বৃহস্পতিবার , ১৬ রবিঃ আউয়াল ১৪৪১ | ১৪ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   তথ্যপ্রযুক্তি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
ডিজিটাল সেন্টারগুলোকে ওয়ানস্টপ সার্ভিস সেন্টার হিসেবে গড়ে তোলা হবে: তাজুল

 দেশে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারগুলোকে ওয়ানস্টপ সার্ভিস সেন্টার হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার কাজ করছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। গতকাল সোমবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে ডিজিটাল সেন্টারের নবম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ‘অ্যাকসেস টু ইনফরমেশনের’ (এটুআই) উদ্যোগে আয়োজিত ‘ইনোভেশন টক’ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে ডিজিটাল সেন্টারগুলোর মাধ্যমে স্থানীয় বাসিন্দাদের ১৫০ ধরনের সেবা দেওয়া হচ্ছে। সময়ের প্রয়োজনে ডিজিটাল সেন্টারকে ওয়ানস্টপ সার্ভিস সেন্টার হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘ভিশন’ হচ্ছে শহরের সব সুবিধা গ্রামের মানুষের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যাওয়া। শুধু নদীভাঙন বা দারিদ্র্যের কারণে মানুষ গ্রাম ছেড়ে শহরে আসে না, বরং শিক্ষিত যুব সমাজের মধ্যে শহরে আসার প্রবণতা বেশি। তাদের যদি আমরা গ্রামে রেখেই শহরের সুবিধা দিতে পারি, তাহলে আর তারা শহরে আসবে না। তাদের একটি ল্যাপটপ বা কম্পিউটার দিয়েই ঢাকা বা দেশ তো বটেই, পুরো বিশ্বের সঙ্গে যুক্ত করে দেওয়া যায়। আর এই কাজটিই করছে ডিজিটাল সেন্টার। এটুআইর পলিসি অ্যাডভাইজার আনীর চৌধুরীর সঞ্চলনায় ইনোভেশন টকে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকও। তিনি বলেন, সরকারের সেবা জনগণের দুয়ারে পৌঁছে দিতে সারা দেশে ৫ হাজার ৮৬৫টি ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

শুধু দেশে নয়, সারা বিশ্বের কাছে সাফল্যের দৃষ্টান্ত হিসেবে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার প্রশংসিত ও পুরস্কৃত হয়েছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, এটুআইয়ের প্রকল্প পরিচালক মো. আবদুল মান্নানসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অবস্থিত ডিজিটাল সেন্টারের প্রতিনিধিরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রান্তিক পর্যায়ের অনেক উদ্যোক্তাও এতে অংশ নেন।

 

ডিজিটাল সেন্টারগুলোকে ওয়ানস্টপ সার্ভিস সেন্টার হিসেবে গড়ে তোলা হবে: তাজুল
                                  

 দেশে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারগুলোকে ওয়ানস্টপ সার্ভিস সেন্টার হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার কাজ করছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। গতকাল সোমবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে ডিজিটাল সেন্টারের নবম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ‘অ্যাকসেস টু ইনফরমেশনের’ (এটুআই) উদ্যোগে আয়োজিত ‘ইনোভেশন টক’ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে ডিজিটাল সেন্টারগুলোর মাধ্যমে স্থানীয় বাসিন্দাদের ১৫০ ধরনের সেবা দেওয়া হচ্ছে। সময়ের প্রয়োজনে ডিজিটাল সেন্টারকে ওয়ানস্টপ সার্ভিস সেন্টার হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘ভিশন’ হচ্ছে শহরের সব সুবিধা গ্রামের মানুষের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যাওয়া। শুধু নদীভাঙন বা দারিদ্র্যের কারণে মানুষ গ্রাম ছেড়ে শহরে আসে না, বরং শিক্ষিত যুব সমাজের মধ্যে শহরে আসার প্রবণতা বেশি। তাদের যদি আমরা গ্রামে রেখেই শহরের সুবিধা দিতে পারি, তাহলে আর তারা শহরে আসবে না। তাদের একটি ল্যাপটপ বা কম্পিউটার দিয়েই ঢাকা বা দেশ তো বটেই, পুরো বিশ্বের সঙ্গে যুক্ত করে দেওয়া যায়। আর এই কাজটিই করছে ডিজিটাল সেন্টার। এটুআইর পলিসি অ্যাডভাইজার আনীর চৌধুরীর সঞ্চলনায় ইনোভেশন টকে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকও। তিনি বলেন, সরকারের সেবা জনগণের দুয়ারে পৌঁছে দিতে সারা দেশে ৫ হাজার ৮৬৫টি ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

শুধু দেশে নয়, সারা বিশ্বের কাছে সাফল্যের দৃষ্টান্ত হিসেবে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার প্রশংসিত ও পুরস্কৃত হয়েছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, এটুআইয়ের প্রকল্প পরিচালক মো. আবদুল মান্নানসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অবস্থিত ডিজিটাল সেন্টারের প্রতিনিধিরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রান্তিক পর্যায়ের অনেক উদ্যোক্তাও এতে অংশ নেন।

 

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটে দেশীয় টিভি চ্যানেলগুলোকে অগ্রাধিকার দেয়ার সুপারিশ
                                  

তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভায় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সাথে সংযোগের ক্ষেত্রে দেশীয় টিভি চ্যানেলগুলোকে অগ্রাধিকার দেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। সংসদ ভবনে গতকাল সোমবার কমিটির সভাপতি হাসানুল হক ইনুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সদস্য তথ্য মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, কাজী কেরামত আলী, আকবর হোসেন পাঠান (ফারুক), মমতা হেনা লাভলী ও সালমা চৌধুরী সভায় অংশগ্রহণ করেন। বিশেষ আমন্ত্রনে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মো: মুরাদ হাসান সভায় অংশ নেন। বিসিএস (তথ্য) ক্যাডারের বাংলাদেশ বেতারে কর্মরত কর্মকর্তাদের সুপারনিউমারারি পদোন্নতির মাধ্যমে দীর্ঘ পদোন্নতি জট নিরসনে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করতে মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়।

এছাড়াও তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির পক্ষ থেকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে একটি অনুরোধ পত্র প্রেরণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় টেলিভিশন সেটের ওপর লাইসেন্স ফি পুনঃধার্যের বিষয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে একটি প্রস্তাব কমিটিতে উপস্থাপনের জন্য মন্ত্রণালয়কে পরামর্শ দেয়া হয়।

এছাড়াও কমিটিতে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সাথে সরকারি-বেসরকারি টেলিভিশনের সংযোগ স্থাপন এবং সম্প্রচারের ক্ষেত্রে চ্যানেল ক্রম ধারায় দেশি চ্যানেলসমূহকে অগ্রাধিকার দেয়ার বিষয়ে আলোচনা করা হয়। তথ্য সচিব আবদুল মালেক, বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালকসহ মন্ত্রণালয় এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

 

