বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   তথ্যপ্রযুক্তি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
১২০ কোটি ব্যবহারকারীর তথ্য ঝুঁকির মুখে

সম্প্রতি গুগল ক্লাউড সার্ভারে ১২০ কোটি ব্যবহারকারীর ৪০০ কোটি তথ্য অরক্ষিত অবস্থায় পেয়েছেন দুজন সিকিউরিটি গবেষক। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ব্যক্তিগত এসব তথ্যের মধ্যে রয়েছে নাম, চাকরির পদ, ইমেইল অ্যাড্রেস, ফোন নম্বর ও অবস্থান। এর মধ্যে ৫০ মিলিয়ন ফোন নম্বর এবং ইমেইল ঠিকানা রয়েছে ৬২২ মিলিয়ন। কিছু তথ্য লিঙ্কডইন, ফেইসবুক ও অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া থেকে নেওয়া হয়েছে বলে জানান গবেষকরা।

গবেষণার এ ফলাফল পাওয়া যায় গত অক্টোরে। নাইট লায়ন কোম্পানির সিইও ও ডার্ক ওয়েব গবেষক ভেনি ট্রোয়া এবং বব ডিয়াচেনকো সার্ভারটি শনাক্ত করেন। তিনি জানান, সার্ভারে থাকা বেশির ভাগ তথ্য নেওয়া হয়েছে পিপল ডেটা ল্যাবস ও অক্সিডেটা নামের দুটি কোম্পানির কাছ থেকে। পিপল ডেটা ল্যাবসের সহপ্রতিষ্ঠাতা জানিয়েছেন, সার্ভার নির্মাতা তাদের ‘এনরিচ মেন্ট প্রোডাক্ট’ নামের একটি সার্ভিস অন্য সার্ভিসের সঙ্গে যুক্ত করে চারটি ডেটাসেটের মাধ্যমে সার্ভারটি তৈরি করতে পারে।

ডেটা যাদের সার্ভারে পাওয়া যাবে দায় দায়িত্ব তাদেরই। অনলাইনের বিভিন্ন সোর্স থেকে তারা তথ্যগুলো স্ক্র্যাপিংয়ের মাধ্যমে সংগ্রহ করেছে। ট্রোয়া সার্ভারটির ব্যাপারে এফবিআইকে অবহিত করলে তারা সেটি সরিয়ে নেয়। কারা সার্ভারটি তৈরি করেছে তা জানা যায়নি। সার্ভারটির আইপি অ্যাড্রেস ছাড়া আর কোনো তথ্য জানা যায়নি। গুগলের ক্লাউড সার্ভারে ডেটাসেটটি পাওয়া গেলেও এর সঙ্গে গুগলের কোনো সংযোগ নেই বলে ধারণা করা হচ্ছে। কে সার্ভারটি তৈরি করেছে বা কেন করেছে সে বিষয়ে গবেষকরা এখনো নিশ্চিত হতে পারেননি।

১২০ কোটি ব্যবহারকারীর তথ্য ঝুঁকির মুখে
                                  

সম্প্রতি গুগল ক্লাউড সার্ভারে ১২০ কোটি ব্যবহারকারীর ৪০০ কোটি তথ্য অরক্ষিত অবস্থায় পেয়েছেন দুজন সিকিউরিটি গবেষক। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ব্যক্তিগত এসব তথ্যের মধ্যে রয়েছে নাম, চাকরির পদ, ইমেইল অ্যাড্রেস, ফোন নম্বর ও অবস্থান। এর মধ্যে ৫০ মিলিয়ন ফোন নম্বর এবং ইমেইল ঠিকানা রয়েছে ৬২২ মিলিয়ন। কিছু তথ্য লিঙ্কডইন, ফেইসবুক ও অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া থেকে নেওয়া হয়েছে বলে জানান গবেষকরা।

গবেষণার এ ফলাফল পাওয়া যায় গত অক্টোরে। নাইট লায়ন কোম্পানির সিইও ও ডার্ক ওয়েব গবেষক ভেনি ট্রোয়া এবং বব ডিয়াচেনকো সার্ভারটি শনাক্ত করেন। তিনি জানান, সার্ভারে থাকা বেশির ভাগ তথ্য নেওয়া হয়েছে পিপল ডেটা ল্যাবস ও অক্সিডেটা নামের দুটি কোম্পানির কাছ থেকে। পিপল ডেটা ল্যাবসের সহপ্রতিষ্ঠাতা জানিয়েছেন, সার্ভার নির্মাতা তাদের ‘এনরিচ মেন্ট প্রোডাক্ট’ নামের একটি সার্ভিস অন্য সার্ভিসের সঙ্গে যুক্ত করে চারটি ডেটাসেটের মাধ্যমে সার্ভারটি তৈরি করতে পারে।

ডেটা যাদের সার্ভারে পাওয়া যাবে দায় দায়িত্ব তাদেরই। অনলাইনের বিভিন্ন সোর্স থেকে তারা তথ্যগুলো স্ক্র্যাপিংয়ের মাধ্যমে সংগ্রহ করেছে। ট্রোয়া সার্ভারটির ব্যাপারে এফবিআইকে অবহিত করলে তারা সেটি সরিয়ে নেয়। কারা সার্ভারটি তৈরি করেছে তা জানা যায়নি। সার্ভারটির আইপি অ্যাড্রেস ছাড়া আর কোনো তথ্য জানা যায়নি। গুগলের ক্লাউড সার্ভারে ডেটাসেটটি পাওয়া গেলেও এর সঙ্গে গুগলের কোনো সংযোগ নেই বলে ধারণা করা হচ্ছে। কে সার্ভারটি তৈরি করেছে বা কেন করেছে সে বিষয়ে গবেষকরা এখনো নিশ্চিত হতে পারেননি।

টুইটারে সৌদি গুপ্তচরবৃত্তি, বিপাকে অ্যাক্টিভিস্টরা
                                  

সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট টুইটারে সৌদি সরকারের গুপ্তচরবৃত্তির ঘটনায় বিপাকে পড়েছেন দেশটির অ্যাক্টিভিস্টরা। অভিযোগ উঠেছে, সৌদি রাজপরিবারের সমালোচকদের নজরে রাখতে টুইটারের দুই কর্মীকে গুপ্তচর হিসেবে নিয়োগ দিয়েছিল রিয়াদ। এমন অভিযোগ সামনে আসার পরই অস্বস্তিতে পড়েন অ্যাক্টিভিস্টরা। অনেকেই মিডল ইস্ট আই-কে বলেছেন, যে হাজার হাজার টুইটার ব্যবহারকারীর ডাটা হাতিয়ে নিতে রিয়াদ সমর্থ হয়েছে বলে প্রতীয়মান হচ্ছে; তার মধ্যে তারাও রয়েছেন বলে আশঙ্কা তাদের। ২০১৯ সালের নভেম্বরের গোড়ার দিকে ক্যালিফোর্নিয়ার ফেডারেল কোর্টে টুইটারে কর্মরত ওই দুই সৌদি গুপ্তচরের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনে মার্কিন কর্তৃপক্ষ।

