বৃহস্পতিবার , ১৬ রবিঃ আউয়াল ১৪৪১ | ১৪ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   বিনোদন -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
হলিউড থেকে ঢাকায় ‘মাসুদ রানা’ টিম!

গত বছরের নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত চলচ্চিত্র ‘মাসুদ রানা’র কেন্দ্রীয় চরিত্র খোঁজার প্রতিযোগিতা। সেই লক্ষ্যে চ্যানেল আই-এ প্রচার হচ্ছে ‘কে হবে মাসুদ রানা’ শিরোনামের একটি রিয়েলিটি শো। যদিও এ পর্যায়ে এসে খবর মিলছে নতুন কিছুর।জাজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আলিমউল্লাহ খোকন জানালেন, প্রতিযোগিতার বাইরে থেকেও ‘মাসুদ রানা’ চরিত্রটির জন্য যে কেউ চূড়ান্ত হতে পারেন! এমন কথার সত্যতা মেলে সম্প্রতি হয়ে যাওয়া একটি অডিশন বা সাক্ষাৎকারের সূত্র ধরে। জাজ জানায়, হলিউড থেকে আসা ছবিটির অপর প্রযোজক, পরিচালক ও ফাইটিং টিম এই সাক্ষাৎকার নিয়েছেন।

গত ২৪ আগস্ট এই ঘরোয়া অডিশনটি হয়। সেখানে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ তারকা এবিএম সুমন ও ‘বেপরোয়া’ ছবির নায়ক রোশান অংশ নেন। পাশাপাশি চ্যানেল আই পরিচালিত ‘কে হবে মাসুদ রানা’ প্রতিযোগিতা থেকেও তিনজন প্রতিযোগী ছিলেন। প্রশ্ন আসাটাই স্বাভাবিক, তাহলে ঘটা করে ‘মাসুদ রানা’ খোঁজার নামে টিভি রিয়েলিটি শো করার অর্থ কী? এমন প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার পক্ষ থেকে আলিমউল্লাহ খোকনবলেন, ‘মাসুদ রানা যে কেউ হতে পারেন। ছবিটির প্রযোজক শুধু জাজ মাল্টিমিডিয়া নয়। এতে আন্তর্জাতিকভাবে আরও প্রযোজক যুক্ত হয়েছেন। সুতরাং কেউ প্রতিযোগিতা করলেই যে সেখান থেকে চরিত্র নির্বাচন হবে, এমন বাধ্যবাধকতা নেই। ফেসবুকে এমন অনেক প্রতিযোগিতাও হচ্ছে। ব্যক্তিগতভাবেই আমাদের সঙ্গে অনেকে সাক্ষাৎকার দিচ্ছেন। মূলত আমরা চাই সাহিত্যের মাসুদ রানা চরিত্রটিকে শতভাগ পর্দায় তুলে ধরতে। সেটা যার মধ্যে পাওয়া যাবে তাকেই নেওয়া হবে।

জাজের এই কর্মকর্তা আরও জানান, চ্যানেল আই আয়োজিত প্রতিযোগিতার কোনও চুক্তিনামা তার কাছে নেই! তিনি বলেন, ‘জাজ মাল্টিমিডিয়ার চেয়ারম্যান আবদুল আজিজ। তার সঙ্গে কোনও চুক্তি হয়েছে কিনা আমার জানা নেই। কিন্তু চ্যানেল আই এ বিষয়ে আমাদের অফিসে কোনও ডকুমেন্ট সাবমিট করেনি এখনও। এদিকে গত ২৪ আগস্ট ঢাকায় আয়োজিত বিশেষ ওই অডিশনে অংশ নেন ছবিটির পরিচালক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আসিফ আকবর ও হলিউডের অ্যাকশন ডিরেক্টর ফিলিপ টানসহ বেশ কয়েকজন। যেখানে অডিশন দেন সুমন, রোশানসহ আর তিন জন। মোট ৫ জন অডিশন দিলেও অ্যাকশন ডিরেক্টর ফিলিপ টান এবিএম সুমনের সঙ্গে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেন। সেখানে ঢাকার পরিচিতি দিয়ে লেখেন, ‘আমরা এখানে এসেছি আমাদের পরবর্তী অ্যাকশন হিরো খুঁজতে। অ্যাকশন পরিচালকের এমন মন্তব্য তুলে ধরে জাজের সিইও আলিমুল্লাহ খোকনের কাছে জানতে চাওয়া হয়, তাহলে কি সুমনই হচ্ছেন মাসুদ রানা।তিনি বলেন, ‘এটা জাজের একার পক্ষে জানানো অসম্ভব। আমরা ছোট একটা টাকা লগ্নি করে প্রযোজনা করছি। অন্য প্রযোজকরা আছেন। তারাই এগুলো নির্বাচন করবেন। তবে এটা ঠিক, সুমন ও রোশানের সাক্ষাৎকার তারা নিয়েছেন। এ ছাড়া চ্যানেলে আইয়ের ৩ জনের সঙ্গেও কথা বলেছেন। সিদ্ধান্ত কিছুদিন পর তারা জানাবেন।

এদিকে এ বিষয়ে এবিএম সুমনবলেন, ‘তাদের সঙ্গে আমার সাক্ষাৎকারটি বেশ উপভোগ্য ছিল। তাদের বেশ পজিটিভ আর সিরিয়াস মনে হলো পুরো প্রজেক্টটি নিয়ে। তবে আমি চূড়ান্ত হয়েছি কিনা, সেটি এখনও নিশ্চিত নই। তারা বলেছেন শিগগিরই জানাবে। আমিও অপেক্ষায় থাকলাম। হলে ভালো, না হলে ক্ষতি কি! ৮৩ কোটি টাকা দিয়ে বড় পর্দায় কথাসাহিত্যিক কাজী আনোয়ার হোসেনের ‘মাসুদ রানা’ আনছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। ছবিটির বিভিন্ন চরিত্রের জন্য বেশ কিছু তারকাকে ইতোমধ্যে চূড়ান্ত করা হয়েছে। হলিউডসহ এতে থাকছেন বিশ্বের আলোচিত সব শিল্পী। অভিনয় করতে যাচ্ছেন রেসলিং দুনিয়ার ভয়ঙ্কর তারকা দ্য গ্রেট কালি। থাকছেন ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ ছবির খলনায়ক ড্যানিয়েল বার্নহার্ডও। এছাড়াও আছেন ‘আয়রন ম্যান ২’-খ্যাত হলিউডের জাঁদরেল অভিনেতা মিকি রোর্ক, গ্যাব্রিয়েল্লা রাইট, মাইকেল প্যারেসহ বেশ ক’জন তারকা।

জাজের দাবি, এতে থাকছেন বলিউডের শ্রদ্ধা কাপুরও। জাজ মাল্টিমিডিয়া জানায়, ছবিতে ভিলেন হিসেবে থাকবেন খালি। ছবির উল্লেখযোগ্য চরিত্রগুলো হলো- মাসুদ রানা, রুপা, সুলতা, কবির চৌধুরী ও রাহাত খান। চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করবেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত হলিউডের ডিরেক্টর আসিফ আকবর। এই নির্মাতা যুক্তরাষ্ট্রের কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটি থেকে ফিল্ম মেকিংয়ের ওপর উচ্চতর পড়াশোনা করেছেন। ইতোমধ্যে তিনি হলিউডে ৩টি সিনেমা পরিচালনা করেছেন।

ছবির সহ-প্রযোজক হিসেবে আছে হলিউডের সিলভার লাইন। মাসুদ রানা সিরিজের প্রথম পর্ব ‘ধ্বংস পাহাড়’ নিয়ে চলচ্চিত্রটি নির্মিত হচ্ছে। এর ইংরেজি নাম ‘এমআর-৯’ আর বাংলা নাম হবে ‘মাসুদ রানা’। শুটিং হবে মরিশাস, থাইল্যান্ড ও বাংলাদেশে। ছবিটি ইংরেজি ও বাংলা ভাষায় মুক্তি পাবে। পরে অন্য ভাষায় ডাবিং বা সাবটাইটেল হবে। এটি বিশ্বব্যাপী মুক্তি দেওয়া হবে ২০২০ সালে।

 

হলিউড থেকে ঢাকায় ‘মাসুদ রানা’ টিম!
                                  

