মেডিকেল কলেজের অধক্ষ্য সহ ৬ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
.............................................................................................
বাংলাদেশের জলসীমায় অনুপ্রবেশের দায়ে ভারতীয় ২৩ জেলে আটক
.............................................................................................
দুর্নীতি, মাদক ও অনিয়মের বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত থাকবে: র‌্যাব ডিজি
.............................................................................................
সেলিমের বাসা থেকে ২৯ লাখ টাকা, ২৩ দেশের মুদ্রা, বিদেশি মদ উদ্ধার
.............................................................................................
রংপুর উপনির্বাচনে ভোটাররা নিরাপদে ভোট দিতে আসবেন: সিইসি
.............................................................................................
রোহিঙ্গা ক্যাম্পের চারপাশে বেড়া দেওয়ার কাজ চলছে: সেনা প্রধান
.............................................................................................
দুর্নীতি তদন্তে তথ্য না দিলে ব্যবস্থা: দুদক চেয়ারম্যান
.............................................................................................
ক্যাসিনো নিয়ে মেনন, মাহবুব ও সামশুল হককে আইনি নোটিশ
.............................................................................................
আ. লীগের ২ নেতার বাড়িতে ৫ কোটি টাকা, ৭২০ ভরি স্বর্ণ, অস্ত্র
.............................................................................................
লালমনিরহাটে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় সন্ত্রাসী গ্রেফতার
.............................................................................................
নাটোরে চাঁদাবাজির অভিযোগে মহিলা আ. লীগ নেত্রী বহিষ্কার
.............................................................................................
শাহজালালে ৪৬ দেশের মুদ্রাসহ আটক ১
.............................................................................................
জি কে শামীমের অফিস থেকে ২শ কোটি টাকার এফডিআর চেক ও এক কোটি টাকা উদ্ধার
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট: নোয়াখালীতে ২ পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থার নেওয়ার সুপারিশ
.............................................................................................
শিক্ষা ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনায় দুর্নীতি বন্ধে প্রচেষ্টা অব্যাহত: দুদক চেয়ারম্যান
.............................................................................................
অর্থ পাচারকারীদের আইনের আওতায় আনতে এফবিআই’র সহযোগিতা চায় দুদক
.............................................................................................
আজ চীন যাচ্ছেন বিমান বাহিনী প্রধান
.............................................................................................
অতিরিক্ত আইজিপি হলেন ৫ কর্মকর্তা
.............................................................................................
নিজেরা সোচ্চার না হলে দুর্নীতি কমবে না: দুদক সচিব
.............................................................................................
রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় মোবাইল সেবা সীমিত হচ্ছে
.............................................................................................
আটকে থাকা ৮ উপজেলায় ভোট ১৪ অক্টোবর
.............................................................................................
দেশের ৬ জায়গায় দুদকের অভিযান
.............................................................................................
পুলিশ সুপার পদমর্যাদার ৫ কর্মকর্তাকে বদলি
.............................................................................................
ব্যাংকের অর্থ আত্মসাতে ৬ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
.............................................................................................
ট্রেনের ছাদে ভ্রমণকারীদের বিরুদ্ধে ১ সেপ্টেম্বর হতে কঠোর ব্যবস্থা
.............................................................................................
নতুন ডিএমপি কমিশনার হলেন সিআইডি প্রধান শফিকুল ইসলাম
.............................................................................................
পেঁয়াজের কারসাজি ধরতে পাইকারি বাজারে অভিযান
.............................................................................................
মুক্তিযোদ্ধা সনদ বাতিল হলো ১৩ জনের
.............................................................................................
দুর্নীতি প্রতিরোধেই সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে: দুদক চেয়ারম্যান
.............................................................................................
পুলিশ-রোহিঙ্গা গোলাগুলি, নিহত ২
.............................................................................................
নিরপরাধ কেউ যেনো হয়রানির শিকার না হয়: আইজিপি
.............................................................................................
অতিরিক্ত ডিআইজি হলেন ২০ এসপি
.............................................................................................
দুর্নীতির অভিযোগে একযোগে ২১ জেলায় দুদকের অভিযান
.............................................................................................
কার্ডের মাধ্যমে ঘটনাস্থলে পরিশোধ করা যাবে ট্রাফিকের জরিমানা
.............................................................................................
এনআরবি ব্যাংকের টাকা আত্মসাৎ: ১৪ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
.............................................................................................
গুজবকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে একটি স্বার্থান্বেষী মহল: আইজিপি
.............................................................................................
সেনানিবাস এলাকায় ডেঙ্গু নির্মূল অভিযানের উদ্বোধন করলেন সেনা প্রধান
.............................................................................................
দুর্নীতি প্রতিরোধে সব প্রতিষ্ঠানের ঐকান্তিক সহযোগিতা প্রয়োজন: দুদক চেয়ারম্যান
.............................................................................................
বিমানের সাবেক এমডিসহ ১০ কর্মকর্তাকে দুদকে তলব
.............................................................................................
বড় পুকুরিয়া কয়লা খনির ৭ এমডিসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র
.............................................................................................
দিনাজপুরে ঘুষ লেনদেনকালে হাতেনাতে গ্রেফতার সেটেলমেন্ট কর্মকর্তাসহ ২ জন
.............................................................................................
বাগেরহাটে আসামিকে ব্যক্তিগত গাড়িযোগে কারাগারে নেওয়ায় ৫ পুলিশ প্রত্যাহার
.............................................................................................
বিভিন্ন সেনানিবাসে নানা প্রজাতির দু’লাখ বৃক্ষ রোপণ করবে সেনাবাহিনী
.............................................................................................
সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
.............................................................................................
কর্মকর্তাদের সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করার আহ্বান দুদক চেয়ারম্যানের
.............................................................................................
পুলিশ-র‌্যাব-বিজিবি প্রধান কক্সবাজারে
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]