স্পেসএক্স আরও ৩০ হাজার স্যাটেলাইট পাঠাবে
                                  

 মহাকাশে আরও ৩০ হাজার স্টারলিংক ব্রডব্যান্ড স্যাটেলাইট পাঠাতে চায় ইলন মাস্কের স্পেসএক্স। এ ধরনের সর্বোচ্চ ১২ হাজার স্যাটেলাইট পাঠানোর পরিকল্পনা আগেই জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।


পৃথিবীর চারপাশে নিম্ন কক্ষপথে ১২ হাজার পর্যন্ত স্টারলিংক স্যাটেলাইট বসাতে ইতোমধ্যেই মার্কিন ফেডারেল কমিউনিকেশনস কমিশন (এফসিসি)-এর অনুমোদন পেয়েছে স্পেসএক্স।
ভারতীয় সংবারমাধ্যম আইএএনএস-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, সর্বোচ্চ আরও ৩০ হাজার স্টারলিংক স্যাটেলাইটের জন্য সম্প্রতি ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়ন (আইটিইউ)-এর কাছে নথি জমা দিয়েছে মাস্কের মহাকাশযান নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি।


তবে ওই অনুমোদন পেতে সাত বছরও সময় লাগতে পারে। এরপরই স্যাটেলাইটগুলো পাঠাতে পারবে স্পেসএক্স।
বাস্তবে স্পেসএক্স ঠিক কতোগুলো স্যাটেলাইট মহাকাশে পাঠাবে পরিকল্পনায় তা এখনও স্পষ্ট করে বলা হয়নি। ইতোমধ্যেই অনুমোদন পাওয়া ১২ হাজার স্যাটেলাইট পাঠানোর কাজ শেষ করা হবে কিনা তারও কোনো নিশ্চয়তা নেই।


চলতি বছরের শুরুতে স্পেসএক্স প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মাস্ক বলেন, এক হাজার স্যাটেলাইটের গুচ্ছ থেকেই টেকসই অর্থনৈতিক ব্যবস্থা আসতে পারে।

ব্যাটারিচালিত ডিভাইস নাক ডাকার সমাধান দেবে
                                  

ঘুমের মধ্যে নাক ডাকা থামাতে আনা হয়েছে সমনিবেল নামে ব্যাটারিচালিত ডিভাইস। নাক ডাকার সময় কপালে লাগিয়ে রাখা এই ডিভাইসটি মৃদু কম্পনের মাধ্যমে ব্যবহারকারীকে সতর্ক করবে। ব্যবহারকারী যতক্ষণ পর্যন্ত না তার অবস্থান পরিবর্তন করবেন এবং নাক ডাকা বন্ধ হবে ততক্ষণ পর্যন্ত এটি কম্পন দিতে থাকবে বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড মিরর। এখন পর্যন্ত ডিভাইসটির বিক্রি শুরু করেনি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান সিবেলমেড।

তবে, শীঘ্রই এটি বাজারে আনা হবে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে বলা হয়, “এটি একটি মেডিকেল পণ্য যাতে ক্ষুদ্র যন্ত্রাংশ রয়েছে এবং এর ওজন ১৭ গ্রাম। একটি হাইপোঅ্যালার্জেনিক আঠালো প্যাড দিয়ে এটি কপালে লেগে থাকে। “গ্রাহক যখন চিৎ হয়ে শুয়ে থাকেন তখন তার শরীরের অবস্থান পরিবর্তন করতে ডিভাইসটি মৃদু কম্পন তৈরি করে, এতে ঘুমের সময় শ্বাস-প্রশ্বাসে বাধা কমে যার ফলে নাক ডাকা বন্ধ হয়।”

 

ভূমি সেবা সংশ্লিষ্ট হটলাইন কার্যক্রম চালু হচ্ছে আজ
                                  

 ভূমি সেবা সংশ্লিষ্ট হটলাইন কার্যক্রম (কল সেন্টার) চালু হচ্ছে আজ বৃহস্পতিবার। ১৬১২২ নম্বরে ফোন করে ভূমি সংক্রান্ত অভিযোগ জানানো যাবে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ভূমি সেবা হটলাইন উদ্বোধন করবেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী। ভূমি মন্ত্রণালয়ের এক কর্মসূচিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ভূমি মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, জরুরি অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ, অভিযোগ দ্রুততম সময়ের মধ্যে নিষ্পত্তি, সেবাগ্রহীতাদের কাছ থেকে অভিযোগ গ্রহণের উদ্দেশ্য নিয়ে কল সেন্টার চালু করা হচ্ছে।

অভিযোগকারীর নাম, ঠিকানা বা পরিচয় কোনো অবস্থাতেই প্রকাশ করা হবে না। ভূমি মন্ত্রণালয়ের জন ৩০ জন এজেন্ট/অপারেটর (প্রাথমিকভাবে পাঁচজন এজেন্ট/অপারেটর) বিশিষ্ট কল সেন্টার স্থাপন ও চালু করার জন্য বাংলাদেশ টেলিফোন শিল্প সংস্থা সহায়তা দিচ্ছে। অত্যাধুনিক পূর্ণাঙ্গ কল সেন্টারে ৩৬ ইউনিটের সিসিটিভি সিস্টেম, ডিজিটাল এলআইডি ইন্টার‌্যাক্টিভ মনিটরসহ আনুষঙ্গিক অনেক আধুনিক যন্ত্রপাতি থাকবে। কল সেন্টার স্থাপনের প্রাথমিক খরচ প্রায় ১ কোটি ৬০ লাখ টাকা।

 

ফেইসবুককে কনটেন্ট সরানোর রাষ্ট্রীয় আদেশ মানতে হবে
                                  

ফেইসবুকে পোস্ট করা একটি মন্তব্য থেকে যে লড়াইয়ের শুরু, সেই লড়াই-ই ঠিক করে দিলো মানহানী বিষয়ে ইউরোপীয় আইনের হাত অনলাইনেও কতটা দীর্ঘ।
কোনো দেশ ফেইসবুককে কোনো বিশেষ পোস্ট, ছবি বা ভিডিও সরিয়ে নেওয়ার এবং বিশ্বব্যপী ওই কনটেন্ট দেখায় সীমাবদ্ধতা জারি করার আদেশ দিতে পারে বলে বৃহস্পতিবার রায় দিয়েছে ইউরোপের শীর্ষ আদালত। এই রায়ের মাধ্যমে বস্তুত ঠিক করে দেওয়া হলো যে, একটি দেশ তার ভৌগলিক সীমার বাইরেও তার বিষয়ে কোনো কনটেন্ট দেখা যাবে কি না সেটি নির্ধারণ করার ক্ষমতা রাখে- বলা হয়েছে নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে।


মন্তব্যটি করা হয়েছিল অস্ট্রিয়ান গ্রিন পার্টির সাবেক নেতা ইভা গ্ল্যাউইশনিগ-পিসজেক সম্পর্কে। একটি ব্যক্তিগত ফেইসবুক পেইজে যখন তার সম্পর্কে অপমানজনক মন্তব্য আসে এবং একরকম পোস্ট অন্যান্যের কাছ থেকেও আসতে শুরু করে তখন তিনি ফেইসবুককে ওই বক্তব্যগুলো তার দেশ থেকে মুছে ফেলার এবং অন্যান্য দেশ থেকেও ওই কনটেন্ট প্রাপ্তি সীমাবদ্ধ করার দাবি জানান।
এই রায়কে ফেইসবুকের মতো সামাজিক মাধ্যমগুলোর জন্য একটি বড় ধরনের আঘাত হিসেবেই দেখা হচ্ছে। এর ফলে দেশভিত্তিক কনটেন্ট দেখা যাওয়া বা না যাওয়ার মতো বিষয়গুলোয় নজরদারি ও তদারকির দায় নিতে হবে ফেইসবুকের মতো বৈশ্বিক সামাজিক মাধ্যমগুলোকে।


