| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   আন্তর্জাতিক -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
‘নিউজিল্যান্ডে মুসলমানরা নিরাপদ, সুরক্ষিত’

নিজ ভূখণ্ডের মুসলিম নাগরিকদের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দিয়েছে নিউজিল্যান্ড।

ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে এক অস্ট্রেলীয় শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদীর হামলায় অর্ধশত মুসলমান নিহত হওয়ার পরও দেশটি বলছে- মুসলমানরা এখানে নিরাপদ ও সুরক্ষিত থাকবে।-খবর এএফপির

তুরস্কের ইস্তানবুলে ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) এক জরুরি বৈঠকে নিউজিল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উইনস্টন পেটারস বলেন, বিশেষভাবে মুসলিম সম্প্রদায়কে নিরাপত্তা ও সুরক্ষার নিশ্চয়তা দিয়েছি।

মুসলমানদের প্রতি সংহতি বার্তার জন্য নিউজিল্যান্ডের প্রশংসা করেছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুট কাভুসগলু।


তিনি বলেন, বিশ্বজুড়ে ইসলামবিদ্বেষী পদক্ষেপের বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান। আমরা এখানে সেটিই দেখাতে চাই।

এর আগে নিউজিল্যান্ডে শুক্রবার যখন আজানের ধ্বনিতে মুখরিত হচ্ছিল, তখন ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদের বিপরীত পাশের হ্যাগলি পার্কে জড়ো হন কয়েক হাজার মানুষ। গত সপ্তাহে এখানকার দুটি মসজিদে খ্রিস্টান বর্ণবাদীদের হামলায় অর্ধশত মুসল্লি নিহত হওয়ার ঘটনায় সংহতি প্রকাশ করতে তারা ২ মিনিট নীরবতা পালন করেন।

হ্যাগলি পার্কে পাঁচ হাজারের বেশি মানুষ সমবেত হন। যাদের একটি বড় অংশ গত শুক্রবার শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদীর এলোপাতাড়ি গুলিতে আহত হয়েছেন। নীরবতা পালন কর্মসূচির নেতৃত্ব দেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আরডান।

নীরবতা ভাঙার পর তিনি বলেন, পুরো নিউজিল্যান্ড আপনাদের সঙ্গে রয়েছেন, আপনাদের সঙ্গে শোক প্রকাশ করছেন। আমরা সবাই এক।

সন্ত্রাসী হামলায় হতাহতদের অধিকাংশ অভিবাসী। পাকিস্তান, ভারত, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, তুরস্ক, সোমালিয়া, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে যারা শান্তির খোঁজে দেশটিতে পাড়ি জমিয়েছিলেন।

মন্ত্রী ও নিরাপত্তা বাহিনীর বেষ্টনীর ভেতরে অবস্থান করা আরডানের মাথায় কালো পোশাক ও হিজাব পরা ছিল। এমনকি হ্যাগলি পার্কের নারী পুলিশরাও একটি লাল গোলাপসহ কালো হিজাব পরেছিলেন।

আল নুর মসজিদের ইমাম জামাল ফাওদা ২০ মিনিটের মতো খুতবা দেন আজকের জুমার নামাজে। সহানুভূতি প্রকাশের জন্য তিনি আরডানকে ধন্যবাদ দেন।

কিউ প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে তিনি বলেন, এটি বিশ্বনেতাদের জন্য একটি শিক্ষা। হিজাব পরে আমাদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ ও পরিবারগুলোর প্রতি আপনার সহানুভূতির জন্য ধন্যবাদ।

তিনি বলেন, ইসলাম বিদ্বেষের মাধ্যমে মুসলমানদের মানবিক অধিকার কেড়ে নেয়া হচ্ছে। কাজেই ঘৃণা প্রচার ও ভয়ের রাজনীতি বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন জামাল ফাওদা।

ওয়েলিংটন, অকল্যান্ডসহ অন্যান্য শহরের মসজিদে হাজার হাজার লোক জমায়েত হয়েছেন। এ ছাড়া দেশটির অমুসলিম নারীরা সংহতি প্রকাশ করতে আজ হিজাব পরেছেন।

‘নিউজিল্যান্ডে মুসলমানরা নিরাপদ, সুরক্ষিত’
                                  

নিজ ভূখণ্ডের মুসলিম নাগরিকদের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দিয়েছে নিউজিল্যান্ড।

ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে এক অস্ট্রেলীয় শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদীর হামলায় অর্ধশত মুসলমান নিহত হওয়ার পরও দেশটি বলছে- মুসলমানরা এখানে নিরাপদ ও সুরক্ষিত থাকবে।-খবর এএফপির

তুরস্কের ইস্তানবুলে ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) এক জরুরি বৈঠকে নিউজিল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উইনস্টন পেটারস বলেন, বিশেষভাবে মুসলিম সম্প্রদায়কে নিরাপত্তা ও সুরক্ষার নিশ্চয়তা দিয়েছি।

মুসলমানদের প্রতি সংহতি বার্তার জন্য নিউজিল্যান্ডের প্রশংসা করেছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুট কাভুসগলু।


তিনি বলেন, বিশ্বজুড়ে ইসলামবিদ্বেষী পদক্ষেপের বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান। আমরা এখানে সেটিই দেখাতে চাই।

এর আগে নিউজিল্যান্ডে শুক্রবার যখন আজানের ধ্বনিতে মুখরিত হচ্ছিল, তখন ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদের বিপরীত পাশের হ্যাগলি পার্কে জড়ো হন কয়েক হাজার মানুষ। গত সপ্তাহে এখানকার দুটি মসজিদে খ্রিস্টান বর্ণবাদীদের হামলায় অর্ধশত মুসল্লি নিহত হওয়ার ঘটনায় সংহতি প্রকাশ করতে তারা ২ মিনিট নীরবতা পালন করেন।

হ্যাগলি পার্কে পাঁচ হাজারের বেশি মানুষ সমবেত হন। যাদের একটি বড় অংশ গত শুক্রবার শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদীর এলোপাতাড়ি গুলিতে আহত হয়েছেন। নীরবতা পালন কর্মসূচির নেতৃত্ব দেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আরডান।

নীরবতা ভাঙার পর তিনি বলেন, পুরো নিউজিল্যান্ড আপনাদের সঙ্গে রয়েছেন, আপনাদের সঙ্গে শোক প্রকাশ করছেন। আমরা সবাই এক।

সন্ত্রাসী হামলায় হতাহতদের অধিকাংশ অভিবাসী। পাকিস্তান, ভারত, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, তুরস্ক, সোমালিয়া, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে যারা শান্তির খোঁজে দেশটিতে পাড়ি জমিয়েছিলেন।

মন্ত্রী ও নিরাপত্তা বাহিনীর বেষ্টনীর ভেতরে অবস্থান করা আরডানের মাথায় কালো পোশাক ও হিজাব পরা ছিল। এমনকি হ্যাগলি পার্কের নারী পুলিশরাও একটি লাল গোলাপসহ কালো হিজাব পরেছিলেন।

আল নুর মসজিদের ইমাম জামাল ফাওদা ২০ মিনিটের মতো খুতবা দেন আজকের জুমার নামাজে। সহানুভূতি প্রকাশের জন্য তিনি আরডানকে ধন্যবাদ দেন।

কিউ প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে তিনি বলেন, এটি বিশ্বনেতাদের জন্য একটি শিক্ষা। হিজাব পরে আমাদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ ও পরিবারগুলোর প্রতি আপনার সহানুভূতির জন্য ধন্যবাদ।

তিনি বলেন, ইসলাম বিদ্বেষের মাধ্যমে মুসলমানদের মানবিক অধিকার কেড়ে নেয়া হচ্ছে। কাজেই ঘৃণা প্রচার ও ভয়ের রাজনীতি বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন জামাল ফাওদা।

