| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   আন্তর্জাতিক -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
কাশ্মীরের শিশুদের সাহায্য করুন: মালালা

শান্তিতে নোবেল বিজয়ী পাকিস্তানের নারী অধিকারকর্মী মালালা ইউসুফজাই ভারত অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরের শিশুদের সহায়তায় পদেক্ষেপ নিতে জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

শনিবার একাধিক টুইট বার্তায় মালালা বলেছেন, কাশ্মীরের শিশুদের নিরাপদে স্কুলে ফিরে যেতে সহায়তা করুন।

তিনি টুইট বার্তায় আরও বলেছেন, কাশ্মীরের শিক্ষার্থীরা যাতে নিরাপদে আবার স্কুলে ফিরতে পারে সে বিষয়ে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যেন আলোচনা হয়।

‘শিশুসহ প্রায় ৪ হাজার মানুষকে জোরপূর্বক আটক ও দণ্ড দেয়া হয়েছে, শিক্ষার্থীরা ৪০ দিন ধরে স্কুলে যেতে পারছে না, এমন খবর শুনে আমি গভীরভাবে উদ্বিগ্ন,’ বলেন মালালা।

এছাড়া বিশ্বনেতাদের উদ্দেশ্যে মালালা বলেন, ‘জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে যোগদানকারী অন্য নেতাদের আহ্বান জানাচ্ছি, আপনারা কাশ্মীরিদের দাবি শুনুন, সেখানে শান্তি ফিরিয়ে আনতে কাজ করুন।’

গত ৫ আগস্ট কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা তুলে নেয় বিজেপি শাসিত ভারত সরকার। এর পর থেকে উপত্যকাটিকে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। সেইসঙ্গে প্রতিবেশী দুই দেশ ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে সম্পর্ক তলানিতে ঠেকেছে। তথ্যসূত্র: ডন, আনাদোলু।

কাশ্মীরের শিশুদের সাহায্য করুন: মালালা
                                  

শান্তিতে নোবেল বিজয়ী পাকিস্তানের নারী অধিকারকর্মী মালালা ইউসুফজাই ভারত অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরের শিশুদের সহায়তায় পদেক্ষেপ নিতে জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

শনিবার একাধিক টুইট বার্তায় মালালা বলেছেন, কাশ্মীরের শিশুদের নিরাপদে স্কুলে ফিরে যেতে সহায়তা করুন।

তিনি টুইট বার্তায় আরও বলেছেন, কাশ্মীরের শিক্ষার্থীরা যাতে নিরাপদে আবার স্কুলে ফিরতে পারে সে বিষয়ে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যেন আলোচনা হয়।

‘শিশুসহ প্রায় ৪ হাজার মানুষকে জোরপূর্বক আটক ও দণ্ড দেয়া হয়েছে, শিক্ষার্থীরা ৪০ দিন ধরে স্কুলে যেতে পারছে না, এমন খবর শুনে আমি গভীরভাবে উদ্বিগ্ন,’ বলেন মালালা।

এছাড়া বিশ্বনেতাদের উদ্দেশ্যে মালালা বলেন, ‘জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে যোগদানকারী অন্য নেতাদের আহ্বান জানাচ্ছি, আপনারা কাশ্মীরিদের দাবি শুনুন, সেখানে শান্তি ফিরিয়ে আনতে কাজ করুন।’

গত ৫ আগস্ট কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা তুলে নেয় বিজেপি শাসিত ভারত সরকার। এর পর থেকে উপত্যকাটিকে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। সেইসঙ্গে প্রতিবেশী দুই দেশ ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে সম্পর্ক তলানিতে ঠেকেছে। তথ্যসূত্র: ডন, আনাদোলু।

এবার যুক্তরাষ্ট্র থেকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কিনতে চায় তুরস্ক
                                  

রাশিয়া থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কিনে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তুরস্কের উত্তেজনা বেড়েছে। এর মধ্যে এবার যুক্তরাষ্ট্র থেকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কিনতে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে আলোচনা শুরু করবেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেব এরদোগান।গত শুক্রবার ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের সঙ্গে আলাপকালে তুর্কি প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, দুই সপ্তাহ আগে ট্রাম্পের সঙ্গে এক ফোনালাপে যুক্তরাষ্ট্রের প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র কেনা নিয়ে আলোচনা করেছেন তিনি।

এই মাসে আসন্ন জাতিসংঘ সম্মেলনে যোগ দিয়ে ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাতে ওই আলোচনা অব্যাহত রাখবেন বলেও জানান তিনি।যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধিতা উপেক্ষা করে ২০১৯ সালের ১২ জুলাই রাশিয়ার কাছ থেকে অত্যাধুনিক আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০-এর প্রথম চালান গ্রহণ করে তুরস্ক। একইসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান এবং রাশিয়ার এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র কেনায় আঙ্কারার ওপর ক্ষুব্ধ যুক্তরাষ্ট্র। এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ক্রয় চুক্তি অব্যাহত থাকলে এফ-৩৫ কর্মসূচি থেকে তুরস্ককে বাদ দেওয়ার সতর্কতা দিয়ে রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র। হুঁশিয়ার করা হয়েছে, অর্থনৈতিক অবরোধের মুখেও পড়তে হতে পারে দেশটিকে। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে এক বৈঠকের পর তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেব এরদোগান বলেছিলেন, তিনি বিশ্বাস করেন যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে না।

