বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   রাজধানী -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
বই মেলা শুরু হবে ২ ফেব্রুয়ারি

 ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২০’-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠান আগামি পহেলা ফেব্রুয়ারির পরিবর্তে ২ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে। এদিন বিকেল তিনটায় বাংলা একাডেমি আয়োজিত মাসব্যাপী বইমেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনের কারণে নির্ধারিত সময়ের এই বইমেলা একদিন পিছিয়ে ২ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলা একাডেমি।

বাংলা একাডেমির পরিচালক ও অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২০-এর সদস্যসচিব জালাল আহমেদ জানান, মুজিববর্ষ উপলক্ষে এবারের অমর একুশে গ্রন্থমেলা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে উৎসর্গ করা হবে। তাই যথাযথ মর্যাদা ও গাম্ভীর্য রক্ষা করে বাংলা একাডেমির প্রস্তুতি কার্যক্রম চলছে। এদিকে বইমেলাকে কেন্দ্র করে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিভিন্ন আকারের স্টল তৈরিতে ব্যস্ত কারিগররা। নতুন বই প্রকাশের পাশাপাশি পাঠক ও প্রকাশকদের মিলনমেলায় পরিণত হয় মাসব্যাপী এই বইমেলা।

বই মেলা শুরু হবে ২ ফেব্রুয়ারি
                                  

 ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২০’-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠান আগামি পহেলা ফেব্রুয়ারির পরিবর্তে ২ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে। এদিন বিকেল তিনটায় বাংলা একাডেমি আয়োজিত মাসব্যাপী বইমেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনের কারণে নির্ধারিত সময়ের এই বইমেলা একদিন পিছিয়ে ২ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলা একাডেমি।

বাংলা একাডেমির পরিচালক ও অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২০-এর সদস্যসচিব জালাল আহমেদ জানান, মুজিববর্ষ উপলক্ষে এবারের অমর একুশে গ্রন্থমেলা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে উৎসর্গ করা হবে। তাই যথাযথ মর্যাদা ও গাম্ভীর্য রক্ষা করে বাংলা একাডেমির প্রস্তুতি কার্যক্রম চলছে। এদিকে বইমেলাকে কেন্দ্র করে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিভিন্ন আকারের স্টল তৈরিতে ব্যস্ত কারিগররা। নতুন বই প্রকাশের পাশাপাশি পাঠক ও প্রকাশকদের মিলনমেলায় পরিণত হয় মাসব্যাপী এই বইমেলা।

শাহজালাল বিমানবন্দরে টার্মিনাল-৩ নির্মাণে চুক্তি সই
                                  

ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণে বাংলাদেশ বে-সামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) ও এভিয়েশন ঢাকা কনসোর্টিয়ামের (এডিসি) মধ্যে চুক্তি সই হয়েছে। জাপানের মিতসুবিশি করপোরেশন, ফুজিতা করপোরেশন ও স্যামসাং মিলে গঠিত এভিয়েশন ঢাকা কনসোর্টিয়াম (এডিসি) এই নির্মাণ কাজের দায়িত্বে রয়েছে। প্রকল্পটি তদারকি করবে নিপ্পন জাপান এবং সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের প্রকৌশলীরা। গত মঙ্গলবার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, বেবিচক কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান ও এডিসির পক্ষে মিতসুবিশি করপোরেশনের জেনারেল ম্যানেজার ইয়াসুনোরি সাকামোতো চুক্তিপত্রে সই করেন। দেশের সব বিমানবন্দরের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার পাশাপাশি আধুনিকায়নের অংশ হিসেবে গত ২৮ ডিসেম্বর শাহজালাল বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণ প্রকল্প উদ্বোধন ও ফলক উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী চুক্তি সই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মহিবুল হক, বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত নাওকি ইতো, জাইকা বাংলাদেশ অফিসের চিফ রিপ্রেজেন্টেটিভ হিতোশি হীরাতারসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ছিলেন। বিমানবন্দরের মূল টার্মিনালের দক্ষিণ পাশে ২১ হাজার ৪০০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হবে সুপরিসর এই তৃতীয় টার্মিনাল। এই অর্থ ব্যয়ের একটি অংশ প্রকল্প সহায়তা হিসেবে দেবে জাইকা। বাংলাদেশ সরকার বাকি অর্থের যোগান দেবে। এই প্রকল্পের আওতায় একটি প্যাসেঞ্জার টার্মিনাল বিল্ডিং, রাস্তা, কার পার্কিং, কার্গো কমপ্লেক্স, পার্কিং অ্যাপ্রোনসহ আরও অন্যান্য স্থাপনা তৈরি করা হবে। তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণ কাজ শেষ হতে সময় লাগবে চার বছর।

এই প্রকল্পের কাজ শেষ হলে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে বছরে প্রায় দুই কোটি যাত্রী চলাচলের সুযোগ পাবে। এই প্রকল্পের একটি অংশে কাজ করবে কোরিয়াভিত্তিক স্যামসাং সিঅ্যান্ডটি করপোরেশন। এজন্য তারা ৫ হাজার ৮৮৬ কোটি ১৪ লাখ টাকা পাবে। তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণ শেষ হলে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এ অঞ্চলের সেরা বিমানবন্দরে পরিণত হবে বলে আশা করছে সরকার।

নারায়ণগঞ্জে খাল থেকে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার
                                  

 নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক নিমাইকাশারী এলাকার ডিএনডি’র নিষ্কাশন খাল থেকে অজ্ঞাত এক নারীর (৪৫) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টায় লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এসআই মনির হোসেন এই তথ্য জানান। তিনি জানান, ধারণা করা হচ্ছে ওই নারী মানসিক প্রতিবন্ধী।

রাতের বেলা তিনি বাঁশের সাঁকো পার হতে গিয়ে পা পিছলে ডিএনডি’র নিষ্কাশন খালে পড়ে যান। পরে আর উঠতে পারেননি। সকালে স্থানীয় বাসিন্দরা লাশটি দেখতে পেয়ে থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়। তিনি আরো জানান, প্রাথমিকভাবে ওই নারীর শরীরে কোনও আঘাতের পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়া গেলে মৃত্যুর আসল কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে। এই ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় ইউডি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

