| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   আইন-আদালত -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
নারায়ণগঞ্জে মাদক মামলায় যুবকের ১৪ বছরের কারাদন্ড

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় মাদক মামলায় এক যুবককে ১৪ বছরের কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদ- দেওয়া হয়েছে। গতকাল বুধবার জেলা যুগ্ম-দায়রা জজ আদালতের বিচারক শেখ রাজিয়া সুলতানা এ আদেশ দেন। রায় ঘোষণাকালে আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। দ-প্রাপ্ত আসামি মোরশেদ আলম ওরফে মোরশেদুল হক গেঞ্জু (৩২) কক্সবাজার জেলার রামু থানার মন্ডলপাড়া এলাকার মৃত সিরাজুল হকের ছেলে। আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) জাসমিন আহমেদ জানান, আসামি মোরশেদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাকে ১৪ বছরের কারাদন্ড দিয়েছেন।

পাশাপাশি পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদ- দিয়েছেন আদালত। মোরশেদ ইয়াবাসহ গ্রেফতার হবার পর থেকে জামিনে বের হতে পারেনি। আর সে কারণেই দ্রুততম সময়ে আমরা বিচারকাজ সম্পন্ন করতে সক্ষম হয়েছি। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ৩১ মার্চ ফতুল্লা সাইনবোর্ড এলাকায় পুলিশ চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশিকালে সাড়ে সাত হাজার পিস ইয়াবাসহ মোরশেদকে আটক করা হয়। এ সময় মোরশেদ কক্সবাজার থেকে বিভিন্ন এলাকায় মাদক চোরাচালান করে থাকে বলে স্বীকার করেন। জব্দ হওয়ার ইয়াবার আনুমানিক মূল্য প্রায় ১১ লাখ ২৫ হাজার টাকা।

 

নারায়ণগঞ্জে মাদক মামলায় যুবকের ১৪ বছরের কারাদন্ড
                                  

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় মাদক মামলায় এক যুবককে ১৪ বছরের কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদ- দেওয়া হয়েছে। গতকাল বুধবার জেলা যুগ্ম-দায়রা জজ আদালতের বিচারক শেখ রাজিয়া সুলতানা এ আদেশ দেন। রায় ঘোষণাকালে আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। দ-প্রাপ্ত আসামি মোরশেদ আলম ওরফে মোরশেদুল হক গেঞ্জু (৩২) কক্সবাজার জেলার রামু থানার মন্ডলপাড়া এলাকার মৃত সিরাজুল হকের ছেলে। আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) জাসমিন আহমেদ জানান, আসামি মোরশেদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাকে ১৪ বছরের কারাদন্ড দিয়েছেন।

পাশাপাশি পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদ- দিয়েছেন আদালত। মোরশেদ ইয়াবাসহ গ্রেফতার হবার পর থেকে জামিনে বের হতে পারেনি। আর সে কারণেই দ্রুততম সময়ে আমরা বিচারকাজ সম্পন্ন করতে সক্ষম হয়েছি। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ৩১ মার্চ ফতুল্লা সাইনবোর্ড এলাকায় পুলিশ চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশিকালে সাড়ে সাত হাজার পিস ইয়াবাসহ মোরশেদকে আটক করা হয়। এ সময় মোরশেদ কক্সবাজার থেকে বিভিন্ন এলাকায় মাদক চোরাচালান করে থাকে বলে স্বীকার করেন। জব্দ হওয়ার ইয়াবার আনুমানিক মূল্য প্রায় ১১ লাখ ২৫ হাজার টাকা।

 

শিশু নির্যাতন রোধে প্রতিটি স্কুলে ‘অভিযোগ বক্স’ রাখার নির্দেশ হাইকোর্টের
                                  

শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে জাতীয় নীতিমালায় দেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিশুদের অভিযোগ শুনতে অভিযোগ বক্স স্থাপনের বিষয়টি অন্তর্ভূক্ত করার পরামর্শ দিয়েছে হাইকোর্ট। বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের সমন্বয়ে গঠিত একটি হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ ভিকারুননেছা স্কুলের শিক্ষার্থী অরিত্রীর আত্মহত্যার বিষয়ে আনা রিটে সংশ্লিষ্টদের প্রতি এ পরামর্শ দেয়।

অরিত্রীর আত্মহত্যার ঘটনায় বুলিং নিরোধ (শিক্ষার্থী হয়রানি নিরোধ) কমিটির অগ্রগতি প্রতিবেদন আগামি ২২ অক্টোবরের মধ্যে জমা দেয়ার নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট। আদালতের আদেশের বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন ডেপুর্টি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার এ বি এম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ (বাশার)। অন্যদিকে অরিত্রির পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার অনিক আর হক। ব্যারিস্টার অনিক আর হক বলেন, শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে জাতীয় নীতিমালার খসড়া বিষয়ে আদালতকে অবহিত করা হয়। আদালত তা আরো সময় উপযোগী করার বিষয়ে বলেছেন।

ডেপুর্টি অ্যাটর্নি জেনারেল বাসার বলেন, আদালত শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে হতে যাওয়া জাতীয় নীতিমালায় প্রতিটি স্কুলে শিশুদের নির্যাতনের অভিযোগ শুনতে একটি অভিযোগ বক্স খোলার বিষয়টি বিবেচনা করতে বলেছেন। শিশুরা তাদের নির্যাতনের অভিযোগগুলো মা-বাবা অথবা স্কুলের শিক্ষক, কারো কাছেই বলতে পারেনা। সেক্ষেত্রে স্কুলে একটি অভিযোগ বক্স থাকলে সেখানে শিশুরা অভিযোগগুলো নির্ভয়ে তুলে ধরতে পারবে।বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে অরিত্রির আত্মহত্যার প্রকাশিত খবর চার আইনজীবী আদালতের নজরে আনার পর ২০১৮ সালের ৪ ডিসেম্বর হাইকোর্ট স্বপ্রণোদিত হয়ে আদেশ দেয়। আদেশে এ ধরনের ঘটনা প্রতিরোধে একটি জাতীয় নীতিমালা প্রণয়নে অতিরিক্ত শিক্ষা সচিবের নেতৃত্বে একটি পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করে দিয়েছে আদালত। এক মাসের মধ্যে এই কমিটিকে দুটি প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। একটি হচ্ছে, জাতীয় নীতিমালা প্রণয়নে তারা একটি প্রতিবেদন দেবে। আরেকটি হচ্ছে, অরিত্রি অধিকারীর আত্মহত্যার কারণ অনুসন্ধানের প্রতিবেদন। আদালত অন্তবর্তীকালীন নির্দেশনার পাশাপাশি রুলও জারি করেন। অরিত্রির আত্মহত্যার মতো ঘটনা প্রতিরোধের উপায় নির্ণয় করে একটি জাতীয় নীতিমালা প্রণয়নের পদক্ষেপ নিতে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না- তা জানতে চাওয়া হয়েছে রুলে।

