ঢাকা,বৃহস্পতিবার,৭ কার্তিক ১৪২৭,২২,অক্টোবর,২০২০ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   রাজনীতি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে কাজ করছে নির্বাচন কমিশন: মির্জা ফখরুল

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে কাজ করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা রাষ্ট্রযন্ত্রকে কাজে লাগিয়ে ভোটকেন্দ্র দখল করে বিএনপির এজেন্টদের বের করে ভোটের ফলাফল পাল্টে দিচ্ছে।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) বিকেলে ঠাকুরগাঁওয়ে নিজ বাসভবনে সংবাদকর্মীদের সাথে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আজকেই এই স্থানীয় সরকার নির্বাচনে আবারো প্রমাণ করলো যে আওয়ামী লীগ ও বর্তমান নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অধীনে কোনো সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। এই নির্বাচন কমিশন পুরোপুরিভাবে সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়নে সরকারের অঙ্গসংগঠন হিসেবে কাজ করছে।

দেশের চলমান ২০৮ ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ ও জেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ পরিস্থিতি নিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, প্রত্যেকটি নির্বাচনের একই চেহারা। ২০১৮ সাল যেমন কেউ ভোট দিতে যায়নি। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বেশির ভাগ আসনে প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছে। আমরা নির্বাচনের মাধ্যমেই সরকার পরিবর্তন ঘটাতেই চাই, গণতন্ত্র বিশ্বাস করলে ভোটে অংশ নিতে হবে বলেও মির্জা ফখরুল মন্তব্য করেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল আরো বলেন, সরকারি আদেশে চিকিৎসার জন্য দলের চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার দেশের বাইরে যেতে না দেয়াটা অমানবিক। সুচিকিৎসার প্রয়োজনে তিনি যাতে বিদেশে যেতে পারেন সে ব্যাপারে বিধি-নিষেধ প্রত্যাহার করা হোক এটাই আমাদের দাবি।

সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে কাজ করছে নির্বাচন কমিশন: মির্জা ফখরুল
                                  

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে কাজ করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা রাষ্ট্রযন্ত্রকে কাজে লাগিয়ে ভোটকেন্দ্র দখল করে বিএনপির এজেন্টদের বের করে ভোটের ফলাফল পাল্টে দিচ্ছে।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) বিকেলে ঠাকুরগাঁওয়ে নিজ বাসভবনে সংবাদকর্মীদের সাথে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আজকেই এই স্থানীয় সরকার নির্বাচনে আবারো প্রমাণ করলো যে আওয়ামী লীগ ও বর্তমান নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অধীনে কোনো সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। এই নির্বাচন কমিশন পুরোপুরিভাবে সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়নে সরকারের অঙ্গসংগঠন হিসেবে কাজ করছে।

দেশের চলমান ২০৮ ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ ও জেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ পরিস্থিতি নিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, প্রত্যেকটি নির্বাচনের একই চেহারা। ২০১৮ সাল যেমন কেউ ভোট দিতে যায়নি। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বেশির ভাগ আসনে প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছে। আমরা নির্বাচনের মাধ্যমেই সরকার পরিবর্তন ঘটাতেই চাই, গণতন্ত্র বিশ্বাস করলে ভোটে অংশ নিতে হবে বলেও মির্জা ফখরুল মন্তব্য করেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল আরো বলেন, সরকারি আদেশে চিকিৎসার জন্য দলের চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার দেশের বাইরে যেতে না দেয়াটা অমানবিক। সুচিকিৎসার প্রয়োজনে তিনি যাতে বিদেশে যেতে পারেন সে ব্যাপারে বিধি-নিষেধ প্রত্যাহার করা হোক এটাই আমাদের দাবি।

দেশের ২০৮ ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ ও জেলা পরিষদে ভোটগ্রহণ চলছে
                                  

দেশের ২০৮ ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ ও জেলা পরিষদে ভোটগ্রহণ চলছে। মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়; একটানা চলবে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। ১৫ ইউনিয়ন পরিষদে সাধারণ ও ১৭৭টির বিভিন্ন পদে উপনির্বাচন হচ্ছে। বাকিগুলোর মধ্যে একটি উপজেলায় সাধারণ ও আটটিতে উপনির্বাচন, সাতটি জেলা পরিষদের বিভিন্ন পদেও ভোটগ্রহণ চলছ।

ইসি সূত্র জানায়, সব নির্বাচনী এলাকায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়নি। যেসব উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদে সাধারণ নির্বাচন বা চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন হচ্ছে, শুধু সেসব স্থানে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এ ছাড়া নির্বাচনে শুধু নির্দিষ্ট যানবাহনের ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। নির্বাচনী এলাকাগুলোতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

ইসি জানিয়েছে, আট জেলায় ১৫ ইউনিয়ন পরিষদে আজ ভোটগ্রহণ হচ্ছে। এগুলো হলো- পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার ভাঙ্গুরা ও মন্ডতোষ, ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার গাজনা ও কোরকদি এবং পটুয়াখালীর কলাপাড়ার মহিপুর ইউনিয়ন পরিষদ। আরও রয়েছে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার গড়াইটুপি, চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার সুয়াবিল এবং লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদ, লোহাগাড়া ও আধুনগর।

এছাড়া রংপুর সদর উপজেলার হরিদেবপুর, চন্দনপাট ও সদ্যপুস্করিণী, লালমোহন উপজেলার ফরাশগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার দাউদপুরে আজ ভোটগ্রহণ চলছে।

আর যে ৯ উপজেলায় আজ ভোট গ্রহণ চলছে, তা হলো- কুমিল্লার দাউদকান্দিতে সাধারণ, দিনাজপুর সদরে ভাইস চেয়ারম্যান এবং যশোর সদর, চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ, সুনামগঞ্জের জামালপুর, মাদারীপুরের শিবচর, বাগেরহাটের শরণখোলা, খুলনার পাইকগাছা ও নওগাঁর মান্দায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন হচ্ছে।

ইউনিয়নগুলো হচ্ছে- লালমনিরহাট সদর উপজেলার গোকুন্ডা, গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার রাজাহার, বগুড়া সদরের নিশিন্দারা, রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার জাহানাবাদ, নরসিংদীর পলাশ উপজেলার জিনারদী, সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার খুরমা দক্ষিণ, ফেনীর ফুলগাজী উপজেলার মুন্সিরহাট ও লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ।

সাত জেলা পরিষদে ভোট: সাত জেলা পরিষদের মধ্যে মৌলভীবাজার জেলা পরিষদে চেয়ারম্যান এবং হবিগঞ্জ, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, সাতক্ষীরা, সিলেট ও টাঙ্গাইল জেলা পরিষদের একটি করে ওয়ার্ডে আজ ভোটগ্রহণ চলছে।

সমমনা ইসলামী দলগুলো দেশব্যাপী বিক্ষোভের ডাক
                                  

সমমনা ইসলামী দলগুলো ২২ অক্টোবর ঢাকায় ও ২৩ অক্টোবর দেশব্যাপী বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে। সোমবার সকাল ৮টায় জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের কার্যালয়ে এক বৈঠকে এ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

বৈঠকে পুলিশী হেফাজতে মানুষ হত্যা, দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি, সীমান্তে হত্যার প্রতিবাদে এবং জিনা-ব্যভিচার ও ধর্ষণ প্রতিরোধে সমমনা দল সমুহের ছয় দফা দাবি বাস্তবায়নের লক্ষে আগামী ২৩ অক্টোবর (শুক্রবার) দেশব্যাপী বিক্ষোভ ও ঢাকায় ২২অক্টোবর (বৃহস্পতিবার), বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেইটে বাদ জোহর, বিক্ষাভ সমাবেশ ও মিছিলের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

বৈঠকে ফরায়জী জামাতকে সমমনা ইসলামী দল সমূহের অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