না.গঞ্জ থেকে ছিনতাই হওয়া ৩২০ বস্তা চিনির ২৫৩ বস্তা ময়মনসিংহে উদ্ধার
                                  

 নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ থেকে ছিনতাই হওয়া ৩২০ বস্তা চিনির ২৫৩টি বস্তা ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িত ট্রাকের ড্রাইভার সজিব মিয়াকেও গ্রেফতার করা হয়েছে।

সজিব মিয়া পাবনা জেলার গাছপাড়া ব্রাকমোড় এলাকার আবদুল জব্বারের ছেলে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রূপগঞ্জ থানার এসআই মোতালিব হোসেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মোতালিব হোসেন জানান, ফরিদপুর জেলার ভাঙা এলাকার ব্যবসায়ী উজ্জ্বল কর রূপগঞ্জ থানাধীন রূপসী সিটি গ্রুপ থেকে তীর মার্কা ৩২০ বস্তা চিনি কেনেন। পরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার শিমরাইল এলাকার গোলাম মাহাবুব মিয়ার মালিকানাধীন নিউ আপন ট্রান্সপোর্ট এজেন্সির মাধ্যমে (ঢাকা মেট্রো-ট-২২-৬৫৭৫) ট্রাকযোগে ৩২০ বস্তা চিনি ফরিদপুরে পাঠান। তবে পরদিন (৬ জানুয়ারি) চিনির ডেলিভারি না পেয়ে ট্রান্সপোর্টের ম্যানেজার নির্মল পোদ্দারকে জানান উজ্জ্বল কর। ট্রান্সপোর্টের ম্যানেজার বিষয়টি তার মালিককে জানান। পরে ট্রান্সপোর্টের মালিক গোলাম মাহাবুব মিয়া ট্রাকের মালিক মাসুদ আলী, ট্রাক ড্রাইভার সজিব মিয়া ও ট্রাকের হেলপার সোহেলের সঙ্গে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগের চেষ্টা করেন। তবে তাদের তিন জনের মোবাইল ফোনই বন্ধ পাওয়া যায়।

পরে তিনি রূপগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এসআই মোতালিব আরও জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে গত সোমবার বিকেলে পাবনা জেলার গাছপাড়া ব্রাকমোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে ট্রাক ড্রাইভার সজিব মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে ট্রাকের মালিক মাসুদ আলী ও হেলপার সোহেলের সঙ্গে মিলে চালক সজিব মিয়া ঈশ্বরগঞ্জ বাজারের ৩টি দোকানে চিনি বিক্রি করে দেন বলে জানান। পরে পুলিশ গত সোমবার গভীর রাতে ওই ৩ দোকান থেকে ২৫৩ বস্তা চিনি উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় ট্রান্সপোর্টের মালিক গোলাম মাহাবুব মিয়া বাদী হয়ে ট্রাকের মালিক, ট্রাক ড্রাইভার ও হেলপারকে আসামি করে রূপগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেছেন। রূপগঞ্জ থানার ওসি মাহমুদুল হাসান জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। একজনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। বাকি মালামাল উদ্ধার ও আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ঢাকার ৭১ শতাংশ সরকারি হাসপাতালে ধূমপান হয়: হার্ট ফাউন্ডেশন
                                  

ঢাকার ৭১ শতাংশ সরকারি হাসপাতালে ধূমপান হয় বলে জানিয়েছে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ। গতকাল সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ আয়োজিত এক সেমিনারে এ তথ্য জানানো হয়। সম্প্রতি ঢাকার সরকারি হাসপাতালগুলোতে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়ন পরিস্থিতি জানতে ৫১টি হাসপাতালে এ জরিপ চালানো হয় বলে জানায় এ সংস্থা। জরিপে এক-তৃতীয়াংশ হাসপাতালে কাউকে না কাউকে সরাসরি ধূমপান করতে দেখা যায়। প্রমাণ হিসেবে মেলে সিগারেটের অবশিষ্টাংশ, ধোঁয়ার গন্ধ ইত্যাদি। এ ছাড়া প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ হাসপাতালে ধোঁয়াবিহীন তামাক ব্যবহারের প্রমাণ হিসেবে পাওয়া যায় পানের পিক, চুনের দাগ ইত্যাদি। এ বাদে সরাসরি ধোঁয়াবিহীন তামাক ব্যবহার করতে দেখা গেছে প্রায় অর্ধেক হাসপাতালে।

এদিকে ঢাকার ৮০ শতাংশ সরকারি হাসপাতালের ১০০ মিটারের মধ্যে তামাকপণ্য বিক্রি হয় বলে জানায় ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন। এমনকি ১৮ শতাংশ হাসপাতালের সীমানার মধ্যেই এমন দোকান রয়েছে। হাসপাতালগুলোতে আগত রোগী ও দর্শনার্থীদের তামাক ছাড়ার ব্যাপারে সহায়তা দিতে তামাক নিবৃত্তকরণ ক্লিনিক থাকা জরুরি। কিন্তু ৫১টি হাসপাতালের মধ্যে মাত্র একটিতে এ সুবিধা রয়েছে বলে জরিপে দেখা যায়। সেমিনারে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের অ্যান্টি-টোব্যাকো প্রোগ্রামের প্রোগ্রাম কর্মকর্তা ডা. আহমাদ খাইরুল আবরার মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

সংস্থার সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার (অব.) আবদুল মালিকের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন- সংসদ সদস্য ডা. হাবিবে মিল্লাত। বিশেষ অতিথি ছিলেন- স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত লাইন ডিরেক্টর ও অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ প্রোগ্রামের ম্যানেজার ডা. রায়হান-ই-জান্নাত। প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাবিবে মিল্লাত দেশের সব হাসপাতালে আইন অনুসারে পর্যাপ্ত পরিমাণ তামাকবিরোধী সাইনেজ স্থাপন ও হাসপাতালগুলোর ১০০ মিটারের মধ্যে তামাকপণ্য বিক্রি বন্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে। উন্মুক্ত আলোচনায় বক্তারা বলেন, তামাকজাত দ্রব্যের মধ্যে সিগারেট, বিড়ির মতো ধোঁয়াযুক্ত পণ্যগুলো শুধু সেবনকারীর স্বাস্থ্যেরই মারাত্মক ক্ষতি করে না, আশপাশের মানুষেরও সমান ক্ষতি করে।

