শনিবার, ০৫ মাঘ ১৪২৬, ১৮ জানুয়ারি ২০২০, ২২ জমাঃ আউয়াল ১৪৪১ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   সম্পাদকীয়
উপমহাসাগরীয় অঞ্চলে উত্তেজনা বাড়ছে মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধ যেন অপরিহার্য না হয়
  তারিখ: 13 - 01 - 2020


মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে ইরানের শীর্ষস্থানীয় জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যা, পরবর্তীতে ইরানি ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ইউক্রেনের যাত্রীবাহী উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় ১৭৬ জনের প্রাণহানী দুঃখজনক। মূল্যত দুটি ঘটনাই ট্রাম্পের হঠকারিতায় সৃষ্ট সঙ্কট। এখনো উদ্ধত ট্রাম্পের মধ্যে শান্ত ও নমনীয় হওয়ার লক্ষণ নেই। উল্টো আরো সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, ইরান যদি মার্কিন স্বার্থ ও সম্পদের বিরুদ্ধে প্রতিশ্রুত প্রতিশোধ নেয়ার চেষ্টা করে তবে ইরানের ৫২টি গুরুত্বপূর্ণ স্থান তাদের নিশানায় রয়েছে, যেগুলোতে খুব কঠোরভাবে হামলা করা হবে।
যদিও ইউক্রেনের যাত্রীবাহী উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনাকে ‘অমার্জনীয় ভুল’ বলে উল্লেখ দুঃখ প্রকাশ করেছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। উড়োজাহাজটি বিধ্বস্ত হওয়া নিয়ে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে বিমানটি বিধ্বস্ত উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নাও হতে পারে। একই মন্তব্য করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।
সোলেইমানির হত্যাকে কেন্দ্র করে যদি মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধ বেধে যায়, তাহলে সমগ্র এলাকায় জ্বালানি তেল উৎপাদনে মারাত্মক ক্ষতি হবে। যার প্রভাব পড়বে বিশ্ব অর্থনীতিতে। আর এ যুদ্ধ শুধুমাত্র মধ্যপ্রাচ্যের মধ্যেই সীমিত থাকবে না, তা ছড়িয়ে পড়বে বিভিন্ন অঞ্চলে, এমনকি সমগ্র বিশ্বেই।
এছাড়া মধ্যপ্রাচ্য নিয়ে ইসরায়েলের একটি বড় স্ট্র্যাটেজি রয়েছে। পেন্টাগনের কট্টরপন্থি ইসরায়েলি লবি ও অস্ত্র ব্যবসায়ীরা মধ্যপ্রাচ্যে আরেকটি যুদ্ধ চায়। যুদ্ধ হলেই অস্ত্রের চাহিদা বাড়বে, লাভবান হবে অস্ত্র উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো। সংবাদপত্রের খবর অনুযায়ী সর্বাত্মক একটি যুদ্ধের অংশ হিসেবেই যুক্তরাষ্ট্র ভারত মহাসাগরের দিয়াগো গার্সিয়ায় তাদের যে সামরিক ঘাঁটি রয়েছে, সেখানে ছয়টি বি-৫২ দীর্ঘ পাল্লার বোমারু বিমান পাঠিয়েছে। এর আগে সেখানে ৪ হাজার মার্কিন সেনা মোতায়েন করা হয়। ইরাকে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক ঘাঁটিগুলোর মধ্যে রয়েছেÑ আবু গারাইব, কাদিমিয়া, সাইকেস, ক্যাপ তাজি, বালাদ এয়ার বেস, ভিক্টরি বেস কসপ্লেকস। বাহরাইনে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর ৫ম ফ্লিটের সদর দপ্তর। এ ছাড়া সৌদি আরবে রয়েছে একাধিক ঘাঁটি। যুক্তরাষ্ট্রকেও মনে রাখতে হবে, এসব ঘাঁটি সম্ভাব্য ইরান আক্রমণে ব্যবহৃত হতে পারে।
সুলেইমানি হত্যাকাণ্ডের প্রতিশোধ হিসেবে ইরাকে মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে ১২টি রকেট হামলা চালিয়েছিল ইরান। ধারণা করা হয়েছিল, এরপর যুক্তরাষ্ট্রও ইরানে হামলা চালাবে। কিন্তু তা হয়নি। ট্রাম্প এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেছেন, তিনি যুদ্ধ নয়, শান্তি চান। কিন্তু এটা তার মনের কথা কি না সে ব্যাপারে অনেকেই সন্দিহান। অতীত অভিজ্ঞতা বলে, তার কথা ও কাজের মধ্যে কোনো মিল নেই। মধ্যপ্রাচ্যের পরিস্থিতি যাতে শান্ত ও যুদ্ধ যেন অপরিহার্য না হয়, সেটাই আমাদের কাম্য। দুই পক্ষকেই যুদ্ধ পরিহার করে আলোচনার পথ ধরতে হবে, তবে এ সিদ্ধান্ত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হাতে। কারণ, এ সংকটের মূলে রয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প । তিনি যদি সঠিক সিদ্ধান্ত না নেন, তবে বিশ্বব্যাপী নতুন ও বিপজ্জনক সঙ্কট তৈরি হবে।

