| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   আন্তর্জাতিক -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
যুক্তরাষ্ট্র ‘আগুন নিয়ে খেলছে’ : ইরানের হুঁশিয়ারী

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাভেদ জারিফ গত সোমবার হুঁশিয়ার করে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ‘আগুন নিয়ে খেলছে।’ এর আগে একইধরণের মন্তব্য করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। খবর এএফপি’র।


জারিফ এনবিসি নিউজ’কে বলেন, ‘আমি মনেকরি যুক্তরাষ্ট্র আগুন নিয়ে খেলছে।’ ইরানের পরমাণু কর্মসূচির লাগাম টেনে ধরার লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্র গত বছর তেহরানের সাথে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশগুলোর করা আন্তর্জাতিক চুক্তি থেকে বেরিয়ে যায় এবং তারা একের পর এক ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। আমেরিকার একটি ড্রোন ইরান গুলি করে ভূপাতিত করার পর এ দু’দেশের মধ্যে উত্তেজনা এমন একপর্যায়ে পৌঁছায় যে যুক্তরাষ্ট্র তেহরানের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত হামলার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু একেবারে শেষ মুহূর্তে এসে যুক্তরাষ্ট্র ইরানের বিরুদ্ধে হামলা স্থগিত করে। এছাড়া ওয়াশিংটন উপসাগরীয় অঞ্চলে তেলবাহী ট্যাঙ্কারে একের পর এক হামলার ঘটনায় ইরানকে দায়ী করে আসছে। এদিকে গত সপ্তাহে ইরান জানায়, ২০১৫ সালে করা পারমাণবিক চুক্তির আওতায় তেহরানকে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের যে পরিমাণ সীমা বেঁধে দেয়া হয়েছিল তারা তা অতিক্রম করেছে।
জারিফ এ চ্যানেলকে আরো বলেন, ‘কয়েক ঘণ্টার মধ্যে তারা এসব মজুদ করতে পারবে।’
তিনি আরো বলেন, ‘পারমাণবিক অস্ত্র বানানোর জন্য আমরা এটা করিনি। পরমাণু অস্ত্র তৈরী করতে চাইলে আমরা অনেক আগেই এটা অর্জন করতে পারতাম।’ জাতিসংঘ সফরকালে তার চলাফেরার ওপর যুক্তরাষ্ট্র বিনা প্রয়োজনে হয়রানিমূলক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার পর জারিফ এসব মন্তব্য করেন। জারিফের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা আরোপের হুমকি দেয়ার কয়েক সপ্তাহ পর মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেন, ওয়াশিংটন জাতিসংঘ সফরে জারিফকে একটি ভিসা দিলেও মিডটাউন ম্যানহাটনে ইরানের জাতিসংঘ মিশনের ছয় ব্লকের দিকে যেতে তাকে নিষেধ করা হয়েছে।


পম্পেও ওয়াশিংটন পোস্টকে বলেন, ‘মার্কিন কূটনীতিকরা তেহরানে ঘোরাফেরা করতে পারে না। সুতরাং কোন অজুহাতে ইরানের কূটনীতিকরা নিউইয়র্ক সিটিতে অবাধে ঘোরাফেরা করুক আমরা তা দেখতে চাই না।’


উল্লেখ্য, ইউএন ইকোনমিক অ্যান্ড সোস্যাল কাউন্সিলে বুধবার জারিফের বক্তব্য দেয়ার কথা রয়েছে। টেকসই উন্নয়নে এটি হচ্ছে একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক।

যুক্তরাষ্ট্র ‘আগুন নিয়ে খেলছে’ : ইরানের হুঁশিয়ারী
                                  

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাভেদ জারিফ গত সোমবার হুঁশিয়ার করে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ‘আগুন নিয়ে খেলছে।’ এর আগে একইধরণের মন্তব্য করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। খবর এএফপি’র।


জারিফ এনবিসি নিউজ’কে বলেন, ‘আমি মনেকরি যুক্তরাষ্ট্র আগুন নিয়ে খেলছে।’ ইরানের পরমাণু কর্মসূচির লাগাম টেনে ধরার লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্র গত বছর তেহরানের সাথে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশগুলোর করা আন্তর্জাতিক চুক্তি থেকে বেরিয়ে যায় এবং তারা একের পর এক ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। আমেরিকার একটি ড্রোন ইরান গুলি করে ভূপাতিত করার পর এ দু’দেশের মধ্যে উত্তেজনা এমন একপর্যায়ে পৌঁছায় যে যুক্তরাষ্ট্র তেহরানের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত হামলার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু একেবারে শেষ মুহূর্তে এসে যুক্তরাষ্ট্র ইরানের বিরুদ্ধে হামলা স্থগিত করে। এছাড়া ওয়াশিংটন উপসাগরীয় অঞ্চলে তেলবাহী ট্যাঙ্কারে একের পর এক হামলার ঘটনায় ইরানকে দায়ী করে আসছে। এদিকে গত সপ্তাহে ইরান জানায়, ২০১৫ সালে করা পারমাণবিক চুক্তির আওতায় তেহরানকে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের যে পরিমাণ সীমা বেঁধে দেয়া হয়েছিল তারা তা অতিক্রম করেছে।
জারিফ এ চ্যানেলকে আরো বলেন, ‘কয়েক ঘণ্টার মধ্যে তারা এসব মজুদ করতে পারবে।’
তিনি আরো বলেন, ‘পারমাণবিক অস্ত্র বানানোর জন্য আমরা এটা করিনি। পরমাণু অস্ত্র তৈরী করতে চাইলে আমরা অনেক আগেই এটা অর্জন করতে পারতাম।’ জাতিসংঘ সফরকালে তার চলাফেরার ওপর যুক্তরাষ্ট্র বিনা প্রয়োজনে হয়রানিমূলক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার পর জারিফ এসব মন্তব্য করেন। জারিফের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা আরোপের হুমকি দেয়ার কয়েক সপ্তাহ পর মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেন, ওয়াশিংটন জাতিসংঘ সফরে জারিফকে একটি ভিসা দিলেও মিডটাউন ম্যানহাটনে ইরানের জাতিসংঘ মিশনের ছয় ব্লকের দিকে যেতে তাকে নিষেধ করা হয়েছে।


পম্পেও ওয়াশিংটন পোস্টকে বলেন, ‘মার্কিন কূটনীতিকরা তেহরানে ঘোরাফেরা করতে পারে না। সুতরাং কোন অজুহাতে ইরানের কূটনীতিকরা নিউইয়র্ক সিটিতে অবাধে ঘোরাফেরা করুক আমরা তা দেখতে চাই না।’


উল্লেখ্য, ইউএন ইকোনমিক অ্যান্ড সোস্যাল কাউন্সিলে বুধবার জারিফের বক্তব্য দেয়ার কথা রয়েছে। টেকসই উন্নয়নে এটি হচ্ছে একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক।

ইন্দোনেশিয়ার বালিতে ভূমিকম্প, ছড়িয়ে পড়ে আতংক
                                  

 ইন্দোনেশিয়ার অবকাশযাপন কেন্দ্র বালি দ্বীপে গতকাল মঙ্গলবার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। এতে সেখানকার লোকজন আতংকগ্রস্ত হয়ে তাদের ঘরবাড়ি ছেড়ে দ্রুত বেরিয়ে আসে। ভূমিকম্পে অনেক ভবনের ক্ষতি হয়েছে। খবর এএফপি’র। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা জানায়, রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল ৫.৭। স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ১৮ মিনিটে আঘাত হানা এ ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল দ্বীপটির রাজধানী ডেনপাসারের ৮২.১ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে ভূপৃষ্ঠের ৯১ কিলোমিটার গভীরে। তবে এতে সুনামির কোন সতর্কতা জারি করা হয়নি। এ ভূমিকম্পের আঘাতে বালির বাসিন্দারা আতংকগ্রস্ত হয়ে পড়ে।

ডেনপাসারের বাসিন্দা কোমাং সুদিয়ানি এএফপি’কে বলেন, ‘ভূমিকম্প অনুভূত হওয়ায় আমি কাঁদছিলাম। এটি এতোই শক্তিশালী ছিল যে আমি দ্রুত ঘরের বাইরে চলে যাই এবং সেখানে গিয়ে আমি ইতোমধ্যে রাস্তায় নেমে আসা অনেক লোককে দেখতে পাই।’ ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ সংস্থার দেয়া বিভিন্ন ছবিতে এ দ্বীপের বিভিন্ন ভবনের ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার দৃশ্য দেখা যাচ্ছে। ভূমিকম্পে তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতের কোন খবর পাওয়া যায়নি।