 

গুলশান হামলার মামলায় আরও ছয়জনের সাক্ষ্যগ্রহণ
                                  

রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারির জঙ্গি হামলা মামলায় এবার সাক্ষ্য দিলেন ওই রেস্তোরাঁর কোষাধ্যক্ষ আল-আমিন চৌধুরীসহ ছয়জন। পরে আদালত পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য ১৬ জুলাই দিন ঠিক করেছেন। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমানের আদালতে তাদের সাক্ষ্যগ্রহণ হয়। ছয় সাক্ষী হলেন- রেস্তোরাঁর কোষাধ্যক্ষ আল-আমিন চৌধুরী, কিচেন বয় সুহিন খান, ওয়েটার ইমাম হোসেন, কফিম্যান শাহরিয়ার আহম্মেদ, পুলিশের কনস্টেবল গোবিন্দ চন্দ্র মোহন ও গাড়ি চালক বাসেত সরদার। এর আগে গত ২ জুলাই ভারতীয় নাগরিক ডা. শরৎ প্রকাশ ও আসলাম হোসেন ট্রাইব্যুনালে সাক্ষ্য দেন। এর আগে গত ২৫ জুনও মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ হয়। এ মামলায় ২১১ জন সাক্ষীর মধ্যে এখন পর্যন্ত ৬৮ জন সাক্ষ্য দিয়েছেন ট্রাইব্যুনালে।

২০১৬ সালের ১ জুলাই গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গিরা হামলা চালিয়ে ১৭ বিদেশিসহ ২০ জনকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করে। হামলার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে পুলিশের ওপর গ্রেনেড হামলা চালায় জঙ্গিরা। এতে মহানগর ডিবি পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি) রবিউল ইসলাম ও বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাউদ্দিন নিহত হন। এরপর ৪ জুলাই গুলশান থানার এসআই রিপন কুমার দাস বাদী হয়ে মামলা করেন। ২০১৮ সালের ২৩ জুলাই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের পরিদর্শক হুমায়ূন কবির আদালতে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। তবে সম্পৃক্ততা না পাওয়ায় মামলার চার্জশিট থেকে বাদ দেওয়া হয় এই হামলা নিয়ে আলোচনায় আসা নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক হাসনাত করিমের নাম। পরে ২০১৮ সালের ২৬ নভেম্বর আট আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করা হয়। এরপর ৪ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয় মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ।

এ মামলার আসামিরা হলেন- হামলার মূল সমন্বয়ক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কানাডার নাগরিক তামিম চৌধুরীর সহযোগী আসলাম হোসেন ওরফে রাশেদ ওরফে আবু জাররা, ঘটনায় অস্ত্র ও বিস্ফোরক সরবরাহকারী নব্য জেএমবি নেতা হাদিসুর রহমান সাগর, নব্য জেএমবির অস্ত্র ও বিস্ফোরক শাখার প্রধান মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান, জঙ্গি রাকিবুল হাসান রিগ্যান, জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব ওরফে রাজীব গান্ধী, হামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী আবদুস সবুর খান (হাসান) ওরফে সোহেল মাহফুজ, শরিফুল ইসলাম ও মামুনুর রশিদ ওরফে রিপন। এর মধ্যে পলাতক মামুনুর রশিদ ওরফে রিপনকে গত ১৯ জানুয়ারি গাজীপুর এবং শরিফুল ইসলাম ওরফে আবদুস সবুর খানকে ২৫ জানুয়ারি চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করা হয়। সাক্ষ্যগ্রহণের সময় সব আসামিকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়।

মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় ফিরোজ খাঁ’র রায় যেকোনো দিন
                                  

 মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় রাজশাহীর পুঠিয়ার মো. আবদুস সামাদ (মুসা) ওরফে ফিরোজ খাঁ’র বিরুদ্ধে যে কোন দিন রায় ঘোষণা করবে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। এ মামলায় প্রসিকিউশন ও আসমিপক্ষের আইনজীবীর যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের বিচারিক প্যানেল মামলাটি রায় ঘোষণার জন্য অপেক্ষমাণ রেখে (সিএভি) রেখে গতকাল আদেশ দেয়। এটি হবে মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ৩৯ তম রায়। প্রসিকিউশনের পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন প্রসিকিউটর ঋষিকেশ সাহা ও জাহিদ ইমাম। আর আসামি পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আবদুস সাত্তার পালোয়ন। আসামির বিরুদ্ধে মামলার তদন্ত কর্মকর্তাসহ (আইও) প্রসিকিউশনের ১৫ জন সাক্ষী তাদের জবানবন্দি পেশ করেন। অন্যদিকে আসামির পক্ষে কোনো সাফাই (ডিফেন্স) সাক্ষী ছিল না।


প্রসিকিউটর জাহিদ ইমাম সাংবাদিকদের বলেন চলতি বছরের ১৪ এপ্রিল এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার জেরা শেষ হয়। এরপর গত বৃহস্পতিবার ৪ জুলাই যুক্তিতর্ক শুরু হয়ে গতকাল শেষ হয়। মামলাটির রায় অপেক্ষমাণ রেখে ট্রাইব্যুনাল গতকাল আদেশ দেয়। রাজশাহীর পুঠিয়ার বাঁশবাড়ী এলাকার মৃত আব্বাস আলীর ছেলে মো.আব্দুস সামাদ (মুসা) ওরফে ফিরোজ খাঁ মুক্তিযুদ্ধের আগে মুসলিম লীগের সমর্থক ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধের সময় জামায়াতে ইসলামীর সমর্থক হিসেবে শান্তি কমিটির স্থানীয় নেতার নেতৃত্বে মানবতাবিরোধী অপরাধ করেন। আসামি ফিরোজ খাঁ’র বিরুদ্ধে মামলায় মুক্তিযুদ্ধকালে চারজন সাঁওতালসহ ১৫ জনকে হত্যা, ২১ জনকে নির্যাতন, ৮ থেকে ১০টি বাড়িঘর লুণ্ঠনসসহ ৫০ থেকে ৬০টি বাড়িঘর অগ্নিসংযোগ করে ধ্বংস করার অভিযোগ আনা হয়। এ মামলায় ২০১৭ সালে ২৪ জানুয়ারি আসামি ফিরোজ খাঁ’কে গ্রেফতার করা হয়।

সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ১০৫ জন
                                  

 সরকার সুপ্রিম কোর্টের ১০৫ জন আইনজীবীকে সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল পদে নিয়োগ দিয়েছে। গতকাল রোববার আইন মন্ত্রণালয়ের আইন ও বিচার বিভাগ থেকে এ-সংক্রান্ত এক বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে ‘দ্য বাংলাদেশ ল অফিসার্স অর্ডার ১৯৭২-এর ৩ (১) অনুচ্ছেদ’ অনুযায়ী, সুপ্রিম কোর্টের ১০৫ জন আইনজীবীকে পুনরায় আদেশ না দেয়া পর্যন্ত বাংলাদেশের সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল পদে নিয়োগ প্রদান করা হলো। এর আগে নিয়োগ পাওয়া ৫২ জনকে সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে বহাল রাখা হয়েছে।

 

বিচারকদের নামের আগে ডক্টর ব্যারিস্টার ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা
                                  

 দেশের সর্বোচ্চ আদালত হাইকোর্টের এক আদেশে বলা হয়েছে, নিম্ন আদালতের বিচারকরা নামের শুরুতে ব্যারিস্টার বা ডক্টর লিখতে পারবে না। একইসঙ্গে ম্যাজিস্ট্রেটদের ক্ষেত্রেও একই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুরে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো: মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।


পরে ওই কোর্টের সহকারি অ্যাটর্নি জেনারেল ইউসুফ মাহমুদ মোরশেদ বলেন, ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ড. মো: আক্তারুজ্জামানের একটি আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন নিয়ে এসেছিলেন আকরাম উদ্দিন নামে একজন আইনজীবী।

গতকাল ওই আবেদনের শুনানির সময় আদালত দেখতে পান বিচারকের নামের আগে ডক্টর পদবি লেখা আছে। তখন আদালত স্ব-প্রণোদিতভাবে আদেশ দেন, নিম্ন আদালতের কোন বিচারক বা ম্যাজিস্ট্রেট তাদের নামের আগে ডক্টর, ব্যারিস্টার বা অন্য কোন পদবি লিখতে পারবেন না।

বাণিজ্যিক আইনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাংলাদেশ মনোনিবেশ করবে: প্রধান বিচারপতি
                                  

 প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেছেন, বাংলাদেশে ব্যবসা সহজে করতে বাণিজ্যিক সালিসি, চুক্তি এবং বাণিজ্যিক আইন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় মনোনিবেশ করবে। ‘কমার্শিয়াল লিগ্যাল প্র্যাকটিস এ- রিসেন্ট ডেভেলপমেন্ট ইন বাংলাদেশ‘-শীর্ষক এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃায় প্রধান বিচারপতি গতকাল শনিবার এ কথা বলেন।

আপিল বিভাগের জেষ্ঠ্য বিচারপতি ও বিচার বিভাগীয় সংস্কারের জন্য সুপ্রিমকোর্টের বিশেষ কমিটির চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলীর সভাপতিত্বে সেমিনারে আরো বক্তৃতা করেন ইউএনডিপি বাংলাদেশ-এর আবাসিক প্রতিনিধি সুন্দীপ মুখার্জী। প্রধান বিচারপতি বলেন, বাণিজ্য একটি গণতান্ত্রিক সমাজের মূল অংশ। বাংলাদেশে বাণিজ্যিক লেনদেন অনেক কারণে উৎসাহ দেয় না। আইনজীবী এবং বিচারকদের দেশের বাণিজ্যিক আইন ও সর্বশেষ উন্নয়ন-এর সঙ্গে ভাল পরিচিত হওয়া উচিত বলে মনে করেন প্রধান বিচারপতি। তিনি বলেন, বাংলাদেশে ব্যবসা করার সহজতর উন্নতির জন্য ওয়ান-স্টপ সেবা অবিলম্বে চালু করার প্রয়োজন রয়েছে। প্রধান বিচারপতি বলেন, বাণিজ্যিক আইন প্রণয়ন ও আনুষ্ঠানিক বিচারব্যবস্থা বা সালিসি মাধ্যমে মামলাগুলি দ্রুত নিষ্পত্তি করা বাংলাদেশে অস্বীকার করা হয় না।

আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক সালিসি আন্তর্জাতিক ব্যবসা ও অর্থনৈতিক বিরোধের দৃঢ়তার মধ্যে আন্তজার্তিক আইনের সুযোগ ও গুরুত্বকে এখন বিস্তৃত করেছে। তিনি বলেন, বিশ্বের কোন অঞ্চলকে শিল্প বা কোনও আন্তর্জাতিক ক্রিয়াকলাপের সাথে অর্থনৈতিক ক্রিয়াকলাপ বাণিজ্যিক সালিসি প্রভাবের এলাকা থেকে আজকে বাদ দেয়া হয় না। প্রধান বিচারপতি বলেন, বাণিজ্যিক বিরোধগুলির দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য ক্রমবর্ধমান আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক কার্যক্রমগুলির বিবেচনায় দীর্ঘদিন ধরে সালিসি বিষয়ে আইনের আধুনিকীকরণ এবং আপডেট করার জন্য সর্বদা চাহিদা ছিল। বাংলাদেশ পুরনো সালিসি আইন, ১৯৪০ বাতিল করে নতুন সালিসি আইন প্রনয়ন করে।

এ সেমিনার বাংলাদেশে বাণিজ্যিক সালিসি, চুক্তি এবং চ্যালেঞ্জ বাস্তবায়নে, বাংলাদেশে ব্যবসা সহজে এবং বাণিজ্যিক আইন ইত্যাদি চ্যালেঞ্জগুলিতে মনোনিবেশ করবে বলে প্রধান বিচারপতি আশা প্রকাশ করেন। বিচারপতি ইমান আলী বলেন, আরবিট্রেশন প্রক্রিয়ায় আইনি কাঠামো পরিবর্তন সম্ভব। আদালতে না যেয়েও বিরোধ নিষ্পত্তি সম্ভব। তা স্থানীয় ও আন্তজার্তিক উভয়ক্ষেত্রে প্রযোজ্য।

পার্কিং-এর জায়গায় অবৈধ স্থাপনা ভেঙ্গে ফেলতে হাইকোর্টের নির্দেশ
                                  

 হাইকোর্ট রাজধানীতে যানজট কমাতে পার্কিং প্লেসে গড়ে ওঠা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন অবৈধ স্থাপনা ছয় মাসের মধ্যে উচ্ছেদ করার নির্দেশ দিয়েছে। জনস্বার্থে আনা এ-সংক্রান্ত এক রিট আবেদনের শুনানি শেষে বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহ সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল বুধবার এ রায় ঘোষণা করে। আদালতে রিটের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ এবং রাজউকের পক্ষে ছিলেন ইমাম হাসান।

