১২ শাওয়াল ১৪৪১ , ঢাকা, শুক্রবার, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৫ জুন , ২০২০ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

  
Share Button
   উপসম্পাদকীয়
নারী অধিকার প্রতিষ্ঠায় সাহসী হতে হবে
  তারিখ: 08 - 03 - 2017

৮ মার্চ আর্ন্তজাতিক নারী দিবস। বিশ্ব নারী দিবসের এ বছরের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে “ইব ইড়ষফ ভড়ৎ ঈযধহমব ” অর্থাৎ “পরিবর্তনের জন্য সাহসী হও”। আজ আমরা পরিবর্তনের জন্য সাহসী হবার সপ্ন দেখলেও নারী দিবসের পিছনের ইতিহাস মসৃণ নয়। ৮ই মার্চ নারী দিবস পালনের ইতিহাস রচনা করেছিল শ্রমিক নারীরা। দুইশত বছর আগে নারীদের কারখানার শ্রমিক করে তাদের প্রতি অমানবিক আচরন করা হতো। অর্থনৈতিক চাপে পড়ে গরীব নারীরা কাজ নিয়েছিল কারখানায়। দৈনিক ১৬ ঘন্টা কাজ করতে হতো তাদের এবং তাদের বেতন ও ছিল কম। পুরুষদের চেয়ে অর্ধেক বেতনে নিয়োগ করা হতো তাদের। ১৮২০ সালে ইংল্যান্ড এবং আমেরিকায় বিভিন্ন কারখানায় অমানবিক কাজের পরিবেশ, বেতন বৈষম্য এবং নানা ধরনের নির্যাতনের কারণে নারী শ্রমিকরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে ধর্মঘট করে।
ঊনিশ শতকে পুরুষ ও নারী শ্রমিকদের মধ্যে শুধু বৈষম্য ছিল তা নয় বর্ণবাদী নীতির কারণে কালো মহিলাদের বোকা ও চরিত্রহীন বলে ধারনা করা হতো। ফলে একদিকে নারীদের বেতন তো এমনিতেই কম ছিল অন্যদিকে সাদা নারীদের তুলনায় কালোদের বেতন ছিল আরো কম । বর্ণবাদী শোষনের কারণে কালো মহিলাদের মধ্যে সংগঠন গড়ে উঠে দ্রুত। তাদের সাথে বস্ত্র কারখানায় কর্মরত সাদা চামড়ার মহিলাদের একটি অংশ। ১৮৩২ সালে তারা দাসত্ব বিরোধী সমিতি গঠন করে।
১৮৫৭ সালের ৮ মার্চ নিউইয়র্ক সুই কারখানার মহিলা শ্রমিকরা অমানবিক কাজের পরিবেশ, নি¤œ মজুরী এবং দৈনিক ১২ ঘন্টা খাটুনির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে এক মিছিল বের করেন। শান্তিপূর্ন এ মিছিলে পুলিশের হামলায় অনেকে আহত হন, অনেক কে গ্রেফতার করা হয় এবং মিছিলটি ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। এর তিনবছর পর ১৮৬০ সালের ৮ তারিখে সুঁই কারখানার মহিলা শ্রমিকরা তাদের নিজস্ব ইউনিয়ন গঠনে সক্ষম হয়।
বিশ শতকের প্রথম দিকে নারী শ্রমিকরা আরো সংঘটিতভাবে আন্দোলন শুরু করে। ১৯১০ সালে ডেনমার্কে অনুষ্ঠিত সমাজতান্ত্রিক নারীদের দ্বিতীয় আর্ন্তজাতিক সম্মেলনে ক্লারা জেৎকিনের প্রস্তাবে মার্চের আট তারিখ আর্ন্তজাতিক নারী দিবস পালনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এই সম্মেলনে ১৭টি দেশের সমাজতান্ত্রিক দল, কর্মজীবি নারী, ট্রেড ইউনিয়ন ও নানা সংগঠনের শতাধিক প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করে। ক্লারা জেৎকিনের প্রস্তাবে সব প্রতিনিধির সমর্থনের মাধম্যে নারী আন্দোলনের ইতিহাসে মাইল ফলক হিসাবে আর্ন্তজাতিক নারী দিবস পালনের সূচনা ঘটে।