শুক্রবার রয়টার্সের সঙ্গে আলাপকালে ট্রাম্পের সঙ্গে নিজের ফোনালাপের প্রসঙ্গ জানান তুরস্কের প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেন, ‘আমি বলেছি... এস-৪০০-এর যে প্যাকেজই পেয়ে থাকি না কেন, আম তোমাদের কাছ থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণ প্যাট্রিয়ট কিনতে পারি। তবে আমি বলেছি, আমাদের দেখতে হবে যে অন্ততপক্ষে যেন তা এস-৪০০ কেনার শর্তের সঙ্গে মেলে’। এর মধ্য দিয়ে এরদোগান যৌথ উৎপাদন বা অনুকূল ঋনের দিকে ইঙ্গিত করেছেন বলে মনে করা হচ্ছে।তবে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর আগেই জানিয়েছে, তুরস্কের কাছে প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা বিক্রির প্রস্তাবের সময়সীমা অতিক্রান্ত হয়েছে।

সম্প্রতি বেশ কয়েকটি ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তুরস্কের সম্পর্কের অবনতি হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে সিরিয়া সংঘাতে দুই দেশের নীতি ও ট্রাম্প প্রশাসনের ইরান সংশ্লিষ্ট দৃষ্টিভঙ্গি।তবে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেব এরদোগান বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্টের ওপর তার অন্য পর্যায়ের বিশ্বস্ততা রয়েছে। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি যুক্তরাষ্ট্রের মতো একটি দেশ তার মিত্র তুরস্ককে আর আঘাত করতে চাইবে না। এটা যৌক্তিক আচরণ হবে না’।

 

সৌদি আরবে ড্রোন হামলায় ২’টি তেলক্ষেত্রে আগুন
                                  

ড্রোন হামলার মাধ্যমে সৌদি আরবের রাষ্ট্রায়াত্ত কোম্পানি অ্যারামকোর দুইটি তেলক্ষেত্রে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। পরে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বলেন, গতকার শনিবার আবকাইক ও খুরাইস প্রদেশে অবস্থিত ‘সৌদি অ্যারামকো ফ্যাক্টোরিস’র তেলক্ষেত্র দুইটিতে আগুন দেওয়ার এ ঘটনা ঘটে।তবে অগ্নিকান্ডে ব্যবহৃত ড্রোন কাদের ছিল বা কারা এ হামলার পেছনে রয়েছে সে বিষয়ে তিনি কোনো তথ্য দেননি।বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, আগুনে ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে এখনো নিশ্চিত হয়ে কিছু জানা যায়নি। এ বিষয়ে অ্যারামকো কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করতেও রাজি হয়নি।

অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে আবকাইক তেলক্ষেত্রে দাউ দাউ করে আগুন জ¦লতে এবং ঘন কালো ধোঁয়া কুন্ডলি পাকিয়ে আকাশে উঠে যেতে দেখা যাচ্ছে।আবকাইক তেলক্ষেত্রে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি তেল উৎপাদিত হয়।এর আগে ২০০৬ সালে আল কায়দা আবকাইক তেলক্ষেত্রে হামলা চালানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছিল।রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এসপিএ’র খবরে দুই তেলক্ষেত্রের আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার কথা বলা হয়েছে।ইরান সমর্থিত ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা মাঝে মধ্যেই সৌদি আরবে ড্রোন হামলা চালায়।

তুরস্কে বোমা হামলায় নিহত ৭, আহত ১০
                                  

তুরস্কের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলে এক গাড়িতে বোমা হামলায় অন্তত সাতজন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন আরও ১০ জন। ওই গাড়িটি গ্রামবাসীদের নিয়ে যাচ্ছিলো। রাস্তায় থাকা বোমা বিস্ফোরণে গাড়িটি বিস্ফোরিত হয়। তুর্কি বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সির এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়।গভর্নর দফতর থেকে জানানো হয়, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ছয়টার দিকে কুল জেলায় এই হামলার ঘটনা ঘটে।

সরকারের দাবি, কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি (পিকেকে ) এর সদস্যরা এই হামলা চালিয়েছে।দেশটির প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান বলেন, অপরাধীদের অবশ্যই শাস্তির আওতায় আনা হবে।৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে তুরস্কের সঙ্গে বিরোধ চলছে পিকেকের। তুরস্ক, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই সংগঠনটিকে সন্ত্রাসী সংগঠন বলে আখ্যা দিয়েছে। দুই পক্ষের এই বিরোধে এখন পর্যন্ত নারী ও শিশুসহ ৪০ হাজার মানুষের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে।

প্রথমবারের মতো শুরু হলো ম্যালেরিয়ার টিকা কর্মসূচি
                                  

ম্যালেরিয়ার টিকা আবিষ্কৃত হওয়ার পর প্রথমবারের মতো তা মানবদেহে তা প্রয়োগ করা হচ্ছে। গতকাল শুক্রবার আফ্রিকার দেশ কেনিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলের শিশুদের এই টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। প্রতি বছর এখনো বিশ্বের ২০ কোটির বেশি মানুষ ম্যালেরিয়া আক্রান্ত হয়ে থাকেন, বেশির ভাগ সময় যার শিকার হয় শিশুরা। সম্প্রতি প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, ম্যালেরিয়াকে হারানো এখন আর দূর কল্পনা নয়।আগামী তিন বছরের মধ্যে কেনিয়ার তিন লাখের বেশি শিশুকে ম্যালেরিয়ার টিকা দেওয়া হবে। আফ্রিকায় এখনো ম্যালেরিয়া এক বিরাট আতংকের নাম। ম্যালেরিয়াতে গোটা পৃথিবীতে প্রতি বছর যত মানুষ মারা যায়, তার অর্ধেকই মারা যায় আফ্রিকা অঞ্চলের পাঁচটি দেশে।২০০০ সাল পর্যন্ত ম্যালেরিয়া আছে এমন দেশের সংখ্যা ১০৬ থেকে ৮৬ তে নেমে এসেছে। ম্যালেরিয়া আক্রান্তের হার ৩৬ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। তবে এ অগ্রগতির পেছনে বড় কারণ সাম্প্রতিক দশকগুলোতে বিশ্বব্যাপী মানুষ মশার কামড় ঠেকানোর বিভিন্ন উপায় বের করেছে। যেমন কীটনাশক মাখানো মশারি, এবং ম্যালেরিয়া চিকিৎসায় উন্নত ওষুধ আবিষ্কার। কিন্তু ম্যালেরিয়ার টিকা এখন পর্যন্ত আবিষ্কার করা যাচ্ছিলো না। এবার বিজ্ঞানীরা জানালেন টিকা আবিষ্কার হয়েছে এবং তা দেওয়াও শুরু হয়েছে।

ম্যালেরিয়া কী?