গত বছরের নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত চলচ্চিত্র ‘মাসুদ রানা’র কেন্দ্রীয় চরিত্র খোঁজার প্রতিযোগিতা। সেই লক্ষ্যে চ্যানেল আই-এ প্রচার হচ্ছে ‘কে হবে মাসুদ রানা’ শিরোনামের একটি রিয়েলিটি শো। যদিও এ পর্যায়ে এসে খবর মিলছে নতুন কিছুর।জাজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আলিমউল্লাহ খোকন জানালেন, প্রতিযোগিতার বাইরে থেকেও ‘মাসুদ রানা’ চরিত্রটির জন্য যে কেউ চূড়ান্ত হতে পারেন! এমন কথার সত্যতা মেলে সম্প্রতি হয়ে যাওয়া একটি অডিশন বা সাক্ষাৎকারের সূত্র ধরে। জাজ জানায়, হলিউড থেকে আসা ছবিটির অপর প্রযোজক, পরিচালক ও ফাইটিং টিম এই সাক্ষাৎকার নিয়েছেন।

গত ২৪ আগস্ট এই ঘরোয়া অডিশনটি হয়। সেখানে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ তারকা এবিএম সুমন ও ‘বেপরোয়া’ ছবির নায়ক রোশান অংশ নেন। পাশাপাশি চ্যানেল আই পরিচালিত ‘কে হবে মাসুদ রানা’ প্রতিযোগিতা থেকেও তিনজন প্রতিযোগী ছিলেন। প্রশ্ন আসাটাই স্বাভাবিক, তাহলে ঘটা করে ‘মাসুদ রানা’ খোঁজার নামে টিভি রিয়েলিটি শো করার অর্থ কী? এমন প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার পক্ষ থেকে আলিমউল্লাহ খোকনবলেন, ‘মাসুদ রানা যে কেউ হতে পারেন। ছবিটির প্রযোজক শুধু জাজ মাল্টিমিডিয়া নয়। এতে আন্তর্জাতিকভাবে আরও প্রযোজক যুক্ত হয়েছেন। সুতরাং কেউ প্রতিযোগিতা করলেই যে সেখান থেকে চরিত্র নির্বাচন হবে, এমন বাধ্যবাধকতা নেই। ফেসবুকে এমন অনেক প্রতিযোগিতাও হচ্ছে। ব্যক্তিগতভাবেই আমাদের সঙ্গে অনেকে সাক্ষাৎকার দিচ্ছেন। মূলত আমরা চাই সাহিত্যের মাসুদ রানা চরিত্রটিকে শতভাগ পর্দায় তুলে ধরতে। সেটা যার মধ্যে পাওয়া যাবে তাকেই নেওয়া হবে।

জাজের এই কর্মকর্তা আরও জানান, চ্যানেল আই আয়োজিত প্রতিযোগিতার কোনও চুক্তিনামা তার কাছে নেই! তিনি বলেন, ‘জাজ মাল্টিমিডিয়ার চেয়ারম্যান আবদুল আজিজ। তার সঙ্গে কোনও চুক্তি হয়েছে কিনা আমার জানা নেই। কিন্তু চ্যানেল আই এ বিষয়ে আমাদের অফিসে কোনও ডকুমেন্ট সাবমিট করেনি এখনও। এদিকে গত ২৪ আগস্ট ঢাকায় আয়োজিত বিশেষ ওই অডিশনে অংশ নেন ছবিটির পরিচালক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আসিফ আকবর ও হলিউডের অ্যাকশন ডিরেক্টর ফিলিপ টানসহ বেশ কয়েকজন। যেখানে অডিশন দেন সুমন, রোশানসহ আর তিন জন। মোট ৫ জন অডিশন দিলেও অ্যাকশন ডিরেক্টর ফিলিপ টান এবিএম সুমনের সঙ্গে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেন। সেখানে ঢাকার পরিচিতি দিয়ে লেখেন, ‘আমরা এখানে এসেছি আমাদের পরবর্তী অ্যাকশন হিরো খুঁজতে। অ্যাকশন পরিচালকের এমন মন্তব্য তুলে ধরে জাজের সিইও আলিমুল্লাহ খোকনের কাছে জানতে চাওয়া হয়, তাহলে কি সুমনই হচ্ছেন মাসুদ রানা।তিনি বলেন, ‘এটা জাজের একার পক্ষে জানানো অসম্ভব। আমরা ছোট একটা টাকা লগ্নি করে প্রযোজনা করছি। অন্য প্রযোজকরা আছেন। তারাই এগুলো নির্বাচন করবেন। তবে এটা ঠিক, সুমন ও রোশানের সাক্ষাৎকার তারা নিয়েছেন। এ ছাড়া চ্যানেলে আইয়ের ৩ জনের সঙ্গেও কথা বলেছেন। সিদ্ধান্ত কিছুদিন পর তারা জানাবেন।

এদিকে এ বিষয়ে এবিএম সুমনবলেন, ‘তাদের সঙ্গে আমার সাক্ষাৎকারটি বেশ উপভোগ্য ছিল। তাদের বেশ পজিটিভ আর সিরিয়াস মনে হলো পুরো প্রজেক্টটি নিয়ে। তবে আমি চূড়ান্ত হয়েছি কিনা, সেটি এখনও নিশ্চিত নই। তারা বলেছেন শিগগিরই জানাবে। আমিও অপেক্ষায় থাকলাম। হলে ভালো, না হলে ক্ষতি কি! ৮৩ কোটি টাকা দিয়ে বড় পর্দায় কথাসাহিত্যিক কাজী আনোয়ার হোসেনের ‘মাসুদ রানা’ আনছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। ছবিটির বিভিন্ন চরিত্রের জন্য বেশ কিছু তারকাকে ইতোমধ্যে চূড়ান্ত করা হয়েছে। হলিউডসহ এতে থাকছেন বিশ্বের আলোচিত সব শিল্পী। অভিনয় করতে যাচ্ছেন রেসলিং দুনিয়ার ভয়ঙ্কর তারকা দ্য গ্রেট কালি। থাকছেন ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ ছবির খলনায়ক ড্যানিয়েল বার্নহার্ডও। এছাড়াও আছেন ‘আয়রন ম্যান ২’-খ্যাত হলিউডের জাঁদরেল অভিনেতা মিকি রোর্ক, গ্যাব্রিয়েল্লা রাইট, মাইকেল প্যারেসহ বেশ ক’জন তারকা।

জাজের দাবি, এতে থাকছেন বলিউডের শ্রদ্ধা কাপুরও। জাজ মাল্টিমিডিয়া জানায়, ছবিতে ভিলেন হিসেবে থাকবেন খালি। ছবির উল্লেখযোগ্য চরিত্রগুলো হলো- মাসুদ রানা, রুপা, সুলতা, কবির চৌধুরী ও রাহাত খান। চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করবেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত হলিউডের ডিরেক্টর আসিফ আকবর। এই নির্মাতা যুক্তরাষ্ট্রের কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটি থেকে ফিল্ম মেকিংয়ের ওপর উচ্চতর পড়াশোনা করেছেন। ইতোমধ্যে তিনি হলিউডে ৩টি সিনেমা পরিচালনা করেছেন।

ছবির সহ-প্রযোজক হিসেবে আছে হলিউডের সিলভার লাইন। মাসুদ রানা সিরিজের প্রথম পর্ব ‘ধ্বংস পাহাড়’ নিয়ে চলচ্চিত্রটি নির্মিত হচ্ছে। এর ইংরেজি নাম ‘এমআর-৯’ আর বাংলা নাম হবে ‘মাসুদ রানা’। শুটিং হবে মরিশাস, থাইল্যান্ড ও বাংলাদেশে। ছবিটি ইংরেজি ও বাংলা ভাষায় মুক্তি পাবে। পরে অন্য ভাষায় ডাবিং বা সাবটাইটেল হবে। এটি বিশ্বব্যাপী মুক্তি দেওয়া হবে ২০২০ সালে।

 

এবার খলনায়িকা চরিত্রে ঐশ্বর্য
                                  

মণি রত্নম আর ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। এর আগেও এই পরিচালক-অভিনেত্রী জুটির শিল্পের ছোঁয়ায় সমৃদ্ধ হয়েছে বলিউড। আর চিরাচরিত গ্লামারস চরিত্রের বাইরে ভিন্ন দৃষ্টিতে বিশ্বসুন্দরীকে ব্যবহার করেছেন যে পরিচালকরা, তাদের মধ্যে মণি রত্নম অন্যতম। এবার আরও একবার তার সিনেমায় দেখা যাবে প্রাক্তন এ বিশ্বসুন্দরীকে। শুধু তাই নয়, জানা গেছে এবার নায়িকা নয়, খলনায়িকার ভূমিকায় দেখা যাবে ঐশ্বর্যকে।

এদিকে অভিনেতাদের অনেকেই বলে থাকেন, নেগেটিভ চরিত্রে অভিনয় করা সবসময়ই বেশি চ্যালেঞ্জিং। কারণ, একজন খলনায়ক বা খলনায়িকার চরিত্রের আড়ালে লুকিয়ে থাকে একাধিক মানসিকতা। মণি রত্নমের আগামি সিনেমায় সেই চ্যালেঞ্জই এবার গ্রহণ করেছেন ঐশ্বর্য। ভারতীয় গণমাধ্যমের মতে, তামিল কাহিনি `কালকি`র উপর ভিত্তি করে রচনা করা হয়েছে সিনেমার চিত্রনাট্য।চোল সাম্রজ্যের ইতিহাসের উপর ভিত্তি করে রচিত কাহিনি কালকি। সেখানে চোল সাম্রজ্যের কোষাধ্যক্ষ পেরিয়া পাঝুভেত্তারাইয়ার স্ত্রী নন্দিনীর ভূমিকায় অভিনয় করতে চলেছেন ঐশ্বর্য।

তামিল ইতিহাসনির্ভর উপন্যাস `কালকি` অনুযায়ী, নন্দিনী ছিলেন চোল সা¤্রাজ্যের এক উচ্চাকাঙ্খি মহিলা। চোল সাম্রজ্যের পতনের ক্ষেত্রে তার ভূমিকা ছিল অপরিসীম। শক্তির বিস্তারের উদ্দেশ্যে প্রতিহিংসাপরায়ণতা, ধূর্ততা ও ছলের আশ্রয় নেন নন্দিনী। চোল সম্রাট আরুলমোঝি বর্মনের জীবনের উপর ভিত্তি করেই রচিত কালকি। ফলে বোঝাই যাচ্ছে কঠিন ও ভিন্ন ধারার চরিত্রে দেখা যাবে ঐশ্বর্যকে।

এদিকে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রায় ১,০০০ বছর আগের ইতিহাসকে ভিত্তি করে সিনেমা তৈরি করা কখনই সহজ নয়। যদিও এর মধ্যেই গবেষণার কাজ অনেকটাই সেরে ফেলেছেন পরিচালক। বিশাল সেট তৈরির কাজও শুরু হয়ে গিয়েছে। চলতি বছরের শেষেই শুটিং শুরু হবে। অমিতাভ বচ্চনও এই সিনেমায় কোনও চরিত্রে থাকতে পারেন বলে শোনা যাচ্ছে।

ঈদে শ্বাসরুদ্ধকর ভৌতিক ছবি!
                                  