পরোক্ষ ধূমপানের ফলে ফুসফুসের ক্যান্সার, হৃদরোগ, শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা, স্ট্রোক ও প্রজনন সমস্যা দেখা দিতে পারে। কিন্তু গ্লোবাল অ্যাডাল্ট টোব্যাকো সার্ভে (গ্যাটস) ২০১৭-এ দেখা যায়, হাসপাতালের মতো গুরুত্বপূর্ণ স্থানেও প্রায় ১৩ ভাগ মানুষ পরোক্ষ ধূমপানের শিকার হয়। হাসপাতালগুলোকে তামাকমুক্ত করতে কর্তৃপক্ষের সচেতন হওয়া জরুরি বলেও মতো দেন বক্তারা।

 

৫৫তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর সুখ-শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা
                                  

ইহকালের শান্তি, পরকালের মাগফেরাত এবং বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর সুখ-শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনায় আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব।

রবিবার বেলা ১১টা ৮মিনিট থেকে শুরু করে ১১টা ৪৬মিনিট পর্যন্ত মোনাজাত পরিচালনা করেন বাংলাদেশের তাবলিগের প্রধান মারকাজ কাকরাইলের মুরব্বি হাফেজ মাওলানা জোবায়ের।

সৃষ্টিকর্তা আল্লাহতায়ালার প্রশংসা, হজরত রাসূলে কারিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ওপর দরুদ পাঠের মাধ্যমে তিনি মোনাজাত শুরু করেন। মোনাজাতে তিনি ইজতেমার কামিয়াবি, অংশগ্রহণকারীসহ সব মুসলমানদের গোনাহ মাফ, দুনিয়া ও আখেরাতের কল্যাণ, বিশ্ব শান্তি, বিশ্ববাসীর সুখ-সমৃদ্ধি কামনা করেছেন।

এ সময় লাখো মানুষের কান্নার আওয়াজে ইজতেমার ময়দানে এক অভূতপূর্ব পরিবেশ সৃষ্টি হয়। আমিন আমিন ধ্বনিতে প্রকম্পিত হয়ে উঠে তুরাগ তীর। ধারণা করা হচ্ছে, ইজতেমার এই আখেরি মোনাজাতে প্রায় অর্ধ কোটি মুসল্লী অংশগ্রহণ করেছেন। ইজতেমার ইতিহাসে এবার প্রথমবারের মতো ময়দান থেকে পাঁচ কিলোমিটার দূর পর্যন্ত মাইকের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরী মোনাজাতে অংশগ্রহণ করেছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব জাহিদ আহসান রাসেল, গাজীপুর সিটি মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম, মন্ত্রী পরিষদের সদস্যবৃন্দ, সংসদ সদস্য, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলামসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি পদস্থ কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ।

এর আগে আজ বাদ ফজর ইজতেমা ময়দানে মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে হেদায়েতি বয়ান পেশ করেন পাকিস্তানের মাওলানা জিয়াউল হক। আখেরি মোনাজাতের আগে বিশেষ বয়ান করেন ভারতের মাওলানা ইবরাহিম দেওলা।

এদিকে তিনদিনের জামাতের বাইরে সকালে আখেরি মোনাজাতে শরিক হতে রাজধানী ঢাকা, গাজীপুরসহ আশপাশের এলাকা থেকে লাখ লাখ মানুষ স্রোতের মতো ছুটে আসেন ইজতেমা ময়দানের দিকে। ফলে উত্তরে গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা দক্ষিণে বিমানবন্দর থেকে টঙ্গীমুখী ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে সব ধরনের যানবাহন বন্ধ করে দেয়া হয়। এছাড়া শাখা রোডগুলো থেকেও কোনো যানবাহন সড়কে প্রবেশ করতে দেয়নি পুলিশ।

ইজতেমার মুরব্বিদের সূত্রে জানা গেছে, ইজতেমায় সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব-আমিরাত, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, চাদ, ইথিওপিয়া, ফ্রান্স, জার্মানি, ভারত, পাকিস্থান, রাশিয়া, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ আফ্রিকা, স্পেন, সুইজারল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, কাজাখস্তান, খিরগিজস্থান, মালয়েশিয়া, মরক্কো, নেপাল, কেনিয়া, কুয়েত, কাতার, বাহরাইন, জর্দান ও দুবাইসহ বিশ্বের ৬১টি দেশের প্রায় ১ হাজার ৯শ’ বিদেশি মুসল্লি অংশ নিয়েছেন।

টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে আরও তিন মুসল্লি মারা গেছেন। শনিবার বিকেলে ও রাতে তাদের মৃত্যু হয়। এনিয়ে প্রথম পর্বের বিশ্ব ইজতেমায় গত চারদিনে ১২ মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে।

২০২১ সালেও বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে দুই পর্বে। প্রথম পর্ব ৮ জানুয়ারি শুরু হয়ে আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হবে ১০ জানুয়ারি। দ্বিতীয় পর্ব ১৫ জানুয়ারি শুরু হয়ে শেষ হবে ১৭ জানুয়ারি।

আজ রবিবার সকালে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমার ময়দানে বিশ্ব তাবলিগের শীর্ষ মুরব্বিদের মাশওয়ারায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

১৭ জানুয়ারি থেকে ১৯ জানুয়ারি হবে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। মাওলানা সাদ অনুসারীরা অংশ নেবেন দ্বিতীয় পর্বে। বাসস