জমিয়ত মহাসচিব আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমীর (হাফি) সভাপতিত্বে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহসভাপতি আল্লামা আব্দুর রব ইউসূফী খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ড আহমদ আব্দুল কাদের, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক বাংলাদেশ মুসলিম লীগের মহাসচিব কাজী আবুল খায়ের, জমিয়তের সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ মাওলানা নাজমুল হাসান, অর্থ সম্পাদক মুফতি জাকির হোসাইন কাসেমী, প্রচার সম্পাদক মাওলানা জয়নুল আবেদীন, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের অর্থ সম্পাদক মাওলানা ফারুক আহমদ অফিস সম্পাদক কামরুল ইসলাম প্রমুখ।

আটজনকে বহিষ্কার করেছে গণফোরামের নেতৃত্বাধীন অংশ
                                  

দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে মোস্তফা মহসিন মন্টু ও অধ্যাপক আবু সাইয়িদসহ আটজনকে বহিষ্কার করেছে গণফোরামের ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন অংশ। আজ শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে জহুর হোসেন চৌধুরী হলে গণফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির সভায় এই বহিষ্কারের পাশাপাশি ১২ ডিসেম্বর জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়।

বহিষ্কৃত বাকিরা হলেন-সুব্রত চৌধুরী, জগলুল হায়দার আফ্রিক, হেলালউদ্দিন, লতিফুল বারী হামিম, খান সিদ্দিকুর রহমান ও আব্দুল হাসিব চৌধুরী। এদের মধ্যে শেষের চার জনকে আগে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছিল। এখন চূড়ান্ত বহিষ্কার করা হলো। গণফোরামের সদস্য মোশতাক আহমদ সভার সিদ্ধান্ত পড়ে শুনান। এতে বলা হয়, বর্তমান রাজনৈতিক ও সাংগঠনিক বাস্তবতায় সংগঠনকে শক্তিশালী, গতিশীল ও সুসংগঠিত করার লক্ষ্যে আগামী ১২ ডিসেম্বর ঢাকায় কেন্দ্রীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত হয়েছে।


‘দলীয় শৃঙ্খলভঙ্গ ও গঠনতন্ত্রবিরোধী কার্যকলাপে লিপ্ত থাকার অভিযোগের বিষয়ে পাঠানো শোকজ নোটিসের জবাব না দেওয়ায়’ মন্টু, সাইয়িদ, সুব্রত ও জগলুলকে দলের প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে বহিষ্কারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই সিদ্ধান্ত সভায় উপস্থিত সদস্যরা হাততালি দিয়ে সমর্থন জানালেও মহানগর গণফোরামের হারুন তালুকদার দাঁড়িয়ে বলেন, ‘আমি এসব সিদ্ধান্ত সমর্থন করি না।’

পরে সভার সভাপতি সাংসদ মোক্তাদির খান বলেন, ‘একজন সমর্থন করেনি। বাকিরা হাততালি দিয়ে এসব সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেছেন। এসব সিদ্ধান্ত পাস হলো। সভায় যেসব বক্তব্য এসেছে তাতে যে স্পিরিট উঠে এসেছে সেটা হলো-যারা দলীয় শৃঙ্খলা মানেন না, যারা দলীয় সিদ্ধান্ত মানেন না, যারা দলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কথা শুনেন না। এই অবস্থায় একটি সংগঠন চলতে পারে না। প্রতিটি দলেই একটা ডিসিপ্লিন থাকে, তার একটা গঠনতন্ত্র থাকে, সকলকে সেই গঠনতন্ত্র মেনে চলতে হয়। আজ যেভাবে গণফোরামকে নিয়ে কতিপয় ব্যক্তি জনগণের মধ্যে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করেছেন, গণফোরামকে নিয়ে একটা খেলায় মেতে উঠেছে। সেটা মেনে নেওয়া যায় না। গণফোরাম কোনো এজেন্সির পারপাজ সার্ভ করার জন্য গঠিত হয়নি। গত ২৬ বছর দলের ভেতরে একটি গোষ্ঠি এই কাজটি করে আসছিল।’

সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া বলেন, ‘এক দলকে ছেড়ে আরেক দল করা বা অন্য দলে চলে যাওয়া এটা অনেক হয়েছে গণফোরামে। কিন্তু দলকে ছেড়ে দলের ক্ষতি করার চেষ্টা করাটা এটা একটু অন্যরকম ব্যাপার। যারা এটা করছে ভাগ্য ভালো যে আমরা তাদেরকে চিনতে পেরেছি। চিনতে পারার সুযোগটা তারাই সেই সুযোগটা আমাদেরকে দিয়েছে। তারা যে কি প্রকৃতির মানুষ, আমরা সবাই এখন আন্দাজ করতে পারছি, এটা প্রকাশ্যে চলে এসেছে।’

রেজা বলেন, ‘ওদেরকে নিয়ে আর আমরা কিছু আমি বলতে চাই না। দলের সভাপতির সাথে ওদের চিন্তা ধারার মিল ছিল না। যখন ওরা ড. কামাল হোসেনকে নিয়ে কটূক্তি করেছে আমি মনে করি তাদের এই দলে স্থান থাকতে পারে না। ড. কামাল শুধু দলের শ্রদ্ধেয় মানুষ নয়, উনি দেশের বিবেক হিসেবে কাজ করছেন।’

দলকে নতুনভাব সবার সঙ্গে আলোচনা করে শক্তিশালী ও সুসংগঠিত করার দৃঢ় প্রত্যায় ব্যক্ত করেন গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক। গত বছরের ২৬ এপ্রিল গণফোরামের বিশেষ কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়েছিলো গুলিস্তানের মহানগর নাট্যমঞ্চে। সেই কাউন্সিলে ড. কামাল হোসেন সভাপতি ও ড. রেজা কিবরিয়া সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর জাতীয় প্রেস ক্লাবের আবদুস সালাম হলে গণফোরামের একদল নেতাকর্মীকে নিয়ে বর্ধিত সভায় ২৬ ডিসেম্বের গণফোরামের কাউন্সিল অনুষ্ঠানের ঘোষণা দেন ওই সভার সভাপতি অবিভক্ত দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু। এজন্য তার নেতৃত্বে ২১০ সদস্যের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়। ওই সভা থেকে দলের শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে অবিভক্ত দলের সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া, আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মহসিন রশিদ, আওম শফিক উল্লাহ ও মোশতাক আহমেদকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্তও অনুমোদন করা হয়।

ঢাকা-৫ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে সাংবাদিকদের ঢুকতে দিচ্ছে না পুলিশ
                                  

ঢাকা-৫ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে দনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে সাংবাদিকদের ঢুকতে দিচ্ছে না পুলিশ। বেলা এগারোটায় ওই কেন্দ্রে গেলে পুলিশ সাংবাদিকদের একুশে ভবনের কেন্দ্রে ঢুকতে বাঁধা দিয়ে অন্য ভবনে যেতে বলেন।

পুলিশের কনেস্টেবল হানিফ নয়া দিগন্তকে বলেন, আপাতত এই ভবনে সাংবাদিকদের ঢুকতে প্রিজাইডিং কর্মকর্তার নিষেধ আছে। আপনি অন্য ভবনগুলো ঘুরে আসেন। এদিকে ঢাকা জেলা নির্বাচন অফিসের অফিস সহকারী আবুল বাশার এই কেন্দ্রের কন্টোলরুমের দায়িত্বে থাকলেও ১ ঘণ্টা ঘুরেও কন্ট্রোলরুমে ঢুকতে পারেনি।

আবু্ল বাশার নয়া দিগন্তকে বলেন, সকাল ১০ টায় আমি কেন্দ্রে আসি। এসে এখানে দায়িত্বরত কন্ট্রোলরুম কোথায় জানতে চাইলে আমাকে বারবার এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় পাঠানো হচ্ছে।