ওয়েলিংটন, অকল্যান্ডসহ অন্যান্য শহরের মসজিদে হাজার হাজার লোক জমায়েত হয়েছেন। এ ছাড়া দেশটির অমুসলিম নারীরা সংহতি প্রকাশ করতে আজ হিজাব পরেছেন।

গভীর রাতে ব্রিটেনের ৫ মসজিদে হামলা
                                  

এক রাতে ব্রিটেনের ৫টি মসজিদে হামলা চালানো হয়েছে। বুধবার রাতে মধ্যাঞ্চলীয় নগরী বার্মিংহাম শহরের মসজিদগুলোতে এই হামলা হয়। এ ঘটনায় আতঙ্কে রয়েছে ব্রিটেনের মুসলমানরা। শুক্রবার জুমার নামাজের সময় তারা নিরাপত্তা জোরদারের দাবি জানিয়েছেন। পুলিশ বলছে, সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে এই ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

এই হামলায় কেউ হতাহত হয়নি। দৃস্কৃতিকারিরা হাতুরি দিয়ে মসজিদের দরজা ও জানালা ভাঙচুর করেছে। ডেইলি মেইল সংবাদপত্রের অনলাইন ভার্সনের খবরে বলা হয়েছে, বার্মিংহামের উইটন রোড ইসলামিক সেন্টারের(মসজিদ) ৭টি জানালা ও দুটি দরজা ভেঙে ফেলেছে। মসজিদটির ইমাম জানিয়েছেন, স্থানীয় সময় রাত দেড়টা থেকে দুইটার মধ্যে এই হামরঅ হয়। ওয়েস্ট মিডল্যান্ড পুলিশ বিভাগ জানিয়েছে, ঘটনার পর থেকে তারা সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। তবে হামলাকারীর উদ্দেশ্য কি ছিলো তা বুঝতে পারছে না পুলিশ। ওয়েস্ট মিডল্যান্ড পুলিশের সন্ত্রাসবিরোধী ইউনিট ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

এছাড়া অ্যালবার্ট রোড, বির্চফিল্ড রোড, স্লেড রোড, ব্রোডওয়ে রোডের একটি করে মসজিদে হামলা চালানো হয়েছে। রাত আড়াইটার দিকে বির্চফোল্ড রোডের মসজিদে হামলার খবর পুলিশকে জানানো হয়। রাত সোয়া তিনটার দিকে একই ধরনের হামলা হয় এরডিংটন এলাকার স্লেড রোডের মসজিদে। এরপরই পুলিশ সতর্ক হয়ে সব মসজিদগুলোর কাছে টহল দিতে শুরু করে। এসময় তারা মোট ৫টি মসজিদে হামলার আলামত পায়।

পুলিশের ফরেনসিক বিভাগ হামলাকারীদের ধরতে কাজ শুরু করেছে, সিসিটিভির ফুটেজও পরীক্ষা করা হচ্ছে।

স্থানীয় রাজনীতিক ও লেবার পার্টির কাউন্সিল মজিদ মাহমুদ হামলার ছবি অনলাইনে শেয়ার করলে অনেকে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন এবং হামলাকারীদের গ্রেফতার দাবি করেছেন। তিনি টুইটারে লিখেছেন, দুর্ভাগ্য বশত উইটন রোড মসজিদে রাতে হামলা হয়েছে। হাতুরি দিয়ে কেউ জানালা ভেঙে ফেলেছে। গত সপ্তাহেই আমি বলেছি, নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলার পর মুসলমানরা আতঙ্কে আছে। আমাদের নিরাপত্তা দরকার’।

উইটন রোড মসজিদের ইমাম শরাফত আলী একই ধরনের পোস্ট দিয়ে ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, এটি ভয়াবহ। মুসলমান সম্প্রদায় আতঙ্কে আছে নিউজিল্যান্ডের ঘটনার পর’।

বার্লিনে স্কার্ফ পরিহিত গর্ভবতী নারীর ওপর হামলা
                                  

জার্মানির রাজধানী বার্লিনে একজন অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তি স্কার্ফ পরা একজন মুসলিম গর্ভবতী নারীসহ দুই নারীর ওপর হামলা চালিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে নিউক্লেন ট্রেন স্টেশনের কাছে। সেখানে ওই ব্যক্তি তার কুকুর নিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল।

দুই নারী জানান, ওই ব্যক্তি গর্ভবতী মহিলার পেটে ও অন্য নারীর মুখে ঘুষি মারে। পরে দ্রুত সে সেখান থেকে পালিয়ে যায়। এ ঘটনার পর ওই গর্ভবতী মহিলাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বার্লিন পুলিশ এ ঘটনার তদন্ত করছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে জার্মানিতে অভিবাসী ও মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতি জার্মানদের বৈরী আচরণ বেড়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, কেবল গত বছরই জার্মানিতে মুসলিমদের ওপর ৯৫০টি হামলার ঘটনা ঘটেছে। দেশটিতে ইউরোপের দ্বিতীয় বৃহত্তম মুসলিম সম্প্রদায়ের বসবাস।

সূত্র : ডেইলি সাবাহ

নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলায় নিহত সকলকে সনাক্ত
                                  

নিউজিল্যান্ড পুলিশ বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, গত সপ্তাহে ক্রাইস্টচার্চে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ৫০ জনের সকলকে সনাক্ত করে লাশগুলো দাফনের অনুমতি দেয়া হয়েছে। খবর এএফপি’র।

কমিশনার মাইক বুশ বলেন, ‘আমি বলতে পারি যে কয়েক মিনিট আগে নিহত ৫০ জনের সকলের সনাক্তকরণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলার ঘটনায় নিহতদের দাফন করার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। প্রথম যে দু`জনকে কবর দেয়া হয় তারা গত বছর নিউজিল্যান্ডে এসেছিলেন শরণার্থী হিসেবে। ৪৪ বছর বয়সী খালেদ মুস্তাফা এবং তার ১৬ বছর বয়সী ছেলে হামজা সিরিয়ার অধিবাসী ছিলেন।

দাফনের আনুষ্ঠানিকতায় সহায়তা করতে এবং নিহতদের পরিবারকে সমর্থন জানাতে নিউজিল্যান্ডের বিভিন্ন স্থান থেকে ক্রাইস্টচার্চে এসেছেন স্বেচ্ছাসেবীরা। ইসলামিক রীতি অনুযায়ী মৃত্যুর পর যত তাড়াতাড়ি সম্ভব লাশ কবর দেয়া উচিত, কিন্তু নিহতদের পরিচয় যাচাই করার জন্য এই প্রক্রিয়া বিলম্বিত হয়েছে।

গত শুক্রবার হামলার শিকার লিনউড মসজিদের কাছে একটি কবরস্থানে জড়ো হন শতাধিক মানুষ। বুধবারের জানাযা ও দাফন অনুষ্ঠান নিহতদের পরিবারের সদস্যদের যেন বিরক্ত না করা হয় সেজন্য ক্রাইস্টচার্চ কর্তৃপক্ষ গণমাধ্যমকে সতর্ক করেছে।

কাউন্সিলের একজন মুখপাত্র বলেছেন, "লাশ প্রথমে সবার সামনে নিয়ে আসা হবে, তারপর নিহতের পরিবারের সামনে লাশ নিয়ে রাখা হবে। কিছুক্ষণ পর পরিবারের সদস্য ও বন্ধুরা কবরস্থানে লাশটি বহন করে নিয়ে যাবেন।"

এবার সহকর্মীর হাতে খুন তিন ভারতীয় সেনা
                                  

ভারত অধিকৃত কাশ্মিরের পুলওয়ামায় আত্মঘাতী হামলায় নিহত হয়েছিলেন ভারতের আধাসামরিক বাহিনী সিআরপিএফের ৪৪ সদস্য। তা নিয়ে দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধ লেগে যাওয়ার জোগাড় হয়েছিল।