অভিযোগে বলা হয়, তারা সৌদি রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ একজন কর্মকর্তার কাছে ছয় হাজারেরও বেশি টুইটার অ্যাকাউন্টের বিস্তারিত তথ্য সরবরাহ করেছে। ২০১৪ সালের ডিসেম্বর থেকে ২০১৫ সালের নভেম্বর পর্যন্ত সময়ে এ কাজ করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করায় যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই এবং দেশটির বিচার বিভাগকে ধন্যবাদ জানিয়েছে টুইটার কর্তৃপক্ষ।
এদিকে টুইটারের অভ্যন্তরে সৌদি সরকারের এই গুপ্তচরবৃত্তির ফলে রাষ্ট্রযন্ত্রের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা করছেন অ্যাক্টিভিস্টরা। কেননা, সরকার তাদের আইপি অ্যাড্রেসসহ অন্যান্য তথ্য হাতিয়ে নেওয়ায় কর্তৃপক্ষের ধরপাকড়ের শিকার হওয়া এমনকি গুম হয়ে যাওয়ার শঙ্কার কথাও জানিয়েছেন অনেকে।
মার্কিন আইনজীবীদের বরাত দিয়ে জার্মানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডি ডব্লিউ জানিয়েছে, সৌদি সরকারের সমালোচকদের তথ্য দেওয়ার বিনিময়ে উপঢৌকন হিসেবে কয়েক হাজার ডলার পেয়েছেন টুইটারের দুই কর্মী। এ ছাড়া চমৎকার ডিজাইনের ঘড়িসহ আরও নানা অভিজাত উপহার সামগ্রী পেয়েছেন তারা।
টুইটারের ওই দুই কর্মীর একজন সৌদি নাগরিক। তার নাম আলী আলজাবারাহ। অন্যজন মার্কিন নাগরিক। তার নাম আহমেদ আবুআমু। সৌদি রাজ পরিবারের সাবেক কর্মী আহমেদ আলমুতাইরির মাধ্যমে তারা সৌদি সরকারকে তথ্য দিয়েছেন বলে প্রতীয়মান হচ্ছে।


আলজাবারাহ ও আবুআমুর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে নিবন্ধন ছাড়া সৌদি আরবের এজেন্ট হিসেবে কাজ করার অভিযোগ আনা হয়েছে। আবুআমুকে ইতোমধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটল থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে আলজাবারাহ ও আলমুতাইরি বর্তমানে সৌদি আরবে রয়েছেন।
টুইটারের ওই দুই সাবেক কর্মী রাজপরিবারের সমালোচকদের টুইটার অ্যাকাউন্টের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ইমেইল অ্যাড্রেস ও আইপি ঠিকানার তথ্য সৌদি সরকারকে দিয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। আইপি অ্যাড্রেসের মাধ্যমে ব্যবহারকারীর অবস্থান সম্পর্কে জানা যায়।
হিউম্যান রাইটস ওয়াচের মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক গবেষক অ্যাডাম কুগল জানিয়েছেন, সৌদি আরবের মোট জনসংখ্যার প্রায় এক-তৃতীয়াংশই সক্রিয় টুইটার ব্যবহারকারী। এটিই সে দেশের প্রধান সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম।
যে টুইটার ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য সরকারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে তাদের মধ্যে একজনের ফলোয়ার সংখ্যা ১০ লাখের বেশি। তিনি সৌদি সরকারের সমালোচক হিসেবে পরিচিত। একজন গণমাধ্যম ব্যক্তিত্বও আছেন এই তালিকায়।


মার্কিন কর্তৃপক্ষের রাষ্ট্রীয় আইনি পদক্ষেপের বাইরে দুই টুইটার ব্যবহারকারী স্বতন্ত্রভাবে এ নিয়ে আদালতের শরণাপন্ন হয়েছেন। ধারণা করা হচ্ছে, তারাও ওই গুপ্তচরবৃত্তির শিকারে পরিণত হয়েছেন। ওই দুইজনের একজনের একটি বেনামি অ্যাকাউন্ট ছিল; যেটিকে বলা হতো ‘দ্য সৌদি ভার্সন অব উইকিলিকস’। অন্য অ্যাকাউন্টটি ছিল কানাডায় নির্বাসিত ওমর আবদুলআজিজ নামের ভিন্নমতাবলম্বী এক সৌদি নাগরিকের।


ইস্তানবুলের সৌদি কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাশোগির নৃশংস হত্যাকা-ের পর এভাবে ভিন্নমতাবলম্বীদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহের ঘটনা সামনে আসায় শঙ্কিত অ্যাক্টিভিস্টরা।
যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটলে বসবাস করছেন আমানি আল আহমাদি। সৌদি-আমেরিকান এই নারীবাদী মিডল ইস্ট আই-কে বলেন, আমরা সব সময় ভেবে থাকি, এ ধরনের ঘটনা গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সঙ্গেই হয়ে থাকবে। কিন্তু এখানে ছয় হাজার অ্যাকাউন্ট! এমনকি অন্য অ্যাক্টিভিস্টরাও আমাকে প্রশ্ন বলছে, কেউ কি জানেন যে আমাদের মধ্যে কেউ এই তালিকায় আছেন কিনা? সূত্র: মিডল ইস্ট আই, ডি ডব্লিউ।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভ্রান্তি ছড়ালে সার্ভিস প্রোভাইডারের জরিমানা: তথ্যমন্ত্রী
                                  

 তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, উন্নত দেশের মতো বাংলাদেশেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভ্রান্তি ছড়ালে সার্ভিস প্রোভাইডারের বিরুদ্ধে জরিমানার বিধিমালা তৈরী করা হচ্ছে। এছাড়াও বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্র আগামী মাস থেকে ১২ ঘন্টা সম্প্রচারে যাবে জানিয়ে তিনি বলেন, বর্তমানে বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্র শুধু ক্যাবল টেলিভিশন হিসেবে সারাদেশে ও বিদেশে দেখা যায়। কিন্তু আগামী কয়েক মাসের মধ্যে এটিকে টেরিস্টেরিয়াল চ্যানেল হিসেবেও উন্নীত করা হবে।

গতকাল শুক্রবার চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজের সম্মেলন কক্ষে ‘বিশ্ব টেলিভিশন দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্র, চট্টগ্রাম টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন ও টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন যৌথভাবে এ বৈঠকের আয়োজন করে। বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের মহাব্যবস্থাপক নিতাই কুমার ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান, বাংলাদেশ টেলিভিশনের উপ মহাপরিচালক (বার্তা) অনুপ কুমার খাস্তগীর। বিশ্বে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিথ্যা তথ্য দিয়ে বিভ্রান্তি, চরিত্রহনন ও গুজব ছড়ানো এখন বড় সমস্যা উল্লেখ করে তিনি বলেন, সম্প্রচার নীতিমালা ইতোমধ্যে প্রণয়ন করা হয়েছে।