এর আগে সকাল নয়টায় ভোট শুরু হয়। উল্লেখ্য, ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লা গত ৬ মে মারা যাওয়ায় ঢাকা-৫ আসনটি শূন্য হয়। নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মো. কাজী মনিরুল ইসলাম, বিএনপির সালাহ্ উদ্দিন আহম্মেদ, জাতীয় পার্টির মীর আব্দুর সবুর, গণফ্রন্টের এইচ এম ইব্রাহিম ভূঁইয়া, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. আনছার রহমান শিকদার ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. আরিফুর রহমান প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৪টি থানা মতিঝিল (আংশিক), যাত্রাবাড়ি, ডেমরা ও কদমতলী (আংশিক) নিয়ে আসনটি গঠিত। এ আসনে ১৪টি ওয়ার্ডে মোট ১৮৭টি কেন্দ্রের ৮৬৪টি কক্ষে ১হাজার ৯৫টি বুথে ভোটগ্রহণ চলছে। এখানে মোট ভোটার রয়েছেন ৪ লাখ ৭১ হাজার ১২৯ জন। যাঁদের মধ্যে পুরুষ দুই লাখ ৪১ হাজার ৪৬৪ জন ও নারী দুই লাখ ২৯ হাজার ৬৬৫ জন।

সরকারকে ছয় দফা দাবিসহ হুঁশিয়ারি বার্তা দিলেন ইসলামী দলসমূহ
                                  

দেশব্যাপী ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে এবার রাজপথে নেমে এসেছে সমমনা ইসলামী দলসমূহ। আজ শুক্রবার পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সামনে জুমার নামাজের পর বিক্ষোভ মিছিল করেন দলগুলোর নেতাকর্মীরা। এ সময় একাত্তর টেলিভিশন বর্জনে নানা স্লোগান দেয়ার পাশাপাশি ছয় দফা দাবি পেশ করা হয়।

বিক্ষোভ মিছিলটি বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেট থেকে শুরু হয়ে বিজয়নগর এলাকায় গিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশে মিলিত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে জুমার নামাজের আগে থেকেই বায়তুল মোকাররম এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। তবে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।


সমাবেশে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব এবং সমমনা ইসলামী দলসমূহের সমন্বয়ক আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী বলেন, ধর্ষণ-নির্যাতন বন্ধে শুধু আইন করলে হবে না, এর যথাযথ প্রয়োগ করতে হবে এবং জিনা, ব্যভিচার, ধর্ষণের উৎস চিহ্নিত করে তা বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে।

দেশে একদিকে করোনার সংক্রমণ, অন্যদিকে মা-বোনদের ইজ্জত-আব্রু লুণ্ঠিত হচ্ছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, হায়েনারা নারীদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ছে। হত্যা-নির্যাতন করা হচ্ছে। ধর্ষণের উৎস পশ্চিমা নগ্নতা, বেহায়াপনা। এগুলো বন্ধ না হলে ধর্ষণ বন্ধ হবে না। সমাজ থেকে লজ্জা-শরম উঠে যাচ্ছে। অপসংস্কৃতির আগ্রাসন বন্ধ করতে হবে এবং শিক্ষানীতি ও পাঠ্যসূচিকে কোরআন সুন্নাহর আলোকে সাজাতে হবে।

হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে এই আলেম বলেন, সরকার সবদিক দিয়ে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। তারা যদি খুন, ধর্ষণসহ বিভিন্ন অপকর্ম বন্ধ করতে না পারে, তাহলে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। উত্তরণের জন্য সকল দলের কাছ থেকে পরামর্শ নিতে হবে।

খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ড. আহমদ আব্দুল কাদের বলেন, দেশে একের পর এক অপকর্মের ঘটনা ঘটলেও সরকার নানা কথা বলে ইস্যুকে ধামা-চাপা দেয়ার চেষ্টা করছে। সরকারকে বলবো, হয় ভালোভাবে দেশ চালান, নয়তো পদত্যাগ করুন।

সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের আমির ড. মোহাম্মদ ঈশা সাহেদী, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহ-সভাপতি মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী, খেলাফত আন্দোলনের নায়েবে আমির মাওলানা মজিবুর রহমান হামিদী ও মুসলিম লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমুখ।

এ সময় সরকারের কাছে ছয় দফা দাবি তুলে ধরা হয়। সেগুলো হলো:

=) জিনা, ব্যাভিচার ও ধর্ষণ প্রতিরোধে জনসম্মুখে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা।

=) পর্নোগ্রাফির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা।

=) মাদকদ্রব্যের অবাধ প্রাপ্তি ও ব্যবহার কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা।

=) নারীর অশ্লীল উপস্থাপনা ও পণ্য হিসেবে ব্যবহার বন্ধ করা।

=) আইনের নিরপেক্ষ প্রয়োগ এবং বিচার কাজকে রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক হস্তক্ষেপ মুক্ত রাখা।

=) এবং নারীর মর্যাদা ও অধিকার সংরক্ষণে কুরআন-হাদিসের শিক্ষাসমূহ জাতীয় শিক্ষা কারিকুলামে অন্তর্ভুক্ত করা।

ঢাকা-৫ ও নওঁগা-৬ আসনের উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে
                                  

করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যেই আজ শনিবার হচ্ছে ঢাকা-৫ ও নওঁগা-৬ আসনের উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ৯টায় এই ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে, চলবে টানা বিকেল ৫টা পর্যন্ত। এবার দুটি আসনের ভোট হচ্ছে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দুটি আসনেই আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীরা সাংসদ হয়েছিলেন। তাদের মৃত্যুতে আসন দুটি শূন্য হয়।

এবার ঢাকা-৫ আসনে ভোটার ৪ লাখ ৭১ হাজার ১২৯ জন। মোট ভোটকেন্দ্র ১৮৭টি। নওগাঁ-৬ আসনে মোট ভোটার ৩ লাখ ৬ হাজার ৭২৫ জন। ভোট হবে ১০৪টি কেন্দ্রে।

জাতীয় রাজনীতির প্রধান দলগুলো নির্বাচনে প্রার্থী দিয়েছে। তবে দুটি আসনেই আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীদের মধ্যে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে বলে স্থানীয় ভোটাররা মনে করেন।

২০০৮ সাল থেকে দুটি আসনেই আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা জয়ী হয়ে আসছেন। ঢাকা-৫ আসনে দীর্ঘদিনের সাংসদ ছিলেন হাবিবুর রহমান মোল্লা। আর ইসরাফিল আলম ছিলেন নওগাঁ-৬ (আত্রাই–রানীনগর) আসনের সাংসদ। সাধারণত সাংসদরা মারা গেলে পরিবারের কাউকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। তবে এবার দুটি আসনেই আওয়ামী লীগ নতুন প্রার্থী দিয়েছে।

ঢাকা-৫ আসনে প্রার্থী যাত্রাবাড়ী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী মনিরুল ইসলাম। আর রানীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেনকে নওগাঁ-৬ আসনে প্রার্থী করা হয়।

অন্যদিকে, বিএনপি ঢাকা-৫ আসনে প্রার্থী করেছে এই আসনের সাবেক সাংসদ সালাহউদ্দিন আহমেদকে। নওগাঁ-৬ আসনে দলটির প্রার্থী নওগাঁ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য শেখ মোহাম্মদ রেজাউল ইসলাম।

ইতিমধ্যে উপনির্বাচন ঘিরে অভিযোগ ও পাল্টা অভিযোগ এসেছে। তবে নির্বাচন কমিশন বলছে, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পর্যাপ্ত সদস্য ছাড়াও বিচারিক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা দায়িত্ব পালন করবেন। এর আগে গতকাল শুক্রবারই প্রতিটি কেন্দ্রে পুলিশি পাহারায় সরঞ্জাম পাঠানো হয়।

ফরিদগঞ্জে চেয়ারম্যান প্রার্থী জি এম হাছান তাবাচ্ছুমের ব্যাপক গণসংযোগ
                                  

এস. এম ইকবাল:

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সামনে রেখে ফরিদগঞ্জ উপজেলা আ`লীগ নেতা, সংসদ সদস্য সাংবাদিক মুহম্মদ শফিকুর রহমানের আস্থাভাজন ও ২ নং বালিথুবা ইউনিয়নের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জি. হাছান তাবাচ্ছুম তার ধারাবাহিক গনসংযোগের অংশ হিসেবে ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক গণসংযোগ করছেন।