প্ল্যাসমোডিয়াম নামে এক ধরণের পরজীবীর সংক্রমণে ম্যালেরিয়া হয়। স্ত্রী অ্যানোফিলিস মশার কামড়ে ম্যালেরিয়ার জীবাণু একজনের থেকে আরেকজনে ছড়িয়ে পড়ে। আক্রান্ত হলে তীব্র জ¦র, মাথা ব্যথা এবং কাঁপুনি হয় একজন মানুষের। ম্যালেরিয়ার পরজীবী লিভার ও লোহিত রক্ত কণিকার কোষ আক্রমণ করে। অন্য উপসর্গের মধ্যে ম্যালেরিয়া থেকে রক্তশূন্যতা হতে পারে এবং আক্রান্ত হতে পারে মস্তিষ্কও। এখনো প্রতি বছর ম্যালেরিয়ায় চার লাখ ৩৫ হাজার মানুষ মারা যায়, যাদের বেশির ভাগ শিশু।

 

ইসরাইলের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিতে জাতিসংঘের প্রতি ফিলিস্তিনের আহ্বান
                                  

 ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ আল-মালিকি দখলদার ইসরাইলের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের আহ্বান জানিয়েছেন।
তিনি বলেছেন, ইহুদিবাদী প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু পশ্চিম তীরের বিশাল অংশকে ইসরাইলের সঙ্গে যুক্ত করার যে শয়তানি পরিকল্পনা ঘোষণা করছেন তার প্রতিক্রিয়ায় জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের পক্ষ থেকে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা জরুরি।


রিয়াদ আল মালিকি আরো বলেন, আসন্ন সংসদ নির্বাচনে বিজয়ের জন্য ইসরাইলি নেতারা ফিলিস্তিনি ভূখ-ে ইহুদিকরণ এবং উপশহর নির্মাণ তৎপরতা জোরদারের পরিকল্পনা নিয়েছে যা জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ইশতেহারগুলোর জন্য প্রকাশ্য অবমাননা।


ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘনের দায়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের পক্ষ থেকে অবিলম্বে পদক্ষেপ নিতে হবে।
এ সময় লুক্সেমবুর্গের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিয়ান আসেলবর্ন বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইল ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে হত্যা-নির্যাতনসহ যেসব অন্যায় তৎপরতা চালাচ্ছে তা কোনো ভাবেই মেনে নেয়া যায় না।


গত মঙ্গলবার ইসরাইলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, আসন্ন নির্বাচনে জিতলে পারলে তিনি পশ্চিম তীরের বিশাল অংশকে ইসরাইলের অবিচ্ছেদ্য অংশে পরিণত করবেন।

‘চীনের সঙ্গে জোরোলো সামরিক সম্পর্ক চায় ইরান’
                                  

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সেনাপ্রধান মেজর জেনারেল মোহাম্মদ বাকেরি বলেছেন, চীনের সঙ্গে সামরিকসহ সব পর্যায়ে জোরালো সম্পর্ক চায় তেহরান। তিনি বলেন, চীনের সঙ্গে এ ধরনের সম্পর্ককে ইরান অত্যন্ত বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। তিন দিনের সরকারি সফরে চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে পৌঁছে জেনারেল বাকেরি দেশটির সেন্ট্রাল মিলিটারি কমিশনেরে জয়েন্ট স্টাফ ডিপার্টমেন্টের প্রধানের সঙ্গে এক বৈঠকে এ মন্তব্য করেন। ইরানি সেনাপ্রধান বলেন, চীনের সঙ্গে সামরিক খাতে ইরানের দীর্ঘদিনের সম্পর্ক রয়েছে এবং আমরা আশা করি এই সফর দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক উন্নয়নের ক্ষেত্রে একটি টার্নিং পয়েন্ট হবে। গত বুধবার চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। জেনারেল বাকেরি বলেন, ইরান এবং চীন গত চার দশক ধরে পারস্পরিক সম্পর্ক রক্ষা করে এসেছে এবং সে সম্পর্ক দিনদিন শক্তিশালী হয়েছে।

তিনি জোর দিয়ে বলেন, এ সম্পর্ক এখন অনেক গভীরে প্রোথিত। চীনের সেনা কর্মকর্তা জেনারেল লি জুয়োচেং বলেন, ইরানের উচ্চপর্যায়ের সেনা কর্মকর্তাদের এই সফর দু দেশের কৌশলগত সম্পর্ক জোরদার করবে এবং দু`দেশের মধ্যে সহযোগিতা আরো বাড়বে। তিনি আশা করেন, ইরানি সেনাপ্রধানের এই সফর তেহরান এবং বেইজিংয়ের সম্পর্কের ক্ষেত্রে নতুন একটি অধ্যায়ের সূচনা করবে। বৈঠকের একপর্যায়ে ইরানের সেনাপ্রধান চীনের সেনা কর্মকর্তাকে তেহরান সফরের আমন্ত্রণ জানান।

গত বুধবার সকালে জেনারেল বাকেরি তিনদিনের সফরে বেইজিং পৌঁছান। এরপর তিনি বেশ কয়েকজন সেনা কর্মকর্তার সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

ভারত-পাকিস্তান `আকস্মিক যুদ্ধ` যেকোনো সময়!
                                  