এবার সেই বাহিনীরই তিন সদস্য খুন হয়েছেন নিজেদেরই সহকর্মীর হাতে। এরপর হত্যাকারী নিজেও আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। বর্তমানে সে মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে রয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, বুধবার রাতে জম্মু কাশ্মীরের সিআরপিএফের ১৮৭ ব্যাটেলিয়ন ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে৷ নিজেদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে কনস্টেবল অজিত কুমার সহকর্মীদের গুলি করে হত্যা করেন। পরে নিজেও আত্মহত্যার চেষ্টা চালান। বর্তমানে তিনি সেনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

সিআরপিএফ জানায়, অজিত কুমারের গুলির শিকার হয়ে রাজস্থানের পোকারমাল আর, দিল্লির যোগেন্দ্র শর্মা এবং হরিয়ানার উমেদ সিং নিহত হন৷ এ ঘটনার খবর পাওয়ার পরই বাহিনীটির শীর্ষ কর্মকর্তারা ক্যাম্পে ছুটে যান। পুলিশও পৌঁছায় সেখানে। পরে সিআরপিএফ ও পুলিশ নিজেদের মতো করে তদন্ত শুরু করেছে৷ তাদের মধ্যে কী নিয়ে বিবাদ শুরু হয়েছিল তা জানার চেষ্টা চলছে৷

তবে ভারতের সশস্ত্র বাহিনীগুলোতে মাঝেমধ্যেই এ ধরনের ঘটনা ঘটে। এক্ষেত্রে তারা দাবি করে থাকেন অত্যাধিক কাজের চাপ ও মানসিক অবসাদের কারণে এসব বাহিনীর সদস্যরা সামান্য কিছুতেই ধৈর্যহারা হন। সহকর্মীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করছেন৷ মানসিক অবসাদের কারণে অনেকে আত্মঘাতী পর্যন্ত হয়েছেন৷

স্বয়ংক্রিয় আগ্নেয়াস্ত্র নিষিদ্ধ করছে নিউজিল্যান্ড
                                  

স্বয়ংক্রিয় আগ্নেয়াস্ত্র ও উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ম্যাগাজিন ব্যবহার নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিউজিল্যান্ড। দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন এ ঘোষণা দিয়েছেন। সাধারণত সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের সদস্যরা স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র ব্যবহার করে। আগ্নেয়াস্ত্রকে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন করে এ ধরনের যন্ত্রাংশও নিষিদ্ধ হচ্ছে। খবর সিএনএন এর।

গত শুক্রবার জুমআর দিনে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের ‍দুটি মসজিদে বন্দুকধারীদের হামলায় অর্ধশত মুসল্লি নিহত হয়। পরে বন্দুকধারী আটক হয় এবং তার বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে। এই ঘটনার পর থেকে নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর চেষ্টা করছে দেশটির সরকার।

বৃহস্পতিবার রাজধানী ওয়েলিংটনে এক সংবাদ সম্মেলনে জাসিন্ডা আরডার্ন বলেন, সব ধরনের আধা-স্বয়ংক্রিয় আগ্নেয়াস্ত্রের ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হবে। যেগুলো গত শুক্রবারের আক্রমণে ব্যবহার করা হয়েছে। এই আইনের খসড়া তৈরি করে দ্রুতই তা কার্যকরের ব্যবস্থা করা হবে।

আরডার্ন আশা প্রকাশ করেছেন আগামী ১১ এপ্রিল থেকে এই আইনটি কার্যকর হবে। এসব অস্ত্র যাদের মালিকানায় রয়েছে তাদেরকে দ্রুত তা জমাদানে উৎসাহিত করা হচ্ছে। অস্ত্র আইন সংস্কারে গত সোমবার দেশটির মন্ত্রীসভা একমত হওয়ার দুই দিন পর প্রধানমন্ত্রীর মুখ থেকে এই ঘোষণা আসল।

আরডার্ন মনে করেন তার দেশে সন্ত্রাসবাদের এই বাজে দৃষ্টান্তের মাধ্যমে অস্ত্র আইনের দুর্বলতা ফুটে ওঠেছে। তিনি আগামী ১০ দিনের মধ্যে এই আইন সংস্কারের প্রতিশ্রুতি দেন। যাতে দেশটির নাগরিকরা সেখানে বসবাস করতে নিরাপদ বোধ করে।

বর্ণবাদী মতাদর্শের বিরুদ্ধে বৈশ্বিক লড়াইয়ের ডাক
                                  

বর্ণবিদ্বেষী ডানপন্থী মতাদর্শের শেকড় উপড়ে ফেলতে বৈশ্বিক লড়াইয়ের আহ্বান জানিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডার্ন। গত শুক্রবার দেশটির ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার পর বুধবার তিনি এই আহ্বান জানান। 

ওই হামলার পর প্রথমবারের মতো ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসিকে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন জেসিন্ডা। তিনি বলেছেন, অভিবাসন বৃদ্ধি জাতিগত বিদ্বেষে জ্বালানি জোগাচ্ছে; এমন ধারণাকে প্রত্যাখ্যান করেছেন তিনি।

গত শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চের আল-নূর ও লিনউড মসজিদে আধা-স্বয়ংক্রিয় বন্দুক নিয়ে নৃশংস হত্যাযজ্ঞ চালায় অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত উগ্রপন্থী শেতাঙ্গ সন্ত্রাসী ব্রেন্টন ট্যারান্ট। এতে অন্তত ৫০ জন মুসল্লির প্রাণহানি ঘটে। এছাড়া গুলিতে আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরো কমপক্ষে ২৯ জন। এদের মধ্যে ৮ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ডানপন্থী জাতীয়তাবাদের উত্থান সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই হামলাকারী একজন অস্ট্রেলীয়। কিন্তু নিউজিল্যান্ডে যে এ মতাদর্শের মানুষ নেই তা বলা যাবে না। তবে নিউজিল্যান্ডের অধিকাংশ মানুষ এটাকে ঘৃণা করে।

তিনি বলেন, এই আগাছা যেখানে আছে সেখান থেকে সমূলে উৎপাটন করতে হবে। এটা নিশ্চিত করতে হবে যে, আমরা কখনই এমন কোনো পরিবেশ তৈরি করবো না, যেখানে এটির উত্থান ঘটতে পারে।

শরণার্থীদের গ্রহণে নিউজিল্যান্ডের অবস্থানের পক্ষে তিনি বলেন, আমরা একটি স্বাগতপ্রবণ দেশ। একই সঙ্গে তিনি হামলাকারীর নাম মুখে আনতে অপারগতা প্রকাশ করেন। জেসিন্ডা বলেন, হামলাকারীর একটি উদ্দেশ্য ছিল, সে কুখ্যাত হতে চেয়েছিল; আমরা তাকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি।

ক্রাইস্টচার্চের আল-নূর ও লিনউদ মসজিদে প্রাণঘাতী নৃশংসতা চালানো হামলাকারীকে আইনের পুরো সাজা ভোগ করতে হবে বলে জানান তিনি। এমনকি তিনি ঘৃণ্য সেই হামলাকারীর নাম কখনই মুখে নেবেন না বলে জানান।

ইরানে শতাধিক যাত্রীবাহী বিমানে আগুন
                                  

ইরানের রাজধানী তেহরানের মেহরাবাদ বিমানবন্দরে মঙ্গলবার শতাধিক যাত্রীবাহী একটি বিমানে অবতরণের সময় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। তবে বিমানে আগুন লাগার পর ভেতর থেকে যাত্রীদের নিরাপদে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। দেশটির জরুরি সেবা বিভাগের প্রধানের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে ইরানের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ইসলামিক রিপাবলিক নিউজ এজেন্সি অগ্নিকাণ্ডের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে। ভিডিওতে দেখা গেছে, বিমানটি যখন অবতরণ করছিলে তখন পেছনে আগুন ও আগুনের কুণ্ডলী দেখা যায়। তবে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