১৫ অক্টোবর ( বৃহস্পতিবার) বিকেলে ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড রাঁধা মার্কেট ও মানিকরাজ এলাকায় নেতা- কর্মীদের সাথে নিয়ে এ গনসংযোগ করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা যুবলীগের সদস্য মো. জাকির হোসেন, আ`লীগ নেতা মো. লোকমান হোসেন প্রমূখ।

গণসংযোগ কালে তিনি বলেন, জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানে কাজ করে চলেছেন। তাঁর হাতের ছোঁয়ায় দেশ আজ অনেক দূর এগিয়ে। এই উন্নয়নযাত্রায় আমার ইউনিয়নবাসীকে আরও বেশি সম্পৃক্ত করে এগিয়ে নিতে হবে। সব দিক থেকেই বঞ্চিত আমার ইউনিয়নবাসীকে উন্নয়নযাত্রার সুফল পৌঁছে দিতে এবং সর্বোচ্চ নাগরিকসেবা ও আধুনিক ইউনিয়ন পরিষদ উপহার দিতে এ যাত্রায় আমি নিজকে সামিল করতে চাই।


তিনি আরো বলেন, মাদক, দুর্নীতি ও সন্ত্রাসমুক্ত সমাজ গঠন করাই আমার লক্ষ্য। তাই মানুষের জন্য কাজ করতে চাই, মানুষের ভালোবাসা অর্জন করতে চাই। জনগণ আমাকে তাদের পাশে থাকার স্থান দিলে, সারাজীবন মানুষের পাশে থেকে গণমানুষের কাজ করবো।

১১ মহানগর কমিটি ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি
                                  

দল পুনর্গঠনের অংশ হিসেবে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণসহ বিএনপির ১১ মহানগর কমিটি ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারক। সপ্তাহ দুয়েকের মধ্যে পর্যায়ক্রমে সব মহানগরে নতুন কমিটি করা হবে বলে জানা গেছে।

দলের নীতিনির্ধারকরা জানিয়েছেন, সারাদেশে বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর কমিটি পুনর্গঠনের কাজ শুরু হয়েছে। ইউনিয়ন, পৌর ও থানা পর্যায়ের কমিটি গঠনে প্রত্যেক সংগঠনের বিভাগীয় কমিটি গঠন করে দেওয়া হয়েছে। সে অনুযায়ী কমিটি গঠনের কাজ চলছে। এরই ধারাবাহিকতায় ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণসহ সারাদেশের মহানগর কমিটি এবং এর অধীন থানা ও ওয়ার্ড কমিটি পুনর্গঠনের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

সম্প্রতি লন্ডন থেকে স্কাইপে চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগীয় নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এই আভাস দেন। জানা যায়, সব মহানগর কমিটি ভেঙে দিচ্ছেন তারেক রহমান। সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত। এখন শুধু নতুন কমিটি দেওয়ার পালা।



দলীয় সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম মহানগর দিয়ে মহানগরের পুনর্গঠন প্রক্রিয়া শুরু হবে। এর পর বরিশাল মহানগর। পর্যায়ক্রমে অন্যান্য মহানগর কমিটি গঠন করা হবে। দলের গুরুত্বপূর্ণ আরও এক নেতা বলেন, কাউন্সিলের মাধ্যমে এসব কমিটি করা হবে। তার আগে প্রতিটি মহানগরে আহ্বায়ক কমিটি করা হবে। এই কমিটি বিভিন্ন ওয়ার্ড ও থানা কমিটি সম্পন্ন করবে। এর পর মহানগরের পূর্ণাঙ্গ কমিটি করা হবে। গাজীপুর মহানগর কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ার পর পুনর্গঠন করা হবে। এ ছাড়া কুমিল্লা মহানগরে বিএনপির সাংগঠনিক কোনো কমিটি নেই। প্রথমবারের মতো নতুন কমিটি গঠন করা হবে।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু আমাদের সময়কে বলেন, কমিটি গঠন প্রক্রিয়াটি স্বাভাবিক এবং নির্দিষ্ট মেয়াদ পর পর তা করতে হয়। দলে তৃণমূল পর্যায় থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত পুনর্গঠনের কাজ চলছে। সেক্ষেত্রে মহানগর কমিটি গঠনের বিষয়েও আলোচনা আছে। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, মহানগর কমিটি যেগুলো মেয়াদোত্তীর্ণ হয়েছে সেগুলো অবশ্যই পুনর্গঠন হবে।

২০১৭ সালের ১৮ এপ্রিল ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপির আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়। এই আংশিক অবস্থায় দুই কমিটির মেয়াদ গত ১৮ এপ্রিল শেষ হয়। নির্ধারিত সময়ে তারা পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে পারেনি। মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার বলেন, দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী জানিয়েছেন, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের ওয়ার্ড-থানা কমিটি গঠন শেষ হলে মহানগর কমিটিতে হাত দেওয়া হবে। নতুন কমিটি করার কারণে অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের যারা নেতৃত্ব থেকে বাদ পড়ছেন তারা যোগ্যতা অনুযায়ী মহানগর কমিটিতে স্থান পাবেন।

তিনি বলেন, সফলতা ও ব্যর্থতা যা-ই বলেন আমরা দায়িত্ব পাওয়ার পর দক্ষিণের ২৪টি থানার সব কটির আংশিক কমিটি দিয়েছি। ৭৫টি ওয়ার্ড রয়েছে, এর মধ্যে ৪-৫টিতে কমিটি দিয়েছি।

২০১৬ সালের ৬ আগস্ট শাহাদাত হোসেনকে সভাপতি ও আবুল হাসেম বকরকে সাধারণ সম্পাদক করে চট্টগ্রাম মহানগরের কমিটি করা হয়। ২০১৭ সালের ১০ জুলাই পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়। বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম আমাদের সময়কে বলেন, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান চট্টগ্রামের নেতাদের সঙ্গে কথা বলেছেন। নেতৃবৃন্দ সবাই বর্তমান কমিটি ভেঙে দিয়ে কাউন্সিলের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ব সৃষ্টির পক্ষে মত দিয়েছেন। দ্রুতই আহ্বায়ক কমিটি করা হবে।

২০১৬ সালের ২৭ ডিসেম্বর মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে সভাপতি ও শফিকুল হক মিলনকে সাধারণ সম্পাদক করে ২১ সদস্যের রাজশাহী মহানগরের আংশিক কমিটি করা হয়। বুলবুল ও মিলনের দ্বন্দ্বে এই কমিটিও আংশিক অবস্থায় মেয়াদ শেষ করেছে। মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল বলেন, সব মহানগর কমিটি পুনর্গঠন বিষয়ে একত্রে সিদ্ধান্ত হবে। এটা স্থায়ী কমিটিতে আলোচনা হবে।

১৯৯৩ সাল থেকে খুলনা মহানগর বিএনপির নেতৃত্বে আছেন নজরুল ইসলাম মঞ্জু। জেলার সভাপতি এস এম শফিকুল আলম মনা বলেন, আমার জানা মতে নজরুল ইসলাম মঞ্জু ১৯৯৩ সালে খুলনা মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পান। সেই থেকে তিনি আছেন। মাঝখানে তিনি পদোন্নতি পেয়ে ২০০৯ সালে সভাপতি হয়েছেন।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, সর্বশেষ ২০০৯ সালের ২৫ নভেম্বর খুলনা মহানগর বিএনপির সম্মেলন হয়। এতে মঞ্জু সভাপতি ও মনিরুজ্জামান মনি সাধারণ সম্পাদক হন। ওই সময় মঞ্জু ছিলেন সদর আসনের এমপি। পরে মনি খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র হন। কমিটির মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ার পর এ পর্যন্ত দুই দফা সম্মেলনের তারিখ হলেও তা আর হয়ে ওঠেনি।