ভারত অধিকৃত জম্মু-কাশ্মিরের চলমান পরিস্থিতির কারণে যেকোনো মুহূর্তে ‘আকস্মিক যুদ্ধ’র দিকে মোড় নিতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি। অস্থিতিশীল এ অঞ্চল সফর করার জন্য জাতিসঙ্ঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান মিশেল বাচেলেতের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।
গত বুধবার জাতিসঙ্ঘের মানবাধিকার পরিষদের অধিবেশনের ফাঁকে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেছেন পাকিস্তানের এই মন্ত্রী। এ সময় কুরেশি বলেন, তিনি বিশ্বাস করেন যে, ভারত ও পাকিস্তান উভয় দেশই সঙ্ঘাতের পরিণতি সম্পর্কে জানে। কিন্তু গত ৫ আগস্ট নয়াদিল্লি জম্মু ও কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসন প্রত্যাহার করে নেয়ার পর থেকে উত্তেজনা আরো বাড়ছে। যুদ্ধের শঙ্কা উড়িয়ে দেয়া যায় না উল্লেখ করে শাহ মাহমুদ কুরেশি বলেছেন, ‘আপনি আকস্মিক একটি যুদ্ধের শঙ্কা বাতিল করতে পারেন না। বর্তমানে যে পরিস্থিতি চলছে, সেটি যদি অব্যাহত থাকে... তা হলে যেকোনো কিছুই হতে পারে।’

ভূ-স্বর্গখ্যাত এ অঞ্চলের বিশেষ মর্যাদাসংক্রান্ত ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের পর থেকেই কাশ্মির কার্যত বিচ্ছিন্ন রয়েছে। এখনো কাশ্মিরে মোবাইল ফোন নেটওয়ার্ক ও ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

ভারত অধিকৃত কাশ্মির পরিস্থিতি নিয়ে আন্তর্জাতিক তদন্ত শুরু করতে জাতিসঙ্ঘের মানবাধিকার পরিষদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন শাহ মাহমুদ কুরেশি। পাকিস্তানের এই মন্ত্রী বলেছেন, তিনি জাতিসঙ্ঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান মিশেল ব্যাচেলেতের সাথে কথা বলেছেন। একই সাথে আজাদ ও ভারত অধিকৃত উভয় কাশ্মির সফর করতে ব্যাচেলেতের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

প্রতিবেশী দুই দেশের মাঝে চলমান উত্তেজনা প্রশমনে দ্বিপক্ষীয় কোনো ধরনের আলোচনার সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন শাহ মাহমুদ কুরেশি। তিনি বলেন, ‘নয়াদিল্লির এই পরিবেশ এবং মানসিকতায় আমরা দ্বিপক্ষীয় আলোচনার কোনো সম্ভাবনা দেখছি না।’

সূত্র : ডন 

কঙ্গোতে ট্রেন লাইনচ্যুত, নিহত ৫০
                                  

কঙ্গোর দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের তানগানইকা প্রদেশে ট্রেন দুর্ঘটনায় কমপক্ষে ৫০ জন নিহত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় রাত ৩টার দিকে একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে এ প্রাণহানির ঘটনা ঘটে।

সিএনএন জানায়, কঙ্গোর মানবতাবিষয়ক মন্ত্রী স্টিভ এমবিকায়ি এক টুইট বার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

টুইটে তিনি লিখেন, ‘বড় একটি বিপর্যয় ঘটল। সরকারের পক্ষ থেকে আমি দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই।’

এ দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। দেশটির দায়িত্বশীল কেউ দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কে জানাতে পারেনি।

আফ্রিকার এ দেশটিতে সম্প্রতি পরিবহন দুর্ঘটনায় হতাহতের সংখ্যা বাড়ছে। চলতি বছরের মার্চ মাসে দেশটির কাসাইপ্রদেশে একটি মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে কমপক্ষে ২৪ জন নিহত হয়।

এর আগে ২০১৭ সালে একটি জ্বালানিবাহী ট্যাংকার বহনকারী ট্রেন লুলাবাবা প্রদেশের একটি নদীতে ডুবে গেলে কমপক্ষে ৩০ জন মারা যায়। 

ইরানের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতা বাঁচানোর পথ বেছে নিয়েছে ইউরোপ: মার্কেল
                                  

জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল বলেছেন, ২০১৫ সালে ইরান ও ছয় জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে সই হওয়া পরমাণু সমঝোতা বাঁচিয়ে রাখার পথ বেছে নিয়েছে ইউরোপ। তিনি বলেন, এই চুক্তির প্রতি ইউরোপের দেশগুলো সম্মান প্রদর্শন করে।অ্যাঙ্গেলা মার্কেল গতকাল বুধবার বলেন, “ধাপে ধাপে আমরা ইরানের সঙ্গে বিদ্যমান সমস্যা সমাধানের পথ খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি যাতে এই উত্তেজনা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এবং আঞ্চলিক পর্যায়ে আরো বেশি ছড়িয়ে না পড়ে।