সম্প্রচার আইনও পাস হবে। সেটি হলে সম্প্রচার মাধ্যমের সাংবাদিকদের আইনি সুরক্ষা দেওয়া সম্ভব হবে। মন্ত্রী বলেন, যেহেতু সম্প্রচার নীতিমালা বিদ্যমান আছে, এই নীতিমালার আলোকে কিভাবে আইনি সুরক্ষা দেওয়া যায়, সেটি নিয়েও আমরা চিন্তা-ভাবনা করছি। তথ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে বেসরকারি টিভির যাত্রা শুরু হয় বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে। এখন ৩৪টি চ্যানেল সম্প্রচার করছে। আরও ১১টি সম্প্রচারে আসার অপেক্ষায় আছে। ১১ বছরে বেসরকারি টিভির সংখ্যা সাড়ে তিন গুণ বেড়েছে। প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে ১ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে এই খাতে। টেলিভিশন নতুন প্রজন্মের মনন তৈরিতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। কৃষ্টি-সংস্কৃতি লালনের পাশাপাশি দেশ- জাঁতি গঠনেও ভূমিকা রাখতে হবে। টেলিভিশন যেন ব্যক্তিগত বা ব্যবসায়িক স্বার্থে ব্যবহার না হয়, সে বিষয়ে গুরুত্বারোপ করে হাছান মাহমুদ বলেন, শিশু-কিশোরসহ আমাদের পুরো জনগোষ্ঠীর ওপর টেলিভিশনের প্রভাব ব্যাপক। যে মাধ্যমের এতবড় প্রভাব, সেটিকে আমরা জাতিগঠনের বিশাল কাজে লাগাতে পারি। তিনি বলেন, নতুন প্রজন্মের মনন তৈরি এবং একইসাথে ভবিষ্যতের স্বপ্নের ঠিকানায় দেশকে পৌঁছানোর জন্য মেধা, মূল্যবোধ ও দেশাত্মবোধসম্পন্ন জনগোষ্ঠী তৈরির সক্ষমতা আমাদের টেলিভিশনের রয়েছে। ক্যাবল অপারেটরদের জন্য টিভিগুলোর সিরিয়াল করে দেওয়া হয়েছে জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ছয় দশকে ভারতে কখনো আমাদের টেলিভিশন দেখা যেত না।

প্রধানমন্ত্রী আমাকে দায়িত্ব দেওয়ার ছয় মাসের মধ্যে এ কাজটি সম্পন্ন করেছি। টিভি বাড়ায় বিজ্ঞাপন ভাগ হয়ে যাচ্ছে। আগে ৪০০-৫০০ কোটি টাকার বিজ্ঞাপন বিদেশে চলে যেত, যা বন্ধ করা হয়েছে। মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, এখন টিভির গুরুত্ব ও তাৎপর্য অনেক বেশি। আগামী দিনের টিভি চ্যালেঞ্জগুলো নিয়ে এখনই ভাবতে হবে। দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে সংবাদ পরিবেশন করা উচিত উল্লেখ করে তিনি বলেন, তাহলে দর্শকের আস্থা বাড়বে। মো. আবদুল মান্নান বলেন, মিডিয়া মুক্তিযুদ্ধের সরকারের অনুকূলে কাজ করছে। যেসব তরুণ টিভিতে কাজ করছে তাদের উন্নত জীবন নিশ্চিত করতে হবে। তাদের ঝুঁকি বেশি। তাদের ব্যাপারে সরকারের দিক থেকে অনেক কিছু করার আছে।

ইনডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের ব্যুরো প্রধান অনুপম শীলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আলোচনায় অংশ নেন বিএফইউজের সহ-সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, বাসসের চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান কলিম সরওয়ার, একুশে পত্রিকার সম্পাদক আজাদ তালুকদার, চট্টগ্রাম টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি নাসির উদ্দিন তোতা, সাধারণ সম্পাদক লতিফা আনসারী রানা ও টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শফিক আহমেদ সাজিব।

 

গুগল গোপনে রোগীর তথ্য জোগাড় করছে
                                  

গ্রাহককে অবহিত না করেই বিপুল সংখ্যক মার্কিন রোগীর তথ্য জোগাড় করে তোপের মুখে পড়েছে গুগল। স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান অ্যাসেনসিয়নের সঙ্গে চুক্তিতে ‘প্রজেক্ট নাইটিংগেল’ নামের প্রকল্পের জন্য রোগীর এই তথ্য জোগাড় করেছে গুগল। চিকিৎসকদের জন্য কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা টুল বানাতেই কাজ করছে প্রতিষ্ঠান দু’টি-- খবর বিবিসি’র। রোগীর তথ্য জোগাড়ের এই খবরটি প্রথম প্রকাশ করে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল। প্রতিবেদনে বলা হয়, রোগীকে না জানিয়েই তার স্বাস্থ্য ও ব্যক্তিগত তথ্য জেনে নিতে পারে গুগল। অন্যদিকে সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি বলছে, এটি মানসম্মত রেওয়াজ বা ‘স্ট্যান্ডার্ড প্র্যাকটিস’। অ্যাসেনসিয়নের সঙ্গে চুক্তির আওতায় রোগীর ল্যাব রেকর্ড, ডায়াগনসিস, হাসপাতালে ভর্তির তথ্য এবং জন্ম তারিখও অ্যাকসেস করতে পারবে গুগল। গুগল যে এই তথ্যগুলো দেখতে পারছে তা ডাক্তার বা রোগী কাউকেই বলা হয়নি। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, আগের বছরই এই ডেটা জোগাড় করতে শুরু করেছে গুগল এবং গ্রীষ্ম জুড়ে এর পরিধি বেড়েছে। গুগলের পক্ষ থেকে এক ব্লগ পোস্টে বলা হয়, ১৯৯৬ সালের মার্কিন হেলথ ইনশিওরেন্স পোর্টেবিলিটি অ্যান্ড অ্যাকাউন্টেবিলিটি অ্যাক্ট (এইচআইপিএএ)-এর পাশাপাশি এই খাতের অন্যান্য নীতিমালা মেনে চলবে অ্যাসেনসিয়ন। “পরিষ্কারভাবে বলতে, রোগীর ডেটা গুগলের অন্য কোনো গ্রাহকের ডেটার সঙ্গে একত্র হতে পারে না এবং করা হবে না,”-- গুগল। ২৬০০ হাসপাতাল চালায় অ্যাসেনসিয়ন। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে বলা হয়, এই চুক্তি রোগীর সেবা আরও উন্নত করতে এবং চিকিৎসকদের জন্য এআই টুল বানাতে সহায়তা করবে। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, জি সুইট নামে পরিচিত গুগলের ক্লাউড ডেটা স্টোরেজ সেবা এবং ব্যবসায়িক অ্যাপ্লিকেশনগুলো ব্যবহার করতে শুরু করবে তারা। ইতোমধ্যেই সমালোচনার মুখেও পড়েছে গুগলের প্রজেক্ট নাইটিংগেল। অনেকের ধারণা এতে রোগীরা তাদের ডেটার ওপর নিয়ন্ত্রণ হারাবে। ইউনিভার্সিটি অফ অক্সফোর্ডের অধ্যাপক জেইন কাই বলেন, “এখানে অনেক বড় সমস্যা রয়েছে, এই পাবলিক-প্রাইভেটে অংশীদারিত্বের পুরোটাই করা হয়েছে প্রাইভেট চুক্তির আওতায়, তাই স্বচ্ছতা আনাটা অনেক কষ্টকর।” “গুগল বলছে তারা এই ডেটা অন্য ডেটার সঙ্গে মেলাবে না। কিন্তু তারা সব সময়ই তাদের অ্যালগরিদম বদলাচ্ছে, বদলের মাধ্যমে তারা যেটা করছে বাজারে নিজেদের জন্য বাড়তি সুবিধা তৈরি করছে।” সেবার মান ও কার্যকরিতা বাড়ানোর জন্য স্বাস্থ্য সংস্থাগুলোর ওপর ক্রমেই চাপ বাড়ছে। অনেকেই নিজেদের সেবা আরও উন্নত করতে এআইয়ের ব্যবহার শুরু করেছে। তবে এ ধরনের পদক্ষেপ নিয়ে প্রায়ই প্রশ্ন উঠছে যে কীভাবে তারা রোগীর ডেটা ব্যবহার করছে। যুক্তরাজ্যে গুগলের এআই প্রতিষ্ঠান ডিপমাইন্ডের বিরুদ্ধে আইন ভাঙ্গার অভিযোগ উঠেছে। কিডনি রোগের অ্যাপ তৈরিতে কীভাবে ডেটা ব্যবহার করা হচ্ছে তা রোগীর কাছে সঠিকভাবে ব্যাখ্যা করতে পারেনি প্রতিষ্ঠানটি।