রায়ের পর আইনজীবী মনজিল মোরসেদ সাংবাদিকদের বলেন, ভবন নির্মাণের পরিকল্পনায় রাজউক থেকে পার্কিং প্লেসের অনুমোদন নেয়া হয়। কিন্তু নির্ধারিত জায়গায় পার্কিং প্লেস নির্মাণ না করে ভবন মালিকরা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করছেন কিংবা ভাড়া দিচ্ছেন। এতে রাস্তায় গাড়ি পার্কিং করতে হচ্ছে। সৃষ্টি হচ্ছে ভয়াবহ যানজট। বিষয়টি উল্লেখ করে পরিবেশবাদী ও মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস পিস ফর বাংলাদেশ (এইচআরপিবি) জনস্বার্থে একটি রিট পিটিশন দায়ের করে। ওই রিটের আলোকে ইতোপূর্বে হাইকোর্ট রুল জারি করে। রুলের শুনানি নিয়ে গতকাল বুধবার রুল যথাযথ (এ্যাবসিলিউট) ঘোষণা করে আদালত রায় দিয়েছে।

তিনি জানান, রায়ে ভবন মালিকদের আগামি ৩০ দিনের মধ্যে পার্কিং প্লেসের অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নেয়ার আহ্বান জানিয়ে একটি ইংরেজি ও একটি বাংলা পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে রাজউককে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ঢাকার সব এলাকায় মাইকিং করে নির্দেশনার বিষয়ে জানাতে হবে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভবন মালিকরা অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে না নিলে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করতে বলেছে আদালত। উচ্ছেদ অভিযানে যে ব্যয় হবে, তা ভবন মালিকদের পরিশোধ করতে হবে। পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতেও বলা হয়েছে। মনজিল মোরসেদ জানান, রায়ে সিটি কর্পোরেশনকে বলা হয়েছে, রাস্তায় গাড়ি পার্কিংয়ের অনুমতি দিতে পারবে না। নির্দেশনা পালন শেষে আগামি তিন মাসের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের আদালতে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

কুষ্টিয়ায় মাদক মামলার আসামির যাবজ্জীবন
                                  

 কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায় এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। গতকাল মঙ্গলবার কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ অরুপ কুমার গোস্বামী আসামির উপস্থিতিতে এ রায় দেন। রায়ে ওই ব্যক্তির ৫০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়।

দন্ডিত রাজীব হোসেন (৩৮) কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার ছেঁউড়িয়া মন্ডলপাড়ার নূর মোহাম্মদ মন্ডলের ছেলে। মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১৩ সালের ৪ জানুয়ারি র‌্যাব কুমারখালী উপজেলার ছেঁউড়িয়া গ্রাম থেকে ৫০টি ইয়াবা ট্যাবলেট ও ৬২ গ্রাম হেরোইনসহ রাজীব হোসেনকে আটক করে। পরে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করে তাকে কুমারখালী থানায় সোপর্দ করে। কুষ্টিয়া জজ আদালতের পিপি অনুপ কুমার নন্দী জানান, তদন্ত শেষে ২০১৩ সালের ৫ নভেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ঢাকার দুই সিটিকে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশ হাইকোর্টের
                                  

 ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনকে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের সমন্বয়ে গঠিত একটি হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ গতকাল মঙ্গলবার এ আদেশ দেয়। আদেশ আদালত ঢাকার দুই সিটির মেয়র ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রতিটি ওয়ার্ডে যথাযথভাবে এডিস মশার ওষুধ স্প্রে করার পর দুই সপ্তাহের মধ্যে তা জানাতে বলেছে।

বায়ু দুষণ রোধে মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) আনা রিট আবেদনে এ আদেশ দেয়া হয়। রিটের শুনানিতে সিটি করপোরেশনের পক্ষে আলাদা দু’ট প্রতিবেদনে জানানো হয়, ডেঙ্গু রোধে সচেতনতা বাড়ানোসহ নানা পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। রিটের পক্ষে আইনজীবী মনজিল মোরসেদ সাংবাদিকদের বলেন, আদালতের আগের একটি নির্দেশনা অনুযায়ী আজকে সিটি করপোরেশন থেকে রিপোর্ট দাখিল করা হয়। ওই রিপোর্টের ভেতরে ডেঙ্গু রোগবাহি এডিস মশা নিধনে ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়ে উল্লেখ করা হয়েছে।

সেখানে অনেকগুলো নির্দেশনার ব্যাপারে তারা বলেছেন, প্রত্যেকটা ওয়ার্ড ভিত্তিক কমিটি গঠন করা হয়েছে, ওষুধ ছিটানোর জন্য। জনসচেতনতা বাড়াতে উঠান বৈঠক করার কথা বলা হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকেও বিভিন্ন কমিটি করা হয়েছে। এ বিষয়ে আগামি ১৭ জুলাই পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছেন আদালত।

সিডান গাড়ি পেলেন ৬২ অতিরিক্ত জেলা জজ
                                  

 বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক অধস্তন আদালতে কর্মরত ৬২ জন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজকে সিডান গাড়ির চাবি হস্তান্তর করেছেন। গতকাল সোমবার ঢাকার আবদুল গণি রোডে নিবন্ধন অধিদপ্তর প্রাঙ্গণে ৬২ জন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজের কাছে এসব গাড়ির চাবি হস্তান্তর করেন আইনমন্ত্রী।

এ সময় বিচারকদের উদ্দেশ্যে আনিসুল হক বলেন, এবার যে সব গাড়ি ক্রয় করা হয়েছে তার সবগুলো ব্রান্ড নিউ গাড়ি। গাড়িগুলো তিনি যতœ সহকারে ব্যবহারের পরামর্শ দেন। গাড়ির চাবি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে আইন সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক, যুগ্ম সচিব গোলাম সারোয়ার, বিকাশ কুমার সাহা ও হাবিবুর রহমান, সলিসিটর জেসমিন আরা, নিবন্ধন অধিদপ্তরের মহাপরিদর্শক খান মো. আবদুল মান্নানসহ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় বিগত ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরে অধস্তন আদালতে কর্মরত বিচারকদের জন্য ৩৮ কোটি ৭৬ লাখ ৩২ হাজার ৩ শ’ ৩০ টাকা ব্যয়ে মোট ১ শ’ ৯ টি সিডান কার এবং ৬টি মাইক্রোবাস ক্রয় করে। এগুলোর মধ্যে ১৭ কোটি ২১ লাখ ৯৪ হাজার ৩ শ’ ৩০ টাকা ব্যয়ে জেলা ও দায়রা জজ বা সমমর্যাদার কর্মকর্তাদের জন্য ৪৬টি কার, ১৮ কোটি ৩৪ লাখ ৫৮ হাজার টাকা ব্যয়ে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজদের জন্য ৬২টি কার এবং ৬৩ লাখ ৯০ হাজার টাকা ব্যয়ে প্রশাসনিক আপিল ট্রাইব্যুালের জন্য একটি কার ক্রয় করা হয়। এছাড়া ২ কোটি ৫৫ লাখ ৯০ হাজার টাকা ব্যয়ে ছয়টি জেলার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের জন্য ৬টি মাইক্রোবাস ক্রয় করা হয়েছে।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নিয়োগের ক্ষেত্রে নতুনরা প্রাধান্য পাবে: আইনমন্ত্রী
                                  

 আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেছেন, শিগগিরই রাষ্ট্রের আইন কর্মকর্তা হিসেবে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নিয়োগ দেয়া হবে এবং নিয়োগের ক্ষেত্রে নতুনরা বেশি প্রাধান্য পাবেন। গতকাল সোমবার বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউটে যুগ্ম-জেলা ও দায়রা জজ এবং সমপর্যায়ের বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তাদের ১৪২তম রিফ্রেশার প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক বিচারপতি খোন্দকার মূসা খালেদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আইন সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হকও বক্তৃতা করেন। আনিসুল হক বলেন, ২০০৯ সাল থেকে আজ পর্যন্ত যারা ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে আছেন আমি তাদেরকে পদত্যাগ করতে বলেছিলাম। এর পরিপ্রেক্ষিতে আমার কাছে এখন পর্যন্ত ৮৭ জনের পদত্যাগপত্র পৌঁছে গেছে। হলি আর্টিজানের মামলার বিষয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, আপনারা দেখছেন প্রধানমন্ত্রী এই জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন।

হলি আর্টিজানের ঘটনায় যারা নিহত হয়েছে আমি তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করছি। মন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের প্রেক্ষিতে এটা নিতান্তই একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা। এই ঘটনা ঘটে যাওয়ার পর সকল আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে এই মামলার তদন্ত ও বিচার কাজ অত্যন্ত দ্রুত করার চেষ্টা করা হয়েছে।

স্থগিত মামলার তালিকা করতে হাইকোর্টের নির্দেশ
                                  

স্থগিতাদেশের কারণে দীর্ঘদিন ধরে আটকে থাকা মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তির উদ্যোগ এসেছে হাই কোর্টের একটি বেঞ্চ থেকে। ২০১০ সাল পর্যন্ত যেসব ফৌজদারি মামলার ওপর হাই কোর্টের স্থগিতাদেশ রয়েছে- সেগুলোর তালিকা তিন সপ্তাহের মধ্যে প্রধান বিচারপতির কাছে উপস্থাপন করতে হাই কোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গতকাল বুধবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাই কোর্ট বেঞ্চ থেকে এক রায়ের সঙ্গে এই নির্দেশনা আসে।

প্রায় তিন দশক ধরে আটকে থাকা সগিরা মোর্শেদ সালাম হত্যা মামলার স্থগিতাদেশ এই রায়ের মাধ্যমে তুলে নিয়েছে আদালত। ৬০ দিনের মধ্যে অধিকতর তদন্ত শেষ করে তার পরের ৯০ দিনের মধ্যে বিচারকাজ শেষ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম বলেন, এত দিনেও ভিকটিমের পরিবারকে রাষ্ট্র কোনো বিচার দিতে পারেনি। ২৮টা বছরে এ মামলার ভিকটিমকে আমারা কী দিতে পারলাম! সামগ্রিকভাবে এটা আমাদের ব্যার্থতা। এ আদালত বলেছে, ফৌজদারি রিভিশন ও ফৌজদারি কার্যবিধি ৫৬১(ক) ধারায় মামলা বাতিলের আবেদন নিষ্পত্তির অপেক্ষায় থাকলে এবং প্রধান বিচারপতি তা এই বেঞ্চে পাঠালে বেঞ্চ তা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিষ্পত্তি করা হবে।

হাই কোর্ট বিভাগের সহকারী রেজিস্ট্রার (ফৌজদারি শাখা) মো. জাকির হোসেন পাটোয়ারী জানান, ফৌজদারি কার্যবিধি ৫৬১(ক) ধারায় মামলা বাতিলের আবেদনের কারণে ১৯৯৮ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত ৩০ হাজার মামলা স্থগিত আছে। এর মধ্যে ২০১৮ সালেই ২ হাজার ২৪৯টি আবেদন হয়। তবে রিভিশন আবেদনের কারণে কতটি মামলায় স্থগিতাদেশ আছে- সে তথ্য তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেননি সহকারী রেজিস্ট্রার ছিদ্দিকুর রহমান (ফৌজদারি-১)।

জট কমাতে নানা উদ্যোগের পরও দেশের আদালগুলোতে নিষ্পত্তির অপেক্ষায় থাকা মামলার সংখ্যা প্রতি বছর বাড়ছে। আইনমন্ত্রী আনিসুল হক গত ১৮ জুন জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তর পর্বে জানান, দেশের নিম্ন আদালত থেকে সর্বোচ্চ আদালতে গত ৩১ মার্চ পর্যন্ত মোট ৩৫ লাখ ৮২ হাজার ৩৪৭টি মামলা বিচারধীন ছিল। এর মধ্যে হাই কোর্ট বিভাগে নিষ্পত্তির অপেক্ষায় থাকা ফৌজদারি মামলার সংখ্যা ৩ লাখ ১৭ হাজার ৪৪৩টি।

 