বিশ্বাস করুক আর না করুক ভূতের গল্প শুনতে সবাই পছন্দ করেন। যেন ভয়ের মধ্যেও এক ধরণের আনন্দ আছে। লোডশেডিংয়ের সময় কিংবা বৃষ্টিভেজা নির্জন রাতে ভূতের গল্প দারুণ জমে। অনেকে গল্প শুনে নয়, ভূতের গল্পের ছবি দেখে বেশি মজা পান। ভয়ংকর কোনো দৃশ্যে অন্যরকম রোমাঞ্চ অনুভব করেন। তাই বিশ্বব্যাপী ভূতের সিনেমা এত জনপ্রিয়।

ছোট থেকে বড় সব শ্রেণির দর্শকদের ভৌতিক সিনেমার প্রতি বিশেষ কৌতূহল রয়েছে। হলিউডে এ যাবৎ অনেক ভূতের ছবি বক্স অফিস তোলপাড় করেছে। প্রতি বছরই একাধিক ভৌতিক ছবি মুক্তি পায়। এ বছরও তার ব্যতিক্রম নয়। এরইমধ্যে মুক্তি পাওয়া ‘অ্যানাবেল কামস হোম’, ‘দ্য কার্স অব লা লোরনা’ ছবিগুলো দর্শকমহলে সাড়া জাগিয়েছে। নতুন খবর হলো, ভৌতিক সিনেমার ভক্তদের আবারও প্রেক্ষাগৃহে যাওয়ার সময় এসেছে।

শুক্রবার মুক্তি পেতে যাচ্ছে নতুন ছবি ‘স্ক্যারি স্টোরিজ টু টেল ইন দ্য ডার্ক’। আন্তর্জাতিক মুক্তির দিনেই বাংলাদেশের দর্শকরা ছবিটি দেখতে পারবেন ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্সে।

আলভিন স্কোয়ার্টজের বই সিরিজ ‘স্ক্যারি স্টোরিজ টু টেল ইন দ্য ডার্ক’ অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে সিনেমাটি। ছবির অন্যতম প্রযোজক অস্কারজয়ী পরিচালক গিলের্মো দেল তোরো। পরিচালনা করেছেন নরওয়ের চলচ্চিত্র নির্মাতা আন্দ্রে ওভ্রেডাল। অভিনয় করেছেন জো কলেত্তি, মাইকেল গারজা, গ্যাব্রিয়েল রাশ, অস্টিন আব্রামস, ডিন নরিস প্রমুখ।

ষাটের দশকের শেষ দিকে আমেরিকায় একটা পরিবর্তনের হাওয়া বইছিলো। কিন্তু ছোট্ট শহর মিল ভ্যালিতে সে হাওয়া লাগেনি। সেখানে একটা অশান্তি পরিলক্ষিত হয়। সেখানকার প্রজন্মের উপর পরিবারের ছায়া তাড়িয়ে বেড়ায়। বিষয়টা আবিষ্কৃত হয় শহরের শেষ প্রান্তে থাকা তরুণীর সারাহ’র ভয়ঙ্কর গল্প থেকে।

স্ক্যারি স্টোরিজ সিরিজের এক বইতে তার নির্যাতিত জীবনের গল্প লেখা হয়। যা একদল টিন এজার, যারা সারাহ’র ভয়ানক বাড়ি আবিষ্কার করে তাদের বাস্তব জীবনের সঙ্গে খুব মিলে যায়। শস্য ক্ষেতের একটা কাকতাড়-য়া রীতিমত তাড়িয়ে বেড়ায় তাদেরকে। নিজের ঘরেই ভয়ঙ্কর সব অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয় তারা। গা ছমছমে এক একটা দৃশ্য, যা দর্শকের বুকে কাঁপন ধরাবে বলে মনে করেন পরিচালক।
ছবিটি নিয়ে দারুণ আশাবাদী তিনি। গিলের্মো দেল তোরোর মত নির্মাতা যে ছবির নির্মাণের সাথে যুক্ত সে ছবি নিয়ে একটু বাড়তি প্রত্যাশা করাই যায়।

 

কোনো উত্তাপ নেই ঈদের ছবি নিয়ে
                                  

ঈদের ছবি নিয়ে ঢালিউডের ফিল্ম পাড়াখ্যাত কাকরাইলে নেই কোনো উত্তাপ। সিনেমা হল মালিকদের কথাতেও রয়েছে হতাশার ছাপ। একটা সময় ঈদে ছবি মুক্তির এক মাস আগে থেকে কাকরাইল সিনেমা হল মালিকদের আনাগোনায় থাকতো সরগরম। এখন আগের মতো সিনেমার পোস্টার ব্যানারের জৌলুস নেই বললেই চলে। হল মালিকদের মুখে কয়েক বছর আগেও আনন্দের হাসি দেখা যেত। কারণ ঈদের ছবি মানেই ছিল সুপারহিট ব্যবসা। সারা দেশ থেকে হল মালিকরা ছবি নেওয়ার জন্য আগাম টাকাও বুকিং দিতেন। বুকিং এজেন্ট সমিতি থেকে খবর নিলে জানা যায়, এবারের ঈদে ছবি নিয়ে তেমন কোনো আগ্রহ নেই সিনেমা হল মালিকদের।

এবার শুধু শাকিব খান ও বুবলী অভিনীত এবং জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবিটি নেওয়ার জন্য বেশ কয়েকজন হল মালিক বুকিং দিয়েছেন। এরপর তাদের আগ্রহের তালিকায় রয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়ার প্রযোজনায় ‘বেপরোয়া’ ছবিটি।

এবারের কোরবানি ঈদে তিনটি ছবি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। শাকিব-বুবলীর ছবির বাইরে বাকি ছবি দুটি হচ্ছে ভারতের রাজা চন্দের পরিচালনায় ‘বেপরোয়া’ এবং বাংলাদেশের বশির আহমেদ পরিচালিত ‘ভালোবাসার জ্বালা’। ‘বেপরোয়া’ ছবিতে ববি ও রোশান অভিনয় করেছেন। ‘ভালোবাসার জ্বালা’ ছবিতে অভিনয় করেছেন শাকিল-অর্পা।

ছবি সংকটের কারণে গেল রোজার ঈদে ‘পাসওয়ার্ড’ (শাকিব-বুবলী), ‘নোলক’ (শাকিব-ববি) এবং ‘আবার বসন্ত’ (তারিক আনাম-স্পর্শিয়া) নামের ছবিগুলো মুক্তি পেয়েছিল। কোরবানির ঈদেও ছবি সংকটের কথা জানালেন প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ও মধুমিতা সিনেমা হলের কর্ণধার ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ। তিনি বলেন, ঈদে আমরা শাকিব খান অভিনীত ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবিটি আমাদের প্রেক্ষাগৃহে চালাবো। তবে দিনে দিনে ঈদের ছবি নিয়েও হল মালিকরা সংকটে রয়েছেন। কারণ ছবির ব্যবসা নিয়ে বেশ শঙ্কিত তারা। দেশীয় চলচ্চিত্রের সেই রমরমা ব্যবসা এখন আর নেই। তাই নতুন ছবি নিলেও ব্যবসা নিয়ে শঙ্কায় থাকতে হয়। এত কিছুর মধ্যে শাকিব ও বুবলীর ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবিটি নিয়ে আমি আশাবাদী।

বলাকা সিনেমা হলের ব্যবস্থাপক এস এম শাহীন বলেন, গত রোজার ঈদে ‘আবার বসন্ত’ ছবিটি চালিয়েছিলাম। এবার ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবিটি ঈদে বলাকায় চলবে। জাকির হোসেন রাজুর ছবিতে পারিবারিক বিষয়বস্তু থাকে। আর পরিচালক হিসেবে তার একটা নাম আছে। তাই ছবিটি নিয়েছি আমরা। এখন দর্শকের রায় কেমন হবে তা দেখার পালা। ব্যবসা হতেও পারে নাও পারে। বলা যায় ফিফটি ফিফটি চান্স হিসেবে নিয়েছি এ ছবিটি।

তিনি আরো বলেন, সিনেমা হল মালিকদের মনে এবার ঈদের ছবি নিয়ে তেমন কোনো আনন্দ নেই। আগে ঈদের ছবির মান ও মুক্তি নিয়ে রীতিমতো প্রতিযোগিতা চলতো নির্মাতাদের মধ্যে। ঈদে মুক্তির জন্য নির্মাণ হতো বেশকিছু ছবি। যা এখন নেই বললেই চলে। এবার ঈদে তিনটি ছবি মুক্তি পেলেও আমাদের হিসেবে ঈদের ছবি দুটি। একটি হচ্ছে ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ এবং অন্যটি ‘বেপরোয়া’। কারণ ‘ভালোবাসার জ্বালা’ নামে যে আরেকটি ছবি মুক্তি পাওয়ার কথা রযেছে সে ছবিকে ঈদের ছবি বলা যায় না। এটা যেকোনো সময়ই মুক্তি পাওয়ার মতো ছবি। তাই ‘ভালোবাসার জ্বালা’ ছবিটি ঈদে কোন কোন সিনেমা হলে চলবে তা নিয়ে দ্বিধা-দ্বন্দ্বে রয়েছে সিনেমা হল মালিক ও বুকিং এজেন্টরা।