 

এবার আর্থিক লেনদেন সেবা নিয়ে আসছে ফেইসবুক
                                  

‘ফেইসবুক পে’ নামে নতুন লেনদেন সেবা চালু করতে যাচ্ছে ফেইসবুক। নতুন এই সেবার মাধ্যমে ফেইসবুকের পাশাপাশি হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রাম এবং প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য সেবার গ্রাহকরা অ্যাপ থেকে বের না হয়েই আর্থিক লেনদেন সারতে পারবেন। মঙ্গলবার ফেইসবুকের পক্ষ থেকে বলা হয়, এই সেবার মাধ্যমে মূল্য পরিশোধ বা অন্য গ্রাহককে অর্থ পাঠাতে পারবেন। নিরাপত্তার জন্য পিন কোড বা স্মার্টফোনের বায়োমেট্রিক ফিচারগুলো ব্যবহার করা হবে-- খবর বার্তাসংস্থা রয়টার্সের। চলতি বছরের শুরুতেই ফেইসবুক প্রধান মার্ক জাকারবার্গ ঘোষণা করেছেন, প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন মেসেজিং প্ল্যাটফর্মকে একীভূত করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। ফেইসবুকের অন্যান্য সেবায় এনক্রিপশন প্রযুক্তি যোগ করার কথাও বলেছেন জাকারবার্গ। কয়েক বছরের মধ্যেই ফেইসবুকের নিউজ ফিডের মতো উন্মুক্ত প্ল্যাটফর্মে আলোচনা অনেকটাই কমে যাবে বলে ধারণা করছেন তিনি। সামাজিক মাধ্যম জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে বলা হয়, নতুন লেনদেন সেবা মূল্য পরিশোধের পদ্ধতি, তারিখ, বিলিং এবং যোগাযোগের তথ্য জোগাড় করবে। এই তথ্য ব্যবহার করে গ্রাহককে টার্গেটেড বিজ্ঞাপন দেখানো হবে বলেও জানানো হয়েছে। বিজ্ঞাপন দেখানো নিয়ে আগের কয়েক বছর ধরেই আলোচনায় রয়েছে ফেইসবুক। পাশাপাশি গোপনতা এবং গ্রাহকের তথ্য সুরক্ষা নিয়েও বিশ্বব্যাপী সমালোচনার মুখে রয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। চলতি সপ্তাহেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ফেইসবুক এবং মেসেঞ্জারের ‘ফেইসবুক পে’ চালু করা হবে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

ফেসবুকের ৫৪০ কোটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট বন্ধ
                                  

২০১৯ সালে ৫৪০ কোটি অ্যাকাউন্ট ভুয়া সন্দেহে মুছে ফেলেছে বিশ্বের জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক। বুধবার তারা জানায়, ভুল তথ্য ছড়ানো ও বিভ্রান্তি মোকাবেলার অংশ হিসেবে এই কাজ করেছে তারা। ফেসবুক কর্তৃপক্ষের দাবি, সাম্প্রতিক সময়ে ভুয়া অ্যাকাউন্টের সংখ্যা ‘আশঙ্কাজনকভাবে বৃদ্ধি’ পাওয়ার প্রমাণ পাওয়ায় তারা এমন ব্যবস্থা নিয়েছে। অ্যাকাউন্টগুলো খোলার ‘কয়েক মিনিটের মধ্যেই’ সেগুলো সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছে ফেসবুক।

গত বছর ফেসবুক ব্যবহারকারীদের তথ্য বেহাত হয়ে ক্যামব্রিজ অ্যানালাইটিক নামের প্রতিষ্ঠানের হাতে চলে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। সেবার একজন গবেষককে ব্যবহারকারীদের তথ্যভাণ্ডারে প্রবেশের সুযোগ দিয়েছিল জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটি। কিন্তু ওই গবেষকের সূত্রে ব্যবহারকারীদের তথ্য চলে যায় ক্যামব্রিজ অ্যানালাইটিকের কাছে। অভিযোগ ওঠে, ডানপন্থী পত্রিকা ব্রেইটবার্টের প্রধান ও পরবর্তীতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রধান পরিকল্পনাবিদ স্টিভ ব্যানন প্রতিষ্ঠানটির সাথে জড়িত।

তিনি ফেসবুক ব্যবহারকারীদের তথ্য ব্যবহার করে ২০১৬ সালের নির্বাচন প্রভাবিত করেছেন। ক্যামব্রিজ অ্যানালাইটিকে কাজ করা সাবেক একজন কর্মী এসব তথ্য ফাঁস করে দেন। পরে এর জেরে ফেসবুকের প্রধান মার্ক জাকারবার্গকে কংগ্রেসে শুনানির জন্য ডেকে পাঠানো হয়। এর পর থেকে নীতিমালা নিয়ে আরো কঠোর হয় ফেসবুক। তারা জানায়, ভুয়া ও উসকানিমূলক অ্যাকাউন্ট ঠেকাতে তারা এখনো আরো প্রযুক্তিগতভাবে সক্ষম। প্রতিদিনই এই প্রযুক্তির মাধ্যমে লাখ লাখ ভুয়া অ্যাকাউন্ট অপসারণ করা হচ্ছে বলেও দাবি তাদের। বুধবার ফেসবুক জানায়, সরকারের পক্ষ থেকেও তাদের কাছে তথ্য চাওয়ার হার বেড়েছে। এখন পর্যন্ত ১ লাখ ২৮ হাজার ৬১৭ বার এমন অনুরোধ করেছে বিভিন্ন দেশের সরকার।

সুত্র : সিএনবিসি

ডিজিটাল সেন্টারগুলোকে ওয়ানস্টপ সার্ভিস সেন্টার হিসেবে গড়ে তোলা হবে: তাজুল
                                  

 দেশে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারগুলোকে ওয়ানস্টপ সার্ভিস সেন্টার হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার কাজ করছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। গতকাল সোমবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে ডিজিটাল সেন্টারের নবম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ‘অ্যাকসেস টু ইনফরমেশনের’ (এটুআই) উদ্যোগে আয়োজিত ‘ইনোভেশন টক’ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে ডিজিটাল সেন্টারগুলোর মাধ্যমে স্থানীয় বাসিন্দাদের ১৫০ ধরনের সেবা দেওয়া হচ্ছে। সময়ের প্রয়োজনে ডিজিটাল সেন্টারকে ওয়ানস্টপ সার্ভিস সেন্টার হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘ভিশন’ হচ্ছে শহরের সব সুবিধা গ্রামের মানুষের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যাওয়া। শুধু নদীভাঙন বা দারিদ্র্যের কারণে মানুষ গ্রাম ছেড়ে শহরে আসে না, বরং শিক্ষিত যুব সমাজের মধ্যে শহরে আসার প্রবণতা বেশি। তাদের যদি আমরা গ্রামে রেখেই শহরের সুবিধা দিতে পারি, তাহলে আর তারা শহরে আসবে না। তাদের একটি ল্যাপটপ বা কম্পিউটার দিয়েই ঢাকা বা দেশ তো বটেই, পুরো বিশ্বের সঙ্গে যুক্ত করে দেওয়া যায়। আর এই কাজটিই করছে ডিজিটাল সেন্টার। এটুআইর পলিসি অ্যাডভাইজার আনীর চৌধুরীর সঞ্চলনায় ইনোভেশন টকে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকও। তিনি বলেন, সরকারের সেবা জনগণের দুয়ারে পৌঁছে দিতে সারা দেশে ৫ হাজার ৮৬৫টি ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