রাত হলেই শুরু হতো জাল নোটে তৈরির কার্যক্রম
                                  

 রাজধানীর অভিজাত এলাকা ধানমন্ডির ভাড়া বাসায় স্ত্রী-সন্তানসহ দীর্ঘদিনের বসবাস সাইফুল ইসলামের। এলাকার প্রায় সবাই তাকে চিনতেন ‘ভালো মানুষ’ হিসেবে। কিন্তু রাত হলেই ওই বাসাতেই চালু হতো জালনোট তৈরির নানা কার্যক্রম। গতকাল শুক্রবার ধানমন্ডি ৭/ই এলাকার একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে কয়েক কোটি টাকার জালনোট উদ্ধার করে র‌্যাপিড অ্যাকশান ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১০)। র‌্যাব জানায়, তার বাসার ওয়্যারড্রব এবং খাটের নিচ থেকে কয়েক কোটি টাকার জালনোট উদ্ধার করা হয়েছে। নোটগুলো সব ৫০০ ও ১০০০ হাজার টাকার। এ সময় ওই বাসা থেকে জালনোট তৈরির কাগজ, প্রিন্টার, টোনার, কেমিক্যাল, ডায়াসসহ সব সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। সাইফুল রাজধানীর অন্যতম জালনোট তৈরির কারিগর। র‌্যাব-১০ এর অধিনায়ক (সিও) অতিরিক্ত ডিআইজি কাইয়ুমুজ্জামান খান বলেন, ঈদ সামনে রেখে জালনোটের একটা প্রাদুর্ভাব দেখা যায়। বেশ কিছুদিন ধরে রাজধানীতে একটি জালনোট তৈরির চক্র কাজ করছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাবের গোয়েন্দা দল চক্রটি ধরতে নজরদারি শুরু করে। গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে রাজধানীর কদমতলী থেকে এক লাখ ৯০ হাজার জালনোটসহ শাহ আলম নামের একজনকে আটক করা হয়। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ধানমন্ডির একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে সাইফুলকে আটক করা হয়। এরপর তার বাসায় তল্লাশি করে কয়েক কোটি টাকার জালনোট উদ্ধার করা হয়। র‌্যাব জানায়, স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ২০১৪ সাল থেকে ওই ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছেন সাইফুল। তার স্ত্রী-সন্তান গ্রামের বাড়ি বেড়াতে গেছে বলে জানা গেছে। তাই প্রাথমিকভাবে তাদের বিষয়ে বিস্তারিত জানা যায়নি। সাইফুল এলাকায় একজন ভদ্র মানুষ হিসেবে পরিচিত হলেও রাতেই বাসায় শুরু করতেন জালনোট তৈরির ব্যাপক কর্মযজ্ঞ। এই বাসা থেকে জালনোট তৈরি করে বিভিন্ন চক্রের মাধ্যমে ছড়িয়ে দিতেন রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায়। এখানে তৈরি জাল ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোটগুলো খুবই নিখুঁত। যা সহজেই শনাক্ত করা সম্ভব নয়। চক্রের সক্রিয় অন্য সদস্যরা র‌্যাবের নজরদারিতে রয়েছে। যেকোনো সময় তাদেরকে গ্রেপ্তার সম্ভব হবে বলে জানান র‌্যাব-১০ অধিনায়ক।

 

রাজধানীতে জীবনযাত্রার ব্যয় বেড়েছে সাড়ে ৬ শতাংশ
                                  

 অব্যাহতভাবে দ্রব্যমূল্যর ঊর্ধ্বগতি ও সেবা মূল্যে বাড়ার কারণে ২০১৯ সালে রাজধানীতে জীবনযাত্রার ব্যয় বেড়েছে ৬ দশমিক ৫০ শতাংশ। পণ্য ও সেবার মূল্য বেড়েছে ৬ দশমিক শূন্য ৮ শতাংশ। বৃদ্ধির এই হার ২০১৮ সালের তুলনায় বেশি। গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) দ্রব্যমূল্য ও জীবনযাত্রার ব্যয়বিষয়ক বার্ষিক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। অনুষ্ঠানে মূল প্রতিবেদন তুলে ধরেন ক্যাবের সভাপতি গোলাম রহমান।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ক্যাবের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হুমায়ুন কবীর ভূঁইয়া, ভোক্তা অভিযোগ নিষ্পত্তি জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন, জ্বালানি উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. এম শামসুল আলম প্রমুখ। ক্যাবের সভাপতি গোলাম রহমান বলেন, ২০১৯ সালে মসলা জাতীয় পণ্য পেঁয়াজ, এলাচি, রসুন এবং আদা ছাড়া অধিকাংশ নিত্যপণ্যের মূল্য স্থিতিশীল ও সহনীয় পর্যায়ে ছিল। চালের মূল্য ছিল সহনীয় এবং নিম্নমুখী।

তবে বছরের শেষে চাল, আটা, ডিম, শাক-সবজিসহ কিছু পণ্যের মূল্য ঊর্ধ্বমুখী ছিল। রাজধানীর ১৫টি খুচরা বাজার ও বিভিন্ন সেবা সার্ভিসের মধ্যে থেকে ১১৪টি খাদ্যপণ্য, ২২টি নিত্যপণ্য এবং ১৪টি সেবা সার্ভিসের তথ্য পর্যালোচনায় বিবেচনা করা হয়েছে। এ হিসেবে শিক্ষা, চিকিৎসা ও প্রকৃত যাতায়াত ব্যয় বহির্ভূত। তিনি বলেন, রাজধানীর ঢাকায় সংগৃহীত বাজারদর ও বিভিন্ন সেবা সার্ভিসের তথ্য থেকে দেখা যায়, সদ্য বিদায়ী ২০১৯ সালে জীবনযাত্রার ব্যয় বেড়েছে ৬ দশমিক ৫০ শতাংশ। এ ছাড়া পণ্য মূল্য ও সেবা মূল্য বেড়েছে ৬ দশমিক ৮ শতাংশ। যা ২০১৮ সালে ছিল যথাক্রমে ৬ শতাংশ এবং ৫ দশমিক ১৯ শতাংশ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে ধর্ষণকারী একজনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব
                                  

রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে ধর্ষণকারী একজনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব। তার নাম মজনু, বয়স আনুমানিক ৩০ বছর। বুধবার শেওড়া রেলস্টেশন থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয় এবং দুপুর দেড়টার দিকে তাকে কাওরানবাজারের র‍্যাবের মিডিয়া সেন্টারে আনা হয়। পরে সাংবাদিকদের সামনে প্রেস ব্রিফিংয়ে লেফটেনেন্ট কর্নেল সরওয়ার বিন কাসেম জানান, গ্রেফতারকৃত মজনু একজন সিরিয়াল ধর্ষক ও এর আগেও সে একাধিকবার এমন ঘটনা ঘটিয়েছে।