মজিবুর রহমান সরোয়ার কবে থেকে বরিশাল বিএনপির নেতৃত্বে আছেন অনেক কষ্ট করেও মনে করতে পারেননি মহানগর কমিটির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জিয়াউদ্দিন শিকদার জিয়া। স্মৃতি হাতড়ে তিনি বলেন, যতটুকু মনে আছে তা হচ্ছে বরিশাল দক্ষিণ জেলার সভাপতি, পরে মহানগরের আহ্বায়ক, সেখান থেকে সভাপতি হিসেবে তিনি এখনো দায়িত্ব পালন করছেন। সরোয়ার এরই মধ্যে জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এখন তিনি দলের যুগ্ম মহাসচিবের মতো গুরুত্বপূর্ণ পদেও কাজ করছেন। জিয়াউদ্দিনের ভাষ্য, বরিশালে সরোয়ারের বিকল্প এখনো গড়ে ওঠেনি।

যদিও তার বিরোধীদের ভাষ্য, সরোয়ার বরিশাল বিএনপিকে বনসাই করে ফেলেছেন। ছাত্রদল ও যুবদলের সাবেক অনেক যোগ্যতাসম্পন্ন নেতৃত্ব থাকার পরও তার কারণে তারা বিকশিত হতে পারছেন না।

যদিও এসব অভিযোগ অস্বীকার করেন মজিবুর রহমান সরোয়ার। তিনি বলেন, আমরাও দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে চিঠি দিয়েছি বরিশাল মহানগর কাউন্সিল করার জন্য। নতুন কাউন্সিলে কে নেতা হবেন তা নির্ধারণ করবে মহানগরের কাউন্সিলররা। অনেকেই অনেক উল্টাপাল্টা কথাবার্তা বলছে, সরকারের ষড়যন্ত্র আছে।

দলীয় গঠনতন্ত্রের ‘এক নেতার এক পদ’ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা যথাযথ নিয়ম নয়; রাজনৈতিক কথা নয়। বরিশালে দেখেন আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি ও কমিউনিস্ট পার্টি সব দলের নেতার কেন্দ্র ও তৃণমূলে পদ আছে। কেন্দ্র ও তৃণমূল আলাদা নয়। কেন্দ্র তো আলাদা লোকজন নিয়ে গঠিত হয় না।

সর্বশেষ ২০০৯ সালে মজিবর রহমান সরোয়ারকে সভাপতি ও কামরুল আহসান শাহিনকে সাধারণ সম্পাদক করে বরিশাল মহানগর কমিটি ঘোষণা করা হয়। ওই কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ অবস্থায় ২০১৩ সালের অক্টোবরে পূর্ণাঙ্গ করা হয়। ২০১৪ সালে মারা যান সাধারণ সম্পাদক শাহিন। এর পর দলের ১ নম্বর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জিয়াউদ্দিন সিকদারকে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেওয়া হয়। সেই থেকে মেয়াদোত্তীর্ণ এই কমিটি ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক দিয়েই চলছে।

২০১৬ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি সিলেট মহানগরের সভাপতি নাসিম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক পদে বদরুজ্জামান সেলিম নির্বাচিত হন। পরের বছর কমিটি পূর্ণাঙ্গ হয়। বিএনপির কেন্দ্রীয় দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালের ২৬ মে মোজাফফর হোসেনকে সভাপতি ও শহীদুল ইসলাম মিজুকে সাধারণ সম্পাদক করে রংপুর মহানগর কমিটি হয়। সভাপতি মারা গেছেন।

২০১৭ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি নারায়ণগঞ্জ মহানগর কমিটিতে সভাপতি করা হয় নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাবেক সাংসদ আবুল কালামকে ও সাধারণ সম্পাদক হন এটিএম কামাল। ২০১৯ সালের ৪ ডিসেম্বর একেএম শফিকুল ইসলামকে আহ্বায়ক এবং আবু ওয়াহাব আকন্দ ওয়াহিদ ও অধ্যাপক শেখ আমজাদ আলীসহ ১০ জনকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে ৬০ সদস্যের ময়মনসিংহ মহানগর কমিটি অনুমোদন করা হয়। এ কমিটিরও মেয়াদ নেই।

ধর্ষণ প্রবণতা বাড়ায় অনেকাংশে দায়ী ভারতীয় চলচ্চিত্র: ওলামা লীগ
                                  

ধর্ষণসহ যে কোনো প্রকার নারী নির্যাতন যেন মহামারিরূপে আবির্ভূত হয়েছে। দেশে একের পর এক এমন ঘটনায় উদ্বিগ্ন সচেতন মহল। নারী নির্যাতনের বাড়বাড়ন্ত অবস্থা বন্ধ করতে সরকারও নানা উদ্যোগ নিচ্ছে। আইন সংশোধন করে সাজা বাড়ানো হয়েছে। নারীর প্রতি চলমান এই সহিংসতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছে বিভিন্ন সংগঠন। তারই ধারাবাহিকতায় আজ (সোমবার) প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেছে ওলামা লীগ।

মানববন্ধনে যোগ দিয়ে আওয়ামী ওলামা লীগের নেতারা বলছেন, বাংলাদেশে যেভাবে ধর্ষণ প্রবণতা বেড়ে চলেছে তার জন্য অনেকাংশে দায়ী ভারতীয় চলচ্চিত্র। এখন প্রত্যেক তরুণের হাতে হাতে স্মার্টফোন। অত্যন্ত সহজলভ্য হওয়ায় এর মাধ্যমে তারা অশ্লীল ভারতীয় সিনেমা দেখছে। এতে করে তাদের মধ্যে এমন এক মনোজগত তৈরি হচ্ছে যাতে তারা নারীকে সম্মান করতে পারছে না।

বক্তারা আরো বলেন, এদেশের ওপর ভারতীয় আগ্রাসন বন্ধ করতে না পারলে আমাদের মুক্তি নেই। তারা ইলিশ নিয়ে যাবে, কিন্তু বন্ধ করে দেবে পেঁয়াজ, এমন ঘটনা চলতেই থাকবে। আমরা অতীতেও তাই দেখেছি। ভারত পানি আটকে রাখায় আমাদের নদীগুলো মরুভূমিতে রূপ নিচ্ছে। তাদের সঙ্গে বাণিজ্য বৈষম্য দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে। আমাদের ওপর দেশটির এমন আগ্রাসন বন্ধ করতে হবে।

চাঁদপুরে ধানের শীষের মেয়র প্রার্থীর নির্বাচন বর্জন
                                  

চাঁদপুরে ধানের শীষের মেয়র প্রার্থীর নির্বাচন বর্জন
এস. এম ইকবাল, চাঁদপুর প্রতিনিধি

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন বয়কট করেছেন বিএনপির মনোনিত ধানের শীষের প্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝি।

১০ অক্টোবর,শনিবার সকাল ১১টায় তিনি নির্বাচন বর্জন করেন। তবে বেলা ৩টায় তিনি সাংবাদিক সম্মেলন করে নির্বাচন বয়কটের ঘোষণা দেবেন বলে জানিয়েছেন।

ধানের শীষের প্রার্থী আকতার হোসেন মাঝি জানান,সকাল থেকেই বিভিন্ন কেন্দ্রে বিএনপি প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়। সরকার দলীয় কর্মীরা ভোট কেন্দ্র দখলে নিয়ে জোরপূর্বক ইভিএমের বাটন চেপে ভোট আদায় করেন। এছাড়া বেশ কয়টি ভোট কেন্দ্রে বিএনপি নেতা কর্মীদের মারধর ও কুপিয়ে জখম করে। গুরুতর কয়েকজনকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।

এমতাবস্থায় বিএনপি নেতাকর্মী এবং পৌরবাসীর জানমাল রক্ষায় আমি নির্বাচন বর্জন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