শুধু দেশে নয়, সারা বিশ্বের কাছে সাফল্যের দৃষ্টান্ত হিসেবে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার প্রশংসিত ও পুরস্কৃত হয়েছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, এটুআইয়ের প্রকল্প পরিচালক মো. আবদুল মান্নানসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অবস্থিত ডিজিটাল সেন্টারের প্রতিনিধিরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রান্তিক পর্যায়ের অনেক উদ্যোক্তাও এতে অংশ নেন।

 

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটে দেশীয় টিভি চ্যানেলগুলোকে অগ্রাধিকার দেয়ার সুপারিশ
                                  

তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভায় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সাথে সংযোগের ক্ষেত্রে দেশীয় টিভি চ্যানেলগুলোকে অগ্রাধিকার দেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। সংসদ ভবনে গতকাল সোমবার কমিটির সভাপতি হাসানুল হক ইনুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সদস্য তথ্য মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, কাজী কেরামত আলী, আকবর হোসেন পাঠান (ফারুক), মমতা হেনা লাভলী ও সালমা চৌধুরী সভায় অংশগ্রহণ করেন। বিশেষ আমন্ত্রনে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মো: মুরাদ হাসান সভায় অংশ নেন। বিসিএস (তথ্য) ক্যাডারের বাংলাদেশ বেতারে কর্মরত কর্মকর্তাদের সুপারনিউমারারি পদোন্নতির মাধ্যমে দীর্ঘ পদোন্নতি জট নিরসনে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করতে মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়।

এছাড়াও তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির পক্ষ থেকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে একটি অনুরোধ পত্র প্রেরণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় টেলিভিশন সেটের ওপর লাইসেন্স ফি পুনঃধার্যের বিষয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে একটি প্রস্তাব কমিটিতে উপস্থাপনের জন্য মন্ত্রণালয়কে পরামর্শ দেয়া হয়।

এছাড়াও কমিটিতে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সাথে সরকারি-বেসরকারি টেলিভিশনের সংযোগ স্থাপন এবং সম্প্রচারের ক্ষেত্রে চ্যানেল ক্রম ধারায় দেশি চ্যানেলসমূহকে অগ্রাধিকার দেয়ার বিষয়ে আলোচনা করা হয়। তথ্য সচিব আবদুল মালেক, বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালকসহ মন্ত্রণালয় এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

 

স্পেসএক্স আরও ৩০ হাজার স্যাটেলাইট পাঠাবে
                                  

 মহাকাশে আরও ৩০ হাজার স্টারলিংক ব্রডব্যান্ড স্যাটেলাইট পাঠাতে চায় ইলন মাস্কের স্পেসএক্স। এ ধরনের সর্বোচ্চ ১২ হাজার স্যাটেলাইট পাঠানোর পরিকল্পনা আগেই জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।


পৃথিবীর চারপাশে নিম্ন কক্ষপথে ১২ হাজার পর্যন্ত স্টারলিংক স্যাটেলাইট বসাতে ইতোমধ্যেই মার্কিন ফেডারেল কমিউনিকেশনস কমিশন (এফসিসি)-এর অনুমোদন পেয়েছে স্পেসএক্স।
ভারতীয় সংবারমাধ্যম আইএএনএস-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, সর্বোচ্চ আরও ৩০ হাজার স্টারলিংক স্যাটেলাইটের জন্য সম্প্রতি ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়ন (আইটিইউ)-এর কাছে নথি জমা দিয়েছে মাস্কের মহাকাশযান নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি।


তবে ওই অনুমোদন পেতে সাত বছরও সময় লাগতে পারে। এরপরই স্যাটেলাইটগুলো পাঠাতে পারবে স্পেসএক্স।
বাস্তবে স্পেসএক্স ঠিক কতোগুলো স্যাটেলাইট মহাকাশে পাঠাবে পরিকল্পনায় তা এখনও স্পষ্ট করে বলা হয়নি। ইতোমধ্যেই অনুমোদন পাওয়া ১২ হাজার স্যাটেলাইট পাঠানোর কাজ শেষ করা হবে কিনা তারও কোনো নিশ্চয়তা নেই।


চলতি বছরের শুরুতে স্পেসএক্স প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মাস্ক বলেন, এক হাজার স্যাটেলাইটের গুচ্ছ থেকেই টেকসই অর্থনৈতিক ব্যবস্থা আসতে পারে।

ব্যাটারিচালিত ডিভাইস নাক ডাকার সমাধান দেবে
                                  

ঘুমের মধ্যে নাক ডাকা থামাতে আনা হয়েছে সমনিবেল নামে ব্যাটারিচালিত ডিভাইস। নাক ডাকার সময় কপালে লাগিয়ে রাখা এই ডিভাইসটি মৃদু কম্পনের মাধ্যমে ব্যবহারকারীকে সতর্ক করবে। ব্যবহারকারী যতক্ষণ পর্যন্ত না তার অবস্থান পরিবর্তন করবেন এবং নাক ডাকা বন্ধ হবে ততক্ষণ পর্যন্ত এটি কম্পন দিতে থাকবে বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড মিরর। এখন পর্যন্ত ডিভাইসটির বিক্রি শুরু করেনি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান সিবেলমেড।

তবে, শীঘ্রই এটি বাজারে আনা হবে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে বলা হয়, “এটি একটি মেডিকেল পণ্য যাতে ক্ষুদ্র যন্ত্রাংশ রয়েছে এবং এর ওজন ১৭ গ্রাম। একটি হাইপোঅ্যালার্জেনিক আঠালো প্যাড দিয়ে এটি কপালে লেগে থাকে। “গ্রাহক যখন চিৎ হয়ে শুয়ে থাকেন তখন তার শরীরের অবস্থান পরিবর্তন করতে ডিভাইসটি মৃদু কম্পন তৈরি করে, এতে ঘুমের সময় শ্বাস-প্রশ্বাসে বাধা কমে যার ফলে নাক ডাকা বন্ধ হয়।”

 

ভূমি সেবা সংশ্লিষ্ট হটলাইন কার্যক্রম চালু হচ্ছে আজ
                                  

 ভূমি সেবা সংশ্লিষ্ট হটলাইন কার্যক্রম (কল সেন্টার) চালু হচ্ছে আজ বৃহস্পতিবার। ১৬১২২ নম্বরে ফোন করে ভূমি সংক্রান্ত অভিযোগ জানানো যাবে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ভূমি সেবা হটলাইন উদ্বোধন করবেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী। ভূমি মন্ত্রণালয়ের এক কর্মসূচিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ভূমি মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, জরুরি অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ, অভিযোগ দ্রুততম সময়ের মধ্যে নিষ্পত্তি, সেবাগ্রহীতাদের কাছ থেকে অভিযোগ গ্রহণের উদ্দেশ্য নিয়ে কল সেন্টার চালু করা হচ্ছে।

অভিযোগকারীর নাম, ঠিকানা বা পরিচয় কোনো অবস্থাতেই প্রকাশ করা হবে না। ভূমি মন্ত্রণালয়ের জন ৩০ জন এজেন্ট/অপারেটর (প্রাথমিকভাবে পাঁচজন এজেন্ট/অপারেটর) বিশিষ্ট কল সেন্টার স্থাপন ও চালু করার জন্য বাংলাদেশ টেলিফোন শিল্প সংস্থা সহায়তা দিচ্ছে। অত্যাধুনিক পূর্ণাঙ্গ কল সেন্টারে ৩৬ ইউনিটের সিসিটিভি সিস্টেম, ডিজিটাল এলআইডি ইন্টার‌্যাক্টিভ মনিটরসহ আনুষঙ্গিক অনেক আধুনিক যন্ত্রপাতি থাকবে। কল সেন্টার স্থাপনের প্রাথমিক খরচ প্রায় ১ কোটি ৬০ লাখ টাকা।