এটি হচ্ছে আমাদের এই মুহুর্তের লক্ষ্য।”২০১৮ সালের মে মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পরমাণু সমঝোতা থেকে আমেরিকাকে একতরফাভাবে বের করে নেন এবং তিনি ইরানের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা জোরদার করেন। কিন্তু মার্কিন নীতির সঙ্গে ইউরোপের গুরুত্বপূর্ণ দেশগুলো এবং চীন ও রাশিয়া একমত নয়।তারা বলছে, আমেরিকা চুক্তি থেকে বেরিয়ে গেলেও তারা এর প্রতি অনুগত থাকবে এবং ইরানের সঙ্গে কিভাবে অর্থনৈতিক সহযোগিতা জোরদার করা যায় তার পথ খুঁজে বের করবে।

গাজায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল
                                  

ফিলিস্তিনের গাজায় অন্তত ১৫টি লক্ষ্যবস্তুতে বিমান হামলা চালানোর কথা জানিয়েছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী।গত মঙ্গলবার রকেট হামলার সতর্কতামূলক সাইরেন শুনে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু নির্বাচনি প্রচারণার মঞ্চ ছাড়তে বাধ্য হন। ইসরায়েল দাবি করেছে ফিলিস্তনি ভূখ- থেকে ওই রকেট ছোঁড়া হয়েছে। ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, এই ঘটনার কয়েক ঘন্টার মাথায় বুধবার গাজায় বিমান হামলা চালায় তেল আবিব।

এক সপ্তাহ পরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে ইসরায়েলের সাধারণ নির্বাচন। এই নির্বাচনের প্রচারণায় গত মঙ্গলবার দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর আশদোদে এক সভায় যোগ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। সভা চলার মধ্যে রকেট হামলার সতর্কতা জানিয়ে সাইরেন বাজানো হলে মঞ্চ ছেড়ে নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিতে বাধ্য হন বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। ইসরায়েল দাবি করে ফিলিস্তিনি ভূখন্ড থেকে ছোঁড়া রকেট প্রতিহত করেছে ইসরায়েলি আয়রন ডোম প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা। এ ঘটনার কয়েক মিনিট পর তিনি তার বক্তব্য চালিয়ে যান।ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, গাজা উপত্যকা থেকে আশদোদ ও অন্য শহর আশকেলনে দিকে দুইটি রকেট ছোঁড়া হয়। মঙ্গলবারের হামলার জবাবে বুধবার পাল্টা হামলা চালানো হয় বলে তারা দাবি করে।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী দাবি করেছে, গাজায় অস্ত্র উৎপাদন কারখানা, গাজার শাসক দল হামাসের ব্যবহৃত নৌবাহিনীর দফতর ও টানেলসহ ১৫টি লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালানো হয়েছে। তবে এসব হামলায় তাৎক্ষণিকভাবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায় নি।১৯৬৭ সাল থেকে ফিলিস্তিনের গাজা ভূখন্ডকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে ইসরায়েল। ২০০৫ সালে সেখান থেকে বসতি উচ্ছেদ করে সেনা মোতায়েন করে তারা। নিরাপত্তার অজুহাতে স্থল সীমান্তে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে মিশর এবং ওই ছিটমহলকে নৌ অবরোধ করে রেখেছে তেল আবিব।গত দশকে হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যে তিনটি যুদ্ধ সংগঠিত হয়েছে।

 

শিক্ষার্থী ভিসায় পরিবর্তন আনছে যুক্তরাজ্য
                                  

যুক্তরাজ্যের শিক্ষার্থী ভিসা ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনতে নতুন একটি প্রস্তাব ঘোষণা করেছে দেশটির স্বরাষ্ট্র দফতর। এর আওতায় স্নাতক শেষ করার পরও দুই বছর দেশটিতে অবস্থান করে কাজ খোঁজার সুযোগ পাবে বিদেশি শিক্ষার্থীরা। গতকাল বুধবার ঘোষিত নতুন প্রস্তাব অনুযায়ী বিদেশি শিক্ষার্থীরা যেকোনও ধরণের কাজ করতে পারবে। প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, ভিসা ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনার ফলে শিক্ষার্থীরা তাদের সম্ভাবনা উন্মুক্ত করতে পারবেন আর যুক্তরাজ্যে ক্যারিয়ার শুরু করতে পারবেন। তবে অভিবাসীদের নিয়ে কাজ করা মাইগ্রেশন ওয়াচ একে পশ্চাদমুখী পদক্ষেপ হিসেবে অভিহিত করেছে।

২০১২ সালে তৎকালীন ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী থেরেসা মে’র অধীনে ভিসা ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনা হয়। ওই সময়ে নিয়ম করা হয় বিদেশি শিক্ষার্থীদের স্নাতক শেষ করার চার মাসের মাসের যুক্তরাজ্য ছেড়ে যেতে হবে। বুধবার নতুন ঘোষিত প্রস্তাবের মধ্য দিয়ে ওই নিয়ম বদলানো হলো।গত বছর প্রায় সাড়ে চার লাখ বিদেশি শিক্ষার্থী যুক্তরাজ্যে স্নাতক কোর্স শুরুর আবেদন করেছেন। ভিসা ব্যবস্থার নতুন নিয়ম এসব শিক্ষার্থীর ওপরও প্রযোজ্য হবে। ব্রিটিশ কোষাগারের চ্যান্সেলর সাজিদ জাভিদ এক টুইট বার্তায় নতুন এই নিয়মকে সময়োপযোগী বলে আখ্যা দিয়ে বলেছেন কয়েক বছর আগেই ভিসা ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনার দরকার ছিলো। ব্রিটিশ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর প্রধান নির্বাহী অ্যালিস্টাইর জার্ভিস এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন এর মাধ্যমে উপকৃত হবে ব্রিটিশ অর্থনীতি। আর যুক্তরাজ্যকে শিক্ষার প্রথম গন্তব্য নির্ধারণে ভূমিকা রাখবে।