প্রতিবেদনে বলা হয়, আরও গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, এই রায়ের অণুরণন ঘটবে বিভিন্ন দেশে যেখানে মানহনী ও গোপনাতা বিষয়ে একেক দেশের আইন একেকরকম। এ ছাড়াও রয়েছে ভাষাগত পার্থক্য যার কারণে ‘এক দেশের বুলি অপর দেশে গালি’ হিসেবে দেখা হয়।
গুরুত্বপূর্ণ এই রায় আদতে বিশ্বব্যপী সামাজিক মাধ্যমগুলোর জন্য একক মান তৈরিতে একটি বড় বাধা হয়ে দাঁড়াবে বলে মন্তব্য করা হয়েছে।

 

আইফোন ট্র্যাকিং মামলা ‘চলবে’ গুগলের বিরুদ্ধে
                                  

৪০ লাখ আইফোন গ্রাহকের ব্যক্তিগত ডেটা ট্র্যাকিংয়ের দায়ে যুক্তরাজ্যে গুগলের বিরুদ্ধে করা মামলা ‘সামনে এগোতে কোনো বাধা নেই’ বলে রুল জারি করেছেন তিন বিচারক। এর আগে মামলাটি আটকে দিয়েছিলো হাই কোর্ট। গুগলের বিরুদ্ধে এই মামলাটি করেছেন ভোক্তা অধিকার গ্রুপ হুইচ? এর সাবেক পরিচালক রিচার্ড লয়েড-- খবর বিবিসি’র। মামলার জবাবে গুগলের পক্ষ থেকে বলা হয়, “মামলাটি যে বিষয়ে করা হয়েছে সে ঘটনাটি প্রায় এক দশক আগের এবং আমরা সে সময় এটি নিয়ে কথা বলেছিলাম। “আমাদের বিশ্বাস এই মামলার কোনো ভিত্তি নেই এবং এটি বাতিল করা উচিত।

২০১১ এবং ২০১২ সালের মধ্যে ব্রাউজার কুকি’র মাধ্যমে গুগল অ্যাপলের সাফারি ওয়েব ব্রাউজার দিয়ে গ্রাহকের স্বাস্থ্য, জাত, লিঙ্গ এবং আর্থিক বিষয়ের ডেটা সংগ্রহ করেছিলো। গ্রাহক তার গোপনীয়তা সেটিংস থেকে ‘ডু নট ট্র্যাক’ অপশন বাছাই করে থাকলেও ডেটা ট্র্যাক করা হচ্ছিলো বলে দাবি করেছেন লয়েড। ডেটা অপব্যবহারের দায়ে যুক্তরাজ্যে বড় কোনো প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে এটিই প্রথম ক্লাস অ্যাকশন মামলা। এ ধরনের মামলায় অনেকের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন একজন।

২০১৮ সালের অক্টোবরে মামলাটি বাতিল করা হয়। সে সময় বিচারক জাস্টিস ওয়ারবি বলেন, ঠিক কত সংখ্যক গ্রাহক আক্রান্ত হয়েছেন তা বের করাটা কষ্টকর। এবার আপিলে দেওয়া রুলে মামলাটি সামনে নেওয়ার পক্ষে সিদ্ধান্ত দিলো আদালত। এ বিষয়ে লয়েড বলেন, “আজকের এই বিচার গুগল এবং অন্যান্য বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোকে একটি স্পষ্ট বার্তা দিচ্ছে যে আপনারা আইনের উর্ধে নন।

২০১২ সালে এই একই কারণে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সোয়া দুই কোটি মার্কিন ডলার জরিমানা দিতে রাজি হয়েছিলো গুগল। তবে প্রতিষ্ঠানটি সে সময় এমনটাও দাবি করেছিলো যে কোনো ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করা হয়নি এবং ওই পদক্ষেপ ছিল “অনিচ্ছাকৃত”। ওই সময় কোনো প্রতিষ্ঠানের ওপর মার্কিন ফেডারেল ট্রেড কমিশনের পক্ষ থেকে এটিই সবচেয়ে বড় জরিমানা অঙ্ক ছিলো।

 

এআই প্রযুক্তি সমাজকে বদলে দিতে পারে: পলক
                                  

 কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার (এআই) অবিশ্বাস্য শক্তি সমাজকে সুনিপুণভাবে বদলে দিতে পারে। একইসঙ্গে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সুবিধাকে কাজে লাগিয়ে দেশ জাঁতি তথা মানবতার জন্য অনেক ভালো কাজ করার সুযোগ রয়েছে। এমনটাই বলেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। গতকাল শুক্রবার ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম আয়োজিত ‘ইন্ডিয়া ইকোনমিক সামিট ২০১৯’ শীর্ষক এক ওয়ার্কশপের প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন পলক। এ সময় তিনি বলেন, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার (এআই) অবিশ্বাস্য শক্তি সমাজকে সুনিপুণভাবে বদলে দিতে পারে।

একই সঙ্গে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সুবিধাকে কাজে লাগিয়ে দেশ জাঁতি তথা মানবতার জন্য অনেক ভালো কাজ করার সুযোগ রয়েছে। এর মাধ্যমে মানুষের চেয়ে অনেক বেশি স্মার্ট ও দক্ষতার সঙ্গে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা এবং বিশাল পরিমাণের তথ্য-উপাত্ত (ডেটা) যাচাই, বাছাই করা সম্ভব। প্যানেল আলোচনায় অন্যান্যের মধ্যে অংশ নেন গ্লোবাল এশিয়া-প্যাসিফিক আমেরিকা (এপিএ) লিডারশিপ টিমের অ্যাডভাইজার দীপংকর সানওয়ালকা, হাওলেট পেকার এন্টারপ্রাইজ ইন্ডিয়ার ব্যবস্থাপনা পরিচালক সম সাতসানজি, মডারেটর হিসেবে ছিলেন ওয়ার্ল্ড ইকোমিক ফোরামের আর্টিফিসিয়াল ইন্টিলিজেন্স ও মেশিন লার্নিংয়ের ফোর্থপলিও হেড কে এফ ভুটারফিল্ড। বিভিন্ন দেশ ও অঞ্চলের সরকারি ও বেসরকারি খাতের মেশিন লার্নিং ও আই বিশেষজ্ঞরা এতে অংশ নেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ ভিশন ঘোষণার পর বাংলাদেশ স্বাস্থ্য, শিক্ষা, কর্মসংস্থান, স্মার্ট সিটি, ট্রাফিক ব্যবস্থাপনাসহ সবকিছুতেই টেকনোলজি ও ইমার্জিং টেকনোলজি ব্যবহার করছে। আর্টিফিসিয়াল টেকনোলজি আসার পর মানুষের জীবনযাত্রাকে সহজতর করতে আমরা স্বাস্থ্য, শিক্ষা ট্রাফিক ব্যবস্থাসহ সবক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য এআই ব্যবহারের জন্য কার্যক্রম গ্রহণে কাজ করছি। বাংলাদেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ ন্যাশনাল স্ট্র্যাটেজি ফর আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা এআই কৌশলপত্রের প্রাথমিক খসড়া প্রস্তুত করেছে।

