৭ শাওয়াল রমজান ১৪৪১ , ঢাকা, রবিবার, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৩১ মে , ২০২০ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   অর্থ-বাণিজ্য
পৌনে ২ লাখ কোটি টাকার ঘাটতি বাজেট আসছে
  তারিখ: 17 - 05 - 2020

আগামী অর্থবছরের জন্য প্রায় পৌনে দুই লাখ কোটি টাকার রেকর্ড পরিমাণ ঘাটতি বাজেট প্রণয়নের কাজটি প্রায় শেষ পর্যায়ে নিয়ে এসেছে অর্থ মন্ত্রণালয়। জিডিপির অংশ হিসেবে বাজেট ঘাটতি সাড়ে ৫ শতাংশ ছাড়িয়ে যাচ্ছে। অন্ততপক্ষে গত ১০ বছরের মধ্যে এত বিশাল পরিমাণ ঘাটতি নিয়ে বাজেট প্রণয়ন করা হয়নি বলে জানা গেছে। এর আগে সব সময় বাজেট ঘাটতি ‘পেস্টিজ নাম্বার’ হিসেবে বিবেচিত জিডিপির ৫ শতাংশের নিচে রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে। অর্থ বিভাগ সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এত বিশাল অঙ্কের ঘাটতি কিভাবে পূরণ করা হবে- তারও একটি হিসাব কষে রেখেছেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের বাজেট প্রণয়নকারী ‘ঝানু’ আমলারা। খুব সহজ উপায় হিসেবে বাজেট ঘাটতি পূরণের চেষ্টা করা হবে ব্যাংকিং খাতের ওপর হাত রেখেই। এর ফলে শুধুমাত্র ব্যাংক থেকে ঋণ নেয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হচ্ছে ৭২ হাজার কোটি টাকা। যা ইতোমধ্যে চলতি অর্থবছরের ঘাটতি পূরণের জন্য ব্যাংক থেকে নিয়ে নেয়া হয়েছে। চলতি অর্থবছরে এ খাত থেকে নেয়ার লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৪৭ হাজার কোটি টাকা।

এত বিশাল অঙ্কের টাকা ব্যাংকব্যবস্থা থেকে নেয়া হলে বেসরকারি খাত ঋণ থেকে বঞ্চিত হতে পারে। কিন্তু সরকারের হাতে ঘাটতি পূরণের জন্য সহজ উপায় হিসেবে আর কোনো দ্বিতীয় পন্থা এখন আর চোখে দেখা যাচ্ছে না। কারণ করোনা পরিস্থিতির ফলে আগামী ২০২০-২০২১ অর্থবছরে রাজস্ব আয় কেমন হবে তার কোনো সুনির্দিষ্ট প্রক্ষেপণ এখন পর্যন্ত করা সম্ভব হচ্ছে না। চলতি অর্থবছরে এ খাত থেকে অর্জন এখন ‘পরাজিত সৈনিকের’ মতো অবস্থা। বছর শেষে রাজস্ব ঘাটতি এক লাখ কোটি টাকা ছুঁয়ে যেতে পারে বলে ইতোমধ্যে শঙ্কা ব্যক্ত করেছেন এনবিআরের সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান মো: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। তার হাত ধরে চলতি বছর প্রথম সাত মাস এনবিআর রাজস্ব আয়ের চেষ্টাটি করেছিল।

রাজস্ব ঘাটতি বেড়ে যাওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করতে যেয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, করোনার কারণে অর্থনীতির এখন বেসামাল অবস্থা। এ অবস্থা কত দিন চলবে তা আমরা এখন পর্যন্ত জানি না। আগামী অর্থবছরের বাজেটে মূল কাজ হবে অর্থনীতিকে কাদা থেকে টেনে তোলা। এ ক্ষেত্রে বাজেট ঘাটতি সাড়ে ৫ হোক বা ৬ হোক তা নিয়ে আমাদের কোনো মাথাব্যথ্যা নেই । তবে ঘাটতি পূরণের জন্য আগামী অর্থবছরে ব্যাংকঋণের লক্ষ্যমাত্রা বাড়বে। তবে আমরা বিদেশী সহায়তা ভালো পাবো আশা করি। সে ক্ষেত্রে বিদেশী ঋণ আসতে পারে কম করে হলেও ৪০০ কোটি টাকা মার্কিন ডলার।

চলতি অর্থবছরে ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেটে ঘাটতির পরিমাণ রয়েছে ১ লাখ ৪৫ হাজার ৩৭৯ কোটি টাকা। অর্থ মন্ত্রণালয় আগামী অর্থবছরের জন্য ১ লাখ ৭৫ হাজার কোটি টাকার ঘাটতি প্রাক্কলন করেছে। সে হিসেবে আগামী অর্থবছরে ঘাটতির পরিমাণ চলতি অর্থবছর থেকে ২৯ হাজার ৬২১ কোটি টাকা বেশি।