চাঁদপুর পৌর নির্বাচনের ভোট কেন্দ্রে হামলায় যুবক নিহত
                                  


এস. এম ইকবাল, চাঁদপুর প্রতিনিধি

চাঁদপুর পৌর নির্বাচন চলাকালে ভোট কেন্দ্রে হামলায় যুবক নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ১০ অক্টোবর শনিবার দুপুরে চাঁদপুর শহরের ৮নং ওয়ার্ডের গনি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত হয়ে এ যুবকের মৃত্যু হয়েছে। নিহতের নাম ইয়াছিন (১৮)। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তার দলীয় পরিচয় নিশ্চিত করা যায়নি।

এ সময় হামলার শিকার আরো প্রায় ১০জন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এই সংঘর্ষ হয়। এ সময় ইয়াছিনের গলায় ও শরীরের বিভিন্ন অংশে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয়।
তার অবস্থা বেগতিক দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা রেফার করেন। ঢাকা নেওয়ার পথে বাবুরহাট এলাকায় সে মারা যায়।

এদিকে ১০ অক্টোবর,শনিবার সকাল ১১টায় ধানের শীর্ষ প্রার্থী নির্বাচন বর্জন করে বিকেল ৩টায় তিনি সাংবাদিক সম্মেলনের ঘোষণা দেন।

ধানের শীষের প্রার্থী আকতার হোসেন মাঝি জানান,সকাল থেকেই বিভিন্ন কেন্দ্রে বিএনপি প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়। সরকার দলীয় কর্মীরা ভোট কেন্দ্র দখলে নিয়ে জোরপূর্বক ইভিএমের বাটন চেপে ভোট আদায় করেন। এছাড়া বেশ কয়টি ভোট কেন্দ্রে বিএনপি নেতা কর্মীদের মারধর ও কুপিয়ে জখম করে। গুরুতর কয়েকজনকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।প্রায় সাত মাস বন্ধ থাকার পর আগামী ২০ অক্টোবর থেকে ঢাকায় ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করবে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনস। আপাতত সপ্তাহে দুটি করে ফ্লাইট চলাচল করবে ঢাকা-সিঙ্গাপুর রুটে।

গতকাল শুক্রবার সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনস তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে এ তথ্য জানিয়েছে। সেখানে জানানো হয়, করোনা মহামারির মধ্যে ফ্লাইট চলাচল বন্ধের পর প্রথম ফ্লাইটটি ২০ অক্টোবর (মঙ্গলবার) রাত ৮টা ৩৫ মিনিটে সিঙ্গাপুর থেকে ছেড়ে এসে ঢাকায় রাত ১০টা ৪০ মিনিটে অবতরণ করবে। এরপর ঢাকা থেকে যাত্রী নিয়ে ফ্লাইট ছাড়বে রাত ১১টা ৫৫ মিনিটে, সিঙ্গাপুরে পৌঁছাবে পরের দিন স্থানীয় সময় সকাল ৬টা ০৫ মিনিটে।

সিঙ্গাপুর যেতে বাংলাদেশ থেকে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট লাগবে না। তবে সিঙ্গাপুর পৌঁছানোর পর করোনা পরীক্ষা করা হবে। প্রত্যেক যাত্রীকে বিমানবন্দর থেকে সরাসরি ১৪ দিনের জন্য হোটেলে কোয়ারেন্টাইনে যেতে হবে। এ জন্য বাংলাদেশি ১ লাখ ৩৫ হাজার ৫৪২ টাকা বা ২ হাজার ২০০ সিঙ্গাপুরি ডলার খরচ হতে পারে; যা যাত্রীকে দিতে হবে। ওয়ার্ক পারমিট বা দীর্ঘস্থায়ী ভিসাধারীদের জন্য দেশটির জনশক্তি মন্ত্রণালয়ের অনুমতি লাগবে। আর শিক্ষার্থী হলে দেখাতে হবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমতিপত্র।

সরকারকে ক্ষমতা থেকে বিদায় নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ডাকসুর সাবেক ভিপি নুর
                                  

জনরোষের ক্ষোভ থেকে বিস্ফোরণ ঘটার আগে সরকারকে ক্ষমতা থেকে বিদায় নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর। তিনি বলেন, সরকার যাই করুক না কেন তাদের হাতে এই দেশ আর নিরাপদ নয়।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ছাত্র অধিকার পরিষদ আয়োজিত দেশব্যাপী ধর্ষণের প্রতিবাদে এক বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ সরকারকে উদ্দেশ করে ঢাকসুর সাবেক এই ভিপি বলেন, ‘বর্তমান এই জনরোষের ক্ষোভ থেকে বিস্ফোরণ ঘটার আগে আপনারা ক্ষমতা থেকে বিদায় নেন। বাংলাদেশের যে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, সেই চেতনার বাংলাদেশকে প্রতিষ্ঠার জন্য বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক সংগঠন, বিভিন্ন ব্যক্তিদেরকে নিয়ে আজকে আলোচনা করে কিভাবে সুশাসন নিশ্চিত করা যায়, আইনের শাসন নিশ্চিত করা যায় এবং কিভাবে ভারতের পেট থেকে বাংলাদেশে বের হয়ে আসতে পারে সেই ব্যবস্থা নিশ্চিত করুন।’



নুর বলেন, ‘আমরা এখানে সরকার পতনের জন্য আসি নাই। সরকারের প্রতি আমাদের আহ্বান, আপনারা নিজেরাই বিদায় নেন। আলোচনায় এসেছেন নোয়াখালীর ধর্ষক দেলোয়ার নির্বাচনের সময় ভোট কেন্দ্র দখল করেছে। এই সরকার ক্ষমতায় থাকার জন্য সারাদেশে এমন দেলোয়ার বাহিনী তৈরি করেছে। এই দেলোয়ার বাহিনী মা, বোন, স্ত্রীদেরকে নিয়ে ধর্ষণ করছে।’

তিনি বলেন, ‘সরকার যাই করুক না কেন তাদের হাতে এই দেশ আর নিরাপদ নয়। কাজেই আমরা বলবো, আপনারা যতই ছাত্রলীগ-যুবলীগ হয়ে আন্দোলন দমনের চেষ্টা করেন না কেন জনগণ কিন্তু আজ রাজপথে নেমে গেছে। এই জনগণকে আর দমন করতে পারবেন না।’

নুর বলেন, ‘আজকে বাংলাদেশের গুঞ্জন উঠেছে, ভারত ২০০৮ সালে ওয়ান-ইলেভেন ঘটিয়ে এই তাঁবেদারী সরকারকে ক্ষমতায় রেখে বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করেছে। আজকে তারা আরেকটি ওয়ান-ইলেভেন ঘটাতে চাচ্ছে। আমরা এই সরকারের পতন চাই, সেটা গণআন্দোলনের মধ্য দিয়ে। সেটা কোনো ওয়ান-ইলেভেন করে নয়। যদি আরেকটা ওয়ান-ইলেভেন হয় তাহলে বাংলাদেশে যে অবশিষ্টটুকু আছে সেটুকু আর থাকবে না। তাই সরকারকে অনুরোধ করবো, আপনারা নিজ থেকে বিদায় নেন।’

বিক্ষোভ সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক আসিফ নজরুল, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হাসনাত কাইয়ুম প্রমুখ। এছাড়া ছাত্র অধিকার পরিষদের প্রায় পাঁচ শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

চাঁদপুর পৌর নির্বাচনের সকল প্রস্তুতিগ্রহণ : ভোটার ১ লাখ ১৭ হাজার
                                  

এস. এম ইকবাল, চাঁদপুর প্রতিনিধি:

চাঁদপুর পৌর নির্বাচন শনিবার ১০ অক্টোবর । আজ বৃহস্পতিবার ৮ অক্টোবর রাত ১২টার পর নির্বাচনি সকল প্রকার প্রচার কার্যক্রম বন্ধ হচ্ছে । ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের মাধ্যমে শনিবার সকাল ৮ টায় শুরু হবে ভোটগ্রহণ।

সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে বলে চাঁদপুর নির্বাচন কমিশন ও রিটানিং অফিসার মো.তোফায়েল আহমেদ বৃহস্পতিবার ৮ অক্টোবর জানান।