 





         
   আপনার মতামত দিন
     সম্পাদকীয়
উপমহাসাগরীয় অঞ্চলে উত্তেজনা বাড়ছে মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধ যেন অপরিহার্য না হয়
.............................................................................................
মানবপাচারের ভয়ঙ্কর ফাঁদ রঙিন স্বপ্ন দুঃস্বপ্নে পরিণত
.............................................................................................
আসছে শীতে পথশিশুদের পাশে দাঁড়াই
.............................................................................................
দ্বিখন্ডিত শহরে দুর্ভোগও দ্বিগুণ
.............................................................................................
অভিন্ন নদীর পানিবণ্টন দ্রুততম সময়ে সমঝোতায় আসা প্রয়োজন
.............................................................................................
ঘরে ফিরছে মানুষ ঈদ যাত্রা নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করুন
.............................................................................................
নিরাপদ হোক ঈদযাত্রা
.............................................................................................
দুর্যোগে করণীয়
.............................................................................................
পুঁজিবাজারে দরপতন
.............................................................................................
কৃষিতে কৃষকের অরুচি সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরি
.............................................................................................
প্রকল্পে সরাসরি অর্থ ছাড় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
ঝুঁকিতে দুই কোটি শিশু এদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা নিশ্চিত করুন
.............................................................................................
অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার ভয়ংকর পরিণতি থেকে রক্ষা পেতে হবে
.............................................................................................
বাড়ছে শ্রমিক অসন্তোষ মজুরি কমিশনের সুপারিশ আমলে নিন
.............................................................................................
রমজানে বাজারদর স্থিতিশীল রাখার ব্যবস্থা নিতে হবে
.............................................................................................
শিল্পায়নে বাধা
.............................................................................................
সড়কে মর্মান্তিক মৃত্যু ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল বন্ধ করুন
.............................................................................................
ডাক্তারদের প্রাইভেট প্র্যাকটিস প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়িত হোক
.............................................................................................
পেট কাটলেন নার্স, ডাক্তার বললেন ‘ঝামেলা আছে সেলাই করে দাও’
.............................................................................................
বাড়ছে উত্তাপ-উত্তেজনা
.............................................................................................
নির্বাচনের পরিবেশ
.............................................................................................
ক্ষতিপূরণ পেতে ভোগান্তি
.............................................................................................
জননিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা
.............................................................................................
পরিবেশের প্রধান শত্রু প্লাস্টিক
.............................................................................................
বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে রোহিঙ্গারা
.............................................................................................
খুরা রোগের টিকা
.............................................................................................
চিকিৎসা বীমা
.............................................................................................
মাদকবিরোধী কর্মপরিকল্পনা
.............................................................................................
পানিও নিরাপদ নয়
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মুদ্রাপাচার বেড়েই চলেছে
.............................................................................................
মাদকে মৃত্যুদন্ড
.............................................................................................
বিশ্বমানের চিকিৎসা
.............................................................................................
গুজবের পিছে ছুটছে মানুষ
.............................................................................................
মিয়ানমারের নতুন উসকানি
.............................................................................................
স্বর্ণ নীতিমালা
.............................................................................................
শিশু যখন শ্রমিক
.............................................................................................
বেহাল স্বাস্থ্যসেবা
.............................................................................................
সম্ভাবনার কাঁকড়া শিল্প
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
ক্ষতিকর এনার্জি ড্রিংকস
.............................................................................................
মির্জাপুরে কাঠ পোড়ানো চুল্লি
.............................................................................................
হুমকিতে তিন-চতুর্থাংশ মানুষ
.............................................................................................
বেহাল সড়ক ও সেতু
.............................................................................................
সর্বোচ্চ মৃত্যু বাংলাদেশে
.............................................................................................
নতুন মাদক খাত
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
.............................................................................................
সম্পর্কে নতুন মাত্রা
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল ২০১৮ বিতর্কিত ধারাগুলো পর্যালোচনা করুন
.............................................................................................
পরিবেশদূষণ বড় ঘাতক
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা ডট কম
মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত ।

প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ মো: হারুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
বার্তা সম্পাদক: মো: শরিফুল ইসলাম রানা
সহ: সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বিশেষ প্রতিনিধি : মো: আকরাম খাঁন
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]