¯’wMZ gvgjvi ZvwjKv Ki‡Z nvB‡Kv‡U©i wb‡`©k

GdGbGm: ¯’wMZv‡`‡ki Kvi‡Y `xN©w`b a‡i AvU‡K _vKv gvgjv¸‡jv `ªæZ wb®úwËi D‡`¨vM G‡m‡Q nvB †Kv‡U©i GKwU †e †_‡K| 2010 mvj ch©šÍ †hme †dŠR`vwi gvgjvi Ici nvB †Kv‡U©i ¯’wMZv‡`k i‡q‡Q- †m¸‡jvi ZvwjKv wZb mßv‡ni g‡a¨ cÖavb wePvicwZi Kv‡Q Dc¯’vcb Ki‡Z nvB †KvU© wefv‡Mi †iwR÷ªvi‡K wb‡`©k †`Iqv n‡q‡Q| MZKvj eyaevi wePvicwZ Gg Bbv‡qZzi iwng I wePvicwZ †gv. †gv¯ÍvwdRyi ingv‡bi nvB †KvU© †e †_‡K GK iv‡qi m‡½ GB wb‡`©kbv Av‡m| cÖvq wZb `kK a‡i AvU‡K _vKv mwMiv †gv‡k©` mvjvg nZ¨v gvgjvi ¯’wMZv‡`k GB iv‡qi gva¨‡g Zz‡j wb‡q‡Q Av`vjZ| 60 w`‡bi g‡a¨ AwaKZi Z`šÍ †kl K‡i Zvi c‡ii 90 w`‡bi g‡a¨ wePviKvR †kl Ki‡Z wb‡`©k †`Iqv n‡q‡Q| wePvicwZ Gg Bbv‡qZzi iwng e‡jb, GZ w`‡bI wfKwU‡gi cwievi‡K ivóª †Kv‡bv wePvi w`‡Z cv‡iwb| 28Uv eQ‡i G gvgjvi wfKwUg‡K Avgviv Kx w`‡Z cvijvg! mvgwMÖKfv‡e GUv Avgv‡`i e¨v_©Zv| G Av`vjZ e‡j‡Q, †dŠR`vwi wiwfkb I †dŠR`vwi Kvh©wewa 561(K) avivq gvgjv evwZ‡ji Av‡e`b wb®úwËi A‡c¶vq _vK‡j Ges cÖavb wePvicwZ Zv GB †e‡Â cvVv‡j †e Zv AMÖvwaKvi wfwˇZ wb®úwË Kiv n‡e| nvB †KvU© wefv‡Mi mnKvix †iwR÷ªvi (†dŠR`vwi kvLv) †gv. RvwKi †nv‡mb cv‡Uvqvix Rvbvb, †dŠR`vwi Kvh©wewa 561(K) avivq gvgjv evwZ‡ji Av‡e`‡bi Kvi‡Y 1998 †_‡K 2018 ch©šÍ 30 nvRvi gvgjv ¯’wMZ Av‡Q| Gi g‡a¨ 2018 mv‡jB 2 nvRvi 249wU Av‡e`b nq| Z‡e wiwfkb Av‡e`‡bi Kvi‡Y KZwU gvgjvq ¯’wMZv‡`k Av‡Q- †m Z_¨ Zvr¶wYKfv‡e Rvbv‡Z cv‡ibwb mnKvix †iwR÷ªvi wQwÏKzi ingvb (†dŠR`vwi-1)| RU Kgv‡Z bvbv D‡`¨v‡Mi ciI †`‡ki Av`vj¸‡jv‡Z wb®úwËi A‡c¶vq _vKv gvgjvi msL¨v cÖwZ eQi evo‡Q| AvBbgš¿x Avwbmyj nK MZ 18 Ryb RvZxq msm‡`i cÖ‡kœvËi c‡e© Rvbvb, †`‡ki wbgœ Av`vjZ †_‡K m‡e©v”P Av`vj‡Z MZ 31 gvP© ch©šÍ †gvU 35 jvL 82 nvRvi 347wU gvgjv wePviaxb wQj| Gi g‡a¨ nvB †KvU© wefv‡M wb®úwËi A‡c¶vq _vKv †dŠR`vwi gvgjvi msL¨v 3 jvL 17 nvRvi 443wU|

 

রাজধানীতে ফেনসিডিল উদ্ধারের মামলায় ৩ জনের যাবজ্জীবন
                                  

 রাজধানীর ধানমন্ডি থেকে ২৩০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধারের মামলায় তিন মাদক কারবারিকে যাবজ্জীবন কারাদ- দিয়েছে আদালত। গতকাল সোমবার ঢাকার পাঁচ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মো. আখতারুজ্জামান এ রায় দেন। যাবজ্জীবন দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ওমর ফারুক, মো. খোকন এবং মো. আনোয়ার হোসেন। কারাদ-ের পাশাপাশি প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে অর্থদন্ড, অনাদায়ে আরও এক বছর করে কারাদন্ডের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রায়ে মামলার আরেক আসামি মো. জামাল ওরফে রনিকে দুই বছরের কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড, আনাদায়ে ছয় মাসের কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন বিচারক। আদালতের পেশকার মোকারম হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি রনি, খোকন ও আনোয়ার আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে তাদেরকে সাজা পরোয়ানা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়। আরেক আসামি ফারুক পলাতক। মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০০৫ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি ধানমন্ডি থানাধীন নীলক্ষেতের বাবুপুরায় বৃহত্তর যশোর সমিতির নির্মাণাধীন ভবন থেকে ১৬টি চটের বস্তায় ২৩০০ বোতল ফেনসিডিলসহ পুলিশের হাতে ধরা পড়েন বিক্রেতা জামাল ওরফে রনি। পরে তার তথ্যের ভিত্তিতে তিন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়।

কারাবন্দি ও কারা চিকিৎসকের তালিকা চাইলেন হাইকোর্ট
                                  

দেশের ৬৮টি কারাগারের ধারণক্ষমতা, কারাবন্দি ও কারাচিকিৎসকের সংখ্যা এবং চিকিৎসকের শূন্য পদের তালিকা দাখিল করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে আগামি ছয় সপ্তাহের মধ্যে কারা-মহাপরিদর্শককে এই বিষয়ে তালিকা তৈরি করে তা দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল রোববার এই সংক্রান্ত এক রিটের প্রাথমিক শুনানি শেষে বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন। রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন। তাকে সহায়তা করেন আইনজীবী শাম্মী আকতার ও রিটকারী আইনজীবী জে আর খান রবিন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এবিএম আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।

এছাড়া দেশের কারাগারগুলোতে বন্দিদের জন্য মানসম্মত থাকার ব্যবস্থা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্টদের নিষ্ক্রিয়তাকে কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। পাশাপাশি শূন্য পদগুলোয় কারা চিকিৎসক নিয়োগ না দিয়ে বন্দিদের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিতে সংশ্লিষ্টদের নিষ্ক্রিয়তা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, রুলে তাও জানতে চেয়েছেন আদালত। চার সপ্তাহের মধ্যে আইন মন্ত্রণালয় সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সচিব (সুরক্ষা বিভাগ), স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সচিব, সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয় সচিব, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সচিব, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ও কারা মহাপরিদর্শককে এসব রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। এরআগে এই বছরের ৪ ফেব্রুয়ারি সংশ্লিষ্ট বিষয়ে জবাব চেয়ে সংশ্লিষ্টদের একটি আইনি নোটিশ পাঠান আইনজীবী জে আর খান রবিন। কিন্তু সে নোটিশের কোনও জবাব না পাওয়ায় গত মার্চ মাসে তিনি হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন।