প্রাপ্ত তথ্য মতে, চাঁদপুর পৌরসভার ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ১৭ হাজার ৮ শ’৮৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার সংখ্যা ৫৯ হাজার ২৭ জন এবং মহিলা ভোটার সংখ্যা ৫৮ হাজার ৮ শ ৫৯ জন। ৬৭ জন প্রার্থী এ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এর মধ্যে ৩ জন মেয়র প্রার্থী,সংরক্ষিত মহিলা আসনের ১৪ জন এবং কাউন্সিলর প্রার্থী ৫০ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এ নির্বাচনে । চাঁদপুর পৌরসভায় ওয়ার্ড সংখ্যা ১৫টি, ভোটকেন্দ্র ৫২টি ও ভোট গ্রহণ কক্ষ সংখ্যা ৩০৫ টি। প্রতিটি কক্ষে দু’টি করে ইভিএম মেশিন থাকবে। এর মধ্যে একটি অতিরিক্ত থাকবে।

প্রতি কেন্দ্রে একজন করে প্রিসাইডিং অফিসার, প্রতি কক্ষে একজন করে সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং দু’জন পোলিং অফিসার নির্বাচনে ভোটগ্রহণের কাজে দায়িত্ব পালন করবেন । এছাড়াও প্রতি কেন্দ্রে ১০ জন করে আনসার ভিডিপি সদস্য ও প্রয়োজনীয় সংখ্যক পুলিশ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার কাজে নিয়োজিত থাকবেন ।

ইতোমধ্যেই ২ থেকে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত প্রিজাইডিং,সহকারী প্রিজাইডিং ও পোলিং অফিসারদের ইভিএম মেশিনে ভোট গ্রহণের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করা হয়েছে । নির্বাচন শুরুর ৩২ ঘন্টা আগে এবং ভোট গ্রহণের ৪৮ ঘন্টা পর পর্যন্ত সকল প্রকার নির্বাচনি প্রচার কার্যক্রম বন্ধ থাকবে ।

নির্বাচনের দিন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর যানবাহন ও নির্বাচন কমিশনার ও রিটানিং অফিসারের অনুমোদিত যানবাহন ব্যতীত অন্য কোনো পাবলিক পরিবহন চাঁদপুর পৌর নির্বাচনের সীমানার ভেতর চলাচল করতে পারবে না । এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মহোদয়কে ৬ অক্টোবর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে তিনি অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দিয়েছেন বলে জানা যায় ।

চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৫ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পৌর এ নির্বাচনে দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়াও বিজিবি,র‌্যাব ,এপিবিএন আনসার সমন্বয়ে গঠিত স্টাইকিং ফোর্স দায়িত্ব পালন করবেন । চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. জামাল হোসেন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কার্যক্রম সমন্বয় করবেন বলে জানা যায়।

সরকারকে আর সময় দেওয়া যাবে না বলে হুশিয়ারি মির্জা ফখরুলের
                                  

সরকারকে আর সময় দেওয়া যাবে না বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সিলেটের এমসি কলেজ, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানে নারী নির্যাতন বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষাপটে আজ শুক্রবার সকালে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘জাতিসংঘের মহাসচিব তিনি পর্যন্ত উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এই ঘটনাগুলোতে। এর চেয়ে লজ্জা কী হতে পারে একটা জাতির জন্য। যে জাতি স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ করেছে, যে জাতির গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা অতীতে করেছিল, যে জাতি আজকে উন্নয়নের জন্য লড়াই করছে সেই জাতিকে আজকে ধর্ষণের মতো ভয়ঙ্কর একটা অবস্থায় আজকে চিত্রিত হতে হচ্ছে। এটার একমাত্র পথ হচ্ছে-আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। এই সরকারকে সরাতে হবে, তাদেরকে আর সময় দেওয়া যাবে না। এরা জনগণের বিরুদ্ধে সরকার।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সমাজের এই ভয়াবহতা, আমাদের বেঁচে থাকার অধিকার, আমাদের গণতান্ত্রিক অধিকার যদি প্রতিষ্ঠা করতে হয় আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়া ছাড়া কোনো বিকল্প নেই। দলমত-ধর্ম-বর্ণ-গোত্র নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই সরকারকে সরাসরি বলতে হবে-আর কোনো সময় দেওয়া যাবে না।’


‘আর কোনো সময় দিলেই এখন এর পরিণতি ভালো হবে না। আসুন আজকে আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠার জন্য আমাদের গণতন্ত্রের মাতা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবার জন্যে, আমাদের নেতা তারেক রহমানে ফিরে আনার জন্য আমরা এদেশের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে চাই, আমরা জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে চাই নারী ও শিশুদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে চাই। আসুন আমরা সবাই সেই লক্ষ্যে ঐক্যবদ্ধ হই’, যোগ করেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ এই নেতা।

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে ধানের শীষের পক্ষে বিশাল গণমিছিল
                                  

এস. এম ইকবাল, চাঁদপুর প্রতিনিধি:

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি মনোনিত মেয়র প্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝির ধানের শীষের পক্ষে বিশাল গণমিছিল বের করা হয়েছে।

৭ অক্টোবর, বুধবার বিকেলে পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের কোড়ালিয়া এলাকা থেকে দলীয় নেতাকর্মী-সমর্থকরা মিছিল নিয়ে ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকা পদক্ষিণ করে। এসময় প্রতিটি পাড়া-মহল্লা থেকে শত শত নেতাকর্মী-সমর্থক মিছিলে অংশ নিয়ে ধানের শীষের পক্ষে ভোট চেয়ে শ্লোগান তোলে। এক পর্যায়ে নির্বাচনী গণসংযোগের মিছিলটি শত শত নেতাকর্মী-সমর্থকদের অংশগ্রহণে গণমিছিলে রুপ নেয়।

মিছিলটি ৮নং ওয়ার্ডের কোড়ালিয়া থেকে শুরু হয়ে শহরের কুমিল্লা রোড় হয়ে, গুয়াখোলা এলাকা, বকুলতলা, নিশিবিল্ডিং, কুলি বাগান, পীর বাদশা মিয়া রোড়সহ প্রতিটি পাড়া মহল্লা পদক্ষিণ করে।

এসময় বিএনপি মনোনিত মেয়রপ্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝি এলাকাবাসী, ব্যাবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সাথে কুশল বিনিময় করেন এবং লিফলেট বিতরণের মাধ্যমে ধানের শীষ মার্কায় ভোট চান।

একই ওয়ার্ডে বিভিন্ন পথসভায় সাবেক এই জনপ্রিয় ছাত্রনেতা তার বক্তব্যে বলেন, দেশের গণতন্ত্র, মানুষের জীবন-জিবিকার নিরাপত্তা এবং মানুষের ভোটাধিকার আদায়ে বিএনপির আন্দোলনের অংশ হিসেবেই আমরা এই নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। চাঁদপুর পৌরসভাকে সত্যিকারভাবে অধুনিক, পরিচ্ছন্ন এবং দুর্নীতিমুক্ত হিসবে গড়ে তুলতে জনতার মেয়র চাই। এজন্যে প্রয়োজন একটি অবাদ, সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনি পরিবেশ।

তিনি আরো বলের, আমরা একটি সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে নির্বাচন চাই। প্রশাসনের কাছে জোর দাবি রাখবো কেউ যাতে এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোন ধরনের অরাজকতা সৃষ্টি করতে না পারে। আমরা চাই যার ভোট যেন সে নিজে দিতে পারে, সেটি নিশ্চিত করা। কেন্দ্রে যাতে বহিরাগত কোন লোক প্রবেশ করতে না পারে। সে দিকে প্রশাসনের নিরপেক্ষ কার্যক্র আইনী ব্যবস্থা।