ইরানের জরুরি সেবা বিভাগের প্রধান পীর হোসেইন কোলিবান্দ বলেন, বিমানটি যখন অবতরণের সময় ল্যান্ডিং দরজা ঠিকমতো না খোলায় অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত। তবে আগুন লাগার পর দ্রুত তা নিয়ন্ত্রণে এনে বিমানের ভেতরে থাকা যাত্রীদের নিরাপদে বের করে আনা সম্ভব হয়েছে বলে জানান তিনি।

দেশটির আধা সরকারি বার্তা সংস্থা ফারস নিউজ এজেন্সির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, পাইলট বিমানের পেছনের চাকা খুলতে পারছিলেন না। আর তাই পেছনের চাকা খোলার জন্য বিমানবন্দরের চারপাশে ঘোরাতে শুরু করলে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

ফারসের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, বিমানটি ছিল নেদারল্যান্ডস ভিত্তিক বিমান তৈরিকারী প্রতিষ্ঠান ফোক্কারের। ফোক্কার-১০০ মডেলের ইরানের রাষ্ট্রীয় বিমান চলাচলকারী প্রতিষ্ঠান ইরান এয়ারের এই বিমানটি ইরানের একটি দ্বীপ থেকে রাজধানী শহর তেহরানে ফিরছিল।

বিমানের সহ-পাইলট মা-মেয়ে
                                  

যুক্তরাষ্ট্রের ডেল্টা এয়ারলাইন্সের একটি বিমানের সহ-পাইলট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন মা এবং মেয়ে। তাদের একটি ছবি প্রকাশ পেতেই তা সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেছে। বিমানের ককপিটে পাইলট মা ও মেয়ের ছবি সবার মন জয় করে নিয়েছে।

এই দুই সহ-পাইলটের অনুপ্রেরণামূলক গল্প টুইটারে শেয়ার করেছিলেন পাইলট এবং এম্ব্রি-রিডল অ্যারোনটিক্যাল ইউনিভার্সিটির চ্যান্সেলর জন আর ওয়াট্রেট। তিনি পোস্টের ক্যাপশনে লিখেছিলেন, অসাধারণ এক অভিজ্ঞতা।

ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলস থেকে জর্জিয়ার আটলান্টা পর্যন্ত বিমানটি চালিয়েছেন মা মেয়ে জুটি। ডেল্টা এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ এক টুইট বার্তায় লিখেছে, ফ্যামিলি ফ্লাইট ক্রু গোলস! স্বাভাবিকভাবেই এই টুইটটি প্রায় ৪১ হাজার মানুষ পছন্দ করেছেন এবং ১৬ হাজারেরও বেশিবার তা রিটুইট হয়েছে। সহ-পাইলট মা মেয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন সবাই।

কিছু মানুষ অবশ্য খুব বেশি উত্তেজিতও হননি এবং তারা বলছেন যে ছবিটিকে ‘অভিভাবক-সন্তান’ ক্যাপশন দেওয়া উচিত ছিল এবং একই পরিবারের সদস্যদের সহ-পাইলট হওয়া নিয়ে অনেকে আবার উদ্বেগও প্রকাশ করেছেন।

ওয়াট্রেট এই ছবিটি শেয়ার করে বলেছেন, কমবয়সী নারীদের জন্য এটা অনুপ্রেরণার এবং নিশ্চিতভাবেই বিশ্বের সব নারী পাইলটদের জন্যও অনুপ্রেরণামূলক।

গভীর রাতে দেখা যাবে সুপারমুন
                                  

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় মহাকাশ সংস্থা ন্যাশনাল অ্যারোনটিক্স অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (নাসা) বিজ্ঞানীরা বলছেন, আজ পূর্ণিমা রাতে আকাশে যে চাঁদ উঠবে সেই ‘সুপারমুন’কে দেখাবে স্বাভাবিকের চেয়ে ১৪ শতাংশ বড়। চাঁদটি পৃথিবীর আরও ২৫ হাজার কিলোমিটার কাছে চলে আসবে। এ ছাড়া আগামীকাল (২১ মার্চ) দিন-রাত থাকবে সমান।

নাসার বিজ্ঞানীদের বরাত দিয়ে সিএনএন, ওয়াশিংটন পোস্ট, ফক্স নিউজসহ আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলো বলছে, চলতি বছর এটাই সর্বশেষ সুপার মুন। এ সুপারমুনের অপার্থিব সৌন্দর্য বাংলাদেশে দেখা যাবে আজ ২০ মার্চ দিবাগত রাত ৩টা ৫৮ মিনিটে। আমেরিকায় দেখা যাবে ২০ মার্চ ৫টা ৫৮ মিনিটে।

ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক চ্যানেলের প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘অনুভূ’সময়ের কাছাকাছি সূর্য, পৃথিবী ও চাঁদ প্রায় একটি সরল রেখায় অবস্থান করবে। সে জন্য তখনই পূর্ণচন্দ্র হবে। এটি দৃশ্যমান চাঁদের চেয়ে বড় ও উজ্জ্বল দেখাবে। গবেষকরা চাঁদের এ অবস্থাকে বলেন অনুভূ পূর্ণচন্দ্র বা পেরিজি ফুলমুন। নাসার মতে পৃথিবীর সঙ্গে চাঁদের দূরত্ব অনুসারে ‘সুপারমুন’ কতটকু বড় দেখাবে সেটা নির্ভর করে। স্বাভাবিক সময়ে আমরা যে চাঁদ দেখি, সুপারমুনের সময় তার চেয়ে এ চাঁদ দেখতে হবে প্রায় ১৪ ভাগ বড়। উজ্জ্বল্য হবে ৩০ ভাগ বেশি। এ সময় চাঁদ পৃথিবী থেকে ২ লাখ ২১ হাজার ৭৩৪ মাইল (৩ লাখ ৬০ হাজার কিলোমিটারেরও কম) দূরত্বে অবস্থান করবে। পৃথিবী থেকে চাঁদের গড় দূরত্ব ৩ লাখ ৮৪ হাজার ৪০২ কিলোমিটার। বিশ্ববাসী আবারও আরেকটি সুপারমুন দেখতে পারবেন ২০৩০ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি।

প্রতি বছর ২১ মার্চ সূর্য উত্তর থেকে দক্ষিণ পর্যন্ত কল্পিত বিষূব রেখা অতিক্রম করে। ঠিক এ সময় সূর্য দক্ষিণ গোলার্ধের এলাকা থেকে উত্তর গোলার্ধে প্রবেশ করে। এ ঘটনাটি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন সময় ঘটে। কোথাও ১৯ মার্চ আবার কোথাও ২০ মার্চ এবং পৃথিবীর কোনো কোনো এলাকায় ২১ মার্চ ঘটে থাকে। এবার বাংলাদেশে এ ঘটনাটি ঘটবে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩টা ৫৮ মিনিটে।

পৃথিবী সূর্যের চারদিকে পরিক্রমণকালে পৃথিবীর মেরু রেখা ধ্রুবতারা মুখী হয়ে কক্ষপথের সঙ্গে সব সময় ৬৬.৫ ডিগ্রি কোণ করে হেলে থাকে। আবার নিরক্ষ রেখা বা বিষূব রেখার সমতল কক্ষপথের সঙ্গে ২৩.৫ ডিগ্রি কোণে হেলে থাকে। এ কারণে প্রতি বছর ২১ মার্চ ও ২৩ সেপ্টেম্বর পৃথিবীর সর্বত্র দিবা-রাত্রি সমান হয়ে থাকে। এ সময় পৃথিবীর দুই গোলার্ধেই দিনের বেলা ১২ ঘণ্টা করে আলো পায় এবং ১২ ঘণ্টা পায় না। অর্থাৎ দুই গোলার্ধেই দিন-রাত সমান হয়ে থাকে।