১৯১০ সালে আর্ন্তজাতিক নারী দিবস ঘোষনার পর ১৯১১ ও ১৯১২ সালে ১৯৪৮ সালের ১৯ মার্চে প্যারি কমিউনের বিপ্লবের দিনটিতে নারীদের অংশগ্রহণকে স্মরণ করে ১৯ মার্চ দিবসটি পালন করা হয়। এর কয়েকদিন পর ২৫ মার্চ নিউ ইর্য়কের পোশাক কারখানায় যথাযথ নিরাপত্তার অভাবে আগুন লেগে ১৪০ জনের অধিক নারী শ্রমিক মৃত্যুবরণ করে। ফলে আমেরিকায় শ্রম আইন ও শ্রমিকদের কাজের পরিবেশ, নিরাপত্তা প্রভৃতি বিষয়ে প্রশ্ন উত্থাপিত হয়। এরপর ১৯১৩ সাল থেকে ১৯ মার্চ এর পরিবর্তে ৮ মার্চ আর্ন্তজাতিক নারী দিবস পালনের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। ১৯৭৪ সালে জাতিসংঘে  ৮ই মার্চ কে আর্ন্তজাতিক নারী দিবস হিসাবে পালনে স্বীকৃতি প্রদাণ করা হয়।
বর্তমান সময়ে নারীর জীবনে এসেছে অনেক পরিবর্তন। শ্রমবাজারের প্রেক্ষিতেও নারীর অবস্থানের উল্লেখযোগ্য উন্নতি লক্ষ্য করা যায়। নারীরা কাজ করছে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জিং ক্ষেত্রে। কর্মক্ষেত্রে রাখছে সাহসী ভূমিকা। ২০১৪ সালে উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) এর এক গবেষনায় দেখা গেছে দেশের মোট দেশজ জাতীয় উৎপাদনের কাছাকাছি নারীর অবদান। অথচ এখনো পরিবারে, সমাজে ও রাষ্ট্রে নারীরাই সবচেয়ে বঞ্চিত । পরিবার হলো সমাজ ও রাষ্ট্রের একক। সেই পরিবারকে সচল রাখার দায়িত্ব পালন করে নারী। পরিবারকে সচল না রাখতে পারলে পরিবারের সদস্যদের দৈনন্দিন জীবন সক্রিয় রাখা অসম্ভব প্রায়। সিপিডি এর এই গবেষনায় পরিবারে নারীর এই নীরব অবদানের অর্থ মূল্য ১০ লাখ ৩৭ হাজার ৫০৬ কোটি টাকা। যা  ২০১৩ সালে মোট জিডিপি এর ৭৮.৮ শতাংশ।  
অর্থনীতিতে পুুরুষের পাশাপাশি নারীদের অবস্থান অপরিসীম। গৃহস্থালী কাজের মাধ্যমে নারীরা পারিবারিক ক্ষেত্রের পাশাপাশি আর্থ সামাজিক উন্নয়নে রাখছে ভূমিকা। একথা সত্য যে নারীদের সকল কাজকেই অর্থমূল্যে পরিমাপ করা যুক্তি সংগত নয় কিন্তু তাদের সম্মিলিত কাজের রূপটিকে জানানো বা জানার প্রচেষ্টা অবশ্যই গ্রহণ করা যেতে পারে। নারীর গৃহস্থালী কাজের অর্থনৈতিক মূল্যায়নের উপর গুরুত্ব দিয়ে ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ (ডাব্লিউবিবি) ট্রাস্ট একটি গবেষনা করেছে। টহরঃবফ ঘধঃরড়হং ঝুংঃবস ড়ভ ঘধঃরড়হধষ অপপড়ঁহঃং (টঘ ঝঘঅ) এর নির্দেশনা অনুসারে নারীরা যখন শুধু অর্থের বিনিময়ে কাজ করে তখনই তাদের শ্রমকে জিডিপি এর অর্ন্তভুক্ত করা হয়। এই গবেষনা অনুসারে গৃহিনীরা বিনামূল্যে গৃহস্থালীতে যে সকল কাজ করে থাকে তার আনুমানিক মূল্য ২২৭.৯৩ বিলিয়ন থেকে ২৫৮.৮ বিলিয়ন ডলার।  
সার্বিক আলোচনায় একটি বিষয় প্রতিয়মান যে অর্থনীতিতে সামগ্রিকভাবে সমাজে নারীর গৃহস্থালী কাজের অবদানকে অর্ন্তভুক্ত করার মতো অর্থনৈতিক পদ্ধতির গুরুতর সংকট রয়েছে। অর্থের বিনিময়ে কাজ করে পোষাক শিল্পসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রেখে নারী যেমন প্রসংশিত হচ্ছে , তেমনি গৃহস্থালী কাজের জন্যও নারীর স্বীকৃতি ও সন্মান পাওয়া প্রয়োজন। নারীকে তার প্রাপ্য সন্মান দিলে সমাজে আমাদের অবস্থান শক্তিশালী হবে বৈ কমবে না। নারীকে তার প্রাপ্য সন্মান দিয়ে, মানুষ হিসাবে সম-মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করতে নারী পুরুষ সকলে সম্মিলিতভাবে সাহসী ভূমিকা পালন করা প্রয়োজন। পরিবার থেকে রাস্ট্রের সর্বস্তরে নারীকে তার প্রাপ্য সন্মান ও অধিকার দিলেই পরিবর্তনের জন্য যে সাহসের বিষয় উত্থাপন করা হচ্ছে অনেকাংশেই তা সুনিশ্চিত করা সম্ভব হবে।  যা বিশ্বের বুকে নারী অধিকার প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশের অবস্থানকে সামনের সারির দিকে এগিয়ে দেবে।  