সাধারণত ঘাটতি মেটাতে সরকারকে দুই খাতের ওপর নির্ভরশীল থাকতে হয়। অভ্যন্তরীণ এবং বৈদেশিক। অভ্যন্তরীণ খাত আবার দুই ভাগে ভাগ করা। এর একটি হলো, ব্যাংক খাত থেকে ঋণ নেয়া। আর অপরটি হলো, সঞ্চয়পত্র ও অন্যান্য উৎস থেকে ঋণ নেয়া।

দেশীয় উৎস : আগামী অর্থবছরের বাজেটে দেশীয় খাতে ঋণের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হচ্ছে ১ লাখ ৭ হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে সরকার ব্যাংক থেকে বেশিমাত্রায় ঋণ নেয়ার চিন্তাভাবনা করছে। ব্যাংক থেকে সরকার ৭২ হাজার কোটি টাকার ঋণ নেয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করতে যাচ্ছে। চলতি বাজেটে ব্যাংক থেকে ঋণ নেয়ার লক্ষ্যমাত্রা হচ্ছে ৪০ হাজার ৩৬০ কোটি টাকা। কিন্তু এখন পর্যন্ত ঋণ নেয়া হয়ে গেছে ৭৬ হাজার কোটি টাকারও বেশি। সে হিসেবে আগামী বাজেটে ব্যাংকঋণ নেয়ার লক্ষ্যমাত্রা বাড়ছে ৩১ হাজার ৬৪০ কোটি টাকা। আর আগামী বাজেটে সঞ্চয়পত্র থেকে ঋণ নেয়ার লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩৫ হাজার কোটি টাকা। চলতি বাজেটে সঞ্চয়পত্র ও অন্যান্য উৎস থেকে ঋণ নেয়ার লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে ৩০ হাজার কোটি টাকা। সে হিসাবে এ উৎস থেকে লক্ষ্যমাত্রা বাড়ছে ৫ হাজার কোটি টাকা।

বিদেশী উৎস : বাজেট ঘাটতি মেটাতে সরকার আগামী অর্থবছরে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকছে বিদেশী উৎসের ওপর। আগামী বাজেটে বিদেশী উৎস থেকে সরকার ৭৫ হাজার কোটি টাকার সহায়তা পাওয়ার আশা করছে। চলতি অর্থবছরের বাজেটে এ লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে ৬৮ হাজার ১৬ কোটি টাকা। সে হিসেবে ৬ হাজার ৯৮৪ কোটি টাকা লক্ষ্যমাত্রা বাড়ছে।