এদিকে বেশ কয়েকজন সিনেমা হল মালিকের সঙ্গে কথা হলে তারা সকলেই একইরকম ভাবে বলেন, দর্শকদের ঈদের ছবি দেখার জন্য প্রচারণা দিয়ে আগ্রহী করতে হয়। প্রচারণা এখন অনেক কম। অনেক মানুষ তো জানেই না ঈদে কোন ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে। নব্বইয়ের দশকেও পত্রিকা, টিভি, পোস্টার, ব্যানারসহ বিভিন্ন মাধ্যমে ছবির প্রচারণা ছিল। যা এখন নেই বললেই চলে।

 

ছুটিতে বাড়ছে বিদেশ ভ্রমণ
                                  

দীর্ঘ ছুটি। প্রতি বছরের মতো এবারও পরিবার-পরিজন নিয়ে নিজেদের মতো করে সময় কাটানোর পরিকল্পনা করেছেন ভ্রমণ পিপাসুরা। দেশে ছাড়াও বিদেশে যাচ্ছেন কেউ কেউ। প্রতি বছরই বাড়ছে এই সংখ্যা।
পর্যটন-ভ্রমণ পরিচালনাকারী সংস্থাগুলো বলছে ঈদের আনন্দে বৈচিত্র্য আনতে অনেকেই দেশের বাইরে ভ্রমণকে গুরুত্ব দিচ্ছেন। এর সাথে যোগ হয়েছে মানুষের আর্থিক সক্ষমতা বৃদ্ধি, দেশের চাইতে বিদেশে পর্যটনের সুযোগ সুবিধা বেশি থাকা এবং কম খরচে বিদেশের আকর্ষণীয় জায়গায় ভ্রমণের সুযোগ।
আর দেশে ভ্রমণ করলেও তা সিলেট, সুন্দরবন, কুয়াকাটা, কক্সবাজার, বান্দরবান, রাঙামাটি, খাগড়াছড়িতেই সীমাবদ্ধ।
কেন দেশের চাইতে বিদেশ ভ্রমণে মানুষের আগ্রহ বাড়ছে, এ প্রসঙ্গে বেসরকারি ট্যুর অপারেটর এর সংগঠন টোয়াবের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট রাফি রাফিউজ্জামান বলেন: সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মানুষ সহজে নতুন নতুন জায়গা সম্পর্কে জানতে পারছে। একই খরচে আশপাশের দেশে ভ্রমণ করতে পারা, দেশের পর্যটন জায়গার অবকাঠামো উন্নত না হওয়ার সাথে আধুনিক সুযোগ সুবিধা না থাকা।
টোয়াবের পরিচালক তৌফিক রহমান বলেন: ইদানীং বেসরকারি বিভিন্ন এয়ারলাইন্স বিমান ভাড়ার সঙ্গে প্যাকেজ ঘোষণা করছে। ট্যুর অপারেটরদের চাইতে খরচ কম হওয়ায় অনেকেই আগ্রহী হয়ে উঠছেন বিদেশ ভ্রমণে। অনলাইনের মাধ্যমে সহজে হোটেল বুকিং করা, বিমানের টিকেট কাঁটা এবং ব্যাংক কিস্তির মাধ্যমে ভ্রমণের খরচ পরিশোধ করার সুযোগও বিদেশ যাওয়া বাড়ছে দিন দিন।
তিনি আরও জানান, দেশের হোটেল রিসোর্টের অত্যধিক ভাড়া, ভ্রমণ পথে ঝক্কি ঝামেলা থাকার বিষয়টি চিন্তা করেও অনেকে বাইরে চলে যান।
তবে বেসরকারি ট্যুর অপারেটর মাহবুব হোসেন সুমন বলেন: দেশের পর্যটন স্থানগুলো ঘুরে দেখার পর নতুন জায়গা দেখার আগ্রহ বাড়ছে। মানুষের অর্থনৈতিক সামর্থ্যও বৃদ্ধি পাচ্ছে। এমন দুটি কারণে বিদেশে বেড়ানোর প্রবণতা বাড়ছে বলে মনে করেন তিনি।
টোয়াব জানায়, সহজে ভিসা পাওয়ার সুবিধার কারণে প্রথমেই ভ্রমণে বাংলাদেশিরা নেপাল, ভুটান, ভারত, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুরকে প্রাধান্য দিচ্ছেন। সাধারণত মধ্যবিত্ত, উচ্চমধ্যবিত্ত পরিবারগুলো বেশি যাচ্ছে। আর উচ্চবিত্তদের আগ্রহ অবশ্য ইউরোপ আমেরিকার দেশগুলোর প্রতি। ঈদ উপলক্ষে ঈদের আগের দিন থেকে পরের এক সপ্তাহ কোন বিমানেই টিকেট মিলবে না। এই সময়ে অতিরিক্ত ভাড়া দিয়েও ভ্রমণে যাচ্ছেন অনেকেই।
কেউ কেউ বলছেন বিদেশ ভ্রমণে যাচ্ছে সাড়ে ৬ লাখ মানুষ। তবে কত সংখ্যক মানুষ বিদেশ ভ্রমণে যাচ্ছেন তার সঠিক কোন পরিসংখ্যান নেই বলে জানিয়েছে ভ্রমণের সংগঠনগুলো।
তারা বলছে, প্রতিবছর ঈদ উপলক্ষে পর্যটন-ভ্রমণ বাণিজ্যের পরিসর বৃদ্ধি পাচ্ছে। পর্যটন করপোরেশন ও ট্যুরিজম বোর্ড এ খাতের উন্নয়নে যথাযথ পদক্ষেপ নিলে ভ্রমণ পিপাসুরা বিদেশের চাইতে দেশেই ভ্রমণে বেশি উৎসাহী হবেন।

 

 

ঈদের আগে চুলের যত্ন নিবেন যেভাবে
                                  

আর তিন অথবা চারদিন পর ঈদ। ঈদে প্রচুর প্রস্তুতি। সবাই মোটামুটি প্রস্তুত। সবাই ভালোবাসেন নিজেকে সাজিয়ে তুলতে। ঈদেও এর অন্যথা হবে। ঈদে কীভাবে নিজের চুলকে রাখবেন ঝকঝকে সেটি জেনে নিন। শ্যাম্পু করুন নিয়ম মেনে, এতেই চুল হবে ঝলমলে সুন্দর...
চুল আঁচড়ে নিন
শ্যাম্পু করার আগে চুল আঁচড়ে লম্বা চুলের জট ছাড়িয়ে নেওয়া উচিত। ছোট চুলের ক্ষেত্রেও আঁচড়ে নিলে শ্যাম্পু করার পর চুল নরম ও কোমল হয়।
কন্ডিশনার
ঝলমলে চুলের জন্য কন্ডিশনারের বিকল্প নেই। প্রাকৃতিক কন্ডিশনার হিসেবে টক দই ও ডিম ব্যবহার করতে পারেন। সেক্ষত্রে একটি কাঁচা ডিমের সঙ্গে চুলের পরিমাণের উপর নির্ভর করে প্রয়োজন মাফিক টক দই মেশান। এরপর গোড়াসহ চুলে ভাল করে মাখুন। ২০ মিনিট অপেক্ষা করে শ্যাম্পু দিয়ে ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। আর কেনা কন্ডিশনার হলে শ্যাম্পু করার পর চুলে কন্ডিশনার দিয়ে ৫ মিনিট রেখে তারপর পানি দিয়ে ভাল করে ধুয়ে ফেলুন।
পানির সঙ্গে শ্যাম্পু
পানির সঙ্গে শ্যম্পু মেশানো নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। তবে শ্যাম্পুর সঙ্গে সামান্য পানি মেশালে ফেনা হয় বেশি। শ্যাম্পুর কেমিক্যাল থেকে ক্ষতিগ্রস্থ হবার সম্ভাবনা কমে যায়।
একবার নয় দু`বার
একবারের বদলে পরপর দুবার শ্যাম্পু করুন। প্রথম বারে চুল পরিস্কার হবে এবং দ্বিতীয়বারে আরও ঝরঝরে হবে এবং শ্যাম্পুর কার্যকারিতা বাড়বে।
ঠা-া নাকি গরম পানি
শ্যাম্পু করার আগে চুল হালকা উষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে নিতে পারেন। এরপর শ্যাম্পু করে ঠা-া পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। মনে রাখবেন চুল ধোয়ার জন্য কখনোই গরম পানি ব্যবহার করবে না। এতে চুলের ডগা ফেটে যেতে পারে এবং চুলের প্রাকৃতিক সিল্ক নষ্ট হয়ে যায়।
ঝগড়ার পর মান ভাঙাবেন কীভাবে?
সাধারণত প্রত্যেকটি সম্পর্কেই ওঠা-নামা থাকে, মান-অভিমান হয়; ঝগড়া হয়। তবে ঝগড়ার পর আপনার ভেতরে অনুশোচনা তৈরি হলে এবং আপনি ভাবতে থাকলে কীভাবে সঙ্গীর সঙ্গে আবার কথা বলা শুরু করবেন, তাহলে আপনার জন্য রইল কিছু পরামর্শ।
ঝগড়ার পর মান ভাঙাতে কথোপকথন শুরু করার কিছু উপায় জানিয়েছে জীবনধারা বিষয়ক ওয়েবসাইট ফেমিনা।
১. দুপুরবেলা একসঙ্গে খান
হয়তো আপনি অফিসে রয়েছেন, সঙ্গীকে দুপুরের খাবার আপনার কাছে এসে খেতে বলুন। নিজেদের মধ্যে কিছুটা সময় কাটান। এবং তখন আর নতুন করে ঝগড়া বাঁধাতে শুরু করবেন না।
২. টেক্সট করুন
সঙ্গীকে টেক্সট বা ম্যাসাজ করুন। এটা কিন্তু খুব কাজে আসে। সেই ম্যাসেজে জানান, এই সম্পর্ক ও সে আপনার জন্য কতটা জরুরি। এ পুনরুক্তি আপনাদের সম্পর্কে প্রাণ ফিরিয়ে আনবে।
৩. ফোন করুন
তাকে ফোন করুন। সমস্যা সমাধানে কথা বলার কিন্তু বিকল্প নেই। এ সময় অভিযোগ করা বন্ধ করে মূল কথা বলুন।
৪. চমকে দিন
সঙ্গীর অভিমান ভাঙানোর জন্য এমন কিছু করতে পারেন যেন সে চমকে যায় এবং তার প্রতি আপনার ভালোবাসারও প্রকাশ ঘটে। তাকে কোনো কার্ড দিতে পারেন বা তার পছন্দের কোনো রান্না করে খাওয়াতে পারেন অথবা তার পছন্দের কিছু কিনে দিতে পারেন। এতে সমস্যা একটু শিথিল হলেও হতে পারে।
৫.‘দুঃখিত’ বলুন
এসব কিছু করার পরও যদি পাহাড় গলাতে না পারেন, তাহলে ‘দুঃখিত’ বলুন। যদি দোষটা আপনি করে থাকেন, তাহলে নিজের অহং ছেড়ে দুঃখিত বলতে অসুবিধা কীসের? ‘দুঃখিত’ বলুন এবং সম্পর্ক এগিয়ে নিয়ে যান।