ছাত্রীদের প্রেমের সূত্র শিখিয়ে বরখাস্ত গণিতের শিক্ষক (ভিডিও)
                                  

ছাত্রীদের প্রেমের সূত্র শিখিয়ে বরখাস্ত হলেন ভারতের হরিয়ানার কারনাল এলাকার একটি সরকারি মহিলা কলেজের গণিতের প্রভাষক। তার এই প্রেমের সূত্রের ক্লাস গোপনে মোবাইল ফোনে ধারণ করেছিলেন এক শিক্ষার্থী। পরে ভিডিওটি কলেজের অধ্যক্ষকে দেখান শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনার পর অভিযুক্ত শিক্ষক চারণ সিং অধ্যক্ষের কাছে ক্ষমা চেয়ে চিঠি লিখেছেন।

সামাজিকে যোগাযাগমাধ্যমে ওই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর গণিতের শিক্ষক অধ্যাপক চারণ সিংকে বরখাস্ত করা হয়। ভিডিওতে দেখা যায়, অধ্যাপক সিং ব্ল্যাকবোর্ডে তিনটি সূত্র লিখছেন।

প্রথমটি হচ্ছে, ‘ঘনিষ্ঠতা - আকর্ষণ = বন্ধুত্ব।’

দ্বিতীয়টি হচ্ছে, ‘ঘনিষ্ঠতা + আকর্ষণ = রোমান্টিক প্রেম।’

শেষ সূত্রটি হচ্ছে, ‘আকর্ষণ - ঘনিষ্ঠতা = ভালো লাগা।’

অধ্যাপক সিং ভালোবাসার প্রত্যেকটি সূত্র যখন ব্যাখ্যা করছিলেন তখন শিক্ষার্থীরা হাসিতে ফেটে পড়েন। এমনকি তার ব্যাখ্যার পরিপ্রেক্ষিতে অনেকেই হ্যাঁ সূচক জবাব দেন।

সরকারি এই মহিলা কলেজে অধ্যাপক চারণ সিং ছয় মাসের বিশেষ ডেপুটেশনে ছিলেন।

 

কাশ্মীরে রসায়ন শিক্ষককে পুলিশি হেফাজতে হত্যা
                                  

ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে পুলিশি হেফাজতে এক শিক্ষককে হত্যা করার পর নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন কয়েকশ বিক্ষোভকারী। তাদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করেছে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা।-খবর আল জাজিরার।
নিহত ২৯ বছর বয়সী রিজওয়ান আসাদ পানডিট ছিলেন রসায়নের শিক্ষক। সন্ত্রাসী মামলার তদন্তের সময় তাকে আটক করা হয়েছিল। মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে পুলিশ জানায়, তাদের হেফাজতে ওই শিক্ষক নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে তদন্ত চলছে।
কিন্তু রিজওয়ানের পরিবারের অভিযোগ, তাকে ঠাণ্ডা মাথায় হত্যা করা হয়েছে।
তার ভাই মুসাব্বির আসাদ বলেন, রোববার রাতে আওয়ান্তিপোরা গ্রামের বাড়ি থেকে রিজওয়ানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে ছেড়ে দেয়া হবে বলে আমাদের জানানো হয়েছিল। আমার ভাই কোনো তৎপরতায় জড়িত ছিল না। তাকে ঠাণ্ডা মাথায় হত্যা করা হয়েছে।

গত ফেব্রুয়ারিতে এক আত্মঘাতী হামলায় ভারতীয় একটি আধাসামরিক বাহিনীর ৪৪ জওয়ান নিহত হওয়ার পর কাশ্মীরে উত্তেজনা চলছে। পাকিস্তানভিত্তিক জইশ-ই-মোহাম্মদ হামলার দায় স্বীকার করেছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, পুলওয়ামা হামলার ঘটনায় এই রসায়ন শিক্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তিনি বিস্ফোরক বানাতে পারেন বলে আমাদের কাছে তথ্য ছিল। এ ছাড়া সাম্প্রতিক হামলায় তার ভূমিকা ছিল সন্দেহজনক।
রিজওয়ানের নিহতের ঘটনায় বিচ্ছিন্নতাবাদীরা ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে হরতাল ডেকেছে। সর্বদলীয় হুররিয়াত পার্টির নেতা মিরওয়াইজ উমর ফারুক এক টুইট পোস্টে বলেন, কারা হেফাজতে এ নিমর্ম হত্যাকাণ্ড আমাদের কাশ্মীরিদের অসহায়ত্ব, ঝুঁকি এবং জীবনের অনিরাপত্তার বিষয়টিও ফুটে উঠেছে।
তিনি বলেন, এ ক্ষেত্রে নিরাপত্তা বাহিনীকে দায়মুক্তি দেয়ায় কাশ্মীরিদের অনিশ্চয়তা আরও বাড়ছে।

মানবাধিকার সংস্থাগুলো বলছে, ১৯৮৯ সালের সশস্ত্র বিদ্রোহের পর থেকে শতশত লোক কারা হেফাজতে নিহত হয়েছেন। যদিও নিহতদের সংখ্যা নিয়ে কোনো আনুষ্ঠানিক তথ্য নেই। কিন্তু এ ধরনের মৃত্যু নিয়ে কাউকে বিচারের আওতায় নিয়ে আসা হয়নি।
মানবাধিকারকর্মী খুররাম পারভেজ বলেন, সম্প্রতি বছরগুলোতে কারা হেফাজতের মৃত্যুর ঘটনা কমে গিয়েছিল। গত তিন দশকে ৭০ হাজার মানুষকে হত্যার তালিকায় রিজওয়ানের নাম নতুন যোগ হয়েছে। এ ছাড়া আট হাজার গুম ও অজস্র লোক নির্যাতন এবং যৌন সহিংসতার শিকার হয়েছেন।

১০ ঘণ্টা পর যান চলাচল স্বাভাবিক
                                  

রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় সু-প্রভাত পরিবহনের একটি বাসের চাপায় বিইউপি’র ছাত্র আবরার আহাম্মেদ চৌধুরীর নিহতের ঘটনায় সড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন আজকের (মঙ্গলবার) মতো স্থগিত করে হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটের দিকে পুলিশ, ওই এলাকার কাউন্সিলর ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অনুরোধে আন্দোলন স্থগিত করেন শিক্ষার্থীরা। ফলে প্রায় ১০ ঘণ্টা পর প্রগতি সরণিতে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

এ বিষয়ে রবরব পরিবহনের বাসচালক রইসুল ইসলাম জানান, শিক্ষার্থীদের অবরোধের কারণে সকাল সাড়ে ৮টার পর এই রুটে ঢুকতেই পারিনি। বাস চলাচল বন্ধ ছিল। এখন অবরোধ তুলে নেয়ার পর বাড্ডার সড়কে ঢুকতে পারলাম। আধা ঘণ্টা  হলো বাস চলছে।

রাইদা পরিবহনের বাসচালক হাশেম আলী বলেন, সকালে কুড়িল পর্যন্ত এসে ফিরে গেছি। প্রায় ১০ ঘণ্টা পর যান চলাচল শুরু হলো। কাল কী হবে জানি না। শুনতেছি কাল না কি আবারো বসবে।

এর আগে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে আবরার আহাম্মেদ নিহত হওয়ার ঘটনার পর থেকেই সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করেন তার সহপাঠীসহ বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করায় প্রগতি সরণিতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা আট দফা দাবি জানিয়েছে। দাবিগুলো হচ্ছে-