এ সময় তিনি ভোটারদের উদ্দেশ্যে বলেন, দেশে গণতন্ত্র ও মানুষের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠায় ধানের শীষে ভোট দিন। এই জন্য আপনাদের কেন্দ্রে আসতে হবে। ঘরে বসে থাকলে চলবে না। অাওয়ামী লীগের দুঃশাসন থেকে দেশের জনগণের মুক্তি এনে দিতে ভোট বিপ্লবের বিকল্প নেই।

পথসভায় আরো বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আল্লাহাজ্ব মোশারফ হোসেন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক হযরত আলী, জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল গাজী বাহার সহ ৮নং ওয়ার্ড নেতৃবৃন্দ। এ সময় বিএনপি, যুবদল ছাত্রদল সহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


   Page 1 of 270
     রাজনীতি
সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে কাজ করছে নির্বাচন কমিশন: মির্জা ফখরুল
.............................................................................................
দেশের ২০৮ ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ ও জেলা পরিষদে ভোটগ্রহণ চলছে
.............................................................................................
সমমনা ইসলামী দলগুলো দেশব্যাপী বিক্ষোভের ডাক
.............................................................................................
আটজনকে বহিষ্কার করেছে গণফোরামের নেতৃত্বাধীন অংশ
.............................................................................................
ঢাকা-৫ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে সাংবাদিকদের ঢুকতে দিচ্ছে না পুলিশ
.............................................................................................
সরকারকে ছয় দফা দাবিসহ হুঁশিয়ারি বার্তা দিলেন ইসলামী দলসমূহ
.............................................................................................
ঢাকা-৫ ও নওঁগা-৬ আসনের উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে
.............................................................................................
ফরিদগঞ্জে চেয়ারম্যান প্রার্থী জি এম হাছান তাবাচ্ছুমের ব্যাপক গণসংযোগ
.............................................................................................
১১ মহানগর কমিটি ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি
.............................................................................................
ধর্ষণ প্রবণতা বাড়ায় অনেকাংশে দায়ী ভারতীয় চলচ্চিত্র: ওলামা লীগ
.............................................................................................
চাঁদপুরে ধানের শীষের মেয়র প্রার্থীর নির্বাচন বর্জন
.............................................................................................
চাঁদপুর পৌর নির্বাচনের ভোট কেন্দ্রে হামলায় যুবক নিহত
.............................................................................................
সরকারকে ক্ষমতা থেকে বিদায় নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ডাকসুর সাবেক ভিপি নুর
.............................................................................................
চাঁদপুর পৌর নির্বাচনের সকল প্রস্তুতিগ্রহণ : ভোটার ১ লাখ ১৭ হাজার
.............................................................................................
সরকারকে আর সময় দেওয়া যাবে না বলে হুশিয়ারি মির্জা ফখরুলের
.............................................................................................
চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে ধানের শীষের পক্ষে বিশাল গণমিছিল
.............................................................................................
নৌকা স্লোগানে মুখরিত চাঁদপুর শহর
.............................................................................................
সুব্রত-মন্টুদের ড. কামালের শোকজ নোটিশ
.............................................................................................
জাহাঙ্গীর কবির নানক কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত
.............................................................................................
সরকার কর্তৃক ফোনে আড়ি পাতা হচ্ছে: মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর
.............................................................................................
চাঁদপুর পৌর নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রচারণা শুরু
.............................................................................................
কওমি অঙ্গনের কোন্দল-বিভক্তি বড় আকার ধারণ করছে
.............................................................................................
ধরার কয়েক ঘণ্টা পর নুরকে ছেড়ে দিলো পুলিশ
.............................................................................................
ফরিদগঞ্জ পৌরবাসীকে উন্নয়নযাত্রার সুফল পৌঁছে দিতে চাই: মেয়র প্রার্থী আকবর হোসেন মনির
.............................................................................................
ফরিদগঞ্জে মেয়র প্রার্থী সুফিয়ানের সমর্থনে নিজ এলাকায় পরামর্শ ও আলোচনা সভা
.............................................................................................
চাষাড়া আওয়ামী লীগ অফিসে বোমা হামলায় বিএনপির নেতারা জড়িত নন: শামীম ওসমান
.............................................................................................
ফরিদগঞ্জেমেয়রপ্রার্থীখলিলুররহমানের সমর্থনে ৯ নং ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনগনের উদ্যোগে মতবিনিময়
.............................................................................................
মাদক, দুর্নীতি ও সন্ত্রাসমুক্ত সমাজ গঠন করাই আমার লক্ষ্য : মেয়র প্রার্থী মনির
.............................................................................................
যুবলীগ কি চোর এমন প্রশ্ন তুলেছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না
.............................................................................................
নতুনধারার সম্মিলন নভেম্বরে : সকল শাখায় আহবায়ক কমিটি
.............................................................................................
ফরিদগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদ প্রার্থী কে এই মনির
.............................................................................................
চাঁদপুর জেলা পরিষদ সদস্য সাইফুল ইসলাম রিপনের দৃষ্টি এখন পৌরসভার মেয়র
.............................................................................................
খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়লো ৬ মাস
.............................................................................................
গ্রেনেড হামলা : খালেদা জিয়াকে আসামি করে মামলার আবেদন
.............................................................................................
ফরিদগঞ্জে পৃথক পৃথক স্থানে বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত
.............................................................................................
কথায় নয়, কর্ম গুনে গুণান্বিত আলোচিত মেয়র মাহফুজুল হক
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে ছাত্রলীগকেই কাজ করতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু তার স্ত্রীর গহনা বিক্রি করে ছাত্রলীগের বিভিন্ন অনুষ্ঠান করার জন্য দিয়ে দিতেন: এড. জাহিদুল ইসলাম রোমান
.............................................................................................
ভ্যাকসিন আসলে মাস্ক পরতে হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
অনুপ্রবেশকারীরাই দল ও সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করছে : কাদের
.............................................................................................
খালেদা জিয়ার স্থায়ী মুক্তির আবেদন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে
.............................................................................................
অর্থ ব্যয়ে সরকারের নির্দেশনা জারি কঠোর হচ্ছে
.............................................................................................
আমরা একটি ভয়ঙ্কর অসুস্থ পরিবেশের মধ্যে আছি : রিজভী
.............................................................................................
দেশের ইউপি ও পৌরসভাগুলোতে সাধারণ নির্বাচন শুরু প্রস্তুতি নিচ্ছে নির্বাচন কমিশন
.............................................................................................
জাতীয় সংসদের ঢাকা-১৮ আসনে উপনির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন ভিপি নূর
.............................................................................................
পিরোজপুরে ছাত্রলীগ নেতার ডান হাতের কব্জি কেটে আলাদা করলেন আরেক ছাত্রলীগ নেতা
.............................................................................................
আজ খালেদা জিয়ার ৭৬তম জন্মদিন
.............................................................................................
সবার ন্যায়বিচার, অধিকার নিশ্চিত করতে কাজ করুন : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
শোক দিবসের পরিবেশ যেন বিনষ্ট না হয়: ওবায়দুল কাদের
.............................................................................................
আজ জাতির কণ্ঠ রুদ্ধ: মির্জা ফখরুল
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা ডট কম
সম্পাদক মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী
সম্পাদক কর্তৃক ৩৭/২, ফায়েনাজ অ্যাপার্টমেন্ট (১৫ম তলা), কালভার্ট রোড, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত ।
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ মো: হারুনুর রশীদ
ইউরোপ মহাদেশ বিষয়ক সম্পাদক- প্রফেসর জাকি মোস্তফা (টুটুল)
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমেদ
নির্বাহী সম্পাদক: শরিফুল ইসলাম রানা
বার্তা সম্পাদক : মোঃ আকরাম খাঁন
সহঃ সম্পাদক: হোসাইন আহমদ চৌধুরী
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: ৩৭/২, ফায়েনাজ অ্যাপার্টমেন্ট (১৫ম তলা), কালভার্ট রোড, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন : ০২-৯৫৬২৮৯৯ মোবাইল: ০১৬৭০-২৮৯২৮০
ই-মেইল : swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed BY : Dynamic Solution IT   Dynamic Scale BD