ইতালিতে নব্য নাৎসিবাদী আস্তানা থেকে ক্ষেপণাস্ত্র উদ্ধার
                                  

ইতালিতে উগ্র ডানপন্থী তথা নব্য নাৎসিবাদীদের একটি আস্তানা থেকে আকাশ থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য একটি ক্ষেপণাস্ত্র করা হয়েছে। গত সোমবার পুলিশ জানিয়েছে, তাদের সন্ত্রাসবিরোধী ইউনিট দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় এলাকায় অবস্থিত ওই আস্তানায় অভিযান চালিয়ে এটি উদ্ধারে সমর্থ হয়েছে। এ ছাড়া আরও বেশকিছু অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস।

ধারণা করা হচ্ছে, উদ্ধারকৃত ক্ষেপণাস্ত্রটি ফ্রান্সের তৈরি মাতরা সুপার ৫৩০ এফ হতে পারে। কাতারের সেনাবাহিনী এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করে থাকে। ইতালির নব্য নাৎসিবাদীরা পূর্ব ইউক্রেনে রুশপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠীগুলোকে পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে আসছে। এমন অভিযোগের বিষয়ে তদন্তের অংশ হিসেবে এ অভিযানটি পরিচালনা করা হয়েছিল। তবে সেখানে রীতিমতো ক্ষেপণাস্ত্র দেখতে পেয়ে বিস্মিত হয়ে পড়েন কর্মকর্তারা। এ সময় ওই আস্তানা থেকে নব্য-নাৎসিবাদীদের নানা প্রচারণা সামগ্রী জব্দ করে পুলিশ।

এ ঘটনায় ইতোমধ্যেই তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে ফাবিও বেরনার্দি (৫১), সাবেক কাস্টমস কর্মকর্তা ও নব্য নাৎসিবাদী ফরচা নুয়াভা পার্টির কর্মী ফাবিও দেল বেরজিওলো (৫০) এবং সুইজারল্যান্ডের নাগরিক আলেসান্দ্রো মন্তি (৪২)। পুলিশ জানিয়েছে, উদ্ধারকৃত ক্ষেপণাস্ত্রটি সম্পূর্ণভাবে ব্যবহার উপযোগী অবস্থায় ছিল।

ইতালিতে নব্য নাৎসিবাদী আস্তানা থেকে ক্ষেপণাস্ত্র উদ্ধার
                                  

ইতালিতে উগ্র ডানপন্থী তথা নব্য নাৎসিবাদীদের একটি আস্তানা থেকে আকাশ থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য একটি ক্ষেপণাস্ত্র করা হয়েছে। গত সোমবার পুলিশ জানিয়েছে, তাদের সন্ত্রাসবিরোধী ইউনিট দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় এলাকায় অবস্থিত ওই আস্তানায় অভিযান চালিয়ে এটি উদ্ধারে সমর্থ হয়েছে। এ ছাড়া আরও বেশকিছু অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস।

ধারণা করা হচ্ছে, উদ্ধারকৃত ক্ষেপণাস্ত্রটি ফ্রান্সের তৈরি মাতরা সুপার ৫৩০ এফ হতে পারে। কাতারের সেনাবাহিনী এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করে থাকে। ইতালির নব্য নাৎসিবাদীরা পূর্ব ইউক্রেনে রুশপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠীগুলোকে পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে আসছে। এমন অভিযোগের বিষয়ে তদন্তের অংশ হিসেবে এ অভিযানটি পরিচালনা করা হয়েছিল। তবে সেখানে রীতিমতো ক্ষেপণাস্ত্র দেখতে পেয়ে বিস্মিত হয়ে পড়েন কর্মকর্তারা। এ সময় ওই আস্তানা থেকে নব্য-নাৎসিবাদীদের নানা প্রচারণা সামগ্রী জব্দ করে পুলিশ।

এ ঘটনায় ইতোমধ্যেই তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে ফাবিও বেরনার্দি (৫১), সাবেক কাস্টমস কর্মকর্তা ও নব্য নাৎসিবাদী ফরচা নুয়াভা পার্টির কর্মী ফাবিও দেল বেরজিওলো (৫০) এবং সুইজারল্যান্ডের নাগরিক আলেসান্দ্রো মন্তি (৪২)। পুলিশ জানিয়েছে, উদ্ধারকৃত ক্ষেপণাস্ত্রটি সম্পূর্ণভাবে ব্যবহার উপযোগী অবস্থায় ছিল।

‘২০২০ সালের এপ্রিলের মধ্যেই তুরস্কে এস-৪০০ মোতায়েন’
                                  

 ২০২০ সালের এপ্রিলের মধ্যেই তুরস্কে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েন সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান। গত সোমবার তুরস্কের ২০১৬ সালের ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থান উপলক্ষে দেওয়া এক ভাষণে এমন মন্তব্য করেন তিনি। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে তুর্কি সংবাদমাধ্যম ডেইলি সাবাহ। এরদোয়ান বলেন, ইতোমধ্যেই রাশিয়া থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা আসতে শুরু করেছে। গত চার দিন থেকেই এর বিভিন্ন অংশ আসছে। আল্লাহ তাআলার অনুগ্রহে ২০২০ সালের এপ্রিল নাগাদ এটি পুরোপুরি মোতায়েন করা হবে।


তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, এ পর্যন্ত আটটি বিমানে করে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার বিভিন্ন অংশ তুরস্কে আনা হয়েছে। বাদবাকি অংশগুলোও খুব শিগগিরই আঙ্কারায় এসে পৌঁছাবে। যারা আমাদের দেশে আঘাত হানতে চায় তাদের মোকাবিলায় এস-৪০০ হবে সবচেয়ে শক্তিশালী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা। রাশিয়ার সঙ্গে যৌথ বিনিয়োগে এটি তৈরি করা হচ্ছে।
২০১৯ সালের ১২ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধিতা উপেক্ষা করে রাশিয়ার কাছ থেকে অত্যাধুনিক আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০-এর প্রথম চালান গ্রহণ করে তুরস্ক। রাজধানী আঙ্কারার একটি বিমানঘাঁটিতে এ চালানটি পৌঁছায়। তবে একইসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান এবং রাশিয়ার এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র কেনায় আঙ্কারার ওপর ক্ষুব্ধ যুক্তরাষ্ট্র। তুরস্ক যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকেও ১০০টি এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান কেনার চুক্তি করেছে। এফ-৩৫ কর্মসূচিতেও ব্যাপক বিনিয়োগ করেছে তারা। বিমানের ৯৩৭টি পার্টস উৎপাদন করছে তুর্কি কোম্পানিগুলো। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, রুশ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা ন্যাটো প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ এবং এটি একটি নিরাপত্তা হুমকি। যুক্তরাষ্ট্র চায় রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের বদলে তুরস্ক মার্কিন প্যাট্রিয়ট বিমানবিধ্বংসী ব্যবস্থা কিনুক। তবে তুরস্ক বলে আসছে, এফ-৩৫ ও এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা আলাদা অবস্থানে থাকবে। আর বিকল্প ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সরবরাহ করতে যুক্তরাষ্ট্র ধীরগতি দেখিয়েছে। এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ক্রয় চুক্তি অব্যাহত থাকলে এফ-৩৫ কর্মসূচি থেকে তুরস্ককে বাদ দেওয়ার সতর্কতা দিয়ে রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র।

হুঁশিয়ার করা হয়েছে, অর্থনৈতিক অবরোধের মুখেও পড়তে হতে পারে দেশটিকে। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকের পর তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান বলেছিলেন, তিনি বিশ্বাস করেন যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে না। ২৯ সদস্যের সামরিক জোট ন্যাটো’র দ্বিতীয় বৃহত্তম সেনাবাহিনী তুরস্কের। যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ মিত্র তুরস্কের অবস্থান কৌশলগত কারণে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সিরিয়া, ইরাক ও ইরানের সঙ্গে সীমান্ত রয়েছে দেশটির। সিরিয়া যুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে আঙ্কারা। দেশটির কয়েকটি বিদ্রোহী গোষ্ঠীকে তারা সামরিক সহায়তা দিয়েছে। তবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও কয়েকটি ন্যাটোভুক্ত কয়েকটি দেশের সঙ্গে সম্প্রতি সম্পর্কের অবনতি হয়েছে তুরস্কের।