সৈয়দা অনন্যা রহমান, কর্মসূচী ব্যবস্থাপক, ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ (ডাব্লিউবিবি) ট্রাস্ট





         
   আপনার মতামত দিন
     উপসম্পাদকীয়
জনস্বাস্থ্য, অর্থনীতি ও পরিবেশের ক্ষতির কারণে তামাক টেকসই উন্নয়নের অন্তরায়
.............................................................................................
কৃষির পাশাপাশি শিল্প উন্নয়ন এবং কৃষক ফেডারেশনকথা
.............................................................................................
কৃষির পাশাপাশি শিল্প উন্নয়ন এবং কৃষক ফেডারেশনকথা
.............................................................................................
ঈদ এবং মাদক... ওরা বানায় : আমরা সেবন করি
.............................................................................................
নুসরাত কেন চলে যাবে...
.............................................................................................
এই দেশের সড়কে কে নিরাপদ?
.............................................................................................
রাজনীতির হঠাৎ হাওয়ার চমক
.............................................................................................
রাজনীতিতে ব্যবসায়ীদের অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে
.............................................................................................
ওজোনস্তরের নতুন দুঃসংবাদ
.............................................................................................
বিজ্ঞান গবেষণা ও বাংলাদেশ
.............................................................................................
বিশ্ব আদালতে রোহিঙ্গা গণহত্যার বিচার চাই
.............................................................................................
চীনা ‘ইউয়ান’, ভারতীয় ‘রুপী’, তুর্কী ‘লিরা’ সবার দাম কমছে
.............................................................................................
এখনো নিয়মিত মৃত্যু সড়কে কে দায় নেবে
.............................................................................................
মাঠের লড়াইয়ে লক্ষ্য হোক জয়
.............................................................................................
একটি শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের আশায়
.............................................................................................
আর কত রক্ত ঝড়বে জাতির বিবেকের?
.............................................................................................
হুমকিতে নয়, আলোচনায়ই সমাধান
.............................................................................................
বাঙালির সবচেয়ে বড় উৎসব বাংলা নববর্ষ
.............................................................................................
প্রশ্ন ফাঁস, পরীক্ষা বাতিল এবং অবিচার...