যা বর্তমানে চূড়ান্ত করার পর্যায়ে রয়েছে। পলক বলেন, ফোর্থ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেভ্যুলেশনে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার মাধ্যমে একদিকে মেশিনের কার্যক্রম বাড়বে এর বিপরীতে মানুষের কার্যক্রম কমে আসবে। ফলে মানুষকে রিস্কিলিং বা নতুন করে প্রশিক্ষিত করে তুলতে হবে। আর আমাদের শিক্ষার্থীদের চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের নতুন প্রযুক্তির উপযোগী করে গড়ে তুলতে স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন কারিকুলাম প্রস্তুত করা হচ্ছে। সফরে তিনি আরো বেশ কয়েকটি প্যানেল আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন।

হ্যাকার দল গ্যান্ডক্র্যাব আবারও সক্রিয়
                                  

 বিশ্বব্যাপী নতুন করে সাইবার আক্রমণ শুরু করেছে কুখ্যাত হ্যাকার দল গ্যান্ডক্র্যাব। ধারণা করা হয়েছিল দলটি হয়তো কোন কারণে নিষ্ক্রিয় হয়ে গিয়েছিল। নতুন ধরনের একটি কম্পিউটার ভাইরাস শনাক্ত করেছেন সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান সিকিওরওয়ার্কস-এর গবেষকরা। এটি যাচাইয়ের পর তারা চূড়ান্তভাবে হ্যাকার দলটির উপস্থিতি নিশ্চিত করেছেন। প্রতিষ্ঠানটির দাবি, এই ভাইরাস নির্মাতারা ওই গ্যান্ডক্র্যাব দলেরই সদস্য-- খবর বিবিসি’র। রাশিয়াভিত্তিক দলটি ইতোপূর্বে একটি বিশেষায়িত র‌্যানসমওয়্যার অন্যান্য কিছু হ্যাকারদের কাছে বিক্রি করেছে বলেও ধারণা করা হচ্ছে।

হ্যাকার দলটির কোডে বিশেষ ধরনের ডেটা রয়েছে যা আক্রান্ত কম্পিউটারে কৌশলে প্রবেশ করে। এরপর তাদের সমস্ত ডেটা আটকে দিয়ে মুক্তিপণ হিসেবে অর্থ দাবি করে। একটি হিসেব থেকে দেখা গেছে তারা এ পর্যন্ত ১৫ লাখ কম্পিউটারকে আক্রমণ করেছে যার মধ্যে হাসপাতালও রয়েছে। পরবর্তীতে দলটি সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠানগুলোকে তাক লাগিয়ে অবসরের ঘোষণা দেয়। তবে, তারা ঘোষণাটি দেয় ২০০ কোটি মার্কিন ডলার আয়ের পর। দলেরই কোনো এক সূত্রের পক্ষ থেকে বলা হয়, সম্পূর্ণ অর্থ নগদ উত্তোলনের পরই তারা তাদের ব্যবসা বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছে।

২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে দলটি পুনরায় তাদের কার্যক্রম শুরু করে। নতুন ধারার একটি র‌্যানসমওয়্যারের সঙ্গে এই দলটির যোগসাদৃশ্য লক্ষ্য করেছে সিকিওরওয়ার্কস। র‌্যাননসমওয়্যারটির নাম ‘রেভিল’ অথবা ’সনডিনোকিবি’। ম্যালওয়্যারটি ইতোমধ্যেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শতাধিক ডেন্টাল ক্লিনিক আক্রমণ করেছে বলে জানানো হয়েছে। গবেষকরা জানান, নতুন এই ম্যালওয়ারের কোড ভুলগুলোও আগের মতোই।

সিকিওরওয়ার্কসের কাউন্টার থ্রেট ইউনিটের পরিচালক ডন স্মিথ জানিয়েছেন, “ব্যাং টু রাইটস নামে তাদের আরেকটি দল রয়েছে।” তিনি আরও বলেন, “তাদের এই পূনর্গঠনে আমরা মোটেও বিম্মিত নই। “এমন আশঙ্কাও রয়েছে যে, গ্যান্ডক্র্যাব ব্র্যান্ডের ওপর নজর কমাতে চাইছিলো তারা এবং এর মধ্যে নতুন পণ্য উন্মুক্ত করা হয়েছে।”

ম্যাইক্রোসফটের চার হাজার কোটি ডলারের শেয়ার বাইব্যাক
                                  

আরও চার হাজার কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের শেয়ার বাইব্যাকের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মাইক্রোসফট। পাশাপাশি এক প্রান্তিকে প্রতিষ্ঠানের প্রতি শেয়ারে লভ্যাংশ পাঁচ সেন্ট থেকে বেড়ে ৫১ সেন্ট হবে বলে জানানো হয়েছে। মাইক্রোসফটের এই ঘোষণার পর বুধবার দিন শেষে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার মূল্য বেড়েছে এক শতাংশ-- খবর সিএনবিসি’র।
প্রতিষ্ঠান প্রধান সাত্যিয়া নাদেলার নেতৃত্বে নিয়মিতভাবেই শেয়ার বাইব্যাক করছে মাইক্রোসফট। এর আগে ৩০ জুন শেষ হওয়া অর্থ বছরে ১৯৫৪ কোটি মার্কিন ডলারের শেয়ার বাইব্যাক করেছে প্রতিষ্ঠানটি। তার আগের অর্থ বছরে ১০৭২ কোটি ডলারের শেয়ার বাইব্যাক করেছে তারা।


প্রধান নির্বাহী দায়িত্বে নাদেলার সাড়ে পাঁচ বছরে মাইক্রোসফটের শেয়ার মূল্য বেড়েছে প্রায় চার গুণ। এই সময়ে ট্রিলিয়ন ডলার বাজার মূল্যের তকমাও পেয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।
২০০৩ সালে প্রথম শেয়ারধারীদের লভ্যাংশ দিতে শুরু করে মাইক্রোসফট। এরপর প্রতি বছরই বেড়েছে প্রান্তিকের লভ্যাংশের পরিমাণ। এক বছর আগে প্রতি শেয়ারে প্রতিষ্ঠানের লভ্যাংশ চার সেন্ট থেকে বেড়ে দাঁড়ায় ৪৬ সেন্ট।


মাইক্রোসফটের শেয়ারধারীদেরকে ২১ নভেম্বর পর্যন্ত হিসেব করা লভ্যাংশ দেওয়া হবে ১২ ডিসেম্বর।
স্টিভ বালমারের কাছ থেকে নাদেলা যখন প্রতিষ্ঠান প্রধানের দায়িত্ব নেন ওই সময়ের চেয়ে এখন লভ্যাংশের পরিমাণ হচ্ছে প্রায় দ্বিগুণ।