র‍্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ ও নির্যাতনের কথা স্বীকার করে মজনু। সে জানায়, তার বাড়ি নোয়াখালির হাতিয়ার জাহাজমারা গ্রামে। বাবা ও স্ত্রী মারা গেছেন। বাড়িতে মা থাকলেও পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ নেই তার। সে পেশায় ভবঘুরে হকার হলেও বিভিন্ন সময় চুরি ও ছিনতাই করতো।

একই সঙ্গে বিভিন্ন সময় সে মানসিক প্রতিবন্ধীসহ একাধিক গরীব ও ভিক্ষুক নারীকে ধর্ষণ করেছে বলেও স্বীকার করে।

প্রাথমিকভাবে র‍্যাবকে সে জানায়, রবিবার রাতে কুর্মিটোলা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য যায় মজনু। সেখানে ওই শিক্ষার্থীর ব্যাগ দেখে সে ছিনতাইয়ের জন্য তার উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। এ সময় সে ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করে ও একই সঙ্গে হত্যারও চেষ্টা করে।

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) জানায়, গ্রেফতারকৃত যুবককে ওই শিক্ষার্থীর সামনে হাজির করা হলে এক দেখাতেই তাকে ধর্ষক হিসেবে শনাক্ত করেন মেয়েটি।

র‌্যাব আরো জানায়, ধর্ষককে গ্রেফতারের পাশাপাশি তার কাছ থেকে ভুক্তভোগীর ব্যাগ, মোবাইল ফোন ও চার্জার উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও একটি টর্চ লাইট জব্দ করা হয়েছে। ধর্ষক মজনুর বাড়ি নোয়াখালী জেলায়। সে গাজীপুরের টঙ্গী এলাকায় বসবাস করতো। মাঝে মাঝে কুর্মিটোলা এলাকার পরিত্যক্ত ট্রেনের কামরায়ও থাকতো।

এর আগে র‌্যাব সন্দেহভাজন তিনজনকে গ্রেফতার করে। জিজ্ঞাসাবাদে তিনজনের মধ্যে একজন স্বীকার করে। পরে সে বিস্তারিত ঘটনার বর্ণনা র‌্যাবকে জানায়। পরে র‌্যাবের পক্ষ থেকে ধর্ষককে মেয়েটির সামনে হাজির করা হয়।

এদিকে র‌্যাব সদর দফতরের লিগ্যাল এন্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লে. কর্নেল সরওয়ার-বিন-কাশেম জানান, এ বিষয়ে বিস্তারিত আজ বুধবার দুপুর দেড়টায় র‌্যাবের এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জানানো হবে।

প্রসঙ্গত, গত রবিবার রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস থেকে নামার পর ধর্ষণের শিকার হন এক শিক্ষার্থী। পরে এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ক্যান্টনমেন্ট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ক্ষোভে ফুঁসে ওঠে ঢাবি ক্যাম্পসসহ সারাদেশের শিক্ষাঙ্গন।

মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের অন্যতম ট্রাস্টির বাসায় হামলা, গ্রেফতার ২
                                  

রাজধানীর উত্তরায় মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের অন্যতম ট্রাস্টি ডা. সারওয়ার আলীর বাড়িতে ঢুকে সপরিবারে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় পুলিশ দুইজনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ওই বাড়ির দারোয়ান হাসান ও তার গাড়ি চালকের বন্ধু হাফিজুল। রবিবার রাত ১০টার দিকে উত্তরা পশ্চিম থানাধীন ডা. সারওয়ার আলীর বাড়ির তৃতীয়তলা ও চতুর্থতলায় এই হত্যা চেষ্টার ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় সোমবার সন্ধ্যায় ডা. সারওয়ার আলী বাদী হয়ে উত্তরা পশ্চিম থানায় দুইজনের নাম উল্লেখ করে মোট সাতজনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা চেষ্টার মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় গ্রেফতারকৃত দুই আসামিকে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে আজ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

উত্তরা পশ্চিম থানার তপন চন্দ্র সাহা জানান, ডা. সারওয়ার আলীর গাড়িচালক নাজমুলকে চাকরিচ্যুত করার জের ধরেই দুর্বৃত্তরা এই হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। ঘটনার পর ওই বাড়ি থেকে হামলাকারীদের ফেলে যাওয়া সাতটি চাপাতি, একটি মোবাইল ফোন ও দড়ি উদ্ধার করা হয়েছে।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি জানান, রবিবার রাত ১০টার দিকে উত্তরার ৭ নম্বর সেক্টরে ডা. সারওয়ার আলীর বাড়ির তৃতীয়তলার ফ্যাটে দুর্বৃত্তরা ঢুকের পড়ে। এ সময় ডা. সারওয়ার আলীর মেয়ে ও জামাতাকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার চেষ্টা চালায় তারা। এরপর বাড়ির চতুর্থ তলায় ডা. সারওয়ার আলী ও তার স্ত্রী কমিউনিটি ক্লিনিকের সাবেক প্রকল্প পরিচালক মাখদুমা নার্গিসকে হত্যার চেষ্টা চালায় দুর্বৃত্তরা। এ সময় ডা. সারওয়ার আলীর মেয়ে সায়মা আলী ও জামাতা হুমায়ুন কবীর ৯৯৯-এ ফোন করে পুলিশের সহায়তা চান। দুই থেকে তিন মিনিটের মধ্যে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে দুর্বৃত্তরা আগেই পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় চাকরিচ্যুত গাড়িচালক নাজমুল পলাতক রয়েছে। তাকে চাকরিচ্যুতির জের ধরেই এই হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

ঢাকার কেরানীগঞ্জে কেমিকেল গোডাউনে বিস্ফারণ আহত ১০ জন
                                  

ঢাকার কেরানীগঞ্জ মডেল থানার পূর্ব বন্দডাকপাড়া আবাসিক এলাকায় রবিবার দুপুর ১২ টায় মারুক আহমেদের কেমিকেল গোডাউনে বিস্ফারণ হওয়ার পর অবশেষে তা নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছে ফায়ার সার্ভিস। আগুন নেভাতে গিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে ১০ জন আহত হয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী বর্ণনা থেকে জানা যায়, বিস্ফারণে গোডাউনের টিনের চাল উড়ে যায়। এলাকাবাসী এ সময় ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে মাত্র ২০ মিনিটের মধ্যে তিনটি ইউনিট ঘটনা স্থালে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

কেরানীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, এলাকাবাসীদের সহযোগিতায় ও তাদের চেষ্টায় দ্রুত আগুন নেভানো সম্ভব হয়েছে।

এদিকে এলাকাবাসী অভিযোগ করে জানায়, তারা নিজেরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কেমিকেল গোডাউনের আগুন নেভাতে সাহায্য না করলে ওই এলাকায় প্রায় ৫০ বাড়ি আগুনে পুড়ে যেত। এ ক্ষেত্রে প্রাণহানির সম্ভাবনা ছিলো বলে জানান তারা। প্রত্যক্ষদর্শীরা আরো জানান, বিস্ফোরণে গোডাউনের প্রায় এক হাজার ফুটের মধ্যে থাকা সকল বাড়ি-ঘর এবং একটি মসজিদের কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

চুড়িহাট্টার অগ্নিকাণ্ডের পর কেমিকেল ব্যবসায়ীরা কেরানীগঞ্জের আতাশুর, কালিন্দী, ডাকপাড়া, চুনকুটিয়া সহ ১২ টি আবাসিক এলাকায় এরকম ৫০টি কেমিকেলের গোডাউন রয়েছে। এ নিয়ে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি ইত্তেফাক পত্রিকায় ‘কেরানীগঞ্জ আবাসিক এলাকায় রাসায়নিক গোডাউন, এলাকাবাসী আতংকিত’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়।

এরপর সরকার কেরানীগঞ্জের আবাসিক এলাকা থেকে কেমিকেল গোডাউন সরিয়ে নিতে নির্দেশ দিলেও স্থানীয় প্রশাসন ও থানা পুলিশ এখনো কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। এলাকাবাসীর দাবি, সরকার যেন দ্রুত কেরানীগঞ্জের আবাসিক এলাকা থেকে সব কেমিকেল সরিয়ে নিতে ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় দুই জনের মৃত্যু
                                  

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে রাজধানী মিরপুরের কালশী এলাকায় কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় অজ্ঞাত (৫৫) এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে দুর্ঘটনাটি ঘটে। পল্লবী থানার এসআই মিজানুর রহমান জানান, অজ্ঞাত পরিচয়ের ওই ব্যক্তি মিরপুরের কালশীতে রাস্তা পারাপারের সময় মিল্ক ভিটা কোম্পানির একটি কাভার্ড ভ্যান তাকে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। খবর পেয়ে তাকে দ্রুত উদ্ধার করে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে সাড়ে ১১টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। দুর্ঘটনার পরপরই কাভার্ড ভ্যানটি জব্দ করা হলেও পালিয়েছেন চালক।

ময়নাতদন্তের জন্য লাশ ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। তার নাম-পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে বলেও জানান এসআই মিজানুর।
অন্যদিকে রাজধানীর খিলক্ষেত কুড়িল ফ্লাইওভার থেকে অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তির (৪৫) লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গত শুক্রবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। গতকাল শনিবার দুপুর ১২টায় ময়নাতদন্তের জন্য লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

সুরতহাল প্রতিবেদনে খিলক্ষেত থানার এসআই মো. মোফাখখারুল ইসলাম এমরান জানান, গত শুক্রবার দিবাগত রাতে বনানীগামী কুড়িল ফ্লাইওভার ওপর থেকে অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত ব্যক্তির গলায় মাফলার পেঁচানো ছিল। প্রাথমিক তদন্তে তিনি বলেন, ধারণা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশ ফ্লাইওভারে ফেলে রেখে যায়। তার পরনে ছিল চেক ট্রাউজার, ফুলহাতা শার্ট ও নীল রঙের জাম্পার। বিস্তারিত জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।

ঢাকার দুই সিটিতে ত্রাণ বিতরণে ইসির নিষেধাজ্ঞা
                                  

 ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনী এলাকায় নতুন সব ধরনের অনুদান ও ত্রাণ বিতরণের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আসন্ন ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচন শেষ না হওয়া পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে। গতকাল শনিবার ইসির নির্বাচন পরিচালনা-২ অধিশাখার উপসচিব আতিয়ার রহমান স্বাক্ষরিত এ নির্দেশনা সংক্রান্ত চিঠি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব বরাবর পাঠানো হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের জন্য গত ২২ ডিসেম্বর ঘোষিত তফসিল অনুসারে আগামী ৩০ জানুয়ারি ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। সিটি করপোরেশন (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬ (সংলগ্নী-২) এর বিধি ৪ অনুযায়ী নির্বাচন-পূর্ব সময় অর্থাৎ নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার তারিখ থেকে নির্বাচনের ফলাফল সরকারি গেজেটে প্রকাশের তারিখ পর্যন্ত কোনো প্রার্থী বা প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বা তার পক্ষে কোনো রাজনৈতিক দল, অন্য কোনো ব্যক্তি, সংস্থা বা প্রতিষ্ঠান সংশ্লিষ্ট এলাকায় অবস্থিত কোনো প্রতিষ্ঠানে প্রকাশ্যে বা গোপনে কোনো প্রকার চাঁদা বা অনুদান প্রদান করতে বা অঙ্গীকার করতে পারবেন না।

এ বিধিমালার বিধান লঙ্ঘন দণ্ডনীয় অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে এবং এ ধরনের অপরাধের জন্য সংশ্লিষ্টরা উল্লিখিত আচরণ বিধিমালার বিধি ৩১ অনুযায়ী দণ্ডনীয় হবেন। চিঠিতে আরও বলা হয়, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে প্রভাবমুক্ত রাখার লক্ষ্যে নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে যে, নির্বাচন শেষ না হওয়া পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে নতুন ভিজিডি কার্ড ইস্যু কার্যক্রমসহ নতুন কোনো প্রকার অনুদান/ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম গ্রহণ করা যাবে না। তবে যে সকল ত্রাণ কার্যক্রম আগে থেকে পরিচালিত হচ্ছে অর্থাৎ চলমান ত্রাণ কার্যক্রম চালু থাকবে বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।