 

ফেইসবুককে কনটেন্ট সরানোর রাষ্ট্রীয় আদেশ মানতে হবে
                                  

ফেইসবুকে পোস্ট করা একটি মন্তব্য থেকে যে লড়াইয়ের শুরু, সেই লড়াই-ই ঠিক করে দিলো মানহানী বিষয়ে ইউরোপীয় আইনের হাত অনলাইনেও কতটা দীর্ঘ।
কোনো দেশ ফেইসবুককে কোনো বিশেষ পোস্ট, ছবি বা ভিডিও সরিয়ে নেওয়ার এবং বিশ্বব্যপী ওই কনটেন্ট দেখায় সীমাবদ্ধতা জারি করার আদেশ দিতে পারে বলে বৃহস্পতিবার রায় দিয়েছে ইউরোপের শীর্ষ আদালত। এই রায়ের মাধ্যমে বস্তুত ঠিক করে দেওয়া হলো যে, একটি দেশ তার ভৌগলিক সীমার বাইরেও তার বিষয়ে কোনো কনটেন্ট দেখা যাবে কি না সেটি নির্ধারণ করার ক্ষমতা রাখে- বলা হয়েছে নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে।


মন্তব্যটি করা হয়েছিল অস্ট্রিয়ান গ্রিন পার্টির সাবেক নেতা ইভা গ্ল্যাউইশনিগ-পিসজেক সম্পর্কে। একটি ব্যক্তিগত ফেইসবুক পেইজে যখন তার সম্পর্কে অপমানজনক মন্তব্য আসে এবং একরকম পোস্ট অন্যান্যের কাছ থেকেও আসতে শুরু করে তখন তিনি ফেইসবুককে ওই বক্তব্যগুলো তার দেশ থেকে মুছে ফেলার এবং অন্যান্য দেশ থেকেও ওই কনটেন্ট প্রাপ্তি সীমাবদ্ধ করার দাবি জানান।
এই রায়কে ফেইসবুকের মতো সামাজিক মাধ্যমগুলোর জন্য একটি বড় ধরনের আঘাত হিসেবেই দেখা হচ্ছে। এর ফলে দেশভিত্তিক কনটেন্ট দেখা যাওয়া বা না যাওয়ার মতো বিষয়গুলোয় নজরদারি ও তদারকির দায় নিতে হবে ফেইসবুকের মতো বৈশ্বিক সামাজিক মাধ্যমগুলোকে।


প্রতিবেদনে বলা হয়, আরও গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, এই রায়ের অণুরণন ঘটবে বিভিন্ন দেশে যেখানে মানহনী ও গোপনাতা বিষয়ে একেক দেশের আইন একেকরকম। এ ছাড়াও রয়েছে ভাষাগত পার্থক্য যার কারণে ‘এক দেশের বুলি অপর দেশে গালি’ হিসেবে দেখা হয়।
গুরুত্বপূর্ণ এই রায় আদতে বিশ্বব্যপী সামাজিক মাধ্যমগুলোর জন্য একক মান তৈরিতে একটি বড় বাধা হয়ে দাঁড়াবে বলে মন্তব্য করা হয়েছে।

 

আইফোন ট্র্যাকিং মামলা ‘চলবে’ গুগলের বিরুদ্ধে
                                  

৪০ লাখ আইফোন গ্রাহকের ব্যক্তিগত ডেটা ট্র্যাকিংয়ের দায়ে যুক্তরাজ্যে গুগলের বিরুদ্ধে করা মামলা ‘সামনে এগোতে কোনো বাধা নেই’ বলে রুল জারি করেছেন তিন বিচারক। এর আগে মামলাটি আটকে দিয়েছিলো হাই কোর্ট। গুগলের বিরুদ্ধে এই মামলাটি করেছেন ভোক্তা অধিকার গ্রুপ হুইচ? এর সাবেক পরিচালক রিচার্ড লয়েড-- খবর বিবিসি’র। মামলার জবাবে গুগলের পক্ষ থেকে বলা হয়, “মামলাটি যে বিষয়ে করা হয়েছে সে ঘটনাটি প্রায় এক দশক আগের এবং আমরা সে সময় এটি নিয়ে কথা বলেছিলাম। “আমাদের বিশ্বাস এই মামলার কোনো ভিত্তি নেই এবং এটি বাতিল করা উচিত।

২০১১ এবং ২০১২ সালের মধ্যে ব্রাউজার কুকি’র মাধ্যমে গুগল অ্যাপলের সাফারি ওয়েব ব্রাউজার দিয়ে গ্রাহকের স্বাস্থ্য, জাত, লিঙ্গ এবং আর্থিক বিষয়ের ডেটা সংগ্রহ করেছিলো। গ্রাহক তার গোপনীয়তা সেটিংস থেকে ‘ডু নট ট্র্যাক’ অপশন বাছাই করে থাকলেও ডেটা ট্র্যাক করা হচ্ছিলো বলে দাবি করেছেন লয়েড। ডেটা অপব্যবহারের দায়ে যুক্তরাজ্যে বড় কোনো প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে এটিই প্রথম ক্লাস অ্যাকশন মামলা। এ ধরনের মামলায় অনেকের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন একজন।

২০১৮ সালের অক্টোবরে মামলাটি বাতিল করা হয়। সে সময় বিচারক জাস্টিস ওয়ারবি বলেন, ঠিক কত সংখ্যক গ্রাহক আক্রান্ত হয়েছেন তা বের করাটা কষ্টকর। এবার আপিলে দেওয়া রুলে মামলাটি সামনে নেওয়ার পক্ষে সিদ্ধান্ত দিলো আদালত। এ বিষয়ে লয়েড বলেন, “আজকের এই বিচার গুগল এবং অন্যান্য বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোকে একটি স্পষ্ট বার্তা দিচ্ছে যে আপনারা আইনের উর্ধে নন।

২০১২ সালে এই একই কারণে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সোয়া দুই কোটি মার্কিন ডলার জরিমানা দিতে রাজি হয়েছিলো গুগল। তবে প্রতিষ্ঠানটি সে সময় এমনটাও দাবি করেছিলো যে কোনো ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করা হয়নি এবং ওই পদক্ষেপ ছিল “অনিচ্ছাকৃত”। ওই সময় কোনো প্রতিষ্ঠানের ওপর মার্কিন ফেডারেল ট্রেড কমিশনের পক্ষ থেকে এটিই সবচেয়ে বড় জরিমানা অঙ্ক ছিলো।

 

এআই প্রযুক্তি সমাজকে বদলে দিতে পারে: পলক
                                  

 কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার (এআই) অবিশ্বাস্য শক্তি সমাজকে সুনিপুণভাবে বদলে দিতে পারে। একইসঙ্গে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সুবিধাকে কাজে লাগিয়ে দেশ জাঁতি তথা মানবতার জন্য অনেক ভালো কাজ করার সুযোগ রয়েছে। এমনটাই বলেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। গতকাল শুক্রবার ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম আয়োজিত ‘ইন্ডিয়া ইকোনমিক সামিট ২০১৯’ শীর্ষক এক ওয়ার্কশপের প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন পলক। এ সময় তিনি বলেন, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার (এআই) অবিশ্বাস্য শক্তি সমাজকে সুনিপুণভাবে বদলে দিতে পারে।