 

১০ কোটি নাগরিকের পরিচয়পত্র যাচাইকৃত অবস্থায় আছে: পলক
                                  

 দেশের ১০ কোটি নাগরিকের পরিচয়পত্র (আইডি) যাচাইকৃত (ভেরিফায়েড) অবস্থায় রয়েছে। আর সেসব আইডির তালিকা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের কাছে রয়েছে। গতকাল রোববার জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) যাচাইয়ে ‘পরিচয় ডট গভ ডট বিডি’ পোর্টালের সঙ্গে ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেডের (ইবিএল) এক চুক্তি সই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমনটাই জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এ চুক্তির মাধ্যমে বেসরকারি খাতের ব্যাংক হিসেবে প্রথম পোর্টালটির সঙ্গে যুক্ত হল ইবিএল।

চুক্তির ফলে ইবিএল একটি নির্দিষ্ট আইডি ও পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে পরিচয় পোর্টাল থেকে গ্রাহকদের বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা, পুলিশ ভেরিফিকেশন রিপোর্ট, পাসপোর্টের তথ্য, স্বাক্ষর, ছবি, বায়োমেট্রিক (আঙুলের ছাপ), কর শনাক্তকরণ নম্বরের (টিআইএন) তথ্য এবং সিআইবি (ক্রেডিট ইনফরমেশন ব্যুরো) তথ্যসহ বিভিন্ন ধরনের তথ্য পাবে। আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, একজন নাগরিককে ডিজিটাল সেবা দেওয়ার জন্য প্রয়োজন মূলত তিনটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। প্রথম ও প্রধান শর্ত হচ্ছে, ভেরিফায়েবল আইডি থাকতে হবে। অর্থাৎ একটা ডিজিটাল ভেরিফায়েড পরিচয় থাকতে হবে। দ্বিতীয়ত, ডিজিটাল পেমেন্ট প্ল্যাটফর্ম। যেন নাগরিকেরা ফিজিক্যাল লেনদেন না করে ডিজিটালি করতে পারে। তৃতীয়ত, ইন্টার-অপারেবলিটি। অর্থাৎ একটা সিস্টেমের সঙ্গে আরেকটা সিস্টেমের; একটা প্ল্যাটফর্মের সঙ্গে আরেকটা প্ল্যাটফর্মের এবং ইন্টার-অপারেবল হতে হবে। এ তিনটা পূরণ করা গেলে সব কার্যক্রম শতভাগ ডিজিটাল করা সম্ভব। আমাদের প্রায় ১০ কোটি নাগরিকের ডিজিটাল ভেরিফায়েড তথ্য এখন আমাদের কাছে আছে। ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ (এনপিএস) আছে। লেনদেনের ক্ষেত্রে ইন্টার-অপারেবলিটি এখনও নেই। তবে উপদেষ্টার নির্দেশনায় আমরা ইন্টার-অপারেবল ডিজিটাল ট্র্যানজেকশন প্ল্যাটফর্ম আমরা করছি। এর ফলে একটা প্ল্যাটফর্ম থেকে আরেকটা প্ল্যাটফর্মে টাকার লেনদেন করা যাবে। প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, আমাদের লক্ষ্য সরকারের ৯০ শতাংশ সেবা ২০২১ সালের মধ্যে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসবো।

আমরা এরইমধ্যে ৮০০ সেবা চিহ্নিত করেছি, যেগুলো ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসতে হবে। মাত্র ১০ বছরে আমরা প্রায় পাঁচ শতাধিক সেবা অনলাইনে এনেছি। ব্যাংকিং থেকে এডুকেশন, এডুকেশন থেকে এমপ্লয়মেন্ট; সবকিছু যেন হাতের ছোঁয়ায় থাকে তার জন্য আমরা কাজ করছি। অনুষ্ঠানে আইসিটি বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের পাশাপাশি ইবিএলর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আলী রেজা ইফতেখারসহ ব্যাংকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এবার কি মহাবিশ্বে প্রাণের অস্তিত্ব মিলবে?
                                  

একশ এগার আলোকবর্ষ দূরে একটি গ্রহে পানির সন্ধান পেয়ে সেখানে প্রাণের অস্তিত্বের সম্ভাবনায় আশাবাদী হয়ে উঠেছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। তারা বলছেন, কোনো নক্ষত্রের বাসযোগ্য দূরত্বের কোনো গ্রহের বায়ুম-লে পানির অস্তিত্ব পাওয়া গেল এই প্রথম। অর্থাৎ সূর্যের সঙ্গে যেমন দূরত্ব রেখে পৃথিবী ঘুরছে, ওই গ্রহটি যে নক্ষত্রকে কেন্দ্র করে ঘুরছে, তাদের তুলনামূলক দূরত্বও তেমন। ফলে পৃথিবীতে যেমন প্রাণের উদ্ভব ঘটেছে, ওই গ্রহটিতেও প্রাণের অস্তিত্ব থাকার বাস্তব পরিবেশ রয়েছে। পৃথিবী থেকে ৬৫০ মিলিয়ন মিলিয়ন মাইল দূরত্বের কে২-১৮বি নামে গ্রহটিতে পানি পাওয়ার খবর বিজ্ঞান সাময়িকী নেচার অ্যাস্ট্রনমিতে এসেছে বলে বিবিসি জানিয়েছে।


তবে গ্রহটিতে আদৌ প্রাণে বিকাশ ঘটেছে কি না বা পৃথিবীর সঙ্গী আর কোনো গ্রহ রয়েছে কি না, তা নিশ্চিত হতে লাগবে আরও অন্তত ১০ বছর। বিজ্ঞানীরা বলছেন, এই সময়ের মধ্যে নতুন স্পেস টেলিস্কোপ আবিষ্কার হবে, যা দিয়ে নিশ্চিত হওয়া যাবে প্রাণের উদ্ভব ঘটানোর মতো গ্যাস ওই গ্রহটিতে রয়েছে কি না? কে২-১৮বিতে পানির সন্ধানের অভিযানের নেতৃত্বদাতা ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের অধ্যাপক জিওভান্না তাদের আবিষ্কারকে এক কথায় বলেছেন ‘অভূতপূর্ব’। “এই প্রথম আমরা এমন গ্রহে পানির সন্ধান পেলাম, যেটি তার নক্ষত্রের বাসযোগ্য অংশে রয়েছে। যেখানকার তাপমাত্রা প্রাণের অস্তিত্বের জন্য সম্ভাবনাময়।