রিটে বলা হয়, সারাদেশে মোট ৬৮টি কারাগার রয়েছে। এরমধ্যে ১৩টি কেন্দ্রীয়, বাকি ৫৫টি জেলা কারাগার। এসব কারাগারের ধারণক্ষমতা ৪০ হাজার ৬৬৪ জন। তবে বর্তমানে সাধারণ ধারণক্ষমতার দ্বিগুণ অর্থাৎ ৮৯ হাজার ৫৬৪ আসামি কারাগারে আছে।


এছাড়া, ১২৯ জন কারা চিকিৎসক থাকার কথা থাকলেও বর্তমানে মাত্র ৯ জন কর্মরত রয়েছেন। অস্বাস্থ্যকর ও অনিরাপদ পরিবেশের কারণে কয়েদিরা বিভিন্ন রোগে ভুগছেন। অসুস্থ হয়ে পড়লে যথাযথ চিকিৎসাসেবা থেকে তারা বঞ্চিত হচ্ছেন বলেও রিটে উল্লেখ করা হয়।

 

উচ্চ আদালতের নির্দেশে দিনাজপুরে ২৯টি ইটভাটার বিরুদ্ধে মামলা
                                  

 ইটভাটার জাল আদেশ ও নথি তৈরির ঘটনায় উচ্চ আদালতের নির্দেশে দিনাজপুরের ২৯টি ইটভাটার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। এই মামলায় ৩১ জনকে আসামি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে পার্বতীপুর মডেল থানায় এসআই আবদুল হামিদ মামলাটি দায়ের করেন। গত শুক্রবার রাতে দিনাজপুরের পুলিশ সুপার সৈয়দ আবু সায়েম এ কথা জানান। জানা যায়, গত মার্চ মাসের শেষের দিকে দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার হয়বতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে যমুনা ইটভাটার কারণে শ্বাসকষ্টসহ নানাবিধ সমস্যার কথা উল্লেখ করে জেলা প্রশাসক বরাবর চিঠি লিখেছিল দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী মাইশা মনওয়ারা মিশু।

চিঠিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হলে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন এবং নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী ওই শিশুর সঙ্গে কথা বলেন। পরে জেলা প্রশাসককের নির্দেশে ভাটাটি বন্ধের উদ্যোগ নেওয়া হয়। কিন্তু পদক্ষেপ নিতে গিয়ে স্থানীয় প্রশাসন দেখে লাইসেন্স না থাকলেও উচ্চ আদালতে করা রিটের মাধ্যমে যমুনা ইট ভাটাটি চলছে। মামলা সূত্রে জানা যায়, হাইকোর্টের বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে ইটভাটা নিয়ে শিশুর উদ্বেগের খবর তুলে ধরে রিট করে রাষ্ট্রপক্ষ। রিটের চুড়ান্ত শুনানিতে দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের কাছ থেকে পাওয়া একাধিক আদেশ আদালতের নজরে আনে রাষ্ট্রপক্ষ। এ সময় ২০১৭ সালের ২৫ আক্টোবরের ২২ জন ও ২০১৮ সালের ১৯ নভেম্বরের ২৬ জন আবেদনকারীর স্বাক্ষরিত দুটি রিট আদলতের নজরে আনা হয়। এরপর আদালত সংশ্লিষ্ট শাখার সুপারকে ডেকে রিট আবেদন ও রাষ্ট্রপক্ষের দেখানো আদেশের নথি সরবরাহের জন্য মৌখিত নির্দেশ দেন।

এছাড়াও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলের কাছ থেকে ওই মামলা দুটির আদেশের নকল সংগ্রহেরও নির্দেশ দেন আদালত। পরে সংগ্রহ করা ওই মামলা দুটির আদেশের নকলের ফটোকপি যাচাই করে দেখা যায় নকলগুলো রিট শাখা থেকে সরবরাহ করা হয়নি। এতে সংশ্লিষ্টদের যে স্বাক্ষর রয়েছে তাও জাল। এ ঘটনায় গত ৩০ এপ্রিল উচ্চ আদালত ৩১টি ইটভাটার সঙ্গে সম্পৃক্ত ব্যক্তিদের আদালতে হাজিররা নিশ্চিত করাসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য তিন জেলার (দিনাজপুর, রংপুর ও নীলফামারী) পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দেন। গত ২০ মে ওই বেঞ্চ ৩১টি ইটভাটার মালিকের বিরুদ্ধে মামলা করতে পুলিশ সুপারদের আদেশ দেন। এছাড়াও বিষয়টি তদন্ত করে জাল আদেশ তৈরির সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগকে (সিআইডি)নির্দেশ দেন। আগামি ২৫ জুনের মধ্যে আদেশ বাস্তবায়নের অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন। মামলায় যেসব ইটভাটার মালিককে আসামি করা হয়েছে তারা হলেন, দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার যমুনা ব্রিকসের সত্ত্বাধিকারী হাসান শাহরিয়ার, আরবি ব্রিকসের রবিউল আলম মুন্সী, এইচবি ব্রিকসের এজেডএম রেজওয়ানুল হক, অর্নব ব্রিকসের নুর আলম ও ইব্রাহীম আলী মন্ডল, বারী ব্রিকসের ফখরুল ইসলাম শাহ, এআরবি ব্রিকসের রেজওয়ানুল হক, আরটি ব্রিকসের মো. তাশরিফুল, এসএ ব্রিকসের আমানুল্লাহ প্রামাণিক, জেএস ব্রিকসের শাহরিয়ার ইফতেখারুল আলম চৌধুরী, ফাইভ ষ্টার ব্রিকসের নজরুল ইসলাম, হক ট্রেডার্সের জিকরুল হক, মাইশা ব্রিকসের রেজাউল ইসলাম, এসপি ব্রিকসের পলাশ কুমার রায়, শফী ব্রিকসের শফিকুল ইসলাম, আজাদ ব্রিকসের আবুল কালাম আজাদ, হামিদ অ্যান্ড সন্স ব্রিকসের মোকারম হোসেন। ফুলবাড়ী উপজেলার রহমান ব্রিকসের সত্ত্বাধিকারী এবং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান ওরফে মিল্টন, নবী ব্রিকসের মাসুদুর রহমান চৌধুরী, এলএইচবি ব্রিকসের লোকমান হাকিম, এসবি ব্রিকসের মঞ্জুরী-ইশ-শাহাদৎ।