তবে অভিবাসীদের নিয়ে কাজ করা যুক্তরাজ্যের মাইগ্রেশন ওয়াচের চেয়ারম্যান আল্প মেহমেত বলেছেন, এই সিদ্ধান্ত অবিবেচক সিদ্ধান্ত। আর এত বিদেশি স্নাতক শিক্ষার্থীদের ভীড় বেড়ে যাবে। তিনি বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো রেকর্ড সংখ্যক বিদেশি শিক্ষার্থীদের আকৃষ্ট করছে ফলে শিক্ষার্থী ভিসা অবমূল্যায়ন করে কাজের সুযোগ দিয়ে পেছনের পথ ব্যবহার করার কোনও দরকার নেই।ভারত থেকে যুক্তরাজ্যে যাওয়া শিক্ষার্থী শ্রেয়া শমী বলেন এটা খুবই ভালো পদক্ষেপ। তবে তার জন্য খুবই দুঃখের দিন। কারণ তার মতো যেসব বিদেশি শিক্ষার্থী যুক্তরাজ্যে অবস্থান করছেন তাদের জন্য এই নিয়ম কাজে আসবে না। শ্রেয়া এখন মাস্টার্স ডিগ্রি সম্পন্ন করছেন। বর্তমান নিয়মের অধীনে চার মাস কাজের সুযোগ পেতে অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে তাকে।

তিনি জানান বিদেশি শিক্ষার্থীদের কাজের সুযোগ প্রায় শুন্যের কোঠায় নেমে এসেছে। এজন্য দায়ী করা হচ্ছে তাদের অনভিজ্ঞতাকে।ব্রিটিশ ছায়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ডায়ান অ্যাবোট বলেছেন, লেবার পার্টি সবসময়ই বলে এসেছে স্নাতকদের পড়াশোনা শেষে কাজের সুযোগ পাওয়া উচিত। তিনি বলেন, এর মাধ্যমে তারা আমাদের অর্থনীতি, বিশ্ববিদ্যালয় ও গবেষণায় অবদান রাখতে পারবে আর আমাদের সবচেয়ে মেধাবী ও প্রতিভাবানদের আকৃষ্ট করায় সাহায্য করবে।

কাবুলে মার্কিন দূতাবাস এলাকায় রকেট হামলা
                                  

কাবুলে মার্কিন দূতাবাস এলাকায় রকেট হামলা চালানো হয়েছে। ৯/১১-এর ১৮তম বার্ষিকীতে ১১ সেপ্টেম্বর গতকাল বুধবার ভোরে এ হামলা চালানো হয়। এ সময় দূতাবাস ভবনের বাইরে বিকট আওয়াজে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। ধোঁয়ায় ছেয়ে যায় পুরো দূতাবাস চত্বর। দৃশ্যত মার্কিন দূতাবাসকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করেই এ হামলা চালানো হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কোনও প্রাণহানির খবর পাওয়া যায়নি। এখনও পর্যন্ত কোনও গোষ্ঠী বা সংগঠন হামলার দায় স্বীকার করেনি।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তালেবানের সঙ্গে শান্তি আলোচনা বাতিলের পর এটিই কাবুলে প্রথম বড় ধরনের হামলা। আফগানিস্তানে নিযুক্ত মার্কিন দূতাবাসের এক কর্মী বিস্ফোরণের খবর নিশ্চিত করেছেন।এর আগে গত সপ্তাহে দুই গাড়িবোমা বিস্ফোরণে দুই ন্যাটো সদস্যসহ অনেকে নিহত হন।উল্লেখ্য, ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়। সেদিন টুইন টাওয়ার ও ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে চালানো হামলায় নিহত হন ২ হাজার ৯৯৭ জন। আহত হন ছয় হাজারেরও বেশি মানুষ। ওই হামলার জন্য বরাবরই আল কায়েদাকে দায়ী করে আসছে ওয়াশিংটন।

যুদ্ধ শুরু করলে ইসরাইল ধ্বংস হয়ে যাবে: হিজবুল্লাহ
                                  

ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করলে ইসরাইল ধ্বংস হয়ে যাবে এবং মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চলে মার্কিন সামরিক বাহিনীর উপস্থিতির অবসান ঘটবে। পবিত্র আশুরা ও হযরত ইমাম হোসেইন (আ)’র শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে এক ভাষণে লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ এসব কথা বলেছেন।

তিনি একপ্রকার হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিরুদ্ধে কোনো রকমের সামরিক আগ্রাসন হলে হিজবুল্লাহ নিরপেক্ষ থাকবে না।

সাইয়্যেদ হাসান নাসরুল্লাহ বলেন, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিরুদ্ধে যেকোনো ধরনের যুদ্ধ-পরিকল্পনা আমরা প্রত্যাখ্যান করছি কারণ এমন যুদ্ধে এ অঞ্চলের কয়েকটি দেশ এবং এসব দেশের জনগণ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। সম্ভাব্য যুদ্ধ মূলত পুরো মধ্যপ্রাচ্যের প্রতিরোধকারী শক্তি বিরুদ্ধে যুদ্ধ।

‘সম্ভাব্য এই যুদ্ধে ইহুদিবাদী ইসরাইলের চির অবসান ঘটবে এবং মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চলে মার্কিন বাহিনীর উপস্থিতিরও অবসান হবে,’ বলেন তিনি।

হাসান নাসরুল্লাহ বলেন, ২০০৬ সালের যুদ্ধের সময় জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ১৭০১ নম্বর প্রস্তাব অনুসারে ইসরাইলের সঙ্গে যে যুদ্ধবিরতি হয়েছিল লেবানন ও হিজবুল্লাহ তার প্রতি শ্রদ্ধা জানায় কিন্তু ইসরাইল যদি লেবাননের উপরে হামলা চালায় তাহলে তারা উপযুক্ত জবাব পাবে।