”নক্ষত্রের এই বাসযোগ্য অংশের মানে হল সেই অঞ্চলটি, যেখানে তাপমাত্রা এমন থাকে যাতে পানি তরলকারে কোনো গ্রহের পৃষ্ঠদেশে থাকতে পারে। ওই গ্রহটির বিষয়ে আরও জানতে হাবলের চেয়ে আরও আধুনিক টেলিস্কোপ আবিষ্কারের অপেক্ষায় থাকতে হলেও ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের ড. ইনগো ওয়াল্ডমান এখনই উচ্ছ্বসিত। “বিজ্ঞানে এটাই সবচেয়ে বড় প্রশ্ন এবং আমরা সবসময় রোমাঞ্চিত হই এই ভেবে যে মহাবিশ্বে প্রাণ শুধু আমাদের পৃথিবীতেই আছে। কিন্তু আগামি ১০ বছরের মধ্যে আমরা জানব, এমন কোনো রাসায়নিক কি রয়েছে, যা অন্য গ্রহেও প্রাণ সৃষ্টিতে সক্ষম।” এই গবেষক দল হাবল স্পেস টেলিস্কোপে ২০১৬ ও ১০১৭ সালে নিবিড় পর্যবেক্ষণ চালিয়ে কে২-১৮বি গ্রহে পানির সন্ধান পেয়েছেন। তারা বলছেন, এই গ্রহটির বায়ুম-লে পানির ভাগ ৫০ শতাংশ; আর পানির গঠন পৃথিবীর পানির অনুরূপ। এই গ্রহটির আকার পৃথিবীর দ্বিগুণ। এর তাপমাত্রা শূন্য থেকে ৪০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড। এই সব তথ্য তুলে ধরে গবেষক দলের সদস্য ড. অ্যাঞ্জেলস সিয়ারাস বলেন, “এটা আমাদের সেই প্রশ্নের উত্তরের কাছাকাছি নিয়ে নিয়ে এসেছে- পৃথিবী কি একা?”

 

ফের ইউটিউবের জরিমানা ১৭ কোটি ডলার
                                  

শিশুদের গোপনীয়তা নীতিমালা অমান্য করায় ইউটিউবকে রেকর্ড ১৭ কোটি মার্কিন ডলার জরিমানা করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। ফেডারেল ট্রেড কমিশনের (এফটিসি) সঙ্গে মীমাংসায় জরিমানা দিতে রাজি হয়েছে ইউটিউবের মালিক প্রতিষ্ঠান গুগল। বিবিসি’র প্রতিবেদনে বলা হয়, বাবা-মায়ের সম্মতি ছাড়াই ১৩ বছরের কম বয়সী শিশুদের ডেটা সংগ্রহের অভিযোগ আনা হয়েছে ইউটিউবের বিরুদ্ধে। এফটিসির পক্ষ থেকে বলা হয়, এই ডেটা ব্যবহার করে শিশুদেরকে লক্ষ্য করে বিজ্ঞাপন দেখানো হচ্ছিলো, যা ১৯৯৮ চিলড্রেন’স অনলাইন প্রাইভেসি প্রোটেকশন অ্যাক্ট (কোপপা) অমান্য করছে।

এফটিসি চেয়ারম্যান জো সিমন্স বলেন, “এই আইন অমান্য করায় ইউটিউবের কোনো অজুহাত নেই। সিমন্স আরও বলেন কোপপা মানার বিষয়ে গুগল অস্বীকার করছে যে মূল ইউটিউব সেবার একটি অংশ শিশুদের জন্য। কিন্তু ব্যবসায়িক গ্রাহকদের কাছে উপস্থাপনায় তারা ভিন্ন চিত্র তুলে ধরছে। উদাহরণ হিসেবে এফটিসির পক্ষ থেকে বলা হয়, “শীর্ষস্থানীয় টিভি চ্যানেলগুলোর সঙ্গে প্রতিযোগিতায় ৬ থেকে ১১ বছরের শিশুদের নাগালে পৌঁছাতে ইউটিউব এখন সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে।” ইউটিউব কিডস নামের ভিন্ন একটি অ্যাপে নিয়মিতভাবে কনটেন্ট পর্যালোচনাও করে প্রতিষ্ঠানটি। এফটিসিকে গুগল জরিমানা দেবে ১৩ কোটি ৬০ লাখ মার্কিন ডলার, যা কোপপা মামলার ইতিহাসে সর্বোচ্চ। বাকি ৩.৪ কোটি ডলার দিতে হবে নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্যকে। এফটিসির পাঁচ কমিশনারের মধ্যে একজন রোহিত চোপড়া বলেন, তার মনে হয় মামলা মীমাংসা যথেষ্ট হয়নি। ইউটিউবে শিশুদের ছড়া এবং কার্টুনের ভিডিও দিয়ে “টোপ” ফেলেছে গুগল।

টুইটারের চোপড়া আরও বলেন, যে জরিমানা করা হয়েছে তা “খুব সামান্য প্রভাব ফেলবে” এবং ইউটিউবে যে পরিবর্তনগুলো আনার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে তা “যথেষ্ট নয়"। মামলা মীমাংসার অংশ হিসেবে গুগলকে একটি ভিন্ন ব্যবস্থা বানাতে হবে, যাতে শিশুদের জন্য কনটেন্টগুলো স্পষ্টভাবে চিহ্নিত করা থাকবে। এক ব্লগ পোস্টে ইউটিউব প্রধান সুজান ওজসিকি বলেন, “স্পষ্টভাবে শিশুদের জন্য বানানো কনটেন্ট” স্বয়ংক্রিয়ভাবে শনাক্ত ও লেবেল করতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করবে ভিডিও স্ট্রিমিং সাইটটি। শিশুদের চরিত্র, খেলনা এবং গেইমের মতো বিষয়গুলোতে জোর দেওয়া হবে। শিশুদের জন্য যারা কনটেন্ট বানাবেন তাদেরকে জানানো হবে তার ভিডিওটি কোপপা আইনের আওতায় পড়তে পারে, এমনটাও জানিয়েছে এফটিসি। তথ্য জোগাড়ের বিষয়ে জানাতে গুগল এবং ইউটিউবকে আরও উন্মুক্ত হতেও বলা হয়েছে। বাবা-মায়ের সম্মতিতেই শিশুরা যাতে ভিডিও দেখে সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে ইউটিউব পদক্ষেপ নিয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠান প্রধান।

শিশুদের ভিডিও থেকে নেওয়া ডেটা দিয়ে বিজ্ঞাপন টার্গেট করা বন্ধ করা হবে। “চার মাসের মধ্যে শিশুদের ভিডিও কনটেন্ট থেকে যে ডেটাগুলো আসছে আমরা ধরে নেবো তা শিশুদের থেকেই আসছে, গ্রাহকের বয়স যাই হোক না কেনো,” বলেন ওজসিকি। “তার মানে আমরা ডেটা সংগ্রহ সীমিত করবো এবং শুধু শিশুদের বানানো ভিডিওগুলো সমর্থন করতে যতটুকু দরকার ততোটুকু ডেটাই ব্যবহার করা হবে।”

 

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২: বিশেষজ্ঞের পরামর্শে পরিকল্পনার নির্দেশ টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর
                                  