১. পরিবহন সেক্টরকে রাজনৈতিক প্রভাবমুক্ত করতে হবে এবং প্রতি মাসে বাসচালকের লাইসেন্সসহ সব প্রয়োজনীয় কাগজপত্র চেক করতে হবে।

২. আটক চালক ও সম্পৃক্ত সবাইকে দ্রুত সময়ের মধ্যে সর্বোচ্চ শাস্তির আওতায় আনতে হবে।

৩. আজ (১৯ মার্চ) থেকে ফিটনেসবিহীন বাস ও লাইসেন্সবিহীন চালককে দ্রুত সময়ে অপসারণ করতে হবে।

৪. ঝুঁকিপূর্ণ ও প্রয়োজনীয় সব স্থানে আন্ডারপাস, স্পিড ব্রেকার এবং ফুট ওভারব্রিজ নির্মাণ করতে হবে।

৫. চলমান আইনের পরিবর্তন করে সড়ক হত্যার সাথে জড়িত সবাইকে সর্বোচ্চ শাস্তির আওতায় আনতে হবে।
৬. দায়িত্ব অবহেলাকারী প্রশাসন ও ট্রাফিক পুলিশকে স্থায়ী অপসারণ করে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

৭. প্রতিযোগিতামূলক গাড়ি চলাচল বন্ধ করে নির্দিষ্ট স্থানে বাসস্টপ এবং যাত্রী ছাউনি করার জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

৮. ছাত্রদের হাফ পাস (অর্ধেক ভাড়া) অথবা আলাদা বাস সার্ভিস চালু করতে হবে।

ভাগ্যের করুণ পরিহাসে বলিউড অভিনেতা এখন দারোয়ান
                                  

ভাগ্য মানুষকে কখন কোথায় নিয়ে দাঁড় করায় কে জানে! একসময়ের পর্দা কাঁপানো সিনেমার নায়িকা ছিলেন বনশ্রী। ইলিয়াস কাঞ্চনের বিপরীতে ‘সোহরাব রুস্তম’ সিনেমা দিয়ে তিনি জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন। সেই নায়িকাকে হঠাৎ একদিন আবিষ্কার করা হলো শাহবাগে ফুল বিক্রেতা হিসেবে।

যার ছিল বাড়ি, গাড়ি আর রঙিন বিলাসী জীবন, সেই অভিনেত্রী রাস্তায় হেঁটে হেঁটে ফুল বিক্রি করে দু’ মুঠো ভাতের জোগাড় করছেন। করুণ সেই ঘটনা নাড়া দিয়েছিল বাংলা সিনেমার দর্শকদের, সিনেমাপাড়ার মানুষদের।

এমন নজির শুধু বাংলাদেশেই নয়, বিশ্বের আরও বেশকিছু দেশেই পাওয়া গেছে। সম্প্রতি খোঁজ মিললো ভারতের এক অভিনেতার, যিনি বনশ্রীর মতোই নির্মম ভাগ্যের শিকার।

পেটের ভাত জোগাতে একটি অ্যাপার্টমেন্টে টানা ১২ ঘণ্টার নিরাপত্তারক্ষীর কাজ করেন। সেই অভিনেতার নাম সাভি সিধু। একসময় ‘গুলাল’, ‘পাতিয়ালা হাউস’, ‘বেয়াকুফিয়া’সহ একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। আজ ভাগ্যের নিদারুণ পরিহাসে সিনেমা দেখা তো দূরের কথা, পেটের ভাত জোগাতে আজ তিনি পরের বাড়ির দারোয়ান।

এই খবর প্রকাশের পর ভারতীয় গণমাধ্যমে তাকে নিয়ে সাড়া পড়ে গেছে। সংবাদে উঠে এসেছে সাভি সিধুর অভিনয় জীবনের শুরুটা হয়েছিল চণ্ডীগড় থেকে। লখনৌতে স্কুলের পড়াশোনা শেষ করে চণ্ডীগড়ে গ্র্যাজুয়েশন করতে করতে মডেলিংয়ের অফার আসে সিধুর কাছে।

পরে ফের আইন নিয়ে পড়াশোনা করতে আবারও লখনৌতে ফিরে যান তিনি। সাভি জানিয়েছিলেন অভিনয়ের ইচ্ছা তার ছোট থেকেই ছিল। তার ভাই এয়ার ইন্ডিয়াতে চাকরি পেতেই সাভি সিধুর মুম্বাইতে আসা অনেকটাই সহজ হয়ে যায়।

মুম্বাই এসে মডেল ও অভিনেতা হতে স্ট্রাগল করা শুরু করেন সাভি। প্রথমে পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের ‘পাঁচ’ ছবিতে অভিনয় করেন। যদিও সেই ছবিটি মুক্তি পায়নি। পরে ফের পরিচালক তাকে ‘ব্ল্যাক ফ্রাইডে’ ছবিতে কাজ দেন।

সেই ছবিতে কমিশনার শর্মার চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকের মন জয় করেন সাভি। পরে ‘গুলাল’ ছবিতেও কাজ করেন তিনি। পরবর্তীকালে ‘যশ রাজ ফিল্মস’র ছবিতে, সুভাষ ঘাইয়ের ছবিতে এমনকি নিখিল আডবাণীর ‘পাতিয়ালা হাউস’ ছবিতেও কাজ করেন সাভি সিধু।

ক্রমেই তিনি ব্যস্ত হয়ে উঠেন সিনেমার অভিনয়ে। পরিচিত, অর্থ; সবই আসতে থাকে। তবে হঠাৎ করেই কী এমন হলো যা পরিস্থিতি এত পাল্টে দিলো?

ভারতীয় গণমাধ্যমে নিজেই সেই কথা জানালেন সাভি সিধু। তার ভাষ্য, তিনি যে বলিউডে কাজ পাননি তেমনটা নয়। ভালো কাজ করছিলেন এবং অনেক প্রস্তাবও পাচ্ছিলেন সিনেমার। কিন্তু হঠাৎ দূরারোগ্য অসুখের শিকার হন তিনি। বাধ্য হয়ে তাকে কাজ ছাড়তে হয়।

কাজ ছাড়ার পর সাভির জীবনে অর্থনৈতিক সঙ্কট দেখা দেয়। তবে পরিস্থিতি আরও জঘন্য হয়ে আসে তার স্ত্রীকে হারানোর পর। পরবর্তীকালে মা ও বাবা দুজনকেই হারান সাভি।

ধীরে ধীরে আরও একা হয়ে যান এই প্রতিভাবান অভিনেতা। একটা সময় তাকে জীবনের তাগিদে স্বপ্নের শোবিজের বাইরে গিয়ে নতুন করে ভাবতে হয়। তাকে নামতে হয় কাজের সন্ধানে। অনেক খোঁজাখুঁজির পর একটি অ্যাপার্টমেন্টে নিরাপত্তারক্ষীর কাজ পান। বর্তমানে সেখানেই রোজ ১২ ঘণ্টা করে ডিউটি করেন সিধু।

হাজার কোটি টাকার বাজার বলিউড। সেখানে একজন প্রতিভাবান অভিনেতার জীবনের এমন করুণ পরিণতি সত্যি বিস্মিত। তবে অনেকেই মনে করছেন, সিধুর আজকের পরিস্থিতির খবর কানে পৌঁছালে হয়তো অনেকেই এগিয়ে আসবেন তার পাশে। দেখা যাক, সেই ভাবনার পালে সিধুর জন্য কতোটা সুবাতাস দোলা দেয়।