চিঠিতে বলা হয়, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি নির্বাচনের কার্যক্রম সমাপ্ত না হওয়া পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকায় নতুন ভিজিডি কার্ড ইস্যুসহ নতুন কোনো প্রকার অনুদান/ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম স্থগিত রাখার জন্য সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। কোনো এলাকায় অনুদান ত্রাণ বিতরণ সংক্রান্ত নতুন কার্যক্রম গ্রহণ আবশ্যক হলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য নির্বাচন কমিশনের সম্মতি গ্রহণ করতে হবে।

বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে তিন দিন ব্যাপী পৌষ মেলা
                                  

রাজধানীর মানুষকে গ্রামীণ সংস্কৃতির সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে আয়োজন করা হয়েছে তিন দিন ব্যাপী পৌষ মেলা। এ মেলা আগামী সোমবার রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে বলে জানিয়েছে মেলা উদযাপন পরিষদ।

শনিবার সকাল সাড়ে নয়টায় আইলা জ্বালিয়ে বাংলা একাডেমির নজরুল মঞ্চে মেলার উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। এসময় মেলা উদযাপন পরিষদের সভাপতি গোলাম কুদ্দুসের সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মেলা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ রায়। মেলার শুরুতে পৌষ কথন পর্বে বক্তারা বাংলার চিরায়ত লোকজ ঐতিহ্যের কথা তুলে ধরেন।

উদ্বোধনী আনুষ্ঠানিকতা শেষে সমবেত সঙ্গীত, একক পরিবেশনা, দলীয় নৃত্য, আর আবৃত্তি পরিবেশনায় মুখরিত হয়ে ওঠে মেলা প্রাঙ্গণ। নাচে-গানে বর্ণনা করা হয় শীত ঋতুর পরিচিতি।

আয়োজকরা জানান, মেলার আয়োজনে প্রতিবারের মত রকমারি পিঠার সঙ্গে থাকবে বাঙালি সংস্কৃতির নানা পরিবেশনা। আয়োজনে থাকবে সঙ্গীত, নৃত্য, আবৃত্তিসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। মেলা প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে খোলা থাকবে রাত ৯টা পর্যন্ত। মেলায় অংশগ্রহণ করবে প্রায় ৫৪ স্টল।

আশুলিয়ায় অবৈধ ১০০০ গ্যাস সংযোগ বিছিন্ন
                                  

ঢাকার সাভারের আশুলিয়ায় বিভিন্ন বাসা বাড়িতে নেওয়া অবৈধ গ্যাস সংযোগের দুই কিলোমিটার এলাকার প্রায় ১ হাজার সংযোগ বিছিন্ন করেছে সাভার তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত আশুলিয়ার আউকপাড়া ও পূর্বসদরপুর এলাকায় বিভিন্ন অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্নকরণ অভিযান পরিচালনা করেন সাভার তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী আবু সাদাৎ মোহাম্মদ সায়েম। এসময় বিভিন্ন বাসা বাড়ির রাইজার ও পাইপ খুলে নেওয়া হয়। অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্নকরণ কাজে প্রায় ৭০ জন শ্রমিক অংশ নেন।

প্রকৌশলী আবু সাদাৎ মোহাম্মদ সায়েম বলেন, আমাদের এ অভিযান মাসজুড়ে চলে এসেছে। যারা এসব অবৈধ সংযোগ দিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। অভিযানে আশুলিয়ার আউকপাড়া ও পূর্বসদরপুর এলাকার বিভিন্ন জায়গায় দুই কিলোমিটারজুড়ে অবৈধভাবে নেওয়া ১০০০ আবাসিক গ্যাস সংযোগ বিছিন্ন করা হয়। এ সময় জব্দ করা হয়েছে অবৈধ গ্যাস সংযোগে ব্যবহৃত রাইজার, নিম্নমানের পাইপ, চুলা ও রেগুলেটর। তিনি আরও বলেন, রাষ্ট্রীয় এ সম্পদের চুরি ঠেকাতে আমাদের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এ ছাড়া অবৈধ গ্যাস সংযোগ প্রদানকারী ও ব্যবহারকারীদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হচ্ছে। গ্যাস সংযোগ বিছিন্নকালে উপস্থিত ছিলেন- সাভার তিতাস গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের উপ-ব্যবস্থাপক মো. মহিউদ্দীন আহম্মেদ, মো. আমিনুল ইসলাম, সহ-ব্যবস্থাপক সাকিব বিন আবদুল হান্নান এবং উপ-ব্যবস্থাপক আবদুল মান্নানসহ তিতাসের অন্যান্য কর্মকর্তারা।

শাহজালালে যাত্রীর পেটে মিলল ৪ হাজার ইয়াবা
                                  

 রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৪ হাজার ১শ ৮০ পিস ইয়াবাসহ ইয়াসিন মাতবর (৩৭) নামে এক যাত্রীকে আটক করেছে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ। এই বিপুল পরিমাণ ইয়াবা তার পাকস্থলী থেকে উদ্ধার করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার সকালে বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালের বহির্গামী রাস্তা থেকে তাকে আটক করে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ। বিকেলে বিমানবন্দর থানায় ইয়াসিনের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়।

বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপারেশনস অ্যান্ড মিডিয়া) আলমগীর হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গতকাল মঙ্গলবার সকালে বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালের বহির্গামী রাস্তার পাশে অপেক্ষাগার এলাকায় ঘোরাফেরা করছিলেন ইয়াসিন। এ সময় তার গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে সেখানে দায়িত্বরত আর্মড পুলিশ সদস্যরা তাকে আটক করে। পরবর্তীতে তাকে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের হেফাজতে নিয়ে তল্লাশি ও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে পাকস্থলীতে ইয়াবা থাকার কথা স্বীকার করেন ইয়াসিন। আটক ইয়াবার বাজার মূল্য ১৩ লাখ টাকা। জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, ৪০ হাজার টাকার বিনিময়ে কক্সবাজার উখিয়ার মো. ইউসুফ নামে এক মাদক ব্যবসায়ী তাকে ওই ইয়াবা ঢাকায় পৌঁছানোর দায়িত্ব দেয়।