বিরল উপজেলার এমবি ব্রিকসের মাসুদ রানা, এএম ব্রিকসের রবিউল হাসান, চিরিরবন্দর উপজেলার এনএইচ ব্রিকসের নাজমুল হুদা, আরএ ব্রিকস-১ এবং আরএ ব্রিকস-২ এর রফিকুল ইসলাম। দিনাজপুর সদরের পিআর ব্রিকসের পলিন চন্দ্র রায়, এআর ব্রিকসের মাহফুজুল হক আনার, কাহারোল উপজেলার এএস ব্রিকসের এসএম হায়দার। নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর উপজেলার এনআরবি ব্রিকসের শফিকুর রহমান এবং রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার কাজী ব্রিকসের কুদরতি খুদা ও আসাদুজ্জামান।

 


   Page 1 of 67
     আইন-আদালত
নারায়ণগঞ্জে মাদক মামলায় যুবকের ১৪ বছরের কারাদন্ড
.............................................................................................
শিশু নির্যাতন রোধে প্রতিটি স্কুলে ‘অভিযোগ বক্স’ রাখার নির্দেশ হাইকোর্টের
.............................................................................................
গুলশান হামলার মামলায় আরও ছয়জনের সাক্ষ্যগ্রহণ
.............................................................................................
মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় ফিরোজ খাঁ’র রায় যেকোনো দিন
.............................................................................................
সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ১০৫ জন
.............................................................................................
বিচারকদের নামের আগে ডক্টর ব্যারিস্টার ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা
.............................................................................................
বাণিজ্যিক আইনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাংলাদেশ মনোনিবেশ করবে: প্রধান বিচারপতি
.............................................................................................
পার্কিং-এর জায়গায় অবৈধ স্থাপনা ভেঙ্গে ফেলতে হাইকোর্টের নির্দেশ
.............................................................................................
কুষ্টিয়ায় মাদক মামলার আসামির যাবজ্জীবন
.............................................................................................
ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ঢাকার দুই সিটিকে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশ হাইকোর্টের
.............................................................................................
সিডান গাড়ি পেলেন ৬২ অতিরিক্ত জেলা জজ
.............................................................................................
ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নিয়োগের ক্ষেত্রে নতুনরা প্রাধান্য পাবে: আইনমন্ত্রী
.............................................................................................
স্থগিত মামলার তালিকা করতে হাইকোর্টের নির্দেশ
.............................................................................................
রাজধানীতে ফেনসিডিল উদ্ধারের মামলায় ৩ জনের যাবজ্জীবন
.............................................................................................
কারাবন্দি ও কারা চিকিৎসকের তালিকা চাইলেন হাইকোর্ট
.............................................................................................
উচ্চ আদালতের নির্দেশে দিনাজপুরে ২৯টি ইটভাটার বিরুদ্ধে মামলা
.............................................................................................
রাজধনীতে সিএনজি চালক হত্যায় ৮ জনের যাবজ্জীবন
.............................................................................................
মাদক মামলায় যুবকের ১২ বছরের কারাদন্ড
.............................................................................................
মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি বন্ধে হাইকোর্টে রিট
.............................................................................................
চাঁপাইনবাবগঞ্জে ছয় জেএমবি সদস্যকে ১০ বছর কারাদন্ড
.............................................................................................
পিছিয়ে গেল হাঙ্গার প্রজেক্ট কর্মী অহিদ হত্যা মামলার রায়
.............................................................................................
নোয়াখালীতে আদালত প্রাঙ্গণ থেকে আসামির পলায়ন
.............................................................................................
সুপ্রিমকোর্ট খুলছে আজ
.............................................................................................
মৌলভীবাজারে খুনের মামলায় এক আসামির যাবজ্জীবন
.............................................................................................
পরীক্ষার উত্তরপত্র পুনর্মূল্যায়নের বিধান প্রণয়নে হাইকোর্টের রুল
.............................................................................................
সামুদ্রিক জলসীমায় ২৩ জুলাই পর্যন্ত মৎস্য আহরণ নিষিদ্ধ
.............................................................................................
কারাগারে মাদক মামলার আসামিদের জন্য আলাদা ওয়ার্ড করার প্রস্তাব
.............................................................................................
পটুয়াখালীর সিভিল সার্জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ হাইকোর্টের
.............................................................................................
যানবাহনে অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হাইকোর্টের রুল
.............................................................................................
বরগুনায় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন
.............................................................................................
কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায় স্বামী-স্ত্রীর যাবজ্জীবন
.............................................................................................
চট্টগ্রামে ভাইকে না পেয়ে বোনকে হত্যা: ৩ আসামি রিমান্ডে
.............................................................................................
হবিগঞ্জে ট্রাকচাপায় নিহত ২
.............................................................................................
গাইবান্ধার ১১০ পুকুর লিজ নিয়ে আদালতে জবাব দিতে হবে ডিসিসহ ১৬ জনকে
.............................................................................................
অস্ত্র মামলায় কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলা চেয়ারম্যানের ১৪ বছরের কারাদন্ড
.............................................................................................
দুধ-দইয়ে ভেজাল মিশ্রণকারীদের তালিকা চান হাইকোর্ট
.............................................................................................
ফরিদগঞ্জে রমজানে অসাধু ব্যবসায়ীদের অপতৎপরতা ঠেকাতে ভ্রাম্যমান আদালত চলবে
.............................................................................................
উচ্চ আদালতে থাকা দুই মামলায় জামিন হলে মুক্তি পাবেন খালেদা জিয়া
.............................................................................................
খালেদার কয়লা খনি দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানি ১৬ মে
.............................................................................................
সুপ্রিম কোর্টে এত মামলা যে ফাইল রাখার জায়গা নেই : প্রধান বিচারপতি
.............................................................................................
আজ থেকে বন্ধ ২০ লাখ সিম
.............................................................................................
ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের কর্মকর্তা খাদেম হত্যায় ৬ জনের মৃত্যুদন্ড
.............................................................................................
তেজস্ক্রিয়তা ছড়ানো মোবাইল টাওয়ার অপসারণে সমীক্ষা প্রতিবেদন চেয়েছে হাইকোর্ট
.............................................................................................
ব্যবস্থাপত্র ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক বিক্রি বন্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ
.............................................................................................
পাবনায় ৩ পুলশি হত্যায় ৮ চরমপন্থীর যাবজ্জীবন
.............................................................................................
সিরাজগঞ্জে মাদক মামলায় নারীর যাবজ্জীবন
.............................................................................................
খালেদার ২ মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি ১৩ জুন
.............................................................................................
সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ কার্যকরে গেজেট চেয়ে হাইকোর্টে রিট
.............................................................................................
চিকিৎসার জন্য ওসমানী হাসপাতালে নেওয়া হলো বাবরকে
.............................................................................................
কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায় নারীর যাবজ্জীবন, ২ সহোদরের ১৫ বছর কারাদন্ড
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]