 

জুটি বাঁধা ধূমপান ছাড়ার চাবিকাঠি হতে পারে
                                  

 আসক্তির কারণে ধূমপান ছাড়তে ব্যর্থ হওয়ার ঘটনা খুবই সাধারণ। তবে গবেষণা বলছে, সফলতার সম্ভাবন বাড়বে যদি জুটি বাঁধেন।
‘ইউরোপ্রিভেন্ট ২০১৯’য়ে প্রকাশিত এই গবেষণা মতে, একা ধূমপান ত্যাগ করার তুলনায় জুটি বেঁধে ধূমপান ত্যাগ করার চেষ্টায় সফল হওয়ার সম্ভাবনা ছয় গুন বেশি।
ব্রিটেইনের ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডনের গবেষক মাগদা ল্যাম্প্রিদো বলেন, “ধূমপান বর্জন করাটা কিন্তু বেশ নিঃসঙ্গ একটি কাজ। অফিসের ধূমপানের বিরতির সময় তাকে একা বসে থাকতে হবে, বন্ধুদের আড্ডায় অন্যরা ধূমপান করলেও সে করবে না, এই সময়গুলোয় সবার মাঝে থেকেও নিজেকে একা মনে হতে পারে। আর সেই সঙ্গে নিকোটিন আসক্তির তাড়না তো আছেই। তবে দুজন ধূমপায়ী একসঙ্গে জুটি বেঁধে এই চেষ্টা করলে এই সময়গুলোতে তারা একে অপরকে সঙ্গ দিতে পারবেন। এই জুটি স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে হলে সবচাইতে কার্যকর হবে, তবে বন্ধু কিংবা সহকর্মীদের মাঝেও তা হতে পারে। নিজেরা মিলে আসক্তি থেকে দূরে থাকার জন্য বিভিন্ন কাজ তারা করতে পারবেন, যেমন সিনেমা দেখা, বেড়াতে যাওয়া, শরীরচর্চা ইত্যাদি।”
এই গবেষনায় অংশ নেন ২২২ জন ধূমপায়ী। এদের সবাই হয় হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কায় আছেন কিংবা এরমধ্যেই ‘হার্ট অ্যাটাক’য়ের শিকার হয়েছেন। ধূমপান ত্যাগ করতে স্বামী কিংবা স্ত্রী অথবা একসঙ্গে বসবাসকারীরা কী ধরনের সহায়ক ভূমিকা পালন করতে পারে সেটা পর্যবেক্ষণ করাই ছিলো গবেষণার উদ্দেশ্য।
এই জুটিরা গবেষকদের তত্ত্বাবধানে ১৬ সপ্তাহের ‘প্রিভেন্টিভ কার্ডিওলজি প্রোগ্রাম’য়ে যোগ দেন, যেখানে তাদেরকে দেওয়া হয় নিকোটিনের আসক্তি নিয়ামক ‘প্যাচ’ ও ‘গাম’। ১৬ সপ্তাহ শেষে দেখা যায় ৬৪ শতাংশ ধূমপায়ী আর ৭৫ শতাংশ জুটি ধূমপান ত্যাগ করতে সফল হয়েছেন। এই অংশগ্রহণকারীরাই একা ধূপমান ছাড়ার চেষ্টা করায় সফলতা ছিল শূন্য। আর জুটি বেঁধে সফলতা হার এর আগে ছিল ৫৫ শতাংশ।
‘ইউরোপিয়ান সোসাইটি অফ কার্ডিওলজি (ইএসসি)’য়ের ‘কার্ডিওভাস্কুলার প্রিভেনশন গাইডলাইন’ যে কোনো উপায়ে তামাক গ্রহণকে নিরুৎসাহীত করে। আর যারা ধূমপান ত্যাগ করতে পারে তাদের হৃদরোগের আশঙ্কা কমে যায় প্রায় অর্ধেক।
ল্যাম্প্রিদো বলেন, “যেসকল ধূমপায়ী শারীরিকভাবে সুস্থ তাদের ক্ষেত্রে ধূপমান ছাড়তে জুটি বাঁধা কতটা কার্যকর সেবিষয়ে আরও গবেষণা প্রয়োজন।”
ছবি: রয়টার্স।

 

বাংলা সিনেমায় কাজ শুরু করছেন মাধুরী!
                                  

৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন বলিউড তারকা মাধুরী দীক্ষিত। এই লম্বা সময়ে অসংখ্য চরিত্রে অভিনয় করলেও এখনো অনেক স্বপ্নের চরিত্রে অভিনয় করতে পারেননি বলে জানিয়েছেন ৫২ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী। পাশাপাশি বাংলা চলচ্চিত্রের প্রতিও এক ধরনের ক্ষুধা রয়েছে বলেও উলেস্নখ করেন তিনি। মাধুরী বলেন, `বাংলা চলচ্চিত্রে অভিনয়ের আগ্রহ আমার অনেক বছর ধরে। এর আগে বেশ কয়েকজনের সঙ্গে কথা হয়েছিল। ঋতুদার (ঋতুপর্ণা ঘোষ)? সঙ্গে কথাও হয়েছিল। কিন্তু তার চলে যাওয়াটা খুব দুঃখজনক। এরপর অনেকেই আমাকে চিত্রনাট্য নিয়ে প্রস্তাব দিয়েছেন, কিন্তু গল্প ও চরিত্র পছন্দ না হওয়ায় অভিনয় করা হয়নি। কারণ, আমি চাই আমার প্রথম বাংলা সিনেমাটা যেন স্মরণীয় হয়ে থাকে। এজন্য মনের মতো পরিচালক এবং গল্প জরুরি। তবে অপর্ণা সেনের ছবিতে কাজ করারও আমার খুব ইচ্ছে আছে।`
মাধুরী আরও জানান, `একটি বাংলা ছবির ব্যাপারে কথাবার্তা অনেকদূর এগিয়েছে, তবে এখনই এ বিষয়ে বেশি কিছু বলা ঠিক হবে না। সবকিছু ঠিক হওয়ার পরই না হয় বিস্তারিত বলব।`
মাধুরী অভিনীত সর্বশেষ ছবি `কলঙ্ক` মুক্তি পেয়েছে গত মাসে। বর্তমানে তিনি একটি নাচের রিয়েলিটি শোর বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সম্প্রতি ভারতীয় গণমাধ্যমে খবর রটেছিল, মাধুরীর বায়োপিক নির্মিত হচ্ছে। এতে মাধুরীর চরিত্রে অভিনয় করছেন আলিয়া। কিন্তু এটা নিছক গুজব বলে উড়িয়ে দিলেন এই নায়িকা। বলেন, `কোনো বায়োপিক হচ্ছে না। এটা আমার শোনা সবচেয়ে বড় গুজব। এই খবর কোথা থেকে ছড়িয়েছে জানি না। কারণ আমি চাই-ই না কোনো বায়োপিক হোক। আমার জীবনে আরও অনেক কিছু করতে চাই। কাজেই এই গুজবে কান দেবেন না।`

 

অভিনেতা অধ্যাপক মমতাজউদদীন আহমেদ আর নেই
                                  

প্রখ্যাত নাট্যকার, নির্দেশক ও অভিনেতা অধ্যাপক মমতাজউদদীন আহমেদ আর নেই। রোববার বিকেলে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

এর আগে অসুস্থ হয়ে রাজধানীর বেসরকারি অ্যাপোলো হাসপাতালে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) ছিলেন তিনি। তার শরীর অক্সিজেন পাচ্ছিল না ও কার্বন ডাই–অক্সাইড বের হয়ে যাচ্ছিল। এছাড়া মস্তিষ্কে পানি জমে গিয়েছিল।

তার স্বজন শাহরিয়ার প্রিন্স সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

অনেক দিন ধরে শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছেন অভিনেতা মমতাজউদদীন। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে এর আগেও তাকে একাধিকবার লাইফ সাপোর্ট থেকে ফিরে এসেছিলেন।

 

মমতাজউদ্দীন আহমেদ প্রখ্যাত নাট্যকার, অভিনেতা ও ভাষাসৈনিক। স্বাধীনতা উত্তর বাংলাদেশের নাট্য আন্দোলনের পথিকৃত। এক অঙ্কের নাটক লেখায় বিশেষ পারদর্শিতার স্বাক্ষর রেখেছেন। তিনি ১৯৯৭ সালে নাট্যকার হিসেবে একুশে পদকে ভূষিত হন