একই সঙ্গে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সুবিধাকে কাজে লাগিয়ে দেশ জাঁতি তথা মানবতার জন্য অনেক ভালো কাজ করার সুযোগ রয়েছে। এর মাধ্যমে মানুষের চেয়ে অনেক বেশি স্মার্ট ও দক্ষতার সঙ্গে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা এবং বিশাল পরিমাণের তথ্য-উপাত্ত (ডেটা) যাচাই, বাছাই করা সম্ভব। প্যানেল আলোচনায় অন্যান্যের মধ্যে অংশ নেন গ্লোবাল এশিয়া-প্যাসিফিক আমেরিকা (এপিএ) লিডারশিপ টিমের অ্যাডভাইজার দীপংকর সানওয়ালকা, হাওলেট পেকার এন্টারপ্রাইজ ইন্ডিয়ার ব্যবস্থাপনা পরিচালক সম সাতসানজি, মডারেটর হিসেবে ছিলেন ওয়ার্ল্ড ইকোমিক ফোরামের আর্টিফিসিয়াল ইন্টিলিজেন্স ও মেশিন লার্নিংয়ের ফোর্থপলিও হেড কে এফ ভুটারফিল্ড। বিভিন্ন দেশ ও অঞ্চলের সরকারি ও বেসরকারি খাতের মেশিন লার্নিং ও আই বিশেষজ্ঞরা এতে অংশ নেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ ভিশন ঘোষণার পর বাংলাদেশ স্বাস্থ্য, শিক্ষা, কর্মসংস্থান, স্মার্ট সিটি, ট্রাফিক ব্যবস্থাপনাসহ সবকিছুতেই টেকনোলজি ও ইমার্জিং টেকনোলজি ব্যবহার করছে। আর্টিফিসিয়াল টেকনোলজি আসার পর মানুষের জীবনযাত্রাকে সহজতর করতে আমরা স্বাস্থ্য, শিক্ষা ট্রাফিক ব্যবস্থাসহ সবক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য এআই ব্যবহারের জন্য কার্যক্রম গ্রহণে কাজ করছি। বাংলাদেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ ন্যাশনাল স্ট্র্যাটেজি ফর আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা এআই কৌশলপত্রের প্রাথমিক খসড়া প্রস্তুত করেছে।

যা বর্তমানে চূড়ান্ত করার পর্যায়ে রয়েছে। পলক বলেন, ফোর্থ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেভ্যুলেশনে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার মাধ্যমে একদিকে মেশিনের কার্যক্রম বাড়বে এর বিপরীতে মানুষের কার্যক্রম কমে আসবে। ফলে মানুষকে রিস্কিলিং বা নতুন করে প্রশিক্ষিত করে তুলতে হবে। আর আমাদের শিক্ষার্থীদের চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের নতুন প্রযুক্তির উপযোগী করে গড়ে তুলতে স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন কারিকুলাম প্রস্তুত করা হচ্ছে। সফরে তিনি আরো বেশ কয়েকটি প্যানেল আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন।

হ্যাকার দল গ্যান্ডক্র্যাব আবারও সক্রিয়
                                  

 বিশ্বব্যাপী নতুন করে সাইবার আক্রমণ শুরু করেছে কুখ্যাত হ্যাকার দল গ্যান্ডক্র্যাব। ধারণা করা হয়েছিল দলটি হয়তো কোন কারণে নিষ্ক্রিয় হয়ে গিয়েছিল। নতুন ধরনের একটি কম্পিউটার ভাইরাস শনাক্ত করেছেন সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান সিকিওরওয়ার্কস-এর গবেষকরা। এটি যাচাইয়ের পর তারা চূড়ান্তভাবে হ্যাকার দলটির উপস্থিতি নিশ্চিত করেছেন। প্রতিষ্ঠানটির দাবি, এই ভাইরাস নির্মাতারা ওই গ্যান্ডক্র্যাব দলেরই সদস্য-- খবর বিবিসি’র। রাশিয়াভিত্তিক দলটি ইতোপূর্বে একটি বিশেষায়িত র‌্যানসমওয়্যার অন্যান্য কিছু হ্যাকারদের কাছে বিক্রি করেছে বলেও ধারণা করা হচ্ছে।

হ্যাকার দলটির কোডে বিশেষ ধরনের ডেটা রয়েছে যা আক্রান্ত কম্পিউটারে কৌশলে প্রবেশ করে। এরপর তাদের সমস্ত ডেটা আটকে দিয়ে মুক্তিপণ হিসেবে অর্থ দাবি করে। একটি হিসেব থেকে দেখা গেছে তারা এ পর্যন্ত ১৫ লাখ কম্পিউটারকে আক্রমণ করেছে যার মধ্যে হাসপাতালও রয়েছে। পরবর্তীতে দলটি সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠানগুলোকে তাক লাগিয়ে অবসরের ঘোষণা দেয়। তবে, তারা ঘোষণাটি দেয় ২০০ কোটি মার্কিন ডলার আয়ের পর। দলেরই কোনো এক সূত্রের পক্ষ থেকে বলা হয়, সম্পূর্ণ অর্থ নগদ উত্তোলনের পরই তারা তাদের ব্যবসা বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছে।

২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে দলটি পুনরায় তাদের কার্যক্রম শুরু করে। নতুন ধারার একটি র‌্যানসমওয়্যারের সঙ্গে এই দলটির যোগসাদৃশ্য লক্ষ্য করেছে সিকিওরওয়ার্কস। র‌্যাননসমওয়্যারটির নাম ‘রেভিল’ অথবা ’সনডিনোকিবি’। ম্যালওয়্যারটি ইতোমধ্যেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শতাধিক ডেন্টাল ক্লিনিক আক্রমণ করেছে বলে জানানো হয়েছে। গবেষকরা জানান, নতুন এই ম্যালওয়ারের কোড ভুলগুলোও আগের মতোই।

সিকিওরওয়ার্কসের কাউন্টার থ্রেট ইউনিটের পরিচালক ডন স্মিথ জানিয়েছেন, “ব্যাং টু রাইটস নামে তাদের আরেকটি দল রয়েছে।” তিনি আরও বলেন, “তাদের এই পূনর্গঠনে আমরা মোটেও বিম্মিত নই। “এমন আশঙ্কাও রয়েছে যে, গ্যান্ডক্র্যাব ব্র্যান্ডের ওপর নজর কমাতে চাইছিলো তারা এবং এর মধ্যে নতুন পণ্য উন্মুক্ত করা হয়েছে।”

ম্যাইক্রোসফটের চার হাজার কোটি ডলারের শেয়ার বাইব্যাক
                                  

আরও চার হাজার কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের শেয়ার বাইব্যাকের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মাইক্রোসফট। পাশাপাশি এক প্রান্তিকে প্রতিষ্ঠানের প্রতি শেয়ারে লভ্যাংশ পাঁচ সেন্ট থেকে বেড়ে ৫১ সেন্ট হবে বলে জানানো হয়েছে। মাইক্রোসফটের এই ঘোষণার পর বুধবার দিন শেষে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার মূল্য বেড়েছে এক শতাংশ-- খবর সিএনবিসি’র।
প্রতিষ্ঠান প্রধান সাত্যিয়া নাদেলার নেতৃত্বে নিয়মিতভাবেই শেয়ার বাইব্যাক করছে মাইক্রোসফট। এর আগে ৩০ জুন শেষ হওয়া অর্থ বছরে ১৯৫৪ কোটি মার্কিন ডলারের শেয়ার বাইব্যাক করেছে প্রতিষ্ঠানটি। তার আগের অর্থ বছরে ১০৭২ কোটি ডলারের শেয়ার বাইব্যাক করেছে তারা।