   Page 1 of 102
     রাজধানী
বই মেলা শুরু হবে ২ ফেব্রুয়ারি
.............................................................................................
শাহজালাল বিমানবন্দরে টার্মিনাল-৩ নির্মাণে চুক্তি সই
.............................................................................................
নারায়ণগঞ্জে খাল থেকে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার
.............................................................................................
না.গঞ্জ থেকে ছিনতাই হওয়া ৩২০ বস্তা চিনির ২৫৩ বস্তা ময়মনসিংহে উদ্ধার
.............................................................................................
ঢাকার ৭১ শতাংশ সরকারি হাসপাতালে ধূমপান হয়: হার্ট ফাউন্ডেশন
.............................................................................................
৫৫তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর সুখ-শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা
.............................................................................................
রাত হলেই শুরু হতো জাল নোটে তৈরির কার্যক্রম
.............................................................................................
রাজধানীতে জীবনযাত্রার ব্যয় বেড়েছে সাড়ে ৬ শতাংশ
.............................................................................................
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে ধর্ষণকারী একজনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব
.............................................................................................
মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের অন্যতম ট্রাস্টির বাসায় হামলা, গ্রেফতার ২
.............................................................................................
ঢাকার কেরানীগঞ্জে কেমিকেল গোডাউনে বিস্ফারণ আহত ১০ জন
.............................................................................................
রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় দুই জনের মৃত্যু
.............................................................................................
ঢাকার দুই সিটিতে ত্রাণ বিতরণে ইসির নিষেধাজ্ঞা
.............................................................................................
বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে তিন দিন ব্যাপী পৌষ মেলা
.............................................................................................
আশুলিয়ায় অবৈধ ১০০০ গ্যাস সংযোগ বিছিন্ন
.............................................................................................
শাহজালালে যাত্রীর পেটে মিলল ৪ হাজার ইয়াবা
.............................................................................................
মধুর ক্যান্টিনের সামনে আবারও পর পর দুটি ককটেল বিস্ফোরণ
.............................................................................................
তুরাগতীরে চলছে বিশ্ব ইজতেমার শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি
.............................................................................................
সাভারে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত
.............................................................................................
র‍্যাব-১ এর ‘গুলিবিনিময়ে কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী নিহত
.............................................................................................
বায়ুদূষণে আবারও শীর্ষে ঢাকা
.............................................................................................
ঢাবিতে ককটেল বিস্ফোরণ
.............................................................................................
কেরানীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২
.............................................................................................
গোলারটেক ঈদগাহ খেলার মাঠে শিশু অঞ্চলের শুভ উদ্বোধন
.............................................................................................
৫ হাজার হাইড্রোলিক হর্ন ধ্বংস
.............................................................................................
বায়ু দূষণকারীদের বিরুদ্ধে কাল থেকে অভিযানে নামছে ডিএনসিসি
.............................................................................................
বিমানবন্দরে যাত্রীর জুতায় মিলল ২২ স্বর্ণের বার
.............................................................................................
গাজীপুরে ফ্যান কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ হয়ে ১০ জনের মৃত্যু
.............................................................................................
১৬ ডিসেম্বর বন্ধ থাকবে যেসব সড়ক
.............................................................................................
রাজধানীকে বাসযোগ্য করতে হলে মাস্টার প্ল্যান বাস্তবায়ন করতে হবে: তাজুল
.............................................................................................
কেরানীগঞ্জে প্লাস্টিক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯
.............................................................................................
সচিবালয় এলাকায় হর্ন বাজালে জেল-জরিমানা
.............................................................................................
ঢাকায় তেল-গ্যাস রক্ষা কমিটির মহাসমাবেশ ৩ এপ্রিল
.............................................................................................
রাজধানীতে অপরাধমূলক কর্মকান্ড কমেছে: মেয়র খোকন
.............................................................................................
ডিএনসিসি`র ৪ নং ওয়ার্ড খেলার মাঠের শিশু অঞ্চল খুলে দেয়া হলো
.............................................................................................
৬৪টি পার্কিং স্পট অনুমোদন ডিটিসিএ’র
.............................................................................................
ক্রিকেট ব্যাটের আঘাতে ঢামেক কর্মচারী হত্যা
.............................................................................................
রাজধানীতে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মীদের অবস্থান কর্মসূচিতে পুলিশের বাধা
.............................................................................................
গুঁড়িয়ে দেয়া হলো মহাসড়কের পাশের ১ হাজার স্থাপনা
.............................................................................................
অসহনীয় পর্যায়ে ঢাকার বায়ু দূষণ
.............................................................................................
পথচারীদের সড়ক পারাপারে সচেতন করতে ডিএনসিসি মেয়রের প্রচারাভিযান
.............................................................................................
সড়ক আইনের প্রথম দিন: রাজধানীতে ৮৮টি মামলা, সোয়া লাখ টাকা জরিমানা
.............................................................................................
নীতিমালা প্রণয়নের দাবিতে রাজধানীতে হকারদের বিক্ষোভ
.............................................................................................
রাজধানীতে অস্ত্র চোরাকারবারি গ্রেফতার
.............................................................................................
রাজধানীতে নব্য জেএমবি’র ৪ সদস্য গ্রেফতার
.............................................................................................
বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় ও যাত্রী হয়রানি বন্ধের দাবি
.............................................................................................
র‌্যাব সেজে ডাকাতি, রাজধানীতে গ্রেফতার ৩
.............................................................................................
পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের জন্য স্বাস্থ্য বীমা চালুর ঘোষণা মেষর আতিকের
.............................................................................................
রাজধানীতে আন্তর্জাতিক চামড়াজাত পণ্যের মেলা
.............................................................................................
রূপনগরে বেলুন ফোলানোর সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ৫ জনের মৃত্যু
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা ডট কম
মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত ।

প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ মো: হারুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
বার্তা সম্পাদক: মো: শরিফুল ইসলাম রানা
সহ: সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বিশেষ প্রতিনিধি : মো: আকরাম খাঁন
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]