অবশেষে মুক্তির ছাড়পত্র পেলো ‘পিএম নরেন্দ্র মোদী’
                                  

সকল বাধা অতিক্রম করে অবশেষে মুক্তি পেতে যাচ্ছে ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বায়োপিক ‘পিএম নরেন্দ্র মোদী’। ভারতের সেন্ট্রাল বোর্ড অব ফিল্ম সার্টিফিকেশন (সিবিএফসি) সিনেমাটিকে মুক্তির ছাড়পত্র প্রদান করেছে। এর ফলে আজ বৃহস্পতিবার সিনেমাটি মুক্তিতে কোনো বাধা থাকছে না।

এ প্রসঙ্গে প্রযোজক সন্দীপ সিংহ বলেন, সেন্সর বোর্ডের পক্ষ থেকে আমাদের ‘ইউ’ সার্টিফিকেট দেওয়ার জন্য আমরা খুবই আনন্দিত। অবশেষে ১১ এপ্রিল সিনেমাটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে। এ ছাড়া সুপ্রিম কোর্টে মুক্তি বন্ধের আপিল থেকেও আমরা রেহাই পেয়েছি। এখন ভারতের কোনও রাজনৈতিক দলের সিনেমাটি নিয়ে কোনো সমস্যা হওয়ার কথা না।

এর আগে ৫ এপ্রিল ‘পিএম নরেন্দ্র মোদী’ মুক্তির কথা ছিল। কিন্তু সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র না পাওয়াতে এটির মুক্তি পিছিয়ে যায়। তাছাড়া লোকসভা নির্বাচন সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত সিনেমাটি মুক্তি না পাওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশনের কাছেও আবেদন জানায় কংগ্রেস ও আম আদমি পার্টি। সিনেমাটিতে নরেন্দ্র মোদীর চরিত্রে দেখা যাবে বলিউড অভিনেতা বিবেক ওবেরয়কে। এটি পরিচালনা করেছেন ওমাং কুমার।

আবারো মডেল হলেন শাকিব খান
                                  

ঢালিউডের শীর্ষ নায়ক শাকিব খান আবারো বিজ্ঞাপনের মডেল হলেন। এসএমসি ওরস্যালাইনের একটি বিজ্ঞাপনচিত্রে তাকে দেখা যাবে। এই বিজ্ঞাপনে শাকিব পর্দায় উপস্থিতি ঘটাবেন ‘হারকিউলিস’ রূপে। বিজ্ঞাপনটি নির্মাণ করছেন আদনান আল রাজীব। সোমবার রাজধানীর মিরপুরে কোক স্টুডিওতে শুরু হয়েছে এই বিজ্ঞাপনচিত্রের শুটিং। তবে বৃষ্টির কারণে এখনো একদিনের শুটিং বাকি আছে।

এই বিজ্ঞাপনচিত্রে শাকিব খানের মাধ্যমে একটি সামাজিক বার্তা দেশের মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়া হবে বলে জানান নির্মাতা। ভিন্নধর্মী এই চরিত্রে কাজ করার ব্যাপারটি উপভোগ করছেন শাকিব খান। তিনি বলেন, আদনানের সঙ্গে আগেও কাজ করেছি। সেটি দর্শকের কাছে বেশ প্রশংসিত হয়েছে। তার নির্মাণ ভাবনা বেশ চমৎকার। এই বিজ্ঞাপনচিত্রটিও বড় আয়োজনে নির্মাণ করছে। এটিতে আমাকে কেমন দেখাবে তা নিয়ে আগেভাগে কিছু বলতে চাই না। শুধু বলবো, বিজ্ঞাপনচিত্রের ভাবনা পছন্দ হয়েছে বলেই কাজটি করেছি।

উল্লেখ্য, এর আগে শাকিব খানকে নিয়ে আদনান আল রাজীব নির্মাণ করেছেন বাংলালিংকের একটি বিজ্ঞাপন। এদিকে শাকিব এখন ঈদের সিনেমা ‘পাসওয়ার্ড’-এর শুটিং নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। এই সিনেমায় তার বিপরীতে অভিনয় করছেন বুবলী। সিনেমাটির পরিচালক মালেক আফসারী।

মালয়েশিয়া যাচ্ছেন মৌসুমী
                                  

চিত্রনায়িকা মৌসুমী মানেই যেন নতুন কিছু। ভিন্ন ধরনের কাজ তিনি সব সময়ই দর্শকদের উপহার দেয়ার চেষ্টা করেন। সবশেষ পরিচালক হাবিবুল ইসলাম হাবিবের ‘রাত্রীর যাত্রী’ ছবিতে অভিনয় করেন ঢালিউডের জনপ্রিয় তারকা মৌসুমী। এ ছবিতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন আনিসুর রহমান মিলন। এ ছবির পর এবার নতুন একটি অনুষ্ঠানে দর্শকরা মৌসুমীকে সামনে দেখতে পাবেন। আগামি মাসে শুরু হচ্ছে মাহে রমজান। আর এই রমজানকে ঘিরে বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে নির্মাণ হবে নানা অনুষ্ঠান। প্রিয়দর্শিনীখ্যাত মৌসুমী ‘কুইক রেসিপি’ নামে ভিন্নধর্মী একটি অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা করবেন এবার।

এর শুটিংয়ে কয়েকদিন পরই মালয়েশিয়া ছুটবেন তিনি। এ প্রসঙ্গে মৌসুমী বলেন, রান্নার অনুষ্ঠান হলেও ‘কুইক রেসিপি’র বিষয়বস্তু একটু ভিন্ন। মালয়েশিয়ায় যেসব বাঙালি থাকেন তাদের খাবারের রেসিপি কেমন স্বাদের হয়, ভিন্নতা কি থাকে তা এ অনুষ্ঠানে আমার মাধ্যমে দর্শকরা দেখতে পাবেন। এ ছাড়া আরো বিভিন্ন বাঙালি খাবারের আয়োজন নিয়ে থাকছে রান্নার এই বিশেষ অনুষ্ঠানটি। এর শুটিংয়ের কাজে কয়েকদিন পরই মালয়েশিয়া রওনা করবো।

অনুষ্ঠানটি গ্রন্থনা, পরিকল্পনা ও প্রযোজনা করছেন আফতাব বিন তমিজ। পরিচালনা করবেন রিপন নাগ। অনুষ্ঠানের প্রযোজক আফতাব বিন তমিজ বলেন, ৩০ পর্বের এ অনুষ্ঠানের শুটিং হবে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরসহ বিভিন্ন জায়গায়। ১৫ দিন শুটিং হবে এবং তা দর্শকরা বাংলাদেশের একুশে টিভি, এশিয়ান টিভি ও ডিবিসি নিউজে রমজানে দেখতে পাবেন। মৌসুমী খুব ভালো একজন অভিনয়শিল্পী ও উপস্থাপিকা। তাই ‘কুইক রেসিপি’-এর জন্য তাকে নির্বাচন করেছি আমরা। অনুষ্ঠানটি নিয়ে আমি বেশ আশাবাদী।

গানের বাজারে নেই বৈশাখের আমেজ
                                  

আর ক’দিন পরই পহেলা বৈশাখ। এই দিবসকে ঘিরে চলে নানা আয়োজন। বিশেষ করে কয়েক বছর আগেও পহেলা বৈশাখকে ঘিরে জমে উঠত গানের বাজার। বিভিন্ন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান তারকা থেকে নতুন প্রজন্মের শিল্পীদের একক, দ্বৈত ও মিশ্র অ্যালবাম প্রকাশ করতো। বাঙালির সবচাইতে বড় এই উৎসবকে ঘিরে বর্ণিল হয়ে উঠত গানের বাজার। কিন্তু এখন আর সেদিন নেই। ‘মামা মামি সব আছে, দুধ ভাত নাই’-এর মতো হয়ে গেছে বর্তমান সময়ের গানের অবস্থা! কারণ গায়ক, গায়িকা, গীতিকার, সুরকার, সংগীত পরিচালক, অডিও কোম্পানি এসবই আছে, কিন্তু গানের সেই বাজারটা আর নেই। আর তাইতো পহেলা বৈশাখ এতটা সন্নিকটে হওয়া সত্ত্বেও সংগীতাঙ্গনে উৎসবের কোনো আমেজ নেই।

কেবলমাত্র স্টেজ শোর ভেতরই সীমাবদ্ধ পহেলা বৈশাখ। হাতে গোনা কিছু শিল্পীর গানের প্রস্তুতি চলছে। সার্বিক দিক থেকে গানের অবস্থা ভয়াবহ। গত কয়েক উৎসব ধরেই গানের সংখ্যা কেবল ক্রমাগত কমছে। এবারো তার ব্যতিক্রম নয়। সিনিয়র অনেক শিল্পীই পহেলা বৈশাখকে ঘিরে কোনো গান প্রকাশ করছেন না। তরুণ প্রজন্মের বেশিরভাগ শিল্পীরই বৈশাখে গান প্রকাশের কোনো তাড়াহুড়ো নেই। একেবারেই ঢিমেতালে চলছে বৈশাখের প্রস্তুতি।