সালামে শুরু জেসিন্ডার বক্তব্য, সংসদেই নামাজ
                                  

ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে নৃশংসতার পর নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডার্নের দরদি চেহারা বিশ্ব দেখেছে। হতাহতের ঘটনায় শোকার্ত মুসলিমদের তিনি বুকে টেনে নিয়েছেন। অভয় দিয়ে বলেছেন, ‘আমরা তোমাদের শোকের সাথী হয়তো হতে পারব না। কিন্তু, কথা দিচ্ছি, একসঙ্গে আমরা অনেকটা পথ হাঁটব।’
শুরু থেকেই পোশাকেও জেসিন্ডা থেকেছেন নির্মোহ। নিজেদের সংস্কৃতির বাইরে গিয়ে মুসলিম কমিউনিটিতে হাজির হয়েছেন মাথা ঢেকে।
মঙ্গলবার জেসিন্ডার দরদি মানবতার আরেক চেহারাও দেখল বিশ্ব। গত ১৫ মার্চের নৃশংসতার স্মরণে সংসদের বিশেষ অধিবেশনে জাসিন্ডা তার বক্তব্য শুরুই করেন আরবিতে, ‘আসসালামু আলাইকুম (অর্থ: আপনার উপর শান্তি, আল্লাহর রহমত ও বরকত বর্ষিত হোক)’ বলে।

শুধু তাই নয়, এদিন নিউজিল্যান্ডে বসবাসকারী মুসলিম ছাড়াও অন্য বিশ্বাসের অনুসারিদের সংসদে আমন্ত্রণ জানানো হয়। বিভিন্ন ধর্মের প্রতিনিধিরা নিজ ধর্মের বেশে সংসদে প্রবেশ করেন।
পরে প্রথমে মুসলিমদের জন্য সংসদে নামাযের ব্যবস্থা করে দেন প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডার্ন। এরপর বাকি ধর্মের অনুসারিরাও প্রার্থনা করেন।
আশ্চর্যের বিষয় বক্তব্যের সময় তিনি একটিবারের জন্যও দুটি মসজিদে হামলাকারী বন্দুকধারীর নাম উচ্চারণ করেননি। পষ্ট করেই বলেছেন, ‘সন্ত্রাসীর কোনো নাম নেই, ধর্ম নেই। সে সন্ত্রাসীই। নিউজিল্যান্ডের যে আইনি শক্তি আছে, তার সর্বোচ্চটিরই মুখোমুখি তাকে (হামলাকারী ব্রেনটন টারান্ট) হতে হবে।’ 
প্রধানমন্ত্রী কিউইদের কাছে ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসিজদে হামলায় নিহত ৫০ ও ৪৮ জন আহতের ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করেন। একইসঙ্গে হতাহতদের স্বজনদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনাও করেন।
হামলাকারী ২৮ বছর বয়সী অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত ব্রেনটন টারান্টকে উদ্দেশ্য করে কিউই প্রধানমন্ত্রী সংসদকে বলেন, ‘তিনি (টারান্ট) সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে অনেক কিছু করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু, তিনি কুখ্যাত। এজন্য আপনারা কখনই আমার মুখে তার নাম শুনবেন না।’
তিনি বলেন, ‘আপনারা জানতে চাইতে পারেন, এখানে আমি কেন একবারও তার নাম (হামলাকারী) নিলাম না? তিনি একজন সন্ত্রাসী, অপরাধী এবং উগ্রপন্থী। কিন্তু, আমি যখন তার প্রসঙ্গেই বলছি, সন্ত্রাসীর কোনো নাম হয় না।’
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি আপনাদের অনুরোধ করব, যারা চলে গেছেন আমরা বরং তাদের নাম নেই ওই খুনির নাম নেয়ার চেয়ে। তাকে নিয়ে যখন আমি কথা বলব, তিনি নামবিহীন থাকবেন।’
এ সময় জেসিন্ডা ওই হামলার ভিডিও শেয়ার করা বন্ধ করতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের প্ল্যাটফর্মগুলোকে আরও কাজ করার আহ্বান জানান।
সংসদ সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘নিউজিল্যান্ডের আইন অনুযায়ী হামলাকারী পূর্ণ শাস্তির মুখোমুখি হবেন।’
৩৮ বছর বয়সী প্রধানমন্ত্রী বিশ্বব্যাপী পরিচিত শোকের কালো পোশাক পরে সংসদে আসেন। তিনি বক্তব্য শেষ করেন, ‘ওয়া আলাইকুমুস সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু (অর্থ: আপনার উপরও শান্তি, আল্লাহর রহমত ও বরকত বর্ষিত হোক)’ বলে।
এরপর প্রধানমন্ত্রী উঠে গিয়ে সংসদে আসা মুসলিমদের সঙ্গে গত ১৫ মার্চ মসজিদে হতাহতের ঘটনায় সমবেদনা প্রকাশ করেন। মুসলিম নারীদের বুকে টেনে নেন।
স্পিকার ট্রেভর মালার্ড বিভিন্ন ধর্মের বিশ্বাসীদের এই বিশেষ অধিবেশনে আমন্ত্রণ জানান। তারা নিজ নিজ ধর্মীয় পোশাকে সংসদে এসে পরে প্রার্থনাও করেন। কিন্তু, সর্বপ্রথম মুসলিমদের নামায আদায় করতে দেয়া হয়। পরে অন্য ধর্মের অনুসারিরা তাদের প্রার্থনা করেন।
উল্লেখ্য, গত ১৫ মার্চ জুমার নামাযের সময় ক্রাইস্টচার্চের আল-নূর ও লিনউড মসজিদে বন্দুকধারী নির্বিচারে গুলি চালায়। এতে পাঁচ বাংলাদেশিসহ ৫০ জন নিহত ও ৪৮ জন আহন হন।
হামলাকারী অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত ব্রেনটন টারান্ট আধা-স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র দিয়ে গুলি চালান এবং হামলার ঘটনাটি ফেসবুকে লাইভ করে। পরে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এবার মহাসড়কে যুদ্ধবিমান অবতরণের মহড়া চালাল পাকিস্তান
                                  

পাকিস্তান বিমান বাহিনী বা পিএএফের যুদ্ধবিমানগুলো মহাসড়কে অবতরণ এবং উড্ডয়নের মহড়া চালিয়েছে। দেশটির কয়েকটি স্থানের মহাসড়কে এ মহড়া চালানো হয়েছে। অবশ্য, পাক-ভারত উত্তেজনা যখন তুঙ্গে তখন এ মহড়া চালানো হলো। খবর পার্সটুডে
পাকিস্তান বিমান বাহিনীর পক্ষ থেকে একে বিমানক্ষেত্রের বদলে বিকল্প স্থানে অবতরণ এবং উড্ডয়ন হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে। এ ছাড়া অবতরণের পর যুদ্ধবিমানগুলোতে জ্বালানি ভরা হয়েছে এবং আকাশ যুদ্ধে ব্যবহৃত অস্ত্র পুনরায় স্থাপন করা হয়েছে।
উচ্চমাত্রার বিমান তৎপরতা চালানোর ক্ষেত্রে পিএএফের সক্ষমতা যাচাইয়ের জন্য এ অনুশীলন করার কথা বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়। পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় যোগাযোগমন্ত্রী মুরাদ সাঈদসহ সামরিক এবং বেসামরিক অনেক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা মহড়া প্রত্যক্ষ করেছেন।
এদিকে, পিএএফের সাবেক এয়ার কমোডোর জামাল হোসেইন দেশটির একটি সংবাদপত্রের সঙ্গে আলাপকালে জানান, পাক বিমান বাহিনী মাঝে মাঝেই এ ধরণের অনুশীলন চালিয়ে থাকে।
বিকল্প অবতরণ হিসেবে অভিহিত করা হয় উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, সামরিক ঘাঁটির বিমানক্ষেত্র ব্যবহার করা সম্ভব না হলে তার প্রস্তুতি হিসেবে এমন মহড়া চালানো হয়। 
তিনি আরো জানান, ১৯৮০’এর দশকে পশ্চিমা বিমান বাহিনীতে বিকল্প অবতরণ এবং উড্ডয়নের ধারণার জন্ম হয়। প্রয়োজনের সময়ে যে সব স্থানকে বিকল্প বিমানক্ষেত্র হিসেবে ব্যবহার করা যাবে তা চিহ্নিত করতে শুরু করে তারা।  সোজা এবং লম্বা সড়ককে কেন্দ্র করে এ ধারণার সৃষ্টি হয় বলে জানান তিনি।
তিনি আরো জানান, গোটা দুনিয়াতেই বিকল্প ক্ষেত্রে অবতরণ এবং উড্ডয়নের অনুশীলন চালানো হয়। এটি এখন গৎ বাঁধা বিষয়ে পরিণত হয়েছে। সুইডেনে এ বিষয়ের ওপর জোর দেয়া হয় বলেও জানান তিনি।
তিনি বলেন, বিকল্প উড্ডয়নের জন্য কমপক্ষে দুই থেকে তিন কিলোমিটার দীর্ঘ সোজা সড়ককে বেছে নেয়া হয়। বেসামরিক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে এ ধরণের সড়কের পাশে জ্বালানি ট্যাংক এবং অস্ত্র গুদাম স্থাপন করা হয়। ব্যস যুদ্ধের জন্য প্রয়োজনীয় বিকল্প বিমানক্ষেত্রে এ ভাবেই তৈরি হয়ে যায় বলে জানান তিনি।