প্রধান নির্বাহী দায়িত্বে নাদেলার সাড়ে পাঁচ বছরে মাইক্রোসফটের শেয়ার মূল্য বেড়েছে প্রায় চার গুণ। এই সময়ে ট্রিলিয়ন ডলার বাজার মূল্যের তকমাও পেয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।
২০০৩ সালে প্রথম শেয়ারধারীদের লভ্যাংশ দিতে শুরু করে মাইক্রোসফট। এরপর প্রতি বছরই বেড়েছে প্রান্তিকের লভ্যাংশের পরিমাণ। এক বছর আগে প্রতি শেয়ারে প্রতিষ্ঠানের লভ্যাংশ চার সেন্ট থেকে বেড়ে দাঁড়ায় ৪৬ সেন্ট।


মাইক্রোসফটের শেয়ারধারীদেরকে ২১ নভেম্বর পর্যন্ত হিসেব করা লভ্যাংশ দেওয়া হবে ১২ ডিসেম্বর।
স্টিভ বালমারের কাছ থেকে নাদেলা যখন প্রতিষ্ঠান প্রধানের দায়িত্ব নেন ওই সময়ের চেয়ে এখন লভ্যাংশের পরিমাণ হচ্ছে প্রায় দ্বিগুণ।

 


   Page 1 of 62
     তথ্যপ্রযুক্তি
১২০ কোটি ব্যবহারকারীর তথ্য ঝুঁকির মুখে
.............................................................................................
টুইটারে সৌদি গুপ্তচরবৃত্তি, বিপাকে অ্যাক্টিভিস্টরা
.............................................................................................
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভ্রান্তি ছড়ালে সার্ভিস প্রোভাইডারের জরিমানা: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
গুগল গোপনে রোগীর তথ্য জোগাড় করছে
.............................................................................................
এবার আর্থিক লেনদেন সেবা নিয়ে আসছে ফেইসবুক
.............................................................................................
ফেসবুকের ৫৪০ কোটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট বন্ধ
.............................................................................................
ডিজিটাল সেন্টারগুলোকে ওয়ানস্টপ সার্ভিস সেন্টার হিসেবে গড়ে তোলা হবে: তাজুল
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটে দেশীয় টিভি চ্যানেলগুলোকে অগ্রাধিকার দেয়ার সুপারিশ
.............................................................................................
স্পেসএক্স আরও ৩০ হাজার স্যাটেলাইট পাঠাবে
.............................................................................................
ব্যাটারিচালিত ডিভাইস নাক ডাকার সমাধান দেবে
.............................................................................................
ভূমি সেবা সংশ্লিষ্ট হটলাইন কার্যক্রম চালু হচ্ছে আজ
.............................................................................................
ফেইসবুককে কনটেন্ট সরানোর রাষ্ট্রীয় আদেশ মানতে হবে
.............................................................................................
আইফোন ট্র্যাকিং মামলা ‘চলবে’ গুগলের বিরুদ্ধে
.............................................................................................
এআই প্রযুক্তি সমাজকে বদলে দিতে পারে: পলক
.............................................................................................
হ্যাকার দল গ্যান্ডক্র্যাব আবারও সক্রিয়
.............................................................................................
ম্যাইক্রোসফটের চার হাজার কোটি ডলারের শেয়ার বাইব্যাক
.............................................................................................
১০ কোটি নাগরিকের পরিচয়পত্র যাচাইকৃত অবস্থায় আছে: পলক
.............................................................................................
এবার কি মহাবিশ্বে প্রাণের অস্তিত্ব মিলবে?
.............................................................................................
ফের ইউটিউবের জরিমানা ১৭ কোটি ডলার
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২: বিশেষজ্ঞের পরামর্শে পরিকল্পনার নির্দেশ টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর
.............................................................................................
এআই সব দিক থেকেই মানব ক্ষমতাকে ছাড়িয়ে যাবে: মাস্ক
.............................................................................................
মাত্র ১৩ মিনিট চার্জে ২ দিন চলবে
.............................................................................................
অ্যান্ড্রয়েড ফোন হারিয়ে গেলে করনীয়
.............................................................................................
অবিক্রিত পণ্য দান করার ঘোষণা দিয়েছে অ্যামাজন
.............................................................................................
নগদ অ্যাপ এলো আইওএস প্ল্যাটফর্মেও
.............................................................................................
নগদ অ্যাপ এলো আইওএস প্ল্যাটফর্মেও
.............................................................................................
‘ছারপোকা ব্লাড ব্যাংক’, রক্তের সন্ধান দেবে অ্যাপস
.............................................................................................
তদন্তের মুখে ফেসঅ্যাপ
.............................................................................................
ড্রোন বাজার এক দশকে তিন গুণ হবে
.............................................................................................
অনলাইনে সরকারি ফরম, কমছে ভোগান্তি
.............................................................................................
এনআইডি যাচাইয়ের গেটওয়ে ‘পরিচয়’ উদ্বোধন করবেন জয়
.............................................................................................
সামান্য ব্যয় বাড়বে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে
.............................................................................................
ব্যাংকের নিয়মে আসতে হবে ফেসবুককে: ট্রাম্প
.............................................................................................
ফ্রান্সে ফেসবুক-গুগলের ওপর ৩ শতাংশ কর
.............................................................................................
গ্রামীণফোন, টেলিনর ও ইউনিসেফের চুক্তি স্বাক্ষর
.............................................................................................
দাম বেড়েছে ব্যাংকিং কার্ডের
.............................................................................................
মোবাইল ফোন বিস্ফোরণ ঠেকাতে করনীয়
.............................................................................................
গুগলে জানা যাবে বাস, ট্রেনে ভিড়ের তথ্য
.............................................................................................
অ্যাপল ছেড়ে দিচ্ছেন জনি আইভ
.............................................................................................
মহাকাশযানের জ্বালানি চাঁদের বরফ থেকে!
.............................................................................................
সুপারকম্পিউটারের তালিকায় পেছালো চীন
.............................................................................................
ফোর্ড তৃতীয় প্রজন্মের স্বচালিত গাড়ির পরীক্ষায়
.............................................................................................
মোড়ানো যায় এমন স্মার্টফোন আনবে স্যামসাং
.............................................................................................
করের আওতায় আসছে ফেইসবুক-গুগল-অ্যামাজন
.............................................................................................
জাকারবার্গকে চেয়ারম্যান পদ থেকে সরাতে ভোট!
.............................................................................................
বেড়েছে বিটকয়েনের মূল্য
.............................................................................................
ভ্যাট নিবন্ধন ছাড়া ব্যবসা করতে পারবে না ফেসবুক-গুগল
.............................................................................................
ডিজেআই ড্রোন শনাক্ত করবে প্লেন, হেলিকপ্টার
.............................................................................................
নতুন স্টারহপার রকেটের পরীক্ষায় স্পেসএক্স
.............................................................................................
তিনশ’ কোটি প্রোফাইল সরিয়েছে ফেইসবুক
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা ডট কম
মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত ।

প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ মো: হারুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
বার্তা সম্পাদক: মো: শরিফুল ইসলাম রানা
সহ: সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বিশেষ প্রতিনিধি : মো: আকরাম খাঁন
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]