প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ যথাসম্ভব ত্রুটিমুক্ত, প্রয়োজনের সঙ্গে সংগতিপূর্ণ ও চাহিদা মেটানোর মতো অবস্থানে কাজে লাগানোর উপযোগী করতে বিশেষজ্ঞ পরামর্শের ভিত্তিতে পরিকল্পনা গ্রহণে বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডকে (বিসিএসসিএল) নির্দেশ দিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। গতকাল বুধবার রাজধানীর আইইবি মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ বিষয়ে অংশীজনের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এ নির্দেশ দেন বলে মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, প্রতিরক্ষা, আবহাওয়া, কৃষি, স্বাস্থ্যসহ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২তে কী কী সুবিধা থাকা উচিত ও ১৫ বছর পর বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’র কার্যক্ষমতা শেষ হওয়ার বিষয়টি মাথায় রেখে স্বল্পমেয়াদী, মধ্যমেয়াদী এবং দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা নিয়ে এগোতে হবে। প্রয়োজনে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-৩ ও ৪ নিয়েও এখন থেকেই ভাবতে হবে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি সম্পন্ন নেতৃত্বে বাংলাদেশ এমন একটি জায়গায় দাঁড়িয়েছে, যেখানে প্রকল্পের জন্য মেধা খাটানোর দরকার হয়, অর্থের জন্য চিন্তা করতে হয় না। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যেতে হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, স্যাটেলাইট পরিচালনায় আমাদের ছেলে-মেয়েদের দক্ষতা অর্জনের যে ক্ষমতা, সেটাই আমাদের শক্তি। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ দিয়ে আমরা কী অর্জন করতে চাই তা আজকের মতবিনিময় থেকে অর্জিত ফলাফল ও পরামর্শ পরিকল্পনা গ্রহণে সহায়ক হবে।

টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকায় স্পেস ইউনিভার্সিটি স্থাপনের উদ্যোগ নেওয়ার মাধ্যমে এ বিষয়ক মানবসম্পদের অভাব পূরণের ব্যবস্থা নিয়েছেন। বেতবুনিয়ায় ১৯৭৫ সালের ১৪ জুন উপগ্রহ ভূ-কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা ও ১৯৭৩ সালে আন্তর্জাতিক টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়নে বাংলাদেশের সদস্যপদ অর্জনকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিস্ময়কর দূরদর্শিতা বলে উল্লেখ করেন তিনি।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল বিপ্লবের যে সূচনা করে গেছেন, তারই ধারাবাহিকতায় তার কন্যার হাতে গত দশ বছরে বাংলাদেশ বিশ্বে ডিজিটাল বিপ্লবের পথপ্রদর্শক হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৭ সালে মহাকাশে স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের উদ্যোগ নেন। ২০০১ সালে ক্ষমতার পটপরিবর্তনের কারণে সে কর্মসূচি আর বাস্তবায়িত হয়নি। ২০০৯ সালে তিনি ক্ষমতায় আসার পর বাংলাদেশকে ৫৭তম স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণকারী গর্বিত দেশ হিসেবে তুলে ধরেছেন। মহাকাশ থেকে শুরু করে দেশের প্রতিটি ঘরে ডিজিটাল সংযোগ পৌঁছে দেওয়ার জন্য ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগকে অর্পিত দায়িত্ব দক্ষতার সঙ্গে পালন করতে হবে বলে জানান মন্ত্রী। বিসিএসসিএল চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক।

 

এআই সব দিক থেকেই মানব ক্ষমতাকে ছাড়িয়ে যাবে: মাস্ক
                                  

সব দিক থেকেই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) মানব ক্ষমতাকে ছাড়িয়ে যাবে বলে মত দিয়েছেন টেসলা এবং স্পেসএক্স প্রধান ইলন মাস্ক। বুধবার আলিবাবা চেয়ারম্যান জ্যাক মা’র সঙ্গে এআইয়ের মতো উন্নয়নশীল প্রযুক্তি নিয়ে বিতর্কের সময় এমনটা দাবি করেছেন মাস্ক। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনবিসি’র প্রতিবেদনে বলা হয়, ওয়ার্ল্ড আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স কনফারেন্সে মাস্ক বলেন, একদিন কম্পিউটার “সব দিক থেকেই” মানব ক্ষমতাকে ছাড়িয়ে যাবে।

অন্যদিকে জ্যাক মা বলেন, মানুষ সব সময়ই এর নিয়ন্ত্রকের ভূমিকায় থাকবে। এআইয়ের উন্নতির উদাহরণ দিতে গিয়ে দাবা এবং চীনা বোর্ড গেইম গো’র কথা বলেছেন টেসলা ও স্পেসএক্স প্রধান। মস্তিষ্কের জন্য চিপ বানানোর লক্ষ্যে নিউরালিঙ্ক নামের একটি প্রতিষ্ঠান গঠন করেছেন মাস্ক। প্রতিষ্ঠানটি নিয়ে মাস্ক বলেন, মস্তিষ্কের সঙ্গে মেশিনের সরাসরি যোগাযোগের মাধ্যমে মানুষের ক্ষমতা আরও বাড়বে। চলতি বছরের জুলাই মাসে চিপের মধ্যে মস্তিষ্কের ক্ষুদ্র ‘থ্রেড’ বসানোর কথা জানিয়েছে নিউরালিঙ্ক। ব্রেইন-মেশিন ইন্টারফেইস হিসেবে এটি ব্যবহার করা যেতে পারে বলে জানানো হয়েছে। ভবিষ্যতে কোনো তারের সংযোগ ছাড়াই মস্তিষ্ক থেকে বিশাল ডেটা পাঠাতে এবং পড়তে পারবে এই চিপ।

অন্যদিকে আলিবাবা চেয়াম্যানের দাবি, মেশিন মানুষকে নিয়ন্ত্রণ করবে এমনটা “অসম্ভব”। দাবা এবং গো খেলায় এআই নিয়ে মাস্কের অভিমতের জবাবে মা বলেন, এই খেলাগুলো বানানো হয়েছে এক ব্যক্তির সঙ্গে অন্য ব্যক্তির খেলার জন্য, ব্যক্তির সঙ্গে মেশিনকে খেলানোর জন্য নয়। “দুইটি কম্পিউটার একে অপরের সঙ্গে লড়ছে আমি এটা দেখলে খুশি হবো,” যোগ করেন মা।

 

মাত্র ১৩ মিনিট চার্জে ২ দিন চলবে
                                  

 প্রায় সব স্মার্টফোনেই এখন ফাস্ট চার্জিং-এর প্রযুক্তি আছে। কিন্তু মাত্র ১৩ মিনিটে ফুল চার্জ? সাংহাইয়ের মোবাইল কংগ্রেস ২০১৯-এ এমনই ফাস্ট চার্জিংয়ের প্রযুক্তি প্রকাশ্যে এনে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল ভিভো। সেই সময়ে সংস্থা দাবি করেছিল, এই বিশেষ প্রযুক্তির চার্জিং ব্যবস্থায় মাত্র ১৩ মিনিটেই ফুল চার্জ হবে ব্যাটারি। ৫ মিনিটেই হবে ৫০% চার্জ। নতুন এই চার্জিং ব্যবস্থাকে সুপার ফ্ল্যাশচার্জ ১২০ ওয়াট বলে অভিহিত করছে ভিভো।