আর সেই প্রস্তুতিতে এবার হাতেগোনা কিছু শিল্পী নিজেদের গান প্রকাশ করবেন। এর মধ্যে স্বনামধন্য সংগীতশিল্পী কুমার বিশ্বজিৎ পহেলা বৈশাখে নতুন একটি গান নিয়ে আসছেন। বিপ্লব সাহার কথায় গানটির সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন উজ্জ্বল সিনহা। তারকাবহুল উপস্থিতিতে বর্ণাঢ্য আয়োজনে গানটির মিউজিক ভিডিও প্রকাশ হবে শিগগিরই। গানটির শিরোনাম ‘নতুন দিনের নতুন রঙে’। এর বাইরে মমতাজ ও এসডি রুবেলের একটি করে গান প্রকাশ হবে এই বৈশাখে। বৈশাখে একাধিক গান প্রকাশের কথা রয়েছে জনপ্রিয় সংগীত তারকা আসিফ আকবরের। এর বাইরে বড় আয়োজনে ইমরানের একটি গানও প্রকাশের কথা রয়েছে। এসব শিল্পীর বাইরে ন্যান্সি, কাজী শুভ, ইলিয়াস হোসেইনসহ আরো কিছু শিল্পীর গান প্রকাশের কথা রয়েছে। তবে সার্বিক দিক বিবেচনা করলে সংখ্যার দিক দিয়ে খুবই কম গান প্রকাশ পাচ্ছে, যা একটি রেকর্ডও বটে।

এদিকে পহেলা বৈশাখে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলো গানের চাইতে নাটক প্রকাশেই বেশি মনোযোগ দিয়েছে। গান দিয়ে ইউটিউব থেকে আয় কম, আর নাটক থেকে বেশি। তাই দিন দিন কেবল নাটক কিংবা ওয়েব সিরিজের দিকেই বেশি ঝুঁকছে কোম্পানিগুলো। যার ফলে গান প্রকাশ কমেছে উল্লেখযোগ্যহারে। এ বিষয়ে এমআইবি সভাপতি ও লেজারভিশনের চেয়ারম্যান এ কে এম আরিফুর রহমান বলেন, গানের সংখ্যা আমরাও কমিয়ে দিয়েছি। কারণ ব্যবসা সত্যি বলতে তো হচ্ছে না। আসলটা উঠিয়ে আনাই এখন কঠিন হয়ে পড়েছে। সে কারণে এবারের পহেলা বৈশাখ নিয়েও তেমন আয়োজন আমাদের নেই। কয়েক দফা মোবাইল কোম্পানিগুলোর সঙ্গে বসেও কাজ হয়নি। ওয়েলকাম টিউন থেকে আয় একদম শূন্যের কোঠায় চলে এসেছে। অ্যাপস এবং ইউটিউবের আয় দিয়ে অফিস চালানোই কঠিন হয়ে গেছে। তারপরও আমরা চেষ্টা করছি এ অবস্থা থেকে বের হওয়ার। দেখা যাক কি হয়।

এ বিষয়ে জনপ্রিয় সংগীত তারকা এসডি রুবেল বলেন, একটা সময় এই বৈশাখকে ঘিরে যে শিল্পীদের কত গান প্রকাশ হতো তার সাক্ষী আমি নিজে। প্রত্যেকটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন শিল্পীর নানা ধরনের অ্যালবাম তৈরির কাজ করতো অনেক আগে থেকেই। অন্যরকম একটা আবহ কাজ করতো। তাই উৎসাহটাও ছিলো সেরকম। কিন্তু এখন তার কিছুই নেই। গান করে ইউটিউবে প্রকাশ করে দিচ্ছে যে যার মতো। তাছাড়া গানের সংখ্যাও কমেছে উল্লেখযোগ্যহারে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণ হয়তো সম্ভব। তবে সবার মিলিত উদ্যোগ ও চেষ্টা দরকার।

 

‘ডাক্তার বলেছেন শুটিং করা যাবে’: অহনা
                                  

মার্চ মাসের প্রথম থেকে অভিনয়ে ফিরেছেন টিভি নাটকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অহনা। বর্তমানে নিয়মিত অভিনয় করছেন বলে জানান তিনি। সড়ক দুর্ঘটনায় বেশ কিছু দিন তাকে অভিনয় থেকে দূরে থাকতে হয়েছে। গত ৯ই জানুয়ারি একটি অনুষ্ঠান শেষে উত্তরার বাসায় ফিরছিলেন অহনা। তখন তিনি নিজেই গাড়ি চালাচ্ছিলেন। উত্তরা লেকড্রাইভ রোডের ৭ নম্বর সেক্টরে রাত সোয়া ৩টার দিকে পাথরবোঝাই একটি ট্রাক অহনার গাড়িতে ধাক্কা দেয়। তখন দুর্ঘটনা ঘটে। তার ভাষ্য, এখনো পুরোপুরি সুস্থ নই আমি।

কিন্তু কাজ ছাড়া থাকতে ভালো লাগে না। আর ডাক্তার বলেছেন শুটিং করা যাবে। তাই নিয়মিত অভিনয় করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এরইমধ্যে এই অভিনেত্রী আসছে বৈশাখের জন্য একটি খন্ড নাটকের শুটিং শেষ করেছেন। ১৪ই এপ্রিল পহেলা বৈশাখ। এই দিনটিকে উপলক্ষ করে অভিনেতা ও নির্মাতা মীর সাব্বির নির্মাণ করেছেন ‘বৈশাখের গিফট’ শিরোনামের একটি নাটক। অহনা বলেন, দর্শক এই নাটকে বৈশাখের আমেজ পাবে। অভিনেতা হিসেবে মীর সাব্বির যেমন দারুণ, নির্মাতা হিসেবেও চমৎকার। তার সঙ্গে কাজ করতে বরাবরই খুব ভালো লাগে।

বৈশাখের নাটকের বাইরে ঈদের নাটকেরও শুটিং শুরু করেছেন এই অভিনেত্রী। সম্প্রতি জুয়েল হাসানের নির্দেশনায় ‘ভাই’ শিরোনামের একটি নাটকে অভিনয় করেছেন। আগামি মাস থেকে টানা ঈদের নাটকের শুটিং করবেন বলে জানান।

খন্ড নাটকের বাইরে এই অভিনেত্রীর ব্যস্ততা রয়েছে ধারাবাহিক নাটকে। বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হচ্ছে তার অভিনীত একাধিক ধারাবাহিক নাটক। উল্লেখযোগ্য ধারাবাহিকগুলো হলো ‘রসের হাড়ি’, ‘নোয়াশাল’, ‘ভালোবাসা কারে কয়’, ‘ছায়াবিবি’, ‘সালিস মানি তাল গাছ আমার’ ও ‘কমেডি-৪২০’।

চলতি ধারাবাহিকগুলোর জন্য দর্শকের কাছ থেকে বেশ সাড়া পাচ্ছেন বলে জানান এই পর্দাকন্যা। এই সময়ে টিভি নাটক নিয়ে নানারকম মন্তব্য শোনা যায়। অনেকে বলেন, নাটকে ভালো গল্পের অভাব আছে। যার কারণে দর্শক দেশীয় নাটক দেখছে না? ভারতীয় সিরিয়ালে হুমড়ি খাচ্ছে। এই প্রসঙ্গে অহনার মন্তব্য কী? অভিনেত্রী বলেন, আমাদের আগে টিভি নাটকে পারিবারিক একটা আবহ ছিল। এখন সেটি কমে গেছে। বিশেষ করে খন্ড নাটকে পারিবারিক আবহ শূন্যের ঘরে বলা যায়। এখন নাটকে খুব বেশি ভালো চরিত্র পাওয়া যায়, এটি বলা যাবে না। আমাদের এখন নাটক শুধু টেলিভিশনের জন্যই না। ইউটিউবসহ বিভিন্ন ডিজিটাল প্লাটফর্মের জন্যও নির্মাণ হচ্ছে। এত নাটকের ভিড়ে ভালো নাটকের সংখ্যা বের করা কিছুটা কষ্টের।

ছোট পর্দার পাশাপাশি বড় পর্দায়ও দেখা গেছে অহনাকে। সর্বশেষ তিনি সাইমনের বিপরীতে ‘চোখের দেখা’ শিরোনামের একটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। কিন্তু এখন বড় পর্দায় তার কোনো ব্যস্ততা নেই। চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি আগ্রহী নন বলেও জানান। অভিনয়ে তিনি ছোট পর্দায়ই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। এই অভিনেত্রী অভিনয়ের বাইরে ব্যবসাও করছেন। নিজেকে কী পরিচয় দিতে ভালোবাসেন? তার ভাষ্য, আমি প্রথমে একজন অভিনেত্রী। অভিনয়ের জন্যই আমি আজকে এতটুকু আসতে পেরেছি। আমার অস্তিত্বকে অস্বীকার করতে চাই না। আমি শুরু থেকে চেয়েছি অভিনয়ের পাশাপাশি কিছু একটা করতে। সেই ভাবনা থেকেই ব্যবসা শুরু করেছি। আমি আমার মতো করে এই ব্যবসা করছি। সবার কাছ থেকে ভালো সহযোগিতাও পাচ্ছি। অভিনয় এবং ব্যবসা দুদিকে ঠিক মতো সময় দিতে চাই।

গুরুতর অভিযোগ ঊর্মিলা মাতন্ডকরের বিরুদ্ধে
                                  

যখন ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন তখনও বিভিন্ন কারণে আলোচিত ছিলেন বলিউড অভিনেত্রী ঊর্মিলা মাতন্ডকর। আর এবার রাজনীতির ময়দানে নামার পর একের পর এক সমালোচনায় জড়িয়ে পড়ছেন তিনি।

ঊর্মিলা লোকসভায় কংগ্রস প্রার্থী। এবার তার বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। আর তারই জেরে ঊর্মিলার বিররুদ্ধে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বিজেপি নেতা সুরেখ নখুয়া মুম্বইয়ের পাওয়াই পুলিশ স্টেশনে ঊর্মিলার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ দায়ের করেছেন। ভারতীয় জনতা পার্টির এই নেতার অভিযোগ, ঊর্মিলা হিন্দুদের চেতনায় আঘাত করেছেন। অভিযোগে তিনি আরো বলেছেন, এক টিভি অনুষ্ঠানে ঊর্মিলা হিন্দু ধর্মকে দুনিয়ায় সবচেয়ে উগ্রবাদী ধর্ম বলে মন্তব্য করেছেন।