এ ছাড়া, শান্তির সময়ে জরুরি অবতরণের জন্য এ ধরনের স্থানকে ব্যবহার করা হয় বলেও জানান তিনি। 
তিনি বলেন, এ জন্যেই প্রতি দুই থেকে তিন মাস পরপর পাক বিমান বাহিনী বিকল্প অবতরণ এবং উড্ডয়ন সংক্রান্ত মহড়া চালায়। অবশ্য, গত ছয় মাসে এ ধরণের মহড়ার কোনো খবর সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়নি এবং সে সম্পর্কে কিছু বলেননি পাক বিমান বাহিনীর এ সাবেক কর্মকর্তা।


   Page 1 of 231
     আন্তর্জাতিক
‘নিউজিল্যান্ডে মুসলমানরা নিরাপদ, সুরক্ষিত’
.............................................................................................
গভীর রাতে ব্রিটেনের ৫ মসজিদে হামলা
.............................................................................................
বার্লিনে স্কার্ফ পরিহিত গর্ভবতী নারীর ওপর হামলা
.............................................................................................
নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলায় নিহত সকলকে সনাক্ত
.............................................................................................
এবার সহকর্মীর হাতে খুন তিন ভারতীয় সেনা
.............................................................................................
স্বয়ংক্রিয় আগ্নেয়াস্ত্র নিষিদ্ধ করছে নিউজিল্যান্ড
.............................................................................................
বর্ণবাদী মতাদর্শের বিরুদ্ধে বৈশ্বিক লড়াইয়ের ডাক
.............................................................................................
ইরানে শতাধিক যাত্রীবাহী বিমানে আগুন
.............................................................................................
বিমানের সহ-পাইলট মা-মেয়ে
.............................................................................................
গভীর রাতে দেখা যাবে সুপারমুন
.............................................................................................
ছাত্রীদের প্রেমের সূত্র শিখিয়ে বরখাস্ত গণিতের শিক্ষক (ভিডিও)
.............................................................................................
কাশ্মীরে রসায়ন শিক্ষককে পুলিশি হেফাজতে হত্যা
.............................................................................................
১০ ঘণ্টা পর যান চলাচল স্বাভাবিক
.............................................................................................
ভাগ্যের করুণ পরিহাসে বলিউড অভিনেতা এখন দারোয়ান
.............................................................................................
সালামে শুরু জেসিন্ডার বক্তব্য, সংসদেই নামাজ
.............................................................................................
এবার মহাসড়কে যুদ্ধবিমান অবতরণের মহড়া চালাল পাকিস্তান
.............................................................................................
উপজেলা নির্বাচন : রংপুরে আ.লীগ ৫, জাতীয় পার্টি ১
.............................................................................................
মুসলিম বিরোধিতায় তুরস্কে গেলে কফিনে ফিরতে হবে: নিউজিল্যান্ডকে এরদোগান
.............................................................................................
নেদারল্যান্ডসের সন্দেহভাজন হামলাকারী গ্রেফতার
.............................................................................................
তিমির পেটে ৪০ কেজি প্লাস্টিক
.............................................................................................
ভিন্ন মতাবলম্বীদের দমনের অনুমোদন সৌদি যুবরাজের
.............................................................................................
নেদারল্যান্ডসে হামলায় নিহত ১, জরুরি বৈঠকে সরকার
.............................................................................................
কঙ্গোয় ট্রেন দুর্ঘটনায় শিশুসহ নিহত ২৪
.............................................................................................
ক্রাইস্টচার্চে স্বামীর সামনেই স্ত্রীকে গুলি করে হামলাকারী
.............................................................................................
আদালতে কোনো আইনজীবী রাখবেন না শ্বেত জঙ্গি টেরেন্ট
.............................................................................................
লাশের গল্প নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে গাড়িগুলো…
.............................................................................................
হামলার ৯ মিনিট আগেই নাশকতার ইঙ্গিত পেয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
নরেন্দ্র মোদি ‘চৌকিদার’
.............................................................................................
কী বলছে জঙ্গি ট্যারেন্টের পরিবার
.............................................................................................
ওআইসির জরুরি বৈঠক ডেকেছেন এরদোগান
.............................................................................................
এবার অস্ট্রেলিয়ায় মসজিদে গাড়ি হামলা
.............................................................................................
এবার বোমা আতঙ্ক, নিউজিল্যান্ডে বিমানবন্দর বন্ধ ঘোষণা
.............................................................................................
মসজিদে হামলাকারী ‘একা’ ছিলেন বলে দাবি পুলিশের
.............................................................................................
ক্রাইস্টচার্চ হামলা: প্রতিরোধের চেষ্টা করেছিলেন যারা
.............................................................................................
হামলাকারীকে রুখে দেয়ার চেষ্টা করেছিলেন ৭১ বছরের এই বৃদ্ধ
.............................................................................................
হিজাব মাথায় নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
নিউজিল্যান্ডে এক বছর ধরে বন্দুক চালানোর প্রশিক্ষণ নেন ব্রেন্টন
.............................................................................................
শোকের শহর ক্রাইস্টচার্চে মুসলিমদের কান্না
.............................................................................................
‘তোমাদের নামাজের সময় আমি পাহারা দেব’
.............................................................................................
ইসলামকে বর্বর ধর্ম বলায় অস্ট্রেলিয়ায় ব্রিটিশ ভাষ্যকার নিষিদ্ধ
.............................................................................................
মুসলমানদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য, সিনেটরের মাথায় ডিম ভাঙল কিশোর (ভিডিও)
.............................................................................................
হামলার ভিডিও থামাতে হিমশিম ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটার
.............................................................................................
নিরাপত্তা হুমকিতে নিউজিল্যান্ডের একটি হাসপাতাল ঘিরে রেখেছে পুলিশ
.............................................................................................
আদালতে হাসছিলেন হামলাকারী
.............................................................................................
ক্রাইস্টচার্চের খুনির তাণ্ডব থেকে বাদ যায়নি দুই বছরের শিশুও
.............................................................................................
মসজিদে হামলাকারীর ৫টি অস্ত্রই ছিল লাইসেন্সকৃত
.............................................................................................
এবার লন্ডনে মুসল্লিদের ওপর হাতুড়ি হামলা
.............................................................................................
আসিফ নজরুল একজন রাজাকার: শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক
.............................................................................................
জঙ্গি ব্রেন্টনের ইশতেহারে যা আছে
.............................................................................................
নিউজিল্যান্ডের সব মসজিদ একদিন বন্ধ রাখার নির্দেশ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]