.............................................................................................
ভাষাশ্রদ্ধায় আসুন উচ্চারণ করি ‘বিজয় বাংলাদেশ’
.............................................................................................
চার বছরের উন্নয়ন অগ্রগতি ধারাবাহিকতা রক্ষা করাই বড় চ্যালেঞ্জ
.............................................................................................
শিক্ষা ধ্বংসে বইয়ের বোঝা-সৃজনশীল এবং ফাঁসতন্ত্র
.............................................................................................
প্রশ্নফাঁস আর কোচিংবাণিজ্যে শিক্ষার অনিশ্চিত ভবিষ্যৎ
.............................................................................................
প্রশ্ন ফাঁসের দায় কে নেবে?
.............................................................................................
মায়ের ভাষার অবহেলা কেন করছি আমরা?
.............................................................................................
সবাই জেগে উঠুক ভেজালের বিরুদ্ধে
.............................................................................................
নির্বাচন কমিশনের কর্মক্ষমতা ও ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ
.............................................................................................
প্রশ্ন ফাঁস ও শিক্ষার দৈন্যদশা রোধ সম্ভব
.............................................................................................
মশা আর মাছি ধুলার সঙ্গে বেশ আছি!
.............................................................................................
বাংলাদেশ ব্যাংকের তদারকি ও নিয়ন্ত্রণক্ষমতা বাড়াতে হবে
.............................................................................................
প্যারাডাইস পেপার্স : সারাবিশ্বে সমস্যা ও সমাধান
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধুর অগ্নিগর্ভ ভাষণ : ইউনেস্কোর স্বীকৃতি
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের ত্রাণ ও পূনর্বাসনে দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনী
.............................................................................................
নিরাপদ পথ দিবস চাই
.............................................................................................
রোহিঙ্গা গণযুদ্ধের সূচনা হোক, স্বাধীন হোক আরকান
.............................................................................................
দর্শনহীন শিক্ষার ফল ব্লু হোয়েল সংস্কৃতি
.............................................................................................
সাবধানে চালাবো গাড়ী, নিরাপদে ফিরবো বাড়ী
.............................................................................................
বন্ধুদেশের ঋণের বোঝা এবং নতুন প্রজন্মের ভাবনা
.............................................................................................
চালে চালবাজী : সংশ্লিষ্টদের চৈতন্যোদয় হোক
.............................................................................................
৫ প্রস্তাবে বাংলাদেশে সংকট : দুর্ভিক্ষ আসন্ন
.............................................................................................
ভুখা মানুষের স্বার্থে সরকারকে কঠোর হতে হবে
.............................................................................................
রোহিঙ্গা তরুণের চিঠি এবং আমাদের করণীয়
.............................................................................................
ষোড়শ সংশোধনী বাতিল প্রসঙ্গে অনেকের অভিমত
.............................................................................................
তরুন প্রজন্মের সৈনিকেরা জেগে উঠলে কোন অপশক্তিই বাংলাদেশের গণতন্ত্র ও উন্নয়নের পথ রুদ্ধ করতে পারবে না
.............................................................................................
আদর্শ সংবাদ ও সাংবাদিকতা
.............................................................................................
নারী অধিকার প্রতিষ্ঠায় সাহসী হতে হবে
.............................................................................................
পাবনা বইমেলা সাহিত্যকে সম্মৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে
.............................................................................................
আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো...
.............................................................................................
ক্ষণজন্মা কিংবদন্তী মাদার বখশ
.............................................................................................
গ্রামীণ মানুষের সম্পদ বাড়ছে না, ঋণ বাড়ছে
.............................................................................................
Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale
Digital Load Cell
Digital Indicator
Digital Score Board
Junction Box | Chequer Plate | Girder
Digital Scale | Digital Floor Scale

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা ডট কম
মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত ।

প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ মো: হারুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
বার্তা সম্পাদক: মো: শরিফুল ইসলাম রানা
সহ: সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বিশেষ প্রতিনিধি : মো: আকরাম খাঁন
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed BY : Dynamic Solution IT   Dynamic Scale BD