হাসান নাসরুল্লাহ তার ভাষণের এক পর্যায়ে বলেন, নির্যাতিত ফিলিস্তিনিদের ব্যাপারে হিজবুল্লার প্রতিশ্রুতি রয়েছে এবং ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ইসরাইলি দখলদারিত্বের অবসানের জন্য হিজবুল্লাহ অঙ্গীকারবদ্ধ। তথ্য সূত্র: পার্স টুডে।

‘ইরানকে পরমাণু অস্ত্র তৈরি করতে দেবে না ওয়াশিংটন’
                                  

ইরানকে পরমাণু অস্ত্র তৈরি করতে দেবে না ওয়াশিংটন। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও মঙ্গলবার এক টুইটার বার্তায় এই মন্তব্য করেছেন।

পম্পেও টুইটারে বলেছেন, ইরান আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থাকে (আইএইএ) পুরোপুরি সহযোগিতা করছে না এবং দেশটির পক্ষ থেকে গোপনে পরমাণু তৎপরতা চালানোর সম্ভাবনা রয়েছে।

পম্পেও এমন সময় এই দাবি করলেন যখন আইএইএ’র ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক করনেল ফেরুতা ইরান সফর শেষে ভিয়েনায় ফিরে তার সংস্থাকে সহযোগিতা করার জন্য তেহরানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

ফেরুতা বলেন, ইরানে তার সংস্থার পর্যবেক্ষকরা বর্তমানে কঠোরতম পরিদর্শনের কাজে নিযুক্ত রয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, পরমাণু সমঝোতা পুরোপুরি মেনে চলার ব্যাপারে ইরানের প্রতি তার সংস্থা যে আহ্বান জানিয়েছে তার অর্থ এই নয় যে, ইরান আইএইএ’কে সহযোগিতা করছে না।

বুরকিনা ফাসোতে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ২৯
                                  

 পশ্চিম আফ্রিকার দেশ বুরকিনা ফাসোতে পৃথক হামলায় অন্তত ২৯ জন নিহত হয়েছে। গত রোববার দেশটির বার্সালোগো এলাকায় বিস্ফোরণে নিহত হন কমপক্ষে ১৫ জন। এর ৫০ কিলোমিটার দূরে আরেকটি স্থানে খাবারবাহী থ্রি-হুইলারে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হন আরও ১৪ জন। সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পশ্চিম আফ্রিকার দেশটিতে উত্তর থেকে পূর্বাঞ্চলজুড়ে ছড়িয়ে পড়া সন্ত্রাস দমনে লড়াই করছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।সরকারি বিবৃতিতে জানানো হয়, বরিবার একটি খাদ্য পরিবহনকারী একটি বহরের ওপর হামলার পর দেশটির সংকটপূর্ণ উত্তরাঞ্চলের দুইটি স্থানে হামলায় ২৯ জন নিহত হয়।সরকারের মুখপাত্র রেমিস ফুলগ্যান্স ড্যান্ডজিনৌ বলেন, বার্সালোগো এলাকায় আধুনিক বিস্ফোরক যন্ত্রের (আইইডি) বিস্ফোরণে খাদ্য বহনকারী গাড়ি বিধ্বস্ত হয়। এতে এর ১৫ যাত্রী নিহত হয়, যাদের বেশিরভাগই ব্যবসায়ী।বার্সালোগো এলাকার ৫০ কিলোমিটার দূরের একটি এলাকায় যুদ্ধের কারণে উদ্বাস্তুদের জন্য খাদ্য বহনকারী একটি থ্রি-হুইলারে সন্ত্রাসীরা হামলায় নিহত হয় আরও ১৪ জন।কর্মকর্তারা জানিয়েছে, ঘটনাস্থলে সামরিক বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। অবশ্য এর আগে ওই এলাকার গুরত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হচ্ছে জানানোর পরই এই হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা।উল্লেখ্য, বুরকিনা ফাসো বিশ্বের দরিদ্রতম দেশগুলোর একটি। সেখানে ২০১৫ সাল থেকে একটি সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে লড়াই করে আসছে সরকার।

দীর্ঘদিন ধরে দেশটির সেনাবাহিনী বিদ্রোহীদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয়েছে। এ মাসের গোড়ার দিকে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের একটি সেনা ঘাঁটিতে সন্ত্রাসী হামলায় ২৪ সেনা নিহত হয়।বিদ্রোহী গোষ্ঠীটির উৎপত্তি হয় মূলত প্রতিবেশী দেশ মালিতে। তাদের সন্ত্রাসী কর্মকা- শুরু হয় প্রথমে উত্তরাঞ্চলে এবং পরে তা পূর্বাঞ্চলেও ছড়িয়ে পড়ে।২০১৮ সালের মার্চের হামলাসহ দেশটির রাজধানীর উয়াগাদুগুতে এ পর্যন্ত তিন দফায় হামলা হয়েছে। মার্চের ওই হামলায় আটজন নিহত হয়। নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে আগামি শনিবার সেখানে আঞ্চলিক দেশগুলোর রাষ্ট্রপ্রধানদের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।