ভারতের জন্য আকাশসীমা খুলে দিল পাকিস্তান
                                  

 পাকিস্তান নিজেদের আকাশসীমা ব্যবহারে ভারতের উড়োজাহাজগুলোর ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার এক নোটিশে পাকিস্তান বেসামরিক বিমান কর্তৃপক্ষ দেশটির আকাশসীমার সব রুট ভারতের উড়োজাহাজগুলোর জন্য খুলে দেওয়ার কথা জানিয়েছে। বালাকোটের ঘটনার পর পাকিস্তান ভারতের উড়োজাহাজগুলোর জন্য নিজেদের বেশির ভাগ আকাশসীমা ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছিল। ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আধা সামরিক বাহিনীর ওপর আত্মঘাতী জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি। এতে ভারতের আধা সামরিক বাহিনীর ৪০ জনের বেশি সদস্য নিহত হন।

জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদকে এ হামলার জন্য দায়ী করা হয়। এর প্রতিশোধ হিসেবে ২৫ ফেব্রুয়ারি দুই দেশের নিয়ন্ত্রণরেখায় বালাকোটে জইশ-ই-মোহাম্মদের প্রশিক্ষণ শিবিরে বিমান হামলা চালায় ভারতের বিমানবাহিনী (আইএএফ)। এতে শত শত জঙ্গি নিহত হওয়ার দাবি করে ভারত। এরপর ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ভারতের উড়োজাহাজগুলোর জন্য ১১টি রুটের মধ্যে দুটি বাদে বাকিগুলো ব্যবহার নিষিদ্ধ করে পাকিস্তান। যে দুটি খোলা ছিল, সেগুলো শুধু দক্ষিণাঞ্চল দিয়ে যেতে পারত। গতকাল এনডিটিভি অনলাইনের খবরে জানানো হয়, সকালে সব ধরনের ভারতীয় ফ্লাইট চলাচলের জন্য নিজেদের আকাশসীমা খুলে দিয়েছে পাকিস্তান। এটা এয়ার ইন্ডিয়ার জন্য বেশ স্বস্তিদায়ক খবর বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ, পাকিস্তানের আকাশসীমা নিষিদ্ধ হওয়ায় বিকল্প আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করতে হচ্ছিল এয়ার ইন্ডিয়াকে।


ভারতীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গতকাল দুপুর ১২টা ৪১ মিনিটের দিকে পাকিস্তান এক নোটিশে ভারতের সব উড়োজাহাজকে তাদের আকাশসীমা পূর্ণ ব্যবহার করার অনুমতি দিয়েছে। ভারতের এয়ারলাইন অপারেটররা খুব শিগগির পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহার করে স্বাভাবিক রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করতে পারবে। এর আগে গত ৩১ মে ভারতের বিমানবাহিনী ঘোষণা দেয়, বালাকোট হামলার পর ভারতীয় উড়োজাহাজের ওপর থেকে সাময়িকভাবে জারি করা নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে পাকিস্তান। তবে এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার সুবিধা ভোগ করতে পারছিল না বেশির ভাগ বাণিজ্যিক এয়ারলাইনস। তারা পাকিস্তান কবে আকাশসীমা পূর্ণভাবে খুলে দেবে, সে অপেক্ষায় ছিল। বালাকোটে হামলার পর এয়ার ইন্ডিয়া ইউরোপ ও মার্কিন শহরগুলোতে ফ্লাইট পরিচালনার জন্য বিকল্প রুট তৈরি করে, কোনো কোনো ফ্লাইট বাতিলও করা হয়। পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহার করতে না পেরে ভারতের রাষ্ট্রীয় এই এয়ারলাইনস ২ জুলাই পর্যন্ত ৪৯১ কোটি রুপি লোকসান করে।

এ সময়ে বেসরকারি এয়ারলাইনস স্পেসজেট ৩০ কোটি ৭০ লাখ রুপি, ইনডিগো ২৫ কোটি ১০ লাখ রুপি এবং গোএয়ার ২ কোটি ১০ লাখ রুপি লোকসান করে। ভারতের সবচেয়ে লাভজনক এয়ারলাইনস ইনডিগো দিল্লি থেকে ইস্তাম্বুলে সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করতে ব্যর্থ হয়। মার্চ থেকে তাদের উড়োজাহাজগুলোকে আরব সাগরের ওপর দিয়ে দীর্ঘ যাত্রার রুট বেছে নিতে হয় এবং কাতারের দোহায় জ¦ালানি নেওয়ার জন্য থামতে হয়।

 

ইস্টার সানডের হামলার নেপথ্যে আন্তর্জাতিক মাদকচক্র: শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট
                                  

 শ্রীলঙ্কায় ইস্টার সানডের দিনে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার জন্য আন্তর্জাতিক মাদকচক্রকে দায়ী করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা। তিনি বলেছেন, দেশজুড়ে মাদকবিরোধী অভিযানকে নিরুৎসাহিত করতেই ওই হামলা চালানো হয়েছিল। গত সোমবার প্রেসিডেন্টের দফতর থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে এমন তথ্য জানান তিনি। শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহের মুখপাত্র অবশ্য প্রেসিডেন্টের বিবৃতি প্রত্যাখ্যান করেছেন। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে তুরস্কভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডেইলি সাবাহ। শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট বলেন, আমার সম্মানহানির উদ্দেশ্যেই মাদক স¤্রাটরা এ হামলা চালিয়েছে।

আমার মাদকবিরোধী অভিযানকে নিরুৎসাহিত করাও এর অন্যতম লক্ষ্য। তবে আমাকে ভয় দেখিয়ে নিবৃত্ত করা যাবে না। ২০১৯ সালের ২১ এপ্রিল শ্রীলঙ্কায় খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের ইস্টার সানডে উদযাপনকালে কয়েকটি গির্জা ও বিলাসবহুল হোটেলে ভয়াবহ ওই সিরিজ বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এতে নিহত হন অন্তত ২৫৮ জন। পরে হামলার দায় স্বীকার করে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস। তবে নিজেদের দাবির পক্ষে কোনও প্রমাণ দেখাতে পারেনি তারা। হামলার জন্য শ্রীলঙ্কার কর্তৃপক্ষ ন্যাশনাল তাওহীদ জামাত (এনটিজে) নামের স্থানীয় একটি সংগঠনকে দায়ী করে। সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করা হয় শতাধিক মানুষকে। খেলনা ড্রোন, খেলনা ওয়াকিটকি বা হাদিসের বই রাখার কারণেও আটকের ঘটনা ঘটেছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে হামলায় মুসলমানদের দায়ী করে দেশটিতে মুসলিমবিরোধী সহিংসতা মাথাছাড়া দিয়ে উঠে।

ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ চালানো হয় মুসলিমদের মালিকানাধীন বিভিন্ন স্থাপনা ও দোকানপাটে। শ্রীলঙ্কার মুসলমানদের সংগঠন অল সাইলন জমিয়াতুল উলামা (এসিজেইউ)-এর প্রেসিডেন্ট মুফতি মোহাম্মদ রিজভি বলেন, ‘দুর্ভাগ্যজনকভাবে মুষ্টিমেয় ব্যক্তি বিশেষের হয়রানি ও নিপীড়নমূলক কর্মকা-ের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হচ্ছে মুসলমান সম্প্রদায়।’

 

ভারতে মন্দির থেকে তিনজনের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার
                                  

ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে তিনজনের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। অনন্তপুরের এই হত্যাকা- ‘নরবলি’র উদ্দেশ্যে করা হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা গেছে। গত সোমবার অন্ধ্রপ্রদেশের অনন্তপুরের একটি শিবমন্দির চত্বর থেকে দুই নারীসহ তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সকালে মন্দিরে পূজা করতে গিয়ে স্থানীয়রা মরদেহগুলো দেখতে পান। শিবলিঙ্গের সামনেই পুরোহিতসহ তিনজনের মরদেহ পরে ছিলো। খবর পেয়ে স্থানীয় পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। তারা জানায়, তিনজনকে একই কায়দায় গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।