সূত্র : নয়া দিগন্ত





         
   আপনার মতামত দিন
     অর্থ-বাণিজ্য
বাংলাদেশের তৈরী ৬৫ লাখ পিপিই গেল যুক্তরাষ্ট্রে
.............................................................................................
আরো শক্তিশালী হয়ে উত্তর দিকে অগ্রসর হচ্ছে আম্ফান
.............................................................................................
২৯ মে থেকে ব্যাংকারদের করোনা বোনাস বাতিল
.............................................................................................
পৌনে ২ লাখ কোটি টাকার ঘাটতি বাজেট আসছে
.............................................................................................
সরকারি নগদ সহায়তার তালিকা ওয়েবসাইটে প্রকাশের দাবি টিআইবির
.............................................................................................
করোনায় বিশ্ব অর্থনীতির ক্ষতি হতে পারে ৭৪৮ লাখ কোটি টাকা: এডিবি
.............................................................................................
৭০ কোটি ডলার দ্রুত ছাড়ে আইএমএফকে চিঠি দিচ্ছেন অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
বাজেটে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেয়া ঠিক হবে না: সিপিডি
.............................................................................................
প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় পোশাক শ্রমিকরা বেতন পেতে শুরু করেছে
.............................................................................................
জুনের শুরুতেই ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপন: অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
শনিবার থেকে ২৫ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি করবে টিসিবি
.............................................................................................
চার মাস নিত্যপণ্যের কোনো সংকট হবে না: বাণিজ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
খাদ্যপণ্য সরবরাহের অনুমতি পেল ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো
.............................................................................................
বন্ধ থাকা কারখানার পোশাক শ্রমিকরা এপ্রিলের বেতন পাবেন ৬৫ শতাংশ
.............................................................................................
এপ্রিল-মে মাসের ব্যাংক ঋণের সুদ স্থগিত
.............................................................................................
উদীয়মান অর্থনীতির ৯ম অবস্থানে বাংলাদেশ: দ্য ইকোনমিস্ট
.............................................................................................
সরকার এক মাসে ঋণ নিলো ১০ হাজার কোটি টাকা
.............................................................................................
করোনায় কোনো শ্রমিকের কিছু হলে সব দায়িত্ব আমরা নেব: রুবানা হক
.............................................................................................
বেতন-ভাতার ৬০ শতাংশ পাবেন বাড়িতে থাকা গার্মেন্ট শ্রমিকরা
.............................................................................................
১৫ মাসের জন্য কৃষিঋণের সুদ কমল, ফসলে সর্বোচ্চ ৪ শতাংশ
.............................................................................................
আশুলিয়ার সাড়ে ৩০০ পোশাক কারখানা চালু
.............................................................................................
`করোনা সংকট থেকে উত্তরণে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতের আহ্বান`
.............................................................................................
রবিবার থেকে খুলছে গার্মেন্টস কারখানা
.............................................................................................
নিন্মমানের হওয়ায় মি. বেকারের বিস্কুটসহ ১৭ পণ্য নিষিদ্ধ করল বিএসটিআই
.............................................................................................
প্রণোদনার ২৫ হাজার কোটি টাকা দেবে বাংলাদেশ ব্যাংক
.............................................................................................
শ্রমিকের বেতন ক্যাশ আউটে হাজারে ৪ টাকার বেশি নয়
.............................................................................................
জ্বালানি তেলের দাম মাইনাসে
.............................................................................................
এনজিওদের মাধ্যমে বিতরণ হবে ৩ হাজার কোটি টাকা
.............................................................................................
‘আসডা’র অর্ডার বাতিল, আবারো বড় ক্ষতির মুখে দেশের গার্মেন্টস ব্যবসায়ীরা
.............................................................................................
করোনার ধাক্কায় মার্চে রপ্তানি কমেছে ৫ হাজার কোটি টাকা
.............................................................................................
পোশাক কারখানা খোলার সিদ্ধান্ত নির্ভর করছে করোনা পরিস্থিতির ওপর: রুবানা হক
.............................................................................................
সরকারি প্রনোদোনায় প্রান্তিক জনগোষ্ঠি বঞ্চিত : সিপিডি
.............................................................................................
করোনায় বিশ্বে তেলের রেকর্ড পরিমাণ উৎপাদন কমানো হচ্ছে
.............................................................................................
শ্রমিকদের মার্চের বেতন ১৬ এপ্রিলের মধ্যে দেয়ার নির্দেশ প্রতিমন্ত্রীর
.............................................................................................
আজ থেকে খোলা থাকবে সরকারি ব্যাংক
.............................................................................................
দেশের ১৪ শতাংশ মানুষের ঘরে খাবার নেই, চরম দারিদ্র্য বেড়েছে ৬০ শতাংশ: ব্র্যাক
.............................................................................................
পুঁজিবাজারের লেনদেন ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ
.............................................................................................
২৫ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ শপিং মল
.............................................................................................
তৈরি পোশাক কারখানা ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধের সিদ্ধান্ত
.............................................................................................
১৯৩০ সালের মহামন্দার চেয়েও খারাপ হতে পারে বিশ্ব অর্থনীতি: আইএমএফ
.............................................................................................
করোনায় মারা গেলেন তৈরি পোশাক কারখানার চেয়ারম্যান
.............................................................................................
অগ্রণী ব্যাংকের প্রিন্সিপাল শাখা লকডাউন
.............................................................................................
লকডাউনে বন্ধ হচ্ছে ব্যাংকের শাখা
.............................................................................................
বিজিএমইএ ও বিকেএমইএ সদস্য কারখানাগুলো ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ
.............................................................................................
সাভার ও আশুলিয়ায় শতাধিক পোশাক কারখানা এখনো খোলা
.............................................................................................
আর কতোটা অমানবিক হবেন তারা, পোশাকশিল্প মালিকেদের প্রতি টিআইবি
.............................................................................................
কারখানা ১১ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রাখুন: মালিকদের প্রতি বিজিএমইএ
.............................................................................................
নিত্যপণ্যের আমদানি বন্ধ, সংকটের আশঙ্কা
.............................................................................................
ফেস মাস্ক ও হ্যান্ড সেনিটাইজার রপ্তানিতে নিষেজ্ঞা প্রত্যাহার
.............................................................................................
হাসপাতাল ও জরুরি সেবা কর্মীদের পিপিই-মাস্ক দিচ্ছে এফবিসিসিআই
.............................................................................................
Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale
Digital Load Cell
Digital Indicator
Digital Score Board
Junction Box | Chequer Plate | Girder
Digital Scale | Digital Floor Scale

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা ডট কম
মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত ।

প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ মো: হারুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
বার্তা সম্পাদক: মো: শরিফুল ইসলাম রানা
সহ: সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বিশেষ প্রতিনিধি : মো: আকরাম খাঁন
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed BY : Dynamic Solution IT   Dynamic Scale BD