এই বিজেপি নেতা ঊর্মিলার পাশাপাশি রাহুল গান্ধী এবং এক সাংবাদিকের নামও অভিযোগে উল্লেখ করেছেন। তবে ঊর্মিলা এই অভিযোগকে মিথ্যা বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন, আমার বক্তব্যকে ভুলভালভাবে উপস্থাপন করা হচ্ছে। এটা একদমই ঠিক নয়। প্রয়োজন মনে করলে আমি নিজেই আইনের আশ্রয় নেবো।

ভিন্ন্ রূপে অপি করিম
                                  

 ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী অপি করিমকে এবার দর্শকরা নতুন একটি ওয়েব সিরিজে অন্য রূপে দেখতে পাবেন। সিরিজটির নাম ‘ঢাকা মেট্রো’। আসছে পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে এটি হইচই অরিজিনালের অ্যাপে দর্শকরা দেখতে পাবেন। এটি নির্মাণ করেছেন অমিতাভ রেজা চৌধুরী। চিত্রনাট্য করেছেন নাসিফ আমিন। এর গল্প সম্পর্কে জানা যায়, তিনজন মানুষের যাত্রা নিয়ে তা তৈরি হয়েছে। তাদের একজন হচ্ছেন অপি করিম। তার চরিত্রের নাম জয়গুন, কখনো কখনো তাকে জবা বলেও ডাকা হয়।
এ ছাড়া আবদুল কুদ্দুস চরিত্রে নেভিল এবং রহমান চরিত্রে শরিফুল ইসলাম অভিনয় করেছেন। আরো অভিনয় করেছেন শশী ও মনোয়ার কবির। অপি করিম বলেন, শুধু কাজের জন্যই কাজ করতে হবে, এমনটি চাইনি। এর আগে অমিতাভ রেজার সঙ্গে একটা-দুটো কাজের কথা হয়েছিল, সময়-সুযোগের অভাবে করা হয়নি। কিন্তু এই চিত্রনাট্যটি পড়তে গিয়ে দেখলাম খুবই শক্তিশালী চরিত্র। তাই কাজটি করেছি। এর কাহিনীতে ম্যাজিক রিয়ালিজমের বিষয়টিও রয়েছে। কাজটি দর্শকরাও পছন্দ করবে বলে আশা করছি। অমিতাভ রেজা বলেন, প্রথমত ‘ঢাকা মেট্রো’ গল্পটা নিয়ে একটি ফিল্ম করার ইচ্ছে ছিল আমার। কয়েক বছর আগে আমার গল্প ভাবনায় এর চিত্রনাট্য করেছিলেন আদিত্য কবির। ফিল্মটা না করতে পারার কারণে পরে হইচই প্ল্যাটফর্মের জন্য ওয়েব সিরিজ আকারে কাজটা করার পরিকল্পনা নিলাম। এরপর গত বছর ৯ পর্বের এই ওয়েব সিরিজটি নির্মাণ শুরু করলাম। এটির চিত্রনাট্য করেছেন নাসিফ আমিন। উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় ও ঢাকায় এর দৃশ্যধারণের কাজ হয়েছে। এটি একটি প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য গল্প। পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে এটি দর্শকরা আগামি ১১ই এপ্রিল হইচই অ্যাপে দেখতে পাবেন।
প্রসঙ্গত, অপি করিম বর্তমানে একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত। পাশাপাশি একটি আর্কিটেকচার ফার্ম পরিচালনা করছেন। মূলত এ কারণেই তিনি এখন আর অভিনয়ে নিয়মিত সময় দিতে পারছেন না।


   Page 1 of 96
     বিনোদন
হলিউড থেকে ঢাকায় ‘মাসুদ রানা’ টিম!
.............................................................................................
এবার খলনায়িকা চরিত্রে ঐশ্বর্য
.............................................................................................
ঈদে শ্বাসরুদ্ধকর ভৌতিক ছবি!
.............................................................................................
কোনো উত্তাপ নেই ঈদের ছবি নিয়ে
.............................................................................................
ছুটিতে বাড়ছে বিদেশ ভ্রমণ
.............................................................................................
ঈদের আগে চুলের যত্ন নিবেন যেভাবে
.............................................................................................
জুটি বাঁধা ধূমপান ছাড়ার চাবিকাঠি হতে পারে
.............................................................................................
বাংলা সিনেমায় কাজ শুরু করছেন মাধুরী!
.............................................................................................
অভিনেতা অধ্যাপক মমতাজউদদীন আহমেদ আর নেই
.............................................................................................
অবশেষে মুক্তির ছাড়পত্র পেলো ‘পিএম নরেন্দ্র মোদী’
.............................................................................................
আবারো মডেল হলেন শাকিব খান
.............................................................................................
মালয়েশিয়া যাচ্ছেন মৌসুমী
.............................................................................................
গানের বাজারে নেই বৈশাখের আমেজ
.............................................................................................
‘ডাক্তার বলেছেন শুটিং করা যাবে’: অহনা
.............................................................................................
গুরুতর অভিযোগ ঊর্মিলা মাতন্ডকরের বিরুদ্ধে
.............................................................................................
ভিন্ন্ রূপে অপি করিম
.............................................................................................
ফের আগের রূপে সানি লিওন
.............................................................................................
অপেক্ষায় ন্যান্সি
.............................................................................................
‘ভোগে’ এ কোন সারা!
.............................................................................................
সড়ক দুর্ঘটনায় আহত কণ্ঠশিল্পী খুরশীদ আলম, হাসপাতালে ভর্তি
.............................................................................................
ট্রেলারেই চমকে দিলেন দুই সুপারস্টার
.............................................................................................
শাহনাজ‌ রহমত উল্লাহ আর নেই
.............................................................................................
স্পর্শিয়ার ভবিষ্যদ্বাণী
.............................................................................................
গুজব উড়িয়ে দিলেন সালমান
.............................................................................................
ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে আমি সম্মানিত: মার্কিন সঙ্গীতশিল্পী
.............................................................................................
বিয়ের ঘোষণা দিয়েই ভাইরাল পর্নো তারকা মিয়া খলিফা
.............................................................................................
‘পর্দার আড়ালে অনেক কিছু ঘটে’: তনুশ্রী
.............................................................................................
যেভাবে মা হলেন দীপিকা
.............................................................................................
হঠাৎ হাসপাতালে কেন প্রিয়াঙ্কা?
.............................................................................................
জাহালমকে নিয়ে সিনেমা, তিনিই জানেন না!
.............................................................................................
পশ্চিমবঙ্গে মমতার প্রার্থী তালিকায় বড় চমক মিমি-নুসরাত
.............................................................................................
নারীর স্তন নিয়ে গল্প আর ছবি প্রকাশ করছেন ভারতীয় নারী শিল্পী
.............................................................................................
লম্বা প্রেমের গল্পে তানভীর-তিশা
.............................................................................................
অন্যতম বড় ভুল অমিতাভ বচ্চনের
.............................................................................................
ট্রেলারেই জমিয়ে দিলো এক্সম্যান সিরিজের নতুন কিস্তি
.............................................................................................
শিগগিরই বিয়ের পিড়িতে বসছেন রণবীর-আলিয়া
.............................................................................................
অক্ষয়কে মৃত্যুর হুমকি দিলেন স্ত্রী টুইঙ্কেল
.............................................................................................
অ্যাম্বার হার্ডের বিরুদ্ধে জনি ডেপের ৪০০ কোটির মানহানি মামলা
.............................................................................................
বিয়ের আগে কোহলির ‘ভুয়া’ নাম, ১৪ মাস পর মুখ খুললেন আনুশকা
.............................................................................................
ভারতীয় গুপ্তচর সংস্থার হয়ে পাকিস্তান যাচ্ছেন জন আব্রাহাম
.............................................................................................
বিয়ের পর সাবেক প্রেমিকের সঙ্গে দীপিকার ছবি ভাইরাল!
.............................................................................................
রাজেশের সুরে বদরুল হাসান খানের শেষ ঠিকানা
.............................................................................................
পাকিস্তানে ১০০ বোমা ফেলতে চান অভিনেত্রী রাখী সাওয়ান্ত
.............................................................................................
শান্তির কথা বলায় সোনমকে সমালোচনা
.............................................................................................
এবার ক্যাটরিনার বিয়ে!
.............................................................................................
কাশ্মীর বিষয়ে পাক সমালোচকরা উটপাখি: আদনান সামি
.............................................................................................
অস্কার ২০১৯ : সেরা অভিনেতা রামি মালেক, অভিনেত্রী অলিভার কোলম্যান
.............................................................................................
৯১তম অস্কার ঘোষণা: সেরা চলচ্চিত্র গ্রিন বুক
.............................................................................................
গৌরবের শেষ ত্রয়ীরও বিদায়!
.............................................................................................
সালমানের ছবি থেকে বাদ পড়লেন আতিফ আসলাম
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
স্বাধীন বাংলা ডট কম
মো. খয়রুল ইসলাম চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত ।

প্রধান উপদেষ্টা: ফিরোজ আহমেদ (সাবেক সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি: ডাঃ মো: হারুনুর রশীদ
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: খায়রুজ্জামান
বার্তা সম্পাদক: মো: শরিফুল ইসলাম রানা
সহ: সম্পাদক: জুবায়ের আহমদ
বিশেষ প্রতিনিধি : মো: আকরাম খাঁন
যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি: জুবের আহমদ
যোগাযোগ করুন: swadhinbangla24@gmail.com
    2015 @ All Right Reserved By swadhinbangla.com

Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]