তবে সেই সময়ে এই প্রযুক্তি কোন ফোনে ব্যবহার করা হবে সে বিষয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছিল সংস্থা। অবশেষে হল প্রতীক্ষার অবসান। সেপ্টেম্বরে অবমুক্ত হচ্ছে ‘ভিভো নেক্স-৩’। শুধু তাই নয়, ব্যাটারিতে প্রায় ২ দিন পর্যন্ত চার্জ থাকবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি ছাড়াও বাকি স্পেসিফিকেশনেও দেওয়া হয়েছে নজর। ফোনের স্ক্রিন-টু-বডি রেশিও ৯৯.৩%। থাকছে ৬৪ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সেনসর।

ভারতের স্মার্টফোনের বাজারে এগিয়ে থাকতে অভিনব কিছু করার চেষ্টা করছে সবকটি মোবাইল ফোন উৎপাদনকারী সংস্থা। দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি, শক্তিশালী জঅগ ও প্রসেসর, ভাল মানের ক্যামেরা সেনসর ইত্যাদি দিয়ে ক্রেতাকে আকর্ষণ করার চেষ্টা করছে সব স্মার্টফোন প্রস্তুতকারীরা। সেই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে দ্রুত চার্জিংকেই হাতিয়ার করতে চাইছে ভিভো।


   Page 1 of 61
     তথ্যপ্রযুক্তি
ডিজিটাল সেন্টারগুলোকে ওয়ানস্টপ সার্ভিস সেন্টার হিসেবে গড়ে তোলা হবে: তাজুল
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটে দেশীয় টিভি চ্যানেলগুলোকে অগ্রাধিকার দেয়ার সুপারিশ
.............................................................................................
স্পেসএক্স আরও ৩০ হাজার স্যাটেলাইট পাঠাবে
.............................................................................................
ব্যাটারিচালিত ডিভাইস নাক ডাকার সমাধান দেবে
.............................................................................................
ভূমি সেবা সংশ্লিষ্ট হটলাইন কার্যক্রম চালু হচ্ছে আজ
.............................................................................................
ফেইসবুককে কনটেন্ট সরানোর রাষ্ট্রীয় আদেশ মানতে হবে
.............................................................................................
আইফোন ট্র্যাকিং মামলা ‘চলবে’ গুগলের বিরুদ্ধে
.............................................................................................
এআই প্রযুক্তি সমাজকে বদলে দিতে পারে: পলক
.............................................................................................
হ্যাকার দল গ্যান্ডক্র্যাব আবারও সক্রিয়
.............................................................................................
ম্যাইক্রোসফটের চার হাজার কোটি ডলারের শেয়ার বাইব্যাক
.............................................................................................
১০ কোটি নাগরিকের পরিচয়পত্র যাচাইকৃত অবস্থায় আছে: পলক
.............................................................................................
এবার কি মহাবিশ্বে প্রাণের অস্তিত্ব মিলবে?
.............................................................................................
ফের ইউটিউবের জরিমানা ১৭ কোটি ডলার
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২: বিশেষজ্ঞের পরামর্শে পরিকল্পনার নির্দেশ টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর
.............................................................................................
এআই সব দিক থেকেই মানব ক্ষমতাকে ছাড়িয়ে যাবে: মাস্ক
.............................................................................................
মাত্র ১৩ মিনিট চার্জে ২ দিন চলবে
.............................................................................................
অ্যান্ড্রয়েড ফোন হারিয়ে গেলে করনীয়
.............................................................................................
অবিক্রিত পণ্য দান করার ঘোষণা দিয়েছে অ্যামাজন
.............................................................................................
নগদ অ্যাপ এলো আইওএস প্ল্যাটফর্মেও
.............................................................................................
নগদ অ্যাপ এলো আইওএস প্ল্যাটফর্মেও
.............................................................................................
‘ছারপোকা ব্লাড ব্যাংক’, রক্তের সন্ধান দেবে অ্যাপস
.............................................................................................
তদন্তের মুখে ফেসঅ্যাপ
.............................................................................................
ড্রোন বাজার এক দশকে তিন গুণ হবে
.............................................................................................
অনলাইনে সরকারি ফরম, কমছে ভোগান্তি
.............................................................................................
এনআইডি যাচাইয়ের গেটওয়ে ‘পরিচয়’ উদ্বোধন করবেন জয়
.............................................................................................
সামান্য ব্যয় বাড়বে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে
.............................................................................................
ব্যাংকের নিয়মে আসতে হবে ফেসবুককে: ট্রাম্প
.............................................................................................
ফ্রান্সে ফেসবুক-গুগলের ওপর ৩ শতাংশ কর
.............................................................................................
গ্রামীণফোন, টেলিনর ও ইউনিসেফের চুক্তি স্বাক্ষর
.............................................................................................
দাম বেড়েছে ব্যাংকিং কার্ডের
.............................................................................................
মোবাইল ফোন বিস্ফোরণ ঠেকাতে করনীয়
.............................................................................................
গুগলে জানা যাবে বাস, ট্রেনে ভিড়ের তথ্য
.............................................................................................
অ্যাপল ছেড়ে দিচ্ছেন জনি আইভ
.............................................................................................
মহাকাশযানের জ্বালানি চাঁদের বরফ থেকে!
.............................................................................................
সুপারকম্পিউটারের তালিকায় পেছালো চীন
.............................................................................................
ফোর্ড তৃতীয় প্রজন্মের স্বচালিত গাড়ির পরীক্ষায়
.............................................................................................
মোড়ানো যায় এমন স্মার্টফোন আনবে স্যামসাং
.............................................................................................
করের আওতায় আসছে ফেইসবুক-গুগল-অ্যামাজন
.............................................................................................
জাকারবার্গকে চেয়ারম্যান পদ থেকে সরাতে ভোট!
.............................................................................................
বেড়েছে বিটকয়েনের মূল্য
.............................................................................................
ভ্যাট নিবন্ধন ছাড়া ব্যবসা করতে পারবে না ফেসবুক-গুগল
.............................................................................................
ডিজেআই ড্রোন শনাক্ত করবে প্লেন, হেলিকপ্টার
.............................................................................................
নতুন স্টারহপার রকেটের পরীক্ষায় স্পেসএক্স
.............................................................................................
তিনশ’ কোটি প্রোফাইল সরিয়েছে ফেইসবুক
.............................................................................................
ফেসবুক ইউটিউবে সরকারি নিয়ন্ত্রণ সেপ্টেম্বর থেকে
.............................................................................................
জাপানি মহাকাশযান কৃত্রিম গর্ত বানাতে গ্রহাণুতে ‘বোমা মেরেছে’
.............................................................................................
এবার ফোনে আসছে ৬৪ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা
.............................................................................................
গুগলের ডিরেক্টর হলেন প্রথম বাংলাদেশি জাহিদ সবুর
.............................................................................................
সহজে ইমিগ্রেশন পার হতে বিমান ও স্থলবন্দরে ই-গেট বসানোর উদ্যোগ
.............................................................................................
স্বয়ংক্রিয়ভাবে গুগল লোকেশন ডেটা মুছতে দেবে
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা ডট কম
মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত ।

প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ মো: হারুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
বার্তা সম্পাদক: মো: শরিফুল ইসলাম রানা
সহ: সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বিশেষ প্রতিনিধি : মো: আকরাম খাঁন
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]