   Page 1 of 272
     আন্তর্জাতিক
কাশ্মীরের শিশুদের সাহায্য করুন: মালালা
.............................................................................................
এবার যুক্তরাষ্ট্র থেকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কিনতে চায় তুরস্ক
.............................................................................................
সৌদি আরবে ড্রোন হামলায় ২’টি তেলক্ষেত্রে আগুন
.............................................................................................
তুরস্কে বোমা হামলায় নিহত ৭, আহত ১০
.............................................................................................
প্রথমবারের মতো শুরু হলো ম্যালেরিয়ার টিকা কর্মসূচি
.............................................................................................
ইসরাইলের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিতে জাতিসংঘের প্রতি ফিলিস্তিনের আহ্বান
.............................................................................................
‘চীনের সঙ্গে জোরোলো সামরিক সম্পর্ক চায় ইরান’
.............................................................................................
ভারত-পাকিস্তান `আকস্মিক যুদ্ধ` যেকোনো সময়!
.............................................................................................
কঙ্গোতে ট্রেন লাইনচ্যুত, নিহত ৫০
.............................................................................................
ইরানের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতা বাঁচানোর পথ বেছে নিয়েছে ইউরোপ: মার্কেল
.............................................................................................
গাজায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল
.............................................................................................
শিক্ষার্থী ভিসায় পরিবর্তন আনছে যুক্তরাজ্য
.............................................................................................
কাবুলে মার্কিন দূতাবাস এলাকায় রকেট হামলা
.............................................................................................
যুদ্ধ শুরু করলে ইসরাইল ধ্বংস হয়ে যাবে: হিজবুল্লাহ
.............................................................................................
‘ইরানকে পরমাণু অস্ত্র তৈরি করতে দেবে না ওয়াশিংটন’
.............................................................................................
বুরকিনা ফাসোতে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ২৯
.............................................................................................
এবারের গ্রীষ্মে তীব্র তাপদাহে ফ্রান্সে ১৪৩৫ জনের প্রাণহানি
.............................................................................................
আরও বেশি আমেরিকান মরবে: তালেবান
.............................................................................................
বন উজাড়কে বৈশ্বিক হুমকি হিসেবে দেখতে হবে: পোপ
.............................................................................................
হংকংকে স্বাধীন করতে ট্রাম্পের প্রতি আহ্বান বিক্ষোভকারীদের
.............................................................................................
তুরস্কের সফল ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা
.............................................................................................
ইসরায়েলি আগ্রাসন প্রতিরোধের হুঁশিয়ারি লেবাননের
.............................................................................................
অ্যামাজনের সুরক্ষায় ৭ লাতিন দেশের চুক্তি
.............................................................................................
শেষ বুলেট পর্যন্ত কাশ্মীরিদের জন্য লড়াই করব: পাক সেনাপ্রধান
.............................................................................................
যুদ্ধে ঝাঁপ দেয়ার আগে সিদ্ধান্ত নিন কি চান -মার্কিন নেতাদেরকে ম্যাটিসের পরামর্শ
.............................................................................................
কাশ্মির ইস্যুতে বিশ্ব সম্প্রদায় নীরব কেন: প্রশ্ন ইমরান খানের
.............................................................................................
বাহামা দ্বীপপুঞ্জে ঘূর্ণিঝড় ডোরিয়ান-এর তা-বে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩০
.............................................................................................
জাতিসংঘে এনআরসি ইস্যু তুলতে পারে পাকিস্তান
.............................................................................................
নাগরিক তালিকার বিরুদ্ধে রাজপথে নামবে তৃণমূল
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রে নৌকায় আগুন লেগে নিহত ২৫, নিখোঁজ ৯
.............................................................................................
চীনের স্কুলে হামলা, ৮ শিশু নিহত
.............................................................................................
পারলে পদত্যাগ করতেন’ হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী লাম
.............................................................................................
পাকিস্তানি সেনাবাহিনীকে কাশ্মীরে হস্তক্ষেপের আহ্বান জঙ্গিনেতার
.............................................................................................
বাহামাসে আঘাত হেনেছে ‘মহাশক্তিশালী’ হারিকেন ডোরিয়ান
.............................................................................................
রোহিঙ্গা নির্যাতনে জড়িত সেনাদের শাস্তি হবে: মিয়ানমার সেনাপ্রধান
.............................................................................................
চুক্তির কাছাকাছি যুক্তরাষ্ট্র ও তালেবান
.............................................................................................
কাশ্মীরে ভারতের পদক্ষেপকে অগ্রহণযোগ্য বললেন বার্নি স্যান্ডার্স
.............................................................................................
ইয়েমেনের কারাগারে সৌদি বাহিনীর হামলা: নিহত ৬০
.............................................................................................
টেক্সাসে বন্দুকধারীর গুলিতে ৫ জন নিহত
.............................................................................................
সিরিয়ার পথে থাকা’ ইরানি ট্যাংকার যুক্তরাষ্ট্রের কালো তালিকায়
.............................................................................................
মহারাষ্ট্রে রাসায়নিক কারখানায় আগুন, নিহত ৮
.............................................................................................
ইবোলা: কঙ্গোর পূর্বাঞ্চলে মৃতের সংখ্যা ২০০০ ছাড়াল
.............................................................................................
সেনা অভিযানে অত্যাচার-নির্যাতনের অভিযোগ কাশ্মীরিদের
.............................................................................................
আফগানিস্তানে সেনা কমানোর ঘোষণা ট্রাম্পের
.............................................................................................
কাশ্মিরিদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে রাজপথে পাকিস্তানিরা
.............................................................................................
ডোনাল্ড ট্রাম্পকে জিম ম্যাটিসের হুঁশিয়ারি
.............................................................................................
আফগানিস্তানে তালেবান হামলায় নিহত ১৪
.............................................................................................
ভারতের জন্য ফের বন্ধ হচ্ছে পাকিস্তানের আকাশপথ
.............................................................................................
অবশেষে অ্যামাজনের সুরক্ষায় আন্তর্জাতিক সহায়তা গ্রহণের ইঙ্গিত ব্রাজিলের
.............................................................................................
সংখ্যালঘু মুসলিমদের রাষ্ট্রহীন করতে পারে না ভারত: যুক্তরাষ্ট্র
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]