জানা গেছে, খুন হওয়াদের মধ্যে একজন মন্দিরের পুরোহিত। তার নাম শিবরামি রেড্ডি (৭৫), তার বোন হনুমাম্মা (৭০) ও সত্যলক্ষ্মী (৭১)।
তদন্তকারী পুলিশ পরিদর্শকের ধারণা, অন্ধবিশ্বাসের বলি হতে পারেন ওই তিনজন। কারণ, খুনের পর শিবলিঙ্গের গায়ে ওই তিনজনের রক্ত ছিটানো হয়েছে। অনন্তপুরের পুলিশ সুপার বি সত্যবাবু জানান, ওই তিনজনকে গলা কেটে খুনের পর সেই রক্ত ঢেলে শিবের পুজা করা হয়েছে বলে মনে হচ্ছে।

এই তিন খুনের রহস্য খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তিনজন একই পরিবারের সদস্য হওয়ায় সম্পত্তিগত কিংবা পারিবারিক শত্রুতার জেরেও তাদের খুন হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এসপি সত্য ইয়াসুবাবু বলেন, এই ঘটনায় ৪-৫ জন জড়িত থাকতে পারে। তারা সম্পদের জন্যও হামলা চালাতে পারে।

 

কানাডীয় নাগরিক আটকের কথা স্বীকার চীনের
                                  

মাদক সংশ্লিষ্ট মামলায় কানাডার এক নাগরিককে আটক করেছে চীনের পুলিশ। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফে এই খবর নিশ্চিত করা হয়েছে। এর আগে বিস্তারিত পরিচয় প্রকাশ ছাড়াই চীনের ইয়ানতাই শহরে এক নাগরিক আটক হওয়ার কথা জানায় কানাডা। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনার মধ্যে এই আটকের ঘটনা ঘটলো।
গত বছরের ডিসেম্বরে কানাডার ভ্যানকুভার শহর থেকে চীনা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা মেং ওয়াংজুকে আটক করা হলে দুই দেশের সম্পর্কে অবনতি শুরু হয়। যুক্তরাষ্ট্রের জারি করা এক গ্রেফতারি পরোয়ানার ভিত্তিতে তাকে আটকের কথা জানায় কানাডা। বেইজিং তাকে প্রত্যর্পণের দাবি করে। পরে রাষ্ট্রীয় গোপন তথ্য চুরির অভিযোগ এনে কানাডার দুই নাগরিককে আটক করে চীন।


গত শুক্রবার কানাডার সরকারের তরফে জানানো হয়, চীনের পূর্বাঞ্চলীয় শানডং প্রদেশের ইয়ানতাই শহর থেকে এক নাগরিককে আটক করেছে চীন। তবে ওই আটকের বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানায়নি দেশটি।


সোমবার চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জেং শুয়াং জানান, শানডং পুলিশ সম্প্রতি মাদক সংশ্লিষ্টতায় বিদেশি শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ততা খুঁজে পায়। এদের একজন কানাডার নাগরিক। মামলাটি এখনও তদন্ত হচ্ছে বলে জানিয়ে বিস্তারিত জানাতে অস্বীকার করেন তিনি। চীনা মুখপাত্র বলেন, জিয়াংশু প্রদেশের মাদকের মামলার মতো এটিও আরেকটি মামলা। গত সপ্তাহে চীনের ব্রিটিশ দূতাবাস জিয়াংশু প্রদেশ থেকে চার ব্রিটিশ নাগরিককে আটকের কথা জানায়।

 

ভারতের হিমাচলে ভবন ধসে ৬ সৈন্যসহ নিহত ৭
                                  

ভারতের হিমাচল প্রদেশ রাজ্যে একটি বহুতল ভবন ধসে দেশটির সেনাবাহিনীর ছয় সৈন্যসহ সাত জন নিহত হয়েছেন।
রোববার স্থানীয় সময় বিকালে শিমলা থেকে প্রায় ৪৫ কিলোমিটার দূরে সোলানে ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।
ভবনটির ধ্বংসস্তূপের নিচে সাত সৈন্যসহ আরও প্রায় ১২ জন আটকা পড়ে আছেন বলে জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।
ধ্বংসস্তূপ থেকে এ পর্যন্ত ১৭ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ১২ জন বেসামরিক ও ছয় সৈন্য রয়েছেন বলে সোমবার এক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন। উদ্ধারের পর তাদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


ভবনটির মালিকের স্ত্রী ও দুই সৈন্যকে ধ্বংসস্তূপ থেকে উদ্ধার করার পর তাদের মৃত্যু হয়। দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনীর দুইটি দল সারারাত ধরে উদ্ধার অভিযান চালিয়েছে বলে জানায় পুলিশ।
তিন তলা ওই ভবনটির নিচ তলায় একটি রেস্তোরাঁ ও উপরে ছোট একটি গেস্ট হাউস ছিল। সেনাবাহিনীর প্রায় ৩০ জন সদস্য ও তাদের পরিবার উত্তরাখান্ড যাওয়ার পথে ওই রেস্তোরাঁয় দুপুরের খাবার খেতে থেমেছিল বলে এক জেলা কর্মকর্তা পিটিআইকে জানান।
ওই সময় প্রবল বৃষ্টির মধ্যে পাহাড়ের ঢালুতে দাঁড়িয়ে থাকা ভবনটি ধসে পড়ে। বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে উদ্ধার অভিযান শুরু হওয়ার পরও কয়েক ঘণ্টা বৃষ্টিপাত অব্যাহত ছিল বলে জানা গেছে।


ঘটনার পর অবহেলার অভিযোগ এনে ভবন মালিকের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
ভবনটির ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকাপড়া লোকজনকে উদ্ধারে অভিযান অব্যাহত আছে বলে এক টুইটে জানিয়েছেন হিমাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী জয়রাম ঠাকুর।
রোববার রাতে ওই এলাকায় ভারি বৃষ্টিপাতের পর চন্ডিগড়-শিমলা জাতীয় মহাসড়কের বেশ কয়েকটি এলাকায় ভূমিধসের কারণে সড়কটিতে গাড়ির জট সৃষ্টি হয়েছে।

বন্যার কবলে নেপাল, ভারত, বাংলাদেশ, বহু লোকের মৃত্যু
                                  

বল বৃষ্টিপাতে মৌসুমী বন্যার কবলে পড়েছে ভারতীয় উপমহাদেশের তিন দেশ নেপাল, ভারত ও বাংলাদেশের একটি বড় অংশ।পানি বাড়ছে, বন্যা পরিস্থিতির অবনতি
নেপালে ভারী বৃষ্টিপাতে আকস্মিক বন্যা ও ভূমিধসে রোববার পর্যন্ত চার দিনে মৃতের সংখ্যা ৫৫ জনে দাঁড়িয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার।
রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কয়েকদিন ধরে টানা বৃষ্টিপাতে নেপালের বহু এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়েছে, ঘরবাড়ি ডুবে গেছে।


দেশটির বিভিন্ন এলাকায় বেশ কয়েকটি সেতু ও সড়ক ধসে গেছে। এ পরিস্থিতিতে প্রায় ১০ হাজার লোক নিজেদের ঘরবাড়ি ছেড়ে অন্যত্র চলে যেতে বাধ্য হয়েছে।
নেপালের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে ৫৫ জনের মৃত্যুর খবর জানিয়ে বলা হয়েছে, ৩০ জন এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।বাড়তে থাকা এই বন্যায় ১০ লাখের বেশি লোক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত ১০৩৮৫টি বাড়ি থেকে ১১০০ লোককে উদ্ধার করেছে নেপালের পুলিশ।রাজধানী কাঠমান্ডুতে বাড়ির অংশ ধসে পড়ে এক পরিবারের তিন জনের মৃত্যু হয়েছে।আগামী কয়েক দিন ভারী বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকবে বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে।
বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, চীন, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত ব্রহ্মপুত্র নদীর পানি তীর ছাপিয়ে উপচে পড়েছে।
এতে ভারতের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য আসামের ৩৩টি জেলার মধ্যে ২৮টি বন্যাকবলিত হয়েছে। এসব জেলার ৩১৩৮টি গ্রাম ডুবে গিয়ে ২৬ লাখ ৪৬ হাজার লোক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
রাজ্যটিতে বন্যা ও ভূমিধসে অন্তত ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকা।
টানা বৃষ্টিতে বাংলাদেশের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরেও মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। নৃশংস সামরিক অভিযানের মুখে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা ১১ লাখের বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থী কক্সবাজারের শিবিরগুলোতে আশ্রয় নিয়ে আছে।


চলতি মাসে ওই এলাকায় ৫৮ দশমিক পাঁচ সেন্টিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।
বিবিসির খবর অনুযায়ী, এপ্রিল থেকে এ পর্যন্ত ভূমিধসের ঘটনায় রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরে অন্তত ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত সপ্তাহেও ভূমিধসে দুটি শিশু মারা গেছে।
জুন থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিস্তৃত বর্ষা মৌসুমে দক্ষিণ এশিয়ার এ অঞ্চলগুলোতে ক্ষয়ক্ষতি নিয়মিত ঘটনা।


বিবিসি লিখেছে, গত বছর এ অঞ্চলে ঝড় ও ভূমিধসে অন্তত ১২০০ মানুষের প্রাণ যায়। ভারতের কেরালা রাজ্য এক শতাব্দির মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যার মুখোমুখি হয়।

 

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বর্ণবাদের অভিযোগ
                                  

মার্কিন কংগ্রেসের ডেমোক্রেট দলীয় নারী সদস্যদের আক্রমণ করে কয়েকটি টুইট করার পর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বর্ণবাদের অভিযোগ উঠেছে।
টুইটে ওই নারীরা ‘প্রকৃতপক্ষে এমন দেশ থেকে এসেছে যাদের সরকারগুলো সম্পূর্ণ ও পুরোপুরি ব্যর্থ’ বলে দাবি করে তাদের সেসব দেশে ‘ফিরে যাওয়ার’ পরামর্শ দিয়েছেন ট্রাম্প।
কংগ্রেসের স্পিকার ডেমোক্রেট দলীয় ন্যান্সি পেলোসি তাদের ‘দ্রুত বিনামূল্যে ভ্রমণের ব্যবস্থা করে দিতে খুব সুখীবোধ করবেন’ বলেও মন্তব্য করেন তিনি, জানিয়েছে বিবিসি।
নাম উল্লেখ না করলেও ট্রাম্প ডেমোক্রেট দলীয় প্রতিনিধি নিউ ইয়র্কের আলেকজান্ড্রিয়া ওকাসিও-কোর্তেজ, মিনেসোটার ইলহান ওমর, ম্যাসাচুসেটসের আইয়ানা প্রেসলি ও মিশিগানের রাশিদা তালিবকে উদ্দেশ্য করে এসব কথা বলেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।
ডেমোক্রেট প্রতিনিধিদের এই দলটি ‘দ্য স্কোয়াড’ নামে পরিচিত। এরা ট্রাম্পের কঠোর সমালোচনার পাশাপাশি মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের বর্তমান ডেমোক্রেট দলীয় নেতৃবৃন্দেরও সমালোচনা করে আসছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।
এক সপ্তাহ আগে পার্টির অন্তর্দ্বন্দ্বে স্পিকার পেলোসির সঙ্গে এই স্কোয়াডের বিরোধ হয়।
স্কোয়াডের চার কংগ্রেসওম্যানের মধ্যে তিন জনের জন্ম যুক্তরাষ্ট্রে ও তারা সেখানেই বেড়ে উঠেছেন। চতুর্থজন ইলহান ওমর শিশু বয়সে যুক্তরাষ্ট্রে যান ও সেখানেই বেড়ে ওঠেন।
তাদের মধ্যে ওকাসিও-কোর্তেজের জন্ম নিউ ইয়র্কের ব্রঙ্কস এলাকায়, একই শহরের কুইন্স হাসপাতালে ট্রাম্পেরও জন্ম।
তিনটি টুইটে ট্রাম্প এই কংগ্রেসওম্যানরা তাকে ও যুক্তরাষ্ট্রকে ‘হিংসাত্মক সুরে’ সমালোচনা করেছে বলে অভিযোগ করেন।
তিনি বলেন, “দেখতে খুব মজা লাগছে ‘প্রগতিশীল’ ডেমোক্রেট কংগ্রেসওম্যান, যারা প্রকৃতপক্ষে এমন দেশগুলো থেকে এসেছেন যাদের সরকারগুলো বিশ্বের যেকোনো জায়গায় সম্পূর্ণ ও পুরোপুরি ব্যর্থ, নিকৃষ্টতম, সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত ও অদক্ষ (যদি আদৌ কোনো কার্যকর সরকার তাদের থেকে থাকে), এখন উচ্চ ও হিংসাত্মক সুরে যুক্তরাষ্ট্রের জনগণকে বলছে, বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী ও সর্বশ্রেষ্ঠ জাতিকে বলছে, কীভাবে আমাদের সরকার চালাতে হবে।
“কেন তারা ফিরে গিয়ে তাদের পুরোপুরি ভেঙে পড়া ও অপরাধে জর্জরিত এলাকাগুলোকে ঠিক করছে না যেখান থেকে তারা এসেছে। সেটি করে এসে আমাদের দেখান কীভাবে তা করেছেন।
“আপনাদের সাহায্য ওই এলাকাগুলোর খুব দরকার, আপনারা খুব দ্রুতই যেতে পারবেন। আমি নিশ্চিত, ন্যান্সি পেলোসি দ্রুত বিনামূল্যে ভ্রমণের ব্যবস্থা করে দিতে সুখীবোধ করবেন!”
প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার পেলোসি ট্রাম্পের এই টুইটগুলোকে ‘বিদ্বেষমূলক’ অভিহিত করে এর সমালোচনা করেছেন।
পাল্টা টুইটে তিনি বলেছেন, “যখন ডনাল্ড ট্রাম্প চার মার্কিন নারী কংগ্রেস সদস্যকে তাদের নিজের দেশে ফিরে যাওয়ার কথা বলেন, তখন তার ‘মেক আমেরিকা গ্রেট অ্যাগেইন’ পরিকল্পনা যে সবসময় আমেরিকাকে সাদা বানানোর পরিকল্পনা তা ফের নিশ্চিত করেন।
“আমাদের বৈচিত্র আমাদের শক্তি এবং আমাদের একতাই আমাদের ক্ষমতা।”
অন্যান্য ডেমোক্রেট রাজনীতিবিদদের পাশাপাশি বের্নি স্যান্ডার্সও ট্রাম্পের মন্তব্যকে ‘বর্ণবাদী’ অভিহিত করে এর সমালোচনা করেছেন।জন ম্যাককেইনের কন্যা রিপাবলিকান সর্মথক কলামিস্ট মেগান ম্যাককেইনও ট্রাম্পের মন্তব্যকে ‘বর্ণবাদী’ অভিহিত করে প্রতিনিধি ইলহান ওমরের প্রতি সমর্থন জানিয়ে বলেছে, “এই দেশে যাদের আমরা স্বাগত জানিয়েছি তাদের ‘ফিরে যেতে’ বলতে পারি না।”
সাংবাদিকসহ অন্যান্য শ্রেণি-পেশার লোকও ট্রাম্পে এসব মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন।

দুধে অ্যান্টিবায়োটিক: চার ল্যাবে পরীক্ষার নির্দেশ
                                  

বিএসটিআই’র লাইসেন্সকৃত সব ব্র্যান্ডের পাস্তরিত দুধে অ্যান্টিবায়োটিক ও ডিটারজেন্টসহ বিভিন্ন ক্ষতিকর উপাদান আছে কিনা- তা চারটি ল্যাবে এক সপ্তাহের মধ্যে পরীক্ষা করতে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। ল্যাবগুলো হলো- ন্যাশনাল ফুড সেফটি ল্যাবরেটরি, বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ, ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ডাইরিয়াল ডিজিজ রিসার্চ, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআরবি) এবং সাভারের বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউটের গবেষণাগার। গতকাল বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। মামলাটির পরবর্তী শুনানির জন্য আগামি ২৩ জুলাই মঙ্গলবার দিন ধার্য করেছে আদালত। আদালতে বিএসটিআই’র পক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার সরকার এম আর হাসান। রিট আবেদনকারীর পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার অনীক আর হক।


ব্যারিস্টার অনীক আর হক বলেন, কলিফর্ম কাউন্ট, এসইডিটি, ফরমালিন, ডিটারজেন্ট অ্যান্ড অ্যান্টিবায়েটিকসহ বিভিন্ন ক্ষতিকর উপাদান পরীক্ষা করবে চারটি প্রতিষ্ঠান। চারটি ল্যাবরেটরির প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে বিএসটিআই এসবের নমুন সংগ্রহ করবে। নমুনা সংগ্রহের পর এক সপ্তাহের মধ্যে পরীক্ষা করে আলাদা আলাদা প্রতিবেদন দিতে হবে।

নারী-শিশু নির্যাতন রোধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে : ইন্দিরা
                                  

 নব নিযুক্ত মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বেগম ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেছেন, নারী ও শিশু নির্যাতন বন্ধ করতে সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ সবাইকে এক সঙ্গে করতে হবে। তিনি বলেন, নারী-শিশু নির্যাতন রোধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে। প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ ও দপ্তর পাওয়ার পরদিন গতকাল রোববার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন। ‘নারী ও শিশুর অধিকার নিশ্চিত করা এবং ধর্ষণের মতো ঘটনায় কী ভূমিকা নেবেন’ সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ফজিলাতুন নেসা বলেন, ঐক্যবদ্ধভাবে সচেতনতা গড়ে তুলে নারী ও শিশু ধর্ষণ প্রতিরোধ করতে পারব। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের নারীদের উন্নয়ন, ক্ষমতায়ন, সমঅধিকার ও সমমর্যাদা প্রতিষ্ঠায় অনেক পদক্ষেপ নিয়েছেন। সবাইকে সংঘবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।
তিনি বলেন, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মী যারা আছেন, যেসব সংগঠন আছে, আমার সবাই মিলে যদি সচেতনতা গড়ে তুলতে পারি তবে নারী নির্যাতন বলেন, শিশু নির্যাতন বলেন সবকিছু প্রতিরোধ করতে পারব।


প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা জানেন, আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারেও নারীদের সম-অধিকারের কথা বলা হয়েছে। ইশতেহারে যা বলা হয়েছে তা বাস্তবায়নের জন্য এবারের বাজেটও প্রণয়ন করা হয়েছে।’
তিনি বলেন, আমাদের সরকার নারী ও শিশু নির্যাতন বিরোধী অনেক আইন করেছে। একটা কথা মনে রাখতে হবে, শুধুমাত্র আইন দিয়ে, শুধুমাত্র সরকারই এককভাবে কোনো সময়ে নারী নির্যাতন, শিশু নির্যাতন বন্ধ করতে পারে না। সেজন্য দরকার জনগণের ঐক্যবদ্ধ হওয়া, একাত্মতা ঘোষণা করা। আমাদেরকে সবাই মিলে একত্রে কাজ করতে হবে।
ফজিলাতুর নেসা বলেন, এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী হিসেবে আপনাদেরকে সঙ্গে নিয়ে নারী নির্যাতন-শিশু নির্যাতন সবই বন্ধ করতে পারবো। নারী ও শিশু নির্যাতন আইন কঠোর করার ব্যাপারে উদ্যোগ নেবেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আইনটি কঠোর করার জন্য প্রধানমন্ত্রী প্রস্তাব করেছেন। শুধুমাত্র আমার মন্ত্রণালয় এককভাবে কঠোর করার জন্য প্রস্তাব পাঠাবে না, এখানে আইন মন্ত্রণালয়, মহিলা বিষয়ক মন্ত্রণালয় আছে। সব একসঙ্গে করা হবে।


প্রতিমন্ত্রী হওয়ার প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিমন্ত্রী হিসেবে আমাকে দায়িত্ব দিয়েছেন। সে জন্য মুন্সিগঞ্জবাসী খুবই আনন্দিত। আমি মুন্সিগঞ্জবাসী ও আমার পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। এর আগে নব নিযুক্ত প্রতিমন্ত্রী মন্ত্রণালয়ে এসে পৌঁছালে সচিব কামরুন নাহার তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। এরপর মন্ত্রণালয় ও অধীন সংস্থার কর্মকর্তারা প্রতিমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। এ সময়ে মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। গত শনিবার সন্ধ্যায় প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন বেগম ফজিলাতুন নেসা। এরপর রাতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে দফতর বন্টন করে আদেশ জারি করা হয়।

বিভিন্ন নদ-নদীর পানি ৭৩ পয়েন্টে বৃদ্ধি ও ১৮ পয়েন্টে হ্রাস
                                  

অতি ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে সুরমা ছাড়া দেশের সকল প্রধান নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। গতকাল সকাল ৯টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের ৯৩টি পানি সমতল স্টেশনের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী, সুরমা, কুশিয়ারা, মনু, ধলাই, খোয়াই, সোমেশ্বরী, কংস, ধরলা, তিস্তা, ঘাগট, ব্রহ্মপুত্র, যমুনা, সাঙ্গু ও মাতামুহুরী এই ১৪টি নদীর পানি ২৫টি পয়েন্টে বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বিভিন্ন নদ-নদীর পানি ৭৩টি পয়েন্টে বৃদ্ধি ও ১৮টি পয়েণ্টে হ্রাস পেয়েছে। গত শনিবার ১৫টি নদীর ২৩টি পয়েন্টে পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। বাংলাদেশ ও ভারতের আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চল, দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চল এবং তৎসংলগ্ন ভারতের আসাম ও মেঘালয় প্রদেশসমূহের বিস্তৃত এলাকায় আগামি ২৪ থেকে ৪৮ ঘন্টায় মাঝারী থেকে ভারী এবং কোথাও কোথাও অতিভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এ ছাড়া দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল সংলগ্ন ভারতের বিহার এবং নেপালে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। নদ-নদীর পরিস্থিতি সম্পর্কে বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীরণ কেন্দ্রের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে গতকাল জানানো হয়েছে, পানি পরিস্থিতি ১টি পয়েন্টে অপরিবর্তিত রয়েছে এবং ১টি পয়েন্টের কোন তথ্য পাওয়া যায়নি।


বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামি ৭২ ঘন্টায় ব্রহ্মপুত্র, গঙ্গা, পদ্মা ও যমুনার পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকতে পারে এবং আগামি ২৪ ঘন্টায় যমুনা নদী সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে বিপদসীমা অতিক্রম করতে পারে।
আগামী ২৪ ঘন্টায় সিলেট ও রংপুর বিভাগের সুরমা, কুশিয়ারা, কংস, সোমেশ্বরী, ধরলাসহ প্রধান নদীসমূহের পানি দ্রুত বৃদ্ধি পেতে পারে। এ ছাড়া আগামি ২৪ ঘন্টায় নেত্রকোনা, সুনামগঞ্জ, সিলেট, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, জামালপুর, গাইবান্ধা, বগুড়া ও সিরাজগঞ্জ জেলায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে।


গত শনিবার সকাল ৯টা থেকে গত ২৪ ঘন্টায় পঞ্চগড় স্টেশন এলাকায় ২০০ মিলিমিটার, ডালিয়ায় ১৭৭ মিলিমিটার, রাঙ্গামাটিতে ১২৫ মিলিমিটার, টাঙ্গাইলে ১২২ মিলিমিটার, মহেশখোলায় ১৯০ মিলিমিটার, নরসিংদীতে ২০৮ মিলিমিটার, ঢাকায় ১০২ মিলিমিটার, শ্রীমঙ্গলে ২৫০ মিলিমিটার, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১৪৫ মিলিমিটার এবং কুমিল্লায় ১০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।
এদিকে বন্যা পরিস্থিতি মনিটরিংয়ের জন্য নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ে একটি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। কন্ট্রোল রুমের ফোন নম্বর ৯৫১৫৫৫১। এই কন্ট্রোল রুম সকাল ৮টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।


বন্যা পূনর্বাসনে সরকারের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বন্যা উপদ্রত এলাকায় পর্যাপ্ত ত্রাণ সামগ্রী পাঠানো হয়েছে এবং বন্যা পরিস্থিতি মনিটরিংয়ে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। সিভিল সার্জনের নেতৃত্বে জেলা পর্যায়ে মেডিকেল টিম এবং জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে ত্রাণ কার্যক্রম তদারকি করা হচ্ছে।
কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা জানান, জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে। জেলার ৯টি উপজেলার চরাঞ্চলের তিন শতাধিক গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দী হয়ে পড়েছে ৫২টি ইউনিয়নের প্রায় ২ লাখ মানুষ।
জেলার ৭৭টি অস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্রে ৩ হাজার ৮০০ জন আশ্রয় নিয়েছেন।
বন্যার পাশাপাশি নদী ভাঙনে এ পর্যন্ত গৃহহীন হয়েছে ১ হাজার ৩১টি পরিবার। ভেঙে গেছে দুটি স্কুল। স্কুল দ’ুটি হলো, নাগেশ^রী উপজেলার শংকর মাধবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও নাগেশ^রীর এলাহীরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এদিকে সদরের হলোখানা ইউনিয়নের সারডোব, বাংটুর ঘাট, উলিপুরের চর বজরা ও রাজারহাট উপজেলার বিদ্যানন্দ ইউনিয়নের গাবুরহেলান গ্রামে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ হুমকির মুখে রয়েছে। এই এলাকাগুলোতে বাঁধ মেরামতেবালুর বস্তা ফেলা হচ্ছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আরিফুল ইসলাম জানান, ঝুঁকিপূর্ণ বাঁধগুলো ২৪ ঘন্টা নজরদারির মধ্যে রাখা হয়েছে।
কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মো. মোস্তাফিজুর রহমান প্রধান জানান, ক্ষতির পরিমাণ নিরুপন ও কৃষকদের পরামর্শ দেয়ার জন্য কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা কর্মচারিদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।


স্কুলগৃহে, মাঠে ও চলাচলের রাস্তায় পানি ওঠায় কুড়িগ্রামে ২৮৫ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। এসব স্কুলের অনেকগুলোই চার-পাঁচ ফুট পানির নিচে তলিয়ে আছে। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: শহিদুল ইসলাম জানান, কোমলমতি শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে পাঠদান বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে শিক্ষকদের উপস্থিত থেকে সংশ্লিষ্ট এলাকার জনসাধারণকে বন্যা মোকাবেলায় সহায়তার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা জানান, জেলার বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা অবনতি হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুর পর্যন্ত শহরের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার ৮৮ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, জেলার ৮ উপজেলায়ই বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। পানিবন্দি মানুষের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক লাখ ৪ হাজারে।
জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা ফরিদুল হক জানিয়েছেন, সরকারি উদ্যোগে ১০ টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হলেও দুর্গতরা আশ্রয় কেন্দ্রে আসছেন না। তবে দুর্গতদের মধ্যে ত্রাণসামগ্রী পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। এই পর্যন্ত বন্যার্তদের সহায়তার জন্য ৫০০ টন চাল, সাড়ে ১০ লাখ টাকা এবং ৫ হাজার ২৩৫ প্যাকেট শুকনো খাবার এসে পৌঁছেছে।
সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমান বলেন, বন্যায় সৃষ্ট দুর্যোগ মোকাবেলায় সরকারের প্রস্তুতি রয়েছে। ত্রাণসামগ্রী যা প্রয়োজন তা দেয়া হবে।
সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শামীমা শাহরিয়ার গতকাল বন্যার্তদের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন। তাহিরপুর উপজেলার পৈন্ডুপ, জামালগঞ্জ উপজেলার বেহেলী ইউনিয়নের আছানপুর, হরিনাকান্দি, মাহমুদপুর, মদনাকান্দি ও জামালগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নের মমিনপুর, কামিনীপুর, ভুইয়ার হাটি ও হিন্দু কালীপুর গ্রামে পাচঁ শতাধিক পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন। ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, ডাল, তেল, লবন, চিনি, চিড়া, নুডুলস, শিশুদের জ¦রের ওষুধ প্যারাসিটামল সিরাপ, খাবার স্যালাইন ও পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট। বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার সলুকাবাদ ইউনিয়নে বন্যা দুর্গত মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে।
জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ৬২০ পরিবারের মধ্যে শুকনো খাবার প্যাকেট ও পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট বিতরণ করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো.শরিফুল ইসলাম।


হবিগঞ্জ সংবাদদাতা জানান, জেলায় নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। হাওরেও বৃদ্ধি পাচ্ছে পানি। কুশিয়ার নদীর পানি বৃদ্ধিতে নবীগঞ্জ, বানিয়াচং ও আজমিরীগঞ্জের অন্তত ৫০ গ্রামের মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছেন।
হবিগঞ্জের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক ও রাজস্ব) তারেক মোহাম্মদ জাকারিয়া জানান, নবীগঞ্জ উপজেলার দীগলবাক ও ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় ১০ টন চাল বরাদ্ধ করা হয়েছে। খোয়াই নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় সবাইকে সতর্ক থাকার আহবান জানানো হয়েছে।
চট্টগ্রাম অফিস জানায়, খাগড়াছড়ি জেলার বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে শুরু করেছে। গতকাল সকাল থেকে থেমে থেমে বৃষ্টি হলেও ভারী বর্ষণ হয়নি। খাগড়াছড়ি জেলা সদর ও পানছড়ি উপজেলার নি¤œাঞ্চল থেকে পানি সরে যাওয়ায় লোকজন বসতবাড়িতে ফিরে গেছেন।


খাগড়াছড়ির অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. হাবিব উল্লাহ জানান, খাগড়াছড়ির সামগ্রিক বন্যা পরিস্থিতি উন্নতি হচ্ছে। যে কোন ধরণের দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রস্তুত রয়েছে জেলা প্রশাসন। পানিবন্দি মানুষের সাহায্যার্থে রান্না করা খাবারের পাশাপাশি ৫০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়েছে।
খাগড়াছড়ি জেলার বন্যাদুর্গতদের জন্য ৮০ টন চাল বরাদ্দ করেছে স্থানীয় জেলা প্রশাসন। চলছে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম। জেলা সদর ও উপজেলা পর্যায়ে ১৭টি আশ্রয় কেন্দ্রের মধ্যে ৮টিতে লোকজন আছেন। ফেনী নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় রামগড়ে গত শনিবার নতুন একটি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। ওই কেন্দ্রে উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

তাইওয়ানের মার্কিন অস্ত্র ক্রয়, উপকূলে চীনের মহড়া
                                  

 যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে তাইওয়ানের অস্ত্র ক্রয় নিয়ে উত্তেজনার মধ্যেই চীনের সামরিক বাহিনী তাদের দক্ষিণপূর্ব সমুদ্র উপকূল এলাকায় বিমান ও নৌ মহড়া চালিয়েছে। গতকাল রোববার চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এসব মহড়ার খবর দিয়েছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। বেইজিংয়ের তুমুল আপত্তি সত্ত্বেও যুক্তরাষ্ট্র সম্প্রতি স্বশাসিত দ্বীপ তাইওয়ানের কাছে ২২০ কোটি ডলারের ট্যাঙ্ক, ক্ষেপণাস্ত্র ও সংশ্লিষ্ট সরঞ্জাম বিক্রিতে সম্মত হয়েছে। এতে পাল্টাপাল্টি শুল্কারোপ নিয়ে দুই দেশের চলমান বিরোধের মধ্যেই তাইওয়ানকে ঘিরে চীন-যুক্তরাষ্ট্রের উত্তেজনা নতুন মাত্রা পেয়েছে।

তাইওয়ানের কাছে অস্ত্র বিক্রির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট মার্কিন প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে বেইজিং। তাইওয়ানকে মূলভূখ- থেকে বিচ্ছিন্ন প্রদেশ হিসেবে বিবেচনা করে চীন। তাইওয়ান স্বাধীন হওয়ার চেষ্টা করলে শক্তি প্রয়োগ করে দ্বীপটিকে ভূখ-ভুক্ত করা হবে বলে হুমকি দিয়ে রেখেছে তারা। গতকাল রোববার এক বিস্তৃত বিবৃতিতে চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, সাম্প্রতিক দিনগুলোতে তাদের পিপলস লিবারেশন আর্মি (চীনা সেনাবাহিনীর আনুষ্ঠানিক নাম) দক্ষিণপূর্ব উপকূলে মহড়া চালিয়েছে। তবে সমুদ্রের কোন এলাকায় এ মহড়া হয়েছে তার সুনির্দিষ্ট ভৌগোলিক অবস্থান জানায়নি তারা। “সামরিক বাহিনীর বার্ষিক পরিকল্পনা অনুযায়ী নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ এসব মহড়া,” বিবৃতিতে এমনটাই বলা হয়েছে। সঙ্কীর্ণ তাইওয়ান প্রণালীর এক পাশে তাইওয়ান ও অপরপাশে চীনের দক্ষিণপূর্ব উপকূল।

এই উপকূলটি চীনের সবচেয়ে সংবেদনশীল এলাকাগুলোর অন্যতম বলে জানিয়েছে রয়টার্স। মিত্র ক্যারিবীয় দেশগুলো সফরের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়া তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই-ইং ওয়েনের যুক্তরাষ্ট্রে যাত্রাবিরতির সময়ই চীন এ বিমান ও নৌ মহড়ার ঘোষণা দিল। সাইয়ের এ সফর ও যুক্তরাষ্ট্রে যাত্রাবিরতি বেইজিংকে ক্ষুব্ধ করেছে; ‘বাণিজ্য যুদ্ধে’ তিক্ত চীন-মার্কিন সম্পর্কেও এটি প্রভাব ফেলবে বলে অনুমান পর্যবেক্ষকদের।

 


   Page 1 of 260
     আন্তর্জাতিক
যুক্তরাষ্ট্র ‘আগুন নিয়ে খেলছে’ : ইরানের হুঁশিয়ারী
.............................................................................................
ইন্দোনেশিয়ার বালিতে ভূমিকম্প, ছড়িয়ে পড়ে আতংক
.............................................................................................
ইতালিতে নব্য নাৎসিবাদী আস্তানা থেকে ক্ষেপণাস্ত্র উদ্ধার
.............................................................................................
ইতালিতে নব্য নাৎসিবাদী আস্তানা থেকে ক্ষেপণাস্ত্র উদ্ধার
.............................................................................................
‘২০২০ সালের এপ্রিলের মধ্যেই তুরস্কে এস-৪০০ মোতায়েন’
.............................................................................................
ভারতের জন্য আকাশসীমা খুলে দিল পাকিস্তান
.............................................................................................
ইস্টার সানডের হামলার নেপথ্যে আন্তর্জাতিক মাদকচক্র: শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট
.............................................................................................
ভারতে মন্দির থেকে তিনজনের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার
.............................................................................................
কানাডীয় নাগরিক আটকের কথা স্বীকার চীনের
.............................................................................................
ভারতের হিমাচলে ভবন ধসে ৬ সৈন্যসহ নিহত ৭
.............................................................................................
বন্যার কবলে নেপাল, ভারত, বাংলাদেশ, বহু লোকের মৃত্যু
.............................................................................................
ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বর্ণবাদের অভিযোগ
.............................................................................................
দুধে অ্যান্টিবায়োটিক: চার ল্যাবে পরীক্ষার নির্দেশ
.............................................................................................
নারী-শিশু নির্যাতন রোধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে : ইন্দিরা
.............................................................................................
বিভিন্ন নদ-নদীর পানি ৭৩ পয়েন্টে বৃদ্ধি ও ১৮ পয়েন্টে হ্রাস
.............................................................................................
তাইওয়ানের মার্কিন অস্ত্র ক্রয়, উপকূলে চীনের মহড়া
.............................................................................................
‘ট্রাম্পের ইরান পারমাণবিক চুক্তি বর্জনের কারণ ওবামা’
.............................................................................................
‘চীন আমেরিকার সবচেয়ে বড় সামরিক চ্যালেঞ্জ’
.............................................................................................
ভারতের ভারী বৃষ্টিতে বন্যায় ৭ জনের মৃত্যু
.............................................................................................
সাগর থেকে একদিনে ১৪১ অভিবাসী উদ্ধার
.............................................................................................
সোমালিয়ার হোটেলে হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৬
.............................................................................................
চীনা সেনাদের অনুপ্রবেশের কথা উড়িয়ে দিলেন ভারতীয় সেনাপ্রধান
.............................................................................................
২০০ রুপি শোধ করতে ভারতে কেনিয়ার এমপি
.............................................................................................
আফগানিস্তানে আত্মঘাতী হামলায় শিশুকে ব্যবহার, নিহত ৯
.............................................................................................
ইরান-যুক্তরাষ্ট্র যুদ্ধ হলে ইসরায়েল ছাড় পাবে না : হিজবুল্লাহ
.............................................................................................
মসজিদে হত্যাকান্ডের পর স্বেচ্ছায় অস্ত্র জমা দিচ্ছেন নিউজিল্যান্ডের নাগরিকরা
.............................................................................................
ব্রহ্মপুত্রের পানিতে বিপর্যস্ত উত্তর-পূর্ব ভারত, বন্যায় নিহত ১০
.............................................................................................
সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে ব্যাপক সংঘর্ষ, শতাধিক যোদ্ধা নিহত
.............................................................................................
চীনে ৪ ব্রিটিশ নাগরিক গ্রেপ্তার এফএনএস
.............................................................................................
আফগানিস্তানে ভয়াবহ আত্মঘাতি হামলা : নিহত ১০
.............................................................................................
হাওয়াইয়ে এয়ার কানাডার এক ফ্লাইটের জরুরি অবতরণ
.............................................................................................
আইএস বধূর প্রত্যাবাসনে আদালতের রুল
.............................................................................................
চীনের দক্ষিণ মধ্যাঞ্চলে ভারি বৃষ্টিপাত : মৃত্যু ৬১ জনের
.............................................................................................
ভেনিজুয়েলার রাজনৈতিক সংকট সমাধানে সম্মত সরকার ও বিরোধী দল
.............................................................................................
সুদানে অভ্যুত্থান প্রচেষ্টা ব্যর্থ : জেনারেল
.............................................................................................
ইরানের বিরুদ্ধে ব্রিটিশ ট্যাংকার জব্দের চেষ্টার অভিযোগ
.............................................................................................
গ্রীসে টর্নেডো ও শিলাবৃষ্টিতে ৬ পর্যটক নিহত
.............................................................................................
পাকিস্তানে ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ১০
.............................................................................................
ভারতীয় সেনাদের ওপর হামলার হুমকি জাওয়াহিরির
.............................................................................................
সামরিক জোট চায় যুক্তরাষ্ট্র - ইরান, ইয়েমেন উপকূলে সুরক্ষায়
.............................................................................................
যুক্তরাজ্যের প্রতি ট্রাম্প অশ্রদ্ধা দেখিয়েছেন: হান্ট
.............................................................................................
নারী ও শিশুসহ পাপুয়া নিউ গিনিতে গোষ্ঠীগত সংঘাতে নিহত ২৪
.............................................................................................
ইরানে বিপ্লবী রক্ষী বাহিনীর ৩ সদস্য নিহত
.............................................................................................
উত্তাল গণবিক্ষোভে প্রত্যর্পণ বিলের মৃত্যু হয়েছে: হংকংয়ের শাসক
.............................................................................................
রাখাইন সীমান্তে হামলায় নিহত ২
.............................................................................................
ফাঁস হওয়া ইমেইলে ট্রাম্প ও তার প্রশাসনকে ‘অযোগ্য’ বলায় নাখোশ ট্রাম্প
.............................................................................................
বন্দী প্রত্যর্পণ বিল ফেলতে গিয়েও ফেলছে না হংকং
.............................................................................................
মেক্সিকো ও চীনের স্টীলের ওপর নতুন শুল্ক আরোপ যুক্তরাষ্ট্রের
.............................................................................................
রাজধানীর কয়েকটি স্থানে রিকশাচালক-মালিকদের বিক্ষোভ
.............................................................................................
ওয়াশিংটন ডিসিতে আকষ্মিক বন্যা
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত
প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
উপদেষ্টা: আজাদ কবির
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ হারুনুর রশীদ
সম্পাদক মন্ডলীর সহ-সভাপতি: মামুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
যুগ্ম সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বার্তা সম্পাদক: মুজিবুর রহমান ডালিম
স্পেশাল করাসপনডেন্ট : মো: শরিফুল